প্রধান মেনু খুলুন

পাকিস্তান

দক্ষিণ এশিয়ার রাষ্ট্র

স্থানাঙ্ক: ৩০° উত্তর ৭১° পূর্ব / ৩০° উত্তর ৭১° পূর্ব / 30; 71

পাকিস্তান তথা ইসলামী প্রজাতন্ত্রী পাকিস্তান (উর্দু: اسلامی جمہوریۂ پاکستان‎‎; ইস্‌লামী জাম্‌হূরিয়া-এ-পাকিস্তান্‌) দক্ষিণ এশিয়ায় অবস্থিত একটি দেশ। দেশটি দক্ষিণ এশিয়া, দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়া এবং মধ্য এশিয়ার সংযোগস্থলে অবস্থিত। পাকিস্তান ভারতীয় উপমহাদেশের অংশ। দেশটির প্রায় হাজার কিলোমিটার লম্বা সৈকতরেখা আছে। এর দক্ষিণদিকে (আরব সাগর)। পশ্চিমে রয়েছে আফগানিস্তানইরান, পূর্বে ভারত, এবং উত্তর-পূর্বে চীনের তিব্বতশিঞ্চিয়াং এলাকাগুলো। ইসলামাবাদ পাকিস্তানের রাজধানী। করাচি দেশটির বৃহত্তম শহর।

ইসলামী প্রজাতন্ত্রী পাকিস্তান
اسلامی جمہوریۂ پاکستان
ইসলামী জমহুরিয়ায় পাকিস্তান
পতাকা রাষ্ট্রীয় এমব্লেম
নীতিবাক্যঈমান, ইত্তেহাদ, নজম  ایمان، اتحاد، نظم(উর্দূ)
"বিশ্বাস, একতা, শৃঙ্খলা"
জাতীয় সঙ্গীত: কওমী তারানা
قومی ترانہ
"জাতীয় সঙ্গীত"[১]
রাজধানীইসলামাবাদ
৩৩°৪০′ উত্তর ৭৩°১০′ পূর্ব / ৩৩.৬৬৭° উত্তর ৭৩.১৬৭° পূর্ব / 33.667; 73.167
বৃহত্তম শহর করাচি
সরকারি ভাষাসমূহ উর্দু, ইংরেজি
স্বীকৃত রাষ্ট্র ভাষাসমূহ উর্দু
সরকার অর্ধ-রাষ্ট্রপতি শাসিত প্রজাতন্ত্র
 •  রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভি
 •  প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান
গঠন
 •  স্বাধীনতা যুক্তরাজ্য থেকে 
 •  ঘোষিত আগস্ট ১৪ ১৯৪৭ 
 •  ইসলামী প্রজাতন্ত্র মার্চ ২৩ ১৯৫৬ 
আয়তন
 •  মোট ৮,৮১,৯১৩ কিমি (৩৬তম)
৩,৪০,৫০৯ বর্গ মাইল
 •  পানি (%) ৩.১
জনসংখ্যা
 •  ২০১৭ আনুমানিক ২০.৭৮.০০০০[২] (৫ম)
মোট দেশজ উৎপাদন
(ক্রয়ক্ষমতা সমতা)
২০০৭ আনুমানিক
 •  মোট $৪৭৫.৬ বিলিয়ন (২৫তম)
 •  মাথা পিছু $৩,০০৪.৫ (১২৮তম)
জিনি সহগ (২০০২)৩০.৬[৩]
মাধ্যম
মানব উন্নয়ন সূচক (২০০৬)অপরিবর্তিত ০.৫৩৯[৪]
নিম্ন · ১৩৪তম
মুদ্রা রুপি (Rs.) (PKR)
সময় অঞ্চল পাকিস্তান মান সময় (ইউটিসি+৫)
 •  গ্রীষ্মকালীন (ডিএসটি) পর্যবেক্ষণ করা হয় না (ইউটিসি+৬)
কলিং কোড ৯২
ইন্টারনেট টিএলডি .pk
১. আজাদ কাশ্মীর এবং উত্তরাঞ্চলসমূহ ধরা হয়নি।

পরিচ্ছেদসমূহ

নামকরণসম্পাদনা

ফার্সি, সিন্ধিউর্দু ভাষায়, "পাকিস্তান" নামটির অর্থ "পবিত্রদের দেশ"। নামটি আসে তৎকালীন (অবিভক্ত) ভারতের উত্তরপশ্চিমাংশের চারটি অঞ্চলের নাম থেকে:

প্ - াঞ্জাব (পঞ্জাব)
আ - ফগানিয়া (উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশ, বর্তমান নাম খাইবার পাখতুনখোয়া)
ক্ - াশমীর
স্ - িন্ধ (সিন্ধু)
তান্ - বালোচিসতান (বেলুচিস্তান)

১৯৩৩ সালে চৌধুরী রহমত আলী তাঁর "নাও অর নেভার" (Now or Never) পুস্তিকায় এই নামটির প্রস্তাব রাখেন।[৫]

ইতিহাসসম্পাদনা

প্রারম্ভিক এবং মধ্যযুগীয় সময়কালসম্পাদনা

প্রাচীন সিন্ধু অঞ্চল যা মোটামুটি বর্তমান পাকিস্তানের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশ ছাড়া বাকিটা নিয়ে গঠিত, প্রাচীন কালে নব্য প্রস্তর যুগীয় মেহেরগড় সহ অনেক উন্নত সভ্যতার উৎপত্তিস্থল ছিল। ব্রোঞ্জ যুগে (২৮০০- ১৮০০খ্রিষ্টপূর্বাব্দ) সিন্ধু সভ্যতায় হরপ্পামহেঞ্জো-দাড়ো নামে দুটি উন্নত নগর ছিল। [৬][৭]
বৈদিক যুগে (১৫০০ - ৫০০খ্রিষ্টপূর্বাব্দ) ইন্দো আর্যদের মাধ্যমে এখানে হিন্দুদের গোড়াপত্তন হয়, যা পরবর্তীতে পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে।[৮][৯] মুলতান শহর হিন্দুদের গুরুত্বপূর্ণ তীর্থযাত্রা কেন্দ্রে পরিণত হয়।

ঔপনিবেশিক আমলসম্পাদনা

ভারতীয় অঞ্চলে ঔপনিবেশিক আমললে দুই ভাগে ভাগ করা হয় যথা ১. ইংলিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির শাসনামল ২. ব্রিটিশ সরকারের শাসনামল তবে পাকিস্তান প্রথম থেকেই ইংলিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির শাসনাধীনে যাই নি কারন তখনও এই অঞ্চলে স্বাধীনভাবে রাজারা শাসন করতো । তারপর ধীরে ধীরে পাকিস্তান অঞ্চল ব্রিটিশ অধিভুক্ত হয়।

স্বাধীনতা এবং পরাধীনতাসম্পাদনা

১৯৪৭ সালে ভারতীয় উপমহাদেশ যুক্তরাজ্য থেকে স্বাধীনতা লাভ করার পর ভারতীয় উপমহাদেশ বিভাজনের মাধ্যমে ভারতপাকিস্তান এ' দুটি দেশের জ‌ন্ম হয়। তারমধ্যে ছিল পশ্চিম পাকিস্তানপূর্ব পাকিস্তান(বর্তমান বাংলাদেশ) [১০] [১১]

তারপর পূূর্ব পাকিস্তান (বর্তমান- বাংলাদেশ) এর সাথে ১৯৭১ সালের ২৬শে মার্চ থেকে যুদ্ধ শুরু হয়ে টানা "নয় মাস" রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর ১৬ই ডিসেম্বর পাকিস্তান পরাজীত হয়। [১২]

[১৩]

রাজনীতিসম্পাদনা

২০১৪ সালে বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিস ও পিউ রিসার্চ সেন্টারের করা নিয়ন্ত্রিত মতগ্রহণ জরিপের ফলাফল।
পাকিস্তানের প্রতি বিভিন্ন দেশের জনসাধারণের দৃষ্টিভঙ্গি[১৪][১৫]
ইতিবাচক ও নেতিবাচকের পার্থক্য অনুসারে সাজানো
দেশ ইতিবাচক নেতিবাচক নিরপেক্ষ ইতি-নেতি
  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
৫%
৮৫%
১০ -৮০
  জার্মানি
৫%
৮০%
১৫ -৭৫
  কানাডা
১০%
৭৯%
১১ -৬৯
  ব্রাজিল
৭%
৭৫%
১৮ -৬৮
  ফ্রান্স
১০%
৭৭%
১৩ -৬৭
  ইসরায়েল
২%
৬৮%
৩০ -৬৬
  স্পেন
৫%
৭১%
২৪ -৬৬
  অস্ট্রেলিয়া
১৪%
৭৭%
-৬৩
  দক্ষিণ কোরিয়া
১২%
৬৬%
২২ -৫৮
  যুক্তরাজ্য
১৮%
৭১%
১১ -৫৩
  রাশিয়া
৬%
৫৩%
৪১ -৪৭
  চিলি
১৩%
৪৯%
৩৮ -৩৬
  জাপান
৬%
৪১%
৫৩ -৩৫
  পেরু
১২%
৪৭%
৪১ -৩৫
  ভারত
১৭%
৪৯%
৩৪ -৩২
  মেক্সিকো
১৪%
৪৪%
৪২ -৩০
  কেনিয়া
২৩%
৪৫%
৩২ -২২
  চীন
২১%
৪১%
৩৮ -২০
  তুরস্ক
২৫%
৪১%
৩৪ -১৬
  ঘানা
৩৪%
৪১%
২৫ -৭
  নাইজেরিয়া
৪০%
৪৬%
১৪ -৬
  বাংলাদেশ
৫০%
৫০%
অনুল্লিখিত 0
  ইন্দোনেশিয়া
৪০%
৩১%
২৯
  পাকিস্তান
৪৪%
২৯%
২৭ ১৫

পাকিস্তানের রাজনীতি বর্তমানে একটি অর্ধ-রাষ্ট্রপতিশাসিত যুক্তরাষ্ট্রীয় প্রজাতন্ত্র কাঠামোয় সম্পাদিত হয়, যদিও অতীতে বিভিন্ন সময়ে সংসদীয় ও রাষ্ট্রপতি শাসিত ব্যবস্থার প্রচলন ছিল। রাষ্ট্রপতি হলেন রাষ্ট্রের প্রধান। সরকারপ্রধান হলেন প্রধানমন্ত্রী। রাষ্ট্রের নির্বাহী ক্ষমতা সরকারের উপর ন্যস্ত। আইন প্রণয়নের ক্ষমতা প্রধানত আইনসভার উপর ন্যস্ত।

দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ছিলেন ভারতের অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের অর্থমন্ত্রী লিয়াকত আলি খান । এযাবৎ কোনো প্রধানমন্ত্রী তার কার্যকাল সম্পূর্ণ করতে পারেনি। দীর্ঘ মেয়াদি প্রধানমন্ত্রীরা হলেন বেনজীর ভুট্টো , নওয়াজ শরীফ ও ইউসুফ রেজা গিলানি।

২০১৩ সালের মে মাসের ১১ তারিখে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হন বর্তমান ক্ষমতাসীন নওয়াজ শরীফ[১৬] একই বছরের জুলাইয়ের ৩১ তারিখ হতে পাকিস্তানের বর্তমান রাষ্ট্রপতি মামনুন হোসাইন[১৭]

প্রশাসনিক অঞ্চলসমূহসম্পাদনা

পাকিস্তানের মূল ভূখণ্ডটি কয়েকটি প্রশাসনিক অঞ্চলে বিভক্ত। যথা-

  1. পাঞ্জাব
  2. সিন্ধ্
  3. খাইবার পাখতুনখোয়া
  4. বালুচিস্তান
  5. ফেডারেল শাসিত উপজাতীয় এলাকা
  6. পাকিস্তান-শাসিত কাশ্মীর
  7. গিলগিত-বালতিস্তান
  8. ইসলামাবাদ রাজধানী অঞ্চল

ভূগোলসম্পাদনা

পাকিস্তানকে তিনটি প্রধান ভৌগোলিক অঞ্চলে ভাগ করা যায়: উত্তরের উচ্চভূমি, সিন্ধু নদের অববাহিকা (যেটিকে পাঞ্জাব ও সিন্ধু প্রদেশে উপবিভক্ত করা যায়) এবং বেলুচিস্তান মালভূমি।

অর্থনীতিসম্পাদনা

জনসংখ্যাসম্পাদনা

ভাষাসমূহসম্পাদনা

 
পাকিস্তানে প্রচলিত ভাষাসমূহ
ইন্দো-আর্য ভাষা ইরানীয় ভাষা দ্রাবিড় ভাষা
দার্দীয় ভাষা চীনা-তিব্বতী ভাষা বিচ্ছিন্ন ভাষা

পাকিস্তানের সরকারি ভাষা ইংরেজি এবং জাতীয় ভাষা উর্দু। এছাড়াও দেশটিতে পাঞ্জাবি, সিন্ধি, সারাইকি, পাশতু, বেলুচি, ব্রাহুই ইত্যাদি ভাষা প্রচলিত। অনেক ভাষাই ইন্দো-ইউরোপীয় ভাষাপরিবারের বিভিন্ন শাখার অন্তর্গত। উর্দু, পাঞ্জাবি ও সিন্ধি -আর্য ভাষাসমূহ, পশতু ও বেলুচি ইরানীয় ভাষাসমূহ, ব্রাহুই দ্রাবিড় ভাষাসমূহের অন্তর্গত। এছাড়া উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমে বিভিন্ন দার্দীয় ভাষা যেমন খোওয়ার ও শিনা প্রচলিত।

জাতীয় পতাকাসম্পাদনা

 
  অনুপাত: ২:৩

পাকিস্তানের জাতীয় পতাকার নকশা প্রণয়ন করেন সৈয়দ আমিরুদ্দিন কেদোয়াই। এই নকশাটি অল ইন্ডিয়া মুসলিম লীগের ১৯০৬ সালের পতাকার উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়। পাকিস্তান স্বাধীনতা লাভ করার ৫ দিন আগে ১৯৪৭ সালের ১১ই আগস্ট তারিখে এই পতাকাটির নকশা গৃহীত হয়।

পতাকাটিকে পাকিস্তানে সাব্‌জ হিলালি পারচাম বলা হয়। উর্দু ভাষার এই বাক্যটির অর্থ হলো "নতুন চাঁদ বিশিষ্ট সবুজ পতাকা"। এছাড়াও এটাকে "পারচাম-ই-সিতারা আও হিলাল" অর্থাৎ "চাঁদ ও তারা খচিত পতাকা" বলা হয়ে থাকে।

তাৎপর্যসম্পাদনা

পতাকাটির খুঁটির বিপরীত দিকের গাঢ় সবুজ অংশটি ইসলাম ধর্মের প্রতীক। খুঁটির দিকে সাদা অংশ রয়েছে, যা পাকিস্তানে বসবাসরত সংখ্যালঘু অমুসলিমদের প্রতীক। পতাকার মধ্যস্থলে রয়েছে একটি সাদা নতুন চাঁদ, যা প্রগতির প্রতীক; এবং একটি পাঁচ কোনা তারকা, যা ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের প্রতীক।

আকার ও ব্যবহারসম্পাদনা

আকারসম্পাদনা

  • বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ব্যবহারের জন্য. ২১' x ১৪', ১৮' x ১২', ১০' x ৬-২/৩' বা ৯' x ৬ ১/৪.
  • ভবনে ব্যবহারের জন্য. ৬' x ৪' or ৩' x ২'.
  • গাড়িতে ব্যবহারের জন্য ১২" x ৮".
  • টেবিলে ব্যবহারের জন্য ৬ ১/৪" x ৪ ১/৪".

যেসব অনুষ্ঠানে পতাকা উড্ডয়ন করা হয়সম্পাদনা

যেসব দিনে পতাকা অর্ধনমিত রাখা হযসম্পাদনা

সংস্কৃতিসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "National Symbols and Things of Pakistan"। ১৩ এপ্রিল ২০১৪ তারিখে মূল|আর্কাইভের-ইউআরএল= এর |ইউআরএল= প্রয়োজন (সাহায্য) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "U.S. and World Population Clock"United States Census Bureau 
  3. "GINI index (World Bank estimate)"। World Bank। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  4. "Human Development Report 2016" (PDF)। United Nations Development Programme। ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৭ 
  5. Text of the Now or Never pamphlet, issued on January 28, 1933
  6. Robert Arnett (১৫ জুলাই ২০০৬)। India Unveiled। Atman Press। পৃষ্ঠা 180–। আইএসবিএন 978-0-9652900-4-3। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১১ 
  7. Meghan A. Porter। "Mohenjo-Daro"। Minnesota State University। ২২ ডিসেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জানুয়ারি ২০১০ 
  8. Marian Rengel (২০০৪)। Pakistan: a primary source cultural guide। New York, NY: The Rosen Publishing Group Inc। পৃষ্ঠা 58–59,100–102। আইএসবিএন 0-8239-4001-2। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১১ 
  9. "Britannica Online – Rigveda"। Encyclopædia Britannica। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ডিসেম্বর ২০১১ 
  10. ভারত উপমহাদেশীয় ইতিহাস 
  11. "Indian History" 
  12. বাংলাদেশের ইতিহাস 
  13. "Bangladesh Libaretion" 
  14. "2014 BBC World Service poll" (PDF) 
  15. "Chapter 4: How Asians View Each Other"Pew Research Center's Global Attitudes Project। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৪ 
  16. আমারদেশ অনলাইন। "তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলেন নওয়াজ শরীফ"। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০১৩ 
  17. দৈনিক যুগান্তর। "পাকিস্তানের নতুন প্রেসিডেন্ট মামনুন হোসাইন"। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০১৩ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা