জিহাদবাদ, যা জিহাদবাদী আন্দোলন বা জিহাদি আন্দোলন নামেও পরিচিত, হল পশ্চিমা ভাষায় প্রাপ্ত একটি একবিংশ শতাব্দীর নবোদ্ভূত শব্দ। এটি জঙ্গিবাদী ইসলামি আন্দোলসমূহকে বোঝাতে ব্যবহৃত হয় যেগুলোকে পাশ্চাত্যের অস্তিত্বের জন্য হুমকিস্বরূপ হিসেবে চিহ্নিত করা হয় এবং যেগুলোর ভিত্তিমূল রাজনৈতিক ইসলামে প্রোথিত[১] এটিকে “যথাযথভাবে সংজ্ঞায়ন করতে দুরূহ একটি শব্দ” হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে, কারণ এটি একটি সাম্প্রতিক নভোদ্ভূত শব্দ যেটির কোনও একক, সাধারণভাবে গৃহীত অর্থ নেই।[২] “জিহাদবাদ” শব্দটি প্রথম দক্ষিণ এশীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়; ২০০১ সালের ১১ই সেপ্টেম্বরের হামলার পর পশ্চিমা সাংবাদিকেরা শব্দটি গ্রহণ করে। এরপর থেকে এটি বিভিন্ন বিদ্রোহী ও সন্ত্রাসী আন্দোলনের ক্ষেত্রে প্রযুক্ত হয়েছে যাদের আদর্শ ইসলামের জিহাদ ধারণাভিত্তিক।[৩]

সমসাময়িক জিহাদবাদের উৎস ঊনবিংশ ও বিংশ শতাব্দীর ইসলামি পুনর্জাগরণবাদী মতাদর্শিক বিকাশে নিবদ্ধ, যা বিংশ শতাব্দীর মাঝামাঝি সময়ে কুতুববাদ ও তৎসম্পর্কিত মতবাদসমূহে প্রকাশিত হয়।

১৯৯৯ থেকে ১৯৮৯ সালের সোভিয়েত-আফগান যুদ্ধে অংশ নেওয়া সন্ত্রাসী সংগঠনগুলি জিহাদবাদের উত্থানকে শক্তিশালী করেছিল, যা ১৯৯০ ও ২০০০-এর দশকব্যাপী বিভিন্ন সশস্ত্র সংঘাতের প্রচারে লিপ্ত হয়েছিল।[৪][৫] জিল ক্যপেল ১৯৯০-এর দশকের সালাফি আন্দোলনের মধ্যে একটি বিশেষ সালাফি জিহাদবাদ শনাক্ত করেছেন।[৬]

জিহাদবাদ একটি আন্তর্জাতিক, প্যান-ইসলামিস্ট সম্ভাবনাসমেত বৈশ্বিক জিহাদবাদ নামেও পরিচিত। গবেষণায় দেখা গেছে যে আইসিসের উত্থানের সাথে সাথে নেদারল্যান্ডস, বেলজিয়াম, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ডের মতো দেশ থেকে অনেক ইউরোপীয় মুসলমান বৈশ্বিক জিহাদে যোগ দিতে সিরিয়ায় গমন করেছিল।[৭]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Compare: Hammer, Olav; Rothstein, Mikael, সম্পাদকগণ (২০১২)। "16"The Cambridge Companion to New Religious MovementsCambridge: Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 263। আইএসবিএন 9781107493551। ২০১৬-০৬-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-০৩'Jihadism' is a term that has been constructed in Western languages to describe militant Islamic movements that are perceived as existentially threatening to the West. Western media have tended to refer to Jihadism as a military movement rooted in political Islam. 
  2. Hammer, Olav; Rothstein, Mikael, সম্পাদকগণ (২০১২)। "16"The Cambridge Companion to New Religious Movements। Cambridge University Press.। পৃষ্ঠা 263। আইএসবিএন 9781107493551। ২০১৬-০৬-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-০৩'Jihadism,' like the word jihad out of which it is constructed, is a difficult term to define precisely. The meaning of Jihadism is a virtual moving target because it remains a recent neologism and no single, generally accepted meaning has been developed for it. 
  3. Natana DeLong-Bas (২০০৯)। "Jihad" Oxford Bibliographies। Oxford: Oxford University Press। ২০১৬-০৬-২৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-০৩ 
  4. Hekmatpour, Peyman (২০১৮-০১-০১)। "What do we know about the Islamic Radicalism: A meta-analysis of academic publications" 
  5. Hekmatpour, Peyman; Burns, Thomas (২০১৮-০৮-১৪)। "Radicalism and Enantiodromia: A Trialectic of Modernity, Post-modernity, and Anti-modernity in the Islamic World" 
  6. Gilles Kepel, Jihad: The Trail of Political Islam (Harvard: Harvard University Press, 2002), pp. 219-22
  7. Hekmatpour, Peyman; Burns, Thomas J. (২০১৯)। "Perception of Western governments' hostility to Islam among European Muslims before and after ISIS: the important roles of residential segregation and education"। The British Journal of Sociology (ইংরেজি ভাষায়)। 70 (5): 2133–2165। আইএসএসএন 1468-4446ডিওআই:10.1111/1468-4446.12673পিএমআইডি 31004347