আল-কায়েদা

১৯৮৮-এ প্রতিষ্ঠিত আন্তঃদেশীয় সালাফিবাদ সংগঠন

আল-কায়িদা বা আল-কায়দা ১৯৮৮ সালে প্রতিষ্ঠিত একটি আন্তঃদেশীয় সালাফিবাদ জঙ্গি সংগঠন ।[৪৫] ওসামা বিন লাদেন, আবদুল্লাহ আজমাম এবং সোভিয়েত-আফগান যুদ্ধের সময় বেশ কয়েকটি আরব স্বেচ্ছাসেবীর দ্বারা ১৯৮৮ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। আল-কায়েদা ইসলামি চরমপন্থী এবং সালাফিবাদী জিহাদিদের একটি নেটওয়ার্ক হিসাবে কাজ করে। সংগঠনটিকে জাতিসংঘের সুরক্ষা কাউন্সিল, উত্তর আটলান্টিক চুক্তি সংস্থা (ন্যাটো), ইউরোপীয় ইউনিয়ন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, ভারত এবং অন্যান্য বিভিন্ন দেশ সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠী হিসাবে মনোনীত করেছে। আল-কায়েদা ১৯৯৯ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসে বোমা হামলা, ১১ ই সেপ্টেম্বর হামলা, এবং ২০০২ সালে বালি বোমা সহ বিভিন্ন দেশে অ-সামরিক ও সামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালিয়েছে।

আল কায়েদা
القاعدة
নেতাওসামা বিন লাদেন  (১৯৮৮–২০১১)
আয়মান আল-জাওয়াহিরি (২০১১–বর্তমান)
অপারেশনের তারিখ১৯৮৮–বর্তমান
গোষ্ঠী
সক্রিয়তার অঞ্চল
মতাদর্শ
আকার
মিত্রState allies:

alleged but not proven

Non-state allies:

বিপক্ষState opponents:

Non-state opponents:

খণ্ডযুদ্ধ ও যুদ্ধWar on Terror

In Afghanistan

In Tajikistan

In Chechnya

In Yemen

In the Maghreb

In Iraq

In Pakistan

In Somalia

In Syria

In Egypt

যার দ্বারা সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসাবে মনোনীতSee below
Map of recent major attacks attributed to al-Qaeda

২০১১ সালে ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যুর পর এই গোষ্ঠীর নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মিশরীয় আয়মান আল-জাওয়াহিরি।[৪৬]

ইতিহাসসম্পাদনা

ভারতেসম্পাদনা

২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে, আয়মান আল-জাওয়াহিরি ঘোষণা করেছিলেন যে আল-কায়েদা ভারতে একটি ফ্রন্ট প্রতিষ্ঠা করছে।

২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে, আফগানিস্তানে তালেবান আক্রমণের সাফল্যের পর, আল-কায়েদা তালেবানকে অভিনন্দন জানায় এবং কাশ্মীরকে মুক্ত করার আহ্বান জানায়।

সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে স্বীকৃতিসম্পাদনা

কার্যকলাপসম্পাদনা

কাশ্মীরসম্পাদনা

২০১০ সালের জানুয়ারিতে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রবার্ট গেটস পাকিস্তান সফরে বলেছিলেন যে আল-কায়েদা এই অঞ্চলকে অস্থিতিশীল করতে চাইছে এবং ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে পারমাণবিক যুদ্ধের উসকানি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Centanni, Evan (মে ৩১, ২০১৩)। "War in Somalia: Map of Al Shabaab Control (June 2013)"। Political Geography Now। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৮, ২০১৪ 
  2. "Prensa Latina News Agency"। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৬ 
  3. "Aden intelligence service building targeted"AFP। Gulf News। আগস্ট ২২, ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২২, ২০১৫ 
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; Atwan নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. E. Atkins, Stephen (২০০৪)। Encyclopedia of Modern Worldwide Extremists and Extremist Groups । Greenwood Press। পৃষ্ঠা 173আইএসবিএন 978-0313324857 
  6. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; dalacoura40 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  7. Livesey, Bruce (জানুয়ারি ২৫, ২০০৫)। "Special Reports – The Salafist Movement: Al Qaeda's New Front"PBS Frontline। WGBH। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১৮, ২০১১ 
    Geltzer, Joshua A. (২০১১)। US Counter-Terrorism Strategy and al-Qaeda: Signalling and the Terrorist World-View (Reprint সংস্করণ)। Routledge। পৃষ্ঠা 83। আইএসবিএন 978-0415664523 
  8. "The Future of Terrorism: What al-Qaida Really Wants"Der Spiegel। আগস্ট ১২, ২০০৫। মার্চ ৭, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১৮, ২০১১ 
  9. "Al-Qaeda seeks global dominance"The Daily Telegraph। London। জানুয়ারি ১২, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
    "Jihadists Want Global Caliphate"। ThePolitic.com। জুলাই ২৭, ২০০৫। সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১৮, ২০১১ 
    Pike, John। "Al-Qaida"। Globalsecurity.org। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১৮, ২০১১ 
    Burke, Jason (মার্চ ২১, ২০০৪)। "What exactly does al-Qaeda want?"The Guardian। London। 
  10. Moghadam, Assaf (২০০৮)। The Globalization of Martyrdom: Al Qaeda, Salafi Jihad, and the Diffusion of Suicide Attacks। Johns Hopkins University Press। পৃষ্ঠা 48আইএসবিএন 978-0-8018-9055-0 
  11. Wright 2006, পৃ. 79
  12. Gallagher ও Willsky-Ciollo 2021, পৃ. 14
  13. "Text of Fatwah Urging Jihad Against Americans"। এপ্রিল ২২, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ১৫, ২০০৬ 
  14. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; AntiSoviet নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  15. "Conversation with Terror"Time। জানুয়ারি ১৯৯৯। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২২, ২০১৫ 
  16. "Full text: bin Laden's 'letter to America' | World news"The Observer। আগস্ট ২৬, ২০১৩। আগস্ট ২৬, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  17. "Jihad Against Jews and Crusaders"। ফেব্রুয়ারি ২৩, ১৯৯৮। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৬, ২০১০ 
  18. "Jihad Against Jews and Crusaders"। ফেব্রুয়ারি ২৩, ১৯৯৮। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৬, ২০১০ 
  19. "frontline: the terrorist and the superpower: who is bin laden?: interview with osama bin laden (in may 1998)"। pbs.org। মে ৮, ১৯৯৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  20. "New ISIS and Al-Qaeda propaganda prioritize the US and Jews as targets"Anti-Defamation League 
  21. "ISIS Augments Its Threats Against Israel"Anti-Defamation League 
  22. "Al Qaeda v ISIS: Ideology & Strategy | Wilson Center"www.wilsoncenter.org 
  23. Roggio, Bill (এপ্রিল ২৬, ২০১১)। "How many al Qaeda operatives are now left in Afghanistan?"। Longwarjournal.org। জুলাই ৬, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১০, ২০১৪ 
  24. "Al Qaeda in Afghanistan Is Attempting A Comeback"The Huffington Post। অক্টোবর ২১, ২০১২। অক্টোবর ২৩, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১০, ২০১৪ 
  25. Freeman, Colin (জুন ১২, ২০১৪)। "Al-Qaeda map: Isis, Boko Haram and other affiliates' strongholds across Africa and Asia"। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৯, ২০১৪ 
  26. Hoffman, Bruce (মার্চ ৬, ২০১৮)। "Al-Qaeda's Resurrection"। Council on Foreign Relations। 
  27. "Al-Qaeda in the Islamic Maghreb (AQIM)"Council on Foreign Relations। মার্চ ২৭, ২০১৫। মে ১১, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২, ২০১৫ 
  28. "Profile: Al-Qaeda in North Africa"। BBC। জানুয়ারি ১৭, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২, ২০১৫ 
  29. "Mali: qui sont les nouveaux chefs des katibas jihadistes?"Radio France internationale। মে ১৪, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৯, ২০১৫ 
  30. "Notorious Extremist Said to Head Al-Qaida West Africa Branch"abc। আগস্ট ১৫, ২০১৫। আগস্ট ১৬, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৯, ২০১৫ 
  31. "AP Investigation: US allies, al-Qaida battle rebels in Yemen"। AP News। আগস্ট ৭, ২০১৮। 
  32. "Jihadist groups across globe vying for terror spotlight"। Fox News Channel। জুলাই ১০, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৭, ২০১৫ 
  33. "Who are Somalia's al-Shabab?"। BBC News। ডিসেম্বর ২২, ২০১৭। 
  34. "Bombs are falling on a rebel enclave in Syria every minute"। NBC News। ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৮। 
  35. Reality Check team (৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮)। "Syria: Who's in control of Idlib?"। BBC News। সংগ্রহের তারিখ ২২ অক্টোবর ২০১৮ 
  36. Orton, Kyle (মার্চ ১, ২০১৮)। "A New Branch of Al-Qaeda Emerges in Syria"। Kyle Orton's Blog। [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  37. "L'intervention française au Mali a déplacé la menace djihadiste vers le sud"। নভেম্বর ১৮, ২০১৩। 
  38. "Study questions Iran-al Qaeda ties, despite U.S. allegations"। Reuters। সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮ – www.reuters.com-এর মাধ্যমে। 
  39. "Treasury Targets Al Qaida Operatives in Iran"treasury.gov 
  40. Gall, Carlotta (মার্চ ১৯, ২০১৪)। "What Pakistan Knew About Bin Laden"The New York Times 
  41. Haaretz; Press, The Associated (জুলাই ১১, ২০১৭)। "Fact Check: Is Qatar Supporting Terrorism? A Look at Its Ties to Iran, ISIS and the Muslim Brotherhood"Haaretz 
  42. Thomas, Carls। "The Saudis channel the mafia: Fears of Saudi retaliation deter truth about 9/11"The Washington Times। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৮, ২০১৬ 
  43. Byman, Daniel L.। "The U.S.-Saudi Arabia counterterrorism relationship"Brookings। Brookings। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০২১Saudi Arabia considers Al Qaeda to be a mortal enemy 
  44. "The Chinese regime and the Uyghur dilemma" Summary of Castets, Rémi (২০০৩)। "The Uyghurs in Xinjiang – The Malaise Grows"China Perspectives2003 (5)। ডিওআই:10.4000/chinaperspectives.648 । সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০১২ 
  45. Dalacoura, Katerina (২০১১-০৪-২৯)। Islamist Terrorism and Democracy in the Middle East (ইংরেজি ভাষায়)। Cambridge University Press। আইএসবিএন 978-1-139-49867-8 
  46. "Opinion | Ten years later, Islamist terrorism isn't the threat it used to be"Washington Post (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0190-8286। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-১৮ 
  47. "Listing of Terrorist Organisations"। Australian Government। ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩, ২০০৬ 
  48. "Armed group neutralized in Azerbaijan linked to Al-Qaeda"en.trend.az। ডিসেম্বর ১, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০১৪ 
  49. "Bahrain Terrorist List (individuals – entities)"www.mofa.gov.bh 
  50. "Is Radical Islam a Threat for Belarus? – BelarusDigest"। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১১, ২০১৯ 
  51. Sirkis, Alfredo (জুন ২০১১)। "O Brasil e o terrorismo internacional"। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৪ 
  52. Public Safety and Emergency Preparedness Canada। "Entities list"। নভেম্বর ১৯, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩, ২০০৬ 
  53. "Foreign Ministry Spokesperson Jiang Yu's Remarks on the Killing of Al-Qaeda Leader Bin Laden in Pakistan"fmprc.gov.cn 
  54. Commission of the European Communities (অক্টোবর ২০, ২০০৪)। "Communication from the Commission to the Council and the European Parliament"। জুন ১৪, ২০০৭ তারিখে মূল (DOC) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১১, ২০০৭ 
  55. "La France face au terrorisme" (PDF) (ফরাসি ভাষায়)। Secrétariat général de la défense nationale (France)। আগস্ট ৭, ২০১১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৬, ২০০৯ 
  56. "The Hindu : Centre bans Al-Qaeda"। Hinduonnet.com। এপ্রিল ৯, ২০০২। এপ্রিল ২৭, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২২, ২০১০ 
  57. "Indonesia's Long Battle With Islamic Extremism"Time। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১১, ২০১৯ 
  58. Moody, John (জুন ১২, ২০০৭)। "Iran Wants to Talk With U.S.; Just Not About Nukes"Fox News। ডিসেম্বর ২৫, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩১, ২০১৭ 
  59. "Criminal Justice (Terrorist Offences) Act 2005"2005। Department of Justice Ireland। মে ২৭, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ২৬, ২০১৪ 
  60. "Summary of indictments against Al-Qaeda terrorists in Samaria"। Israel Ministry of Foreign Affairs। মার্চ ২১, ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ মে ৪, ২০১১ 
  61. "List of Declaration and Orders – Unofficial Translation"। আগস্ট ১০, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৯, ২০১৪ 
  62. Diplomatic Bluebook (২০০২)। "B. Terrorist Attacks in the United States and the Fight Against Terrorism" (PDF)। জুন ১৪, ২০০৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১১, ২০০৭ 
  63. "Fight against terrorism and extremism in Kazakhstan"। Mfa.gov.kz। নভেম্বর ১৪, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২৩, ২০১৫ 
  64. Caravanserai। "Kyrgyzstan to publicise list of banned terrorist groups"Caravanserai। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১১, ২০১৯ 
  65. NATO। "Press Conference with NATO Secretary General, Lord Robertson"। অক্টোবর ২৬, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৩, ২০০৬ 
  66. NATO Library (২০০৫)। "AL QAEDA" (PDF)। জুন ১৪, ২০০৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১১, ২০০৭ 
  67. http://www.moha.gov.my/images/maklumat_bahagian/KK/kdndomestic.pdf
  68. General Intelligence and Security Service"Annual Report 2004" (PDF)। জুন ১৪, ২০০৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১১, ২০০৭ 
  69. New Zealand Government। "New Zealand's designated terrorist individuals and organisations"। অক্টোবর ৭, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৭, ২০০৮ 
  70. "List of banned organisations in Pakistan"। অক্টোবর ২৪, ২০১২। অক্টোবর ২৬, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  71. "ABUS, AL-QAEDA TAGGED IN WEDNESDAY NIGHT ZAMBOANGA BOMBING"newsflash। ৪ অক্টোবর ২০০২। সংগ্রহের তারিখ ২২ মার্চ ২০১০ 
  72. "Russia Outlaws 17 Terror Groups; Hamas, Hezbollah Not Included"। নভেম্বর ১৪, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  73. "سياسي / وزارة الداخلية: بيان بالمحظورات الأمنية والفكرية على المواطن والمقيم ، وإمهال المشاركين بالقتال خارج المملكة 15 يوما إضافية لمراجعة النفس والعودة إلى وطنهم / إضافة أولى وكالة الأنباء السعودية"www.spa.gov.sa। অক্টোবর ২২, ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২১, ২০২০ 
  74. Korean Foreign Ministry (আগস্ট ১৪, ২০০৭)। "Seoul confirms release of two Korean hostages in Afghanistan"। ডিসেম্বর ১৫, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৬, ২০০৭ 
  75. Ministry for Foreign Affairs Sweden (মার্চ–জুন ২০০৬)। "Radical Islamist Movements in the Middle East" (PDF)। জুন ১৪, ২০০৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১১, ২০০৭ 
  76. "Report on counter-terrorism submitted by Switzerland to the Security Council Committee established pursuant to resolution 1373 (2001)" (PDF)। ডিসেম্বর ২০, ২০০১। জুন ৯, ২০০৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১১, ২০০৭ 
  77. Jihad: The Rise of Militant Islam in Central Asia, page 8
  78. Tajikistan Civil War Global Security
  79. "Terörle Mücadele ve Harekat Dairesi Başkanlığı"। জানুয়ারি ১৪, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৬ 
  80. "مجلس الوزراء يعتمد قائمة التنظيمات الإرهابية. – WAM"। নভেম্বর ১৭, ২০১৪। নভেম্বর ১৭, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  81. "Terrorism Act 2000"। 2000-এর Schedule 2, আইন নং. 11 
  82. United States Department of State। "Foreign Terrorist Organizations (FTOs)"। নভেম্বর ১৭, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩, ২০০৬ 
  83. Terrorism in Uzbekistan: A self-made crisis ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত অক্টোবর ১৬, ২০০৬ তারিখে Jamestown Foundation
  84. Uzbekistan: Who's Behind The Violence? ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২০০৪-০৪-০৪ তারিখে Center for Defense Information
  85. "Vietnamese-born al-Qaeda recruit sentenced to 40 years in US over plot to bomb Heathrow"South China Morning Post। মে ২৮, ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১১, ২০১৯