প্রধান মেনু খুলুন

২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ

ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতার দ্বাদশ সংস্করণ

২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতা ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে যৌথভাবে অনুষ্ঠিত হয়।[১][২] বিশ্বকাপ ক্রিকেট প্রতিযোগিতার এ আসরটি দ্বাদশ আয়োজন। ১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩ এবং ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপের পর এ প্রতিযোগিতাটি ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে ৫মবারের মতো হয়।

২০১৯ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ
২০১৯ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের লোগো.svg
২০১৯ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক লোগো
তারিখ৩০ মে – ১৫ জুলাই
ব্যবস্থাপকআন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল
ক্রিকেটের ধরনএকদিনের আন্তর্জাতিক
প্রতিযোগিতার ধরনরাউন্ড-রবিননক-আউট
আয়োজকইংল্যান্ড ইংল্যান্ড
ওয়েল্‌স্‌ ওয়েলস
বিজয়ী ইংল্যান্ড (১ম শিরোপা)
রানার-আপ নিউজিল্যান্ড
অংশগ্রহণকারী১০
খেলার সংখ্যা৪৮
প্রতিযোগিতার সেরা
খেলোয়াড়
কেন উইলিয়ামসন
সর্বোচ্চ রান রোহিত শর্মা (৬৪৮)
সর্বোচ্চ উইকেট মিচেল স্টার্ক (২৭)

এপ্রিল, ২০০৬ সালে ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসকে স্বাগতিক দেশের মর্যাদা দেয়া হয়। ২০১৫ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশের নিলাম প্রক্রিয়া থেকে তাদের আবেদন প্রত্যাহারের ফলে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেট প্রতিযোগিতা অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে যৌথভাবে অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম খেলাটি ওভালে ও চূড়ান্ত খেলাটি ১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩১৯৯৯ সালের পর পঞ্চমবারের মতো লর্ডসে অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনাল ম্যাচে সুপার ওভারে ইংল্যান্ড নিউজিিল্যাকে ১ উইকেটে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

পরিচ্ছেদসমূহ

যোগ্যতা নির্ধারণ

২০১১২০১৫ সালের বিশ্বকাপের ১৪-দলের অংশগ্রহণের পরিবর্তে এ বিশ্বকাপের দলের সংখ্যা রাখা হয় ১০টি।[৩] স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ তারিখ মোতাবেক আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ আট দল স্বয়ংক্রিয়ভাবে যোগ্য বলে বিবেচিত হয়। অন্য দুই দলের অন্তর্ভূক্তির জন্য ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ বাছাই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে নির্ধারণ করা হয়।[৪] এতে আইসিসি’র সহযোগী ও অনুমোদনলাভকারী সদস্য দেশগুলোরও অংশগ্রহণের সুযোগ রাখা হয়েছিল। বাছাই প্রক্রিয়ার রূপরেখা তুলে ধরার সময় পূর্ববর্তী দুই বিশ্বকাপের শেষ চারটি স্থান দখলের জন্য অংশগ্রহণকারী সহযোগী ও অনুমোদনলাভকারী সদস্যদেরকে সর্বোচ্চ দুইটি স্থান প্রদানের কথা বলা হয়। এর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো টেস্টখেলুড়ে দেশগুলোর প্রত্যেকেই বিশ্বকাপ ক্রিকেটে অংশগ্রহণের যোগ্যতা না-ও হতে পারতো।[৫] সর্বনিম্ন স্থানের অধিকারী পূর্ণাঙ্গ সদস্যদেরকে পরাজিত করার মাধ্যমে অংশগ্রহণের নিশ্চয়তা দেয়া হয়েছিল।[৪] এছাড়াও, এর মাধ্যমে ১০টি টেস্ট দলের মধ্যে কমপক্ষে দুইটি দলকে বাছাইপর্বে অংশগ্রহণের কথা বলা হয় ও বিশ্বকাপে খেলা থেকে বাদ পড়ার কথা বলা হয়।

১০-দলের অংশগ্রহণে আয়োজিত এ প্রতিযোগিতা সহযোগী দেশগুলোর মধ্যে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।[৬] জুন, ২০১৭ সালে আয়ারল্যান্ডআফগানিস্তান দলকে টেস্ট মর্যাদা প্রদানের ফলে টেস্ট দলের সংখ্যা ১০ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ১২ হয়। এরফলে প্রথমবারের মতো সকল টেস্ট মর্যাদাপ্রাপ্ত দলের সম্মিলিত অংশগ্রহণবিহীন অবস্থায় ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হতে হয়।[৬]

সাম্প্রতিক সময়ের সফলতার স্বীকৃতিস্বরূপ আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তান দলকে আইসিসি ওডিআই চ্যাম্পিয়নশীপে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। এমনকি আইসিসি’র পূর্ণাঙ্গ সদস্যেরও মর্যাদা দান করা হয়। দল দুটি নতুন টেস্টভূক্ত দেশের মর্যাদায় পায়। তাস্বত্ত্বেও, বর্তমান প্রক্রিয়ায় উভয় দলকেই বাছাইপর্বে অংশ নিতে হয়।

বাছাইপর্বের চূড়ান্ত খেলায় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পরাভূত করে আফগানিস্তান দল বিজয়ী হয়। উভয় দলই বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায়। অন্যদিকে, প্রতিযোগিতার স্বাগতিক হওয়া স্বত্ত্বেও জিম্বাবুয়ে দল চূড়ান্ত খেলায় অংশ নিতে ব্যর্থ হয় ও ১৯৮৩ সালের পর প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ খেলা থেকে বঞ্চিত হয়।[৭] এছাড়াও, সাম্প্রতিককালে পূর্ণাঙ্গ টেস্ট মর্যাদার অধিকারী আয়ারল্যান্ড দল ২০০৭ সালের পর প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করা থেকে বঞ্চিত হয়। ফলশ্রুতিতে, প্রথমবারের মতো এ প্রতিযোগিতায় কোন সহযোগী সদস্য দলের অংশগ্রহণ থাকবে না।[৮]

 
২০১৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর উল্লেখকরণ
  স্বাগতিক দল হিসেবে অন্তর্ভূক্তি
  আইসিসি ওডিআই চ্যাম্পিয়নশীপ র‍্যাঙ্কিং অনুযায়ী অন্তর্ভূক্তি
  ২০১৮ সালের বাছাইপর্বের মাধ্যমে যোগ্যতা লাভ
  বাছাইপর্বে অংশগ্রহণ করলেও যোগ্যতা লাভে ব্যর্থ
যোগ্যতার ধরন তারিখ মাঠ অবস্থান যোগ্যতা[৯]
স্বাগতিক দল ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০০৬[১০] প্রযোজ্য নয়   ইংল্যান্ড
আইসিসি ওডিআই চ্যাম্পিয়নশীপ ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিভিন্ন   অস্ট্রেলিয়া
  বাংলাদেশ
  ভারত
  নিউজিল্যান্ড
  পাকিস্তান
  দক্ষিণ আফ্রিকা
  শ্রীলঙ্কা
২০১৮ ক্রিকেট বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব ২৩ মার্চ, ২০১৮   জিম্বাবুয়ে   আফগানিস্তান
  ওয়েস্ট ইন্ডিজ
সর্বমোট ১০

মাঠসমূহ

কলকাতায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) সভাশেষে প্রতিযোগিতার সময়সূচী ২৬ এপ্রিল, ২০১৮ তারিখে ঘোষণা করা হয়। পরিকল্পনা মোতাবেক লন্ডন স্টেডিয়ামকে অন্যতম সম্ভাব্য মাঠ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল।[১১][১২] জানুয়ারি, ২০১৭ তারিখে মাঠ পরিদর্শন শেষে পিচের আকৃতি ওডিআই খেলার উপযোগীরূপে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।[১৩] তবে, সময়সূচী ঘোষণাকালে লন্ডন স্টেডিয়ামকে বাদ দেয়া হয়।[১৪] ওয়েলসের সোফিয়া গার্ডেন্স ছাড়া সবগুলো মাঠই ইংল্যান্ডে অবস্থিত।

বার্মিংহাম ব্রিস্টল কার্ডিফ চেস্টার-লি-স্ট্রিট
এজবাস্টন ব্রিস্টল কাউন্টি গ্রাউন্ড সোফিয়া গার্ডেন্স রিভারসাইড গ্রাউন্ড
ধারণক্ষমতা: ২৫,০০০ ধারণক্ষমতা: ১৭,৫০০ ধারণক্ষমতা: ১৫,৬৪৩ ধারণক্ষমতা: ১৭,০০০
ম্যাচ: ৫ (সেমি-ফাইনালসহ) ম্যাচ: ৩ ম্যাচ: ৪ ম্যাচ: ৩
       
লিডস লন্ডন
হেডিংলি লর্ডস দি ওভাল
ধারণক্ষমতা: ১৮,০০০ ধারণক্ষমতা: ৩০,০০০ ধারণক্ষমতা: ২৪,৫০০
ম্যাচ: ৪ ম্যাচ: ৫ (ফাইনালসহ) ম্যাচ: ৫
     
ম্যানচেস্টার নটিংহাম সাউদাম্পটন টানটন
ওল্ড ট্রাফোর্ড ট্রেন্ট ব্রিজ রোজ বোল কাউন্টি গ্রাউন্ড
ধারণক্ষমতা: ২৬,০০০ ধারণক্ষমতা: ১৭,৫০০ ধারণক্ষমতা: ২৫,০০০ ধারণক্ষমতা: ১২,৫০০
ম্যাচ: ৬ (সেমি-ফাইনালসহ) ম্যাচ: ৫ ম্যাচ: ৫ ম্যাচ: ৩
       

দলীয় সদস্য

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে দলগুলোর সম্ভাব্য ৩০-জন খেলোয়াড়ের তালিকা প্রকাশের দরকার নেই। ৩০ এপ্রিল, ২০১৯ তারিখের পূর্বেই অংশগ্রহণকারী দলগুলো তাদের বিশ্বকাপের দলের সদস্যদের নাম দাখিল করে।[১৫] প্রতিযোগিতা শুরুর সাতদিন পূর্বে ১৫-জনের চূড়ান্ত তালিকা যে-কোন খেলোয়াড়কে পরিবর্তন করতে পারবে।[১৬] প্রথম দল হিসেবে নিউজিল্যান্ড তাদের দলের তালিকা প্রকাশ করে।[১৭]

খেলা পরিচালনাকারী কর্মকর্তা

এপ্রিল, ২০১৯ সালে আইসিসি কর্তৃপক্ষ প্রতিযোগিতার জন্যে আনুষ্ঠানিকভাবে খেলা পরিচালনার লক্ষ্যে কর্মকর্তাদের তালিকা প্রকাশ করে।[১৮] অন্যদিক, এ প্রতিযোগিতা শেষে ইয়ান গোল্ড আম্পায়ার হিসেবে তাঁর অবসর গ্রহণের কথা ঘোষণা করেন।[১৯]

আম্পায়ার

ম্যাচ রেফারি

প্রতিযোগিতা সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্যে আইসিসি কর্তৃপক্ষ ৬জন ম্যাচ রেফারির নামের তালিকা প্রকাশ করে।[১৮]

আর্থিক পুরস্কার

২০১৫ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতার ন্যায় আইসিসি কর্তৃপক্ষ $১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের একই অঙ্কের আর্থিক পুরস্কার প্রদানের কথা ঘোষণা করে।[২০] অর্থ পুরস্কার প্রদানের ক্ষেত্রে দলগুলোকে নিম্নবর্ণিত ফলাফলকে বিবেচনায় আনা হয়:[২১]

অবস্থান পুরস্কৃত অর্থ ($) সর্বমোট
বিজয়ী $৪,০০০,০০০ $৪,০০০,০০০
রানার-আপ $২,০০০,০০০ $২,০০০,০০০
সেমি-ফাইনালে পরাজয় $৮০০,০০০ $১,৬০০,০০০
গ্রুপ পর্বের প্রত্যেক খেলার বিজয়ী $৪০,০০০ $১,৮০০,০০০
লীগ পর্বে রয়ে যাওয়া দল $১০০,০০০ $৬০০,০০০
সর্বমোট $১০,০০০,০০০

প্রস্তুতিমূলক খেলা

২৪ থেকে ২৮ মে ২০১৯ তারিখ পর্যন্ত দশটি ওডিআই মর্যাদাবিহীন প্রস্তুতিমূলক খেলা অনুষ্ঠিত হয়। সবগুলো খেলাই ব্রিটিশ গ্রীষ্মকালীন সময় অনুযায়ী (ইউটিসি+১) সম্পন্ন হয়।[২২]

প্রস্তুতিমূলক খেলা
২৪ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
২৬২ (৪৭.৫ ওভার)
  আফগানিস্তান
২৬৩/৭ (৪৯.৪ ওভার)
বাবর আজম ১১২ (১০৮)
মোহাম্মদ নবি ৩/৪৬ (১০ ওভার)
আফগানিস্তান ৩ উইকেটে বিজয়ী
ব্রিস্টল কাউন্টি গ্রাউন্ড, ব্রিস্টল
আম্পায়ার: মাইকেল গফ (ইংল্যান্ড) ও রড টাকার (অস্ট্রেলিয়া)
  • পাকিস্তান টসে জয়লাভ করে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

২৪ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
দক্ষিণ আফ্রিকা  
৩৩৮/৭ (৫০ ওভার)
  শ্রীলঙ্কা
২৫১ (৪২.৩ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৮৭ রানে বিজয়ী
সোফিয়া গার্ডেন্স, কার্ডিফ
আম্পায়ার: রিচার্ড ইলিংওয়ার্থ (ইংল্যান্ড) ও পল উইলসন (অস্ট্রেলিয়া)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জয়লাভ করে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

২৫ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া  
২৯৭/৯ (৫০ ওভার)
  ইংল্যান্ড
২৮৫ (৪৯.৩ ওভার)
স্টিভ স্মিথ ১১৬ (১০২)
লিয়াম প্লাঙ্কেট ৪/৬৯ (৯ ওভার)
অস্ট্রেলিয়া ১২ রানে বিজয়ী
রোজ বোল, সাউদাম্পটন
আম্পায়ার: মারাইজ ইরাসমাস (দক্ষিণ আফ্রিকা) ও সুন্দরাম রবি (ভারত)
  • ইংল্যান্ড টসে জয়লাভ করে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

২৫ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
ভারত  
১৭৯ (৩৯.২ ওভার)
  নিউজিল্যান্ড
১৮০/৪ (৩৭.১ ওভার)
রস টেলর ৭১ (৭৫)
জসপ্রীত বুমরাহ ১/২ (৪ ওভার)
নিউজিল্যান্ড ৬ উইকেটে বিজয়ী
দি ওভাল, লন্ডন
আম্পায়ার: কুমার ধর্মসেনা (শ্রীলঙ্কা) ও ব্রুস অক্সেনফোর্ড (অস্ট্রেলিয়া)
  • ভারত টসে জয়লাভ করে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

২৬ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
দক্ষিণ আফ্রিকা  
৯৫/০ (১২.৪ ওভার)
ফলাফল হয়নি
ব্রিস্টল কাউন্টি গ্রাউন্ড, ব্রিস্টল
আম্পায়ার: আলীম দার (পাকিস্তান) ও রড টাকার (অস্ট্রেলিয়া)
  • ওয়েস্ট ইন্ডিজ টসে জয়লাভ করে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বৃষ্টির কারণে উভয় দলের ইনিংস ৩১ ওভারে নিয়ে আসা হয়

২৬ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
খেলা পরিত্যক্ত
সোফিয়া গার্ডেন্স, কার্ডিফ
আম্পায়ার: ক্রিস গফানি (নিউজিল্যান্ড) ও রিচার্ড কেটেলবরা (ইংল্যান্ড)
  • টস হয়নি
  • বৃষ্টির কারণে খেলা আয়োজন করা সম্ভব হয়নি

২৭ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
২৩৯/৮ (৫০ ওভার)
  অস্ট্রেলিয়া
২৪১/৫ (৪৪.৫ ওভার)
অস্ট্রেলিয়া ৫ উইকেটে বিজয়ী
রোজ বোল, সাউদাম্পটন
আম্পায়ার: নাইজেল লং (ইংল্যান্ড) ও জোয়েল উইলসন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জয়লাভ করে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

২৭ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
আফগানিস্তান  
১৬০ (৩৮.৪ ওভার)
  ইংল্যান্ড
১৬১/১ (১৭.৩ ওভার)
মোহাম্মদ নবী ৪৪ (৪২)
জো রুট ৩/২২ (৬ ওভার)
জেসন রয় ৮৯* (৪৬)
মোহাম্মদ নবী ১/৩৪ (৩ ওভার)
ইংল্যান্ড ৯ উইকেটে বিজয়ী
দি ওভাল, লন্ডন
আম্পায়ার: রুচিরা পল্লিয়াগুরুগে (শ্রীলঙ্কা) ও পল রেইফেল (অস্ট্রেলিয়া)
  • ইংল্যান্ড টসে জয়লাভ করে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

২৮ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
ওয়েস্ট ইন্ডিজ  
৪২১ (৪৯.২ ওভার)
  নিউজিল্যান্ড
৩৩০ (৪৭.২ ওভার)
শাই হোপ ১০১ (৮৬)
ট্রেন্ট বোল্ট ৪/৫০ (৯.২ ওভার)
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৯১ রানে বিজয়ী
ব্রিস্টল কাউন্টি গ্রাউন্ড, ব্রিস্টল
আম্পায়ার: মাইকেল গফ (ইংল্যান্ড) ও ইয়ান গোল্ড (ইংল্যান্ড)
  • নিউজিল্যান্ড টসে জয়লাভ করে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

২৮ মে ২০১৯
১০:৩০
স্কোরকার্ড
ভারত  
৩৫৯/৭ (৫০ ওভার)
  বাংলাদেশ
২৬৪ (৪৯.৩ ওভার)
মুশফিকুর রহিম ৯০ (৯৪)
কুলদীপ যাদব ৩/৪৭ (১০ ওভার)
ভারত ৯৫ রানে বিজয়ী
সোফিয়া গার্ডেন্স, কার্ডিফ
আম্পায়ার: রিচার্ড কেটেলবরা (ইংল্যান্ড) ও পল উইলসন (অস্ট্রেলিয়া)
  • বাংলাদেশ টসে জয়লাভ করে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

গ্রুপ পর্ব

২০১৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতার গ্রুপ পর্বের খেলাগুলো রাউন্ড-রবিন পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হয়। এ পর্বে অংশগ্রহণকারী দশ দলই একে-অপরের বিপক্ষে একই গ্রুপে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়। প্রত্যেক দলই সর্বমোট নয়টি খেলায় অংশ নেয়। গ্রুপের শীর্ষ চার দল নক-আউট পর্বে উপনীত হয় এবং সেমি-ফাইনাল ও ফাইনাল খেলে। ১৯৯২ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপেও একই প্রক্রিয়া অবলম্বন করা হয়েছিল।

ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সালের পুলওয়ামা আক্রমণের পর ভারতীয় সামরিকবাহিনী পাকিস্তানী জঙ্গীবাদীদের বিপক্ষে আক্রমণ চালায়। এরপর বেশ কয়েকজন সাবেক ভারতীয় খেলোয়াড় ও ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে ভারত-পাকিস্তান খেলা আয়োজন না করাসহ বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতা থেকে পাকিস্তানকে নিষেধাজ্ঞা প্রদানে প্রচারণা চালায়।[২৩][২৪][২৫] তবে, দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) পাকিস্তানের বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ করার প্রশ্নে বিসিসিআইয়ের প্রস্তাবনা নাকচ করে দেয়। এতে দুই দেশের মধ্যে চলমান উত্তেজনা থাকা স্বত্ত্বেও পূর্ব-পরিকল্পনামাফিক খেলা আয়োজনের কথা জানানো হয়।[২৬][২৭]

পয়েন্ট তালিকা

অব দল খেলা হা টাই ফহ পয়েন্ট এনআরআর যোগ্যতা অর্জন
  ভারত ১৫ ০.৮০৯ সেমি-ফাইনালে অগ্রসর
  অস্ট্রেলিয়া ১৪ ০.৮৬৮
  ইংল্যান্ড (H) ১২ ১.১৫২
  নিউজিল্যান্ড ১১ ০.১৭৫
  পাকিস্তান ১১ −০.৪৩০ বিদায়
  শ্রীলঙ্কা −০.৯১৯
  দক্ষিণ আফ্রিকা −০.০৩০
  বাংলাদেশ −০.৪১০
  ওয়েস্ট ইন্ডিজ −০.২২৫
১০   আফগানিস্তান −১.৩২২
উৎস: আইসিসি, ক্রিকইনফো
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: ১) পয়েন্ট; ২) জয়; ৩) নেট রান রেট; ৪) টাই করা দলগুলির মধ্যে ফলাফল; ৫) প্রাক-টুর্নামেন্ট ভাগ
(H) স্বাগতিক।

প্রতিযোগিতার অগ্রগতি

দল
গ্রুপ পর্ব নকআউট
সেফা ফা
  আফগানিস্তান
  অস্ট্রেলিয়া ১০ ১২ ১৪ ১৪ হা
  বাংলাদেশ
  ইংল্যান্ড ১০ ১২
  ভারত ১১ ১১ ১৩ ১৫ হা
  নিউজিল্যান্ড ১১ ১১ ১১ ১১ হা
  পাকিস্তান ১১
  দক্ষিণ আফ্রিকা
  শ্রীলঙ্কা
  ওয়েস্ট ইন্ডিজ
জয় হার ফলাফল হয়নি
টীকা: প্রতিটি গ্রুপ ম্যাচের শেষে মোট পয়েন্ট তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।
টীকা: ম্যাচের সারাংশ দেখতে পয়েন্ট (গ্রুপ ম্যাচ) বা জ/হা (নকআউট) ক্লিক করুন।

সময়সূচী

২৬ এপ্রিল, ২০১৮ তারিখে আইসিসি কর্তৃপক্ষ প্রতিযোগিতার বিস্তারিত সময়সূচী প্রকাশ করে।[২৮]

২ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
৩৩০/৬ (৫০ ওভার)
  দক্ষিণ আফ্রিকা
৩০৯/৮ (৫০ ওভার)
৩ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
৩৪৮/৮ (৫০ ওভার)
  ইংল্যান্ড
৩৩৪/৯ (৫০ ওভার)
৫ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ভারত  
২৩০/৪ (৪৭.৩ ওভার)
  দক্ষিণ আফ্রিকা
২২৭/৯ (৫০ ওভার)
৮ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড  
৩৮৬/৬ (৫০ ওভার)
  বাংলাদেশ
২৮০ (৪৮.৫ ওভার)
৯ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ভারত  
৩৫২/৫ (৫০ ওভার)
  অস্ট্রেলিয়া
৩১৬ (৫০ ওভার)
১০ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
দক্ষিণ আফ্রিকা  
২৯/২ (৭.৩ ওভার)
ফলাফল হয়নি
রোজ বোল, সাউদাম্পটন
১৪ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড  
২১৩/২ (৩৩.১ ওভার)
  ওয়েস্ট ইন্ডিজ
২১২ (৪৪.৪ ওভার)
১৬ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ভারত  
৩৩৬/৫ (৫০ ওভার)
  পাকিস্তান
২১২/৬ (৪০ ওভার/টার্গেট ৩০২)
১৭ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
৩২২/৩ (৪১.৩ ওভার)
  ওয়েস্ট ইন্ডিজ
৩২১/৮ (৫০ ওভার)
১৮ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড  
৩৯৭/৬ (৫০ ওভার)
  আফগানিস্তান
২৪৭/৮ (৫০ ওভার)
১৯ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
দক্ষিণ আফ্রিকা  
২৪১/৬ (৪৯ ওভার)
  নিউজিল্যান্ড
২৪৫/৬ (৪৮.৩ ওভার)
২০ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া  
৩৮১/৫ (৫০ ওভার)
  বাংলাদেশ
৩৩৩/৮ (৫০ ওভার)
২১ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড  
২১২ (৪৭ ওভার)
  শ্রীলঙ্কা
২৩২/৯ (৫০ ওভার)
২২ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
আফগানিস্তান  
২১৩ (৪৯.৫ ওভার)
  ভারত
২২৪/৮ (৫০ ওভার)
২৩ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
৩০৮/৭ (৫০ ওভার)
  দক্ষিণ আফ্রিকা
২৫৯/৯ (৫০ ওভার)
২৪ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ  
২৬২/৭ (৫০ ওভার)
  আফগানিস্তান
২০০ (৪৭ ওভার)
২৬ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড  
২৩৭/৬ (৫০ ওভার)
  পাকিস্তান
২৪১/৪ (৪৯.১ ওভার)
২৮ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
২০৩ (৪৯.৩ ওভার)
  দক্ষিণ আফ্রিকা
২০৬/১ (৩৭.২ ওভার)
২৯ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
আফগানিস্তান  
২২৭/৯ (৫০ ওভার)
  পাকিস্তান
২৩০/৭ (৪৯.৪ ওভার)
৩০ জুন, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড  
৩৩৭/৭ (৫০ ওভার)
  ভারত
৩০৬/৫ (৫০ ওভার)
১ জুলাই, ২০১৯
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
৩৩৮/৬ (৫০ ওভার)
  ওয়েস্ট ইন্ডিজ
৩১৫/৯ (৫০ ওভার)
২ জুলাই, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ভারত  
৩১৪/৯ (৫০ ওভার)
  বাংলাদেশ
২৮৬ (৫০ ওভার)
৩ জুলাই, ২০১৯
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড  
৩০৫/৮ (৫০ ওভার)
  নিউজিল্যান্ড
১৮৬ (৪৫ ওভার)
৫ জুলাই, ২০১৯
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান  
৩১৫/৯ (৫০ ওভার)
  বাংলাদেশ
২২১ (৪৪.১ ওভার)
৬ জুলাই, ২০১৯
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা  
২৬৪/৭ (৫০ ওভার)
  ভারত
২৬৫/৩ (৪৩.৪ ওভার)

নক-আউট পর্ব

নক-আউট পর্বে দুইটি সেমি-ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে। বিজয়ী দুই দল লর্ডসে চূড়ান্ত খেলায় অবতীর্ণ হবে। ২৫ এপ্রিল, ২০১৮ তারিখে এক প্রতিবেদনে জানা যায়, ১৯৯৯ সালের ন্যায় ওল্ড ট্রাফোর্ড এবং এজবাস্টনে খেলা দুটি সম্পন্ন হবে। পাশাপাশি উভয় খেলার জন্যেই সংরক্ষিত দিন রাখা হয়েছে।[২৯]

 
সেমি-ফাইনালফাইনাল
 
      
 
৯–১০ জুলাই – ওল্ড ট্রাফোর্ড, ম্যানচেস্টার
 
 
  নিউজিল্যান্ড২৩৯/৮
 
১৪ জুলাই – লর্ডস, লন্ডন
 
  ভারত২২১
 
  নিউজিল্যান্ড২৪১/৮
 
১১ জুলাই – এজবাস্টন, বার্মিংহাম
 
  ইংল্যান্ড২৪১
 
  অস্ট্রেলিয়া২২৩
 
 
  ইংল্যান্ড২২৬/২
 

সেমি-ফাইনাল

চূড়ান্ত খেলা

১৪ জুলাই, ২০১৯
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড  
২৪১/৮ (৫০ ওভার)
  ইংল্যান্ড
২৪১ (৫০ ওভার)
  • সুপার ওভার টাই হয়, ইংল্যান্ড বাউন্ডারি গণনা (২৬-১৭) নিয়মে খেলায় জয়লাভ করে।

পরিসংখ্যান

সর্বাধিক রান

রান খেলোয়াড় ইনি স স্কো গড় স্ট্রা রে ১০০ ৫০
৬৪৮   রোহিত শর্মা ১৪০ ৮১.০০ ৯৮.৩৩ ৬৭ ১৪
৬৪৭   ডেভিড ওয়ার্নার ১০ ১৬৬ ৭১.৮৮ ৮৯.৩৬ ৬৬
৬০৬   সাকিব আল হাসান ১২৪* ৮৬.৫৭ ৯৬.০৩ ৬০
৫৭৮   কেন উইলিয়ামসন ১০ ১৪৮ ৮২.৫৭ ৭৪.৯৬ ৫০
৫৫৬   জো রুট ১১ ১০৭ ৬১.৭৭ ৮৯.৫৩ ৪৮
সর্বশেষ হালনাগাদ: ১৪ জুলাই ২০১৯[৩০]

সর্বাধিক উইকেট

উইকেট খেলোয়াড় ইনি গড় ইকো রে ই.সে.ব স্ট্রা রে
২৭   মিচেল স্টার্ক ১০ ১৮.৫৯ ৫.৪৩ ৫/২৬ ২০.৫
২১   লকি ফার্গুসন ১৯.৪৭ ৪.৮৮ ৪/৩৭ ২৩.৯
২০   মুস্তাফিজুর রহমান ২৪.২০ ৬.৭০ ৫/৫৯ ২১.৬
  জোফ্রা আর্চার ১১ ২৩.০৫ ৪.৫৭ ৩/২৭ ৩০.২
১৮   জসপ্রীত বুমরাহ ২০.৬১ ৪.৪২ ৪/৫৫ ২৮.০
সর্বশেষ হালনাগাদ: ১৪ জুলাই ২০১৯[৩১]

গণমাধ্যম ও বিপণন

সম্প্রচারস্বত্ত্ব

নিম্নবর্ণিত নেটওয়ার্কগুলো প্রতিযোগিতার খেলাগুলো সরাসরি সম্প্রচারের অধিকার লাভ করে:

অবস্থান টেলিভিশন সম্প্রচার বেতার সম্প্রচার ওয়েব স্ট্রিমিং মোবাইল
  আফগানিস্তান কেবল/স্যাটেলাইট মবি মিডিয়া গ্রুপ Hotstar.com হটস্টার
  অস্ট্রেলিয়া কেবল/স্যাটেলাইট (অর্থ): ফক্স স্পোর্টস Foxstar.com.au ফক্সটেল নাউ
আরব বিশ্ব কেবল/স্যাটেলাইট ওএসএন স্পোর্টস ক্রিকেট OSN.com/PlayWavo.com ওএসএন, ওয়াভো
  বাংলাদেশ কেবল/স্যাটেলাইট বাংলাদেশ টেলিভিশন, মাছরাঙ্গা টেলিভিশন,গাজী টিভিস্টার স্পোর্টস বাংলাদেশ বেতার Rabbitholebd.com র‍্যাবিটহোল অ্যাপ
  ব্রুনাই
  মালয়েশিয়া
স্টার ক্রিকেট astrogo.astro.com.my অ্যাস্ত্রো গো
  কানাডা কেবল/স্যাটেলাইট (অর্থ): এটিএন নেটওয়ার্ক Hotstar.com হটস্টার
মধ্য আমেরিকা
ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জ
ইএসপিএন espn.co.uk/Caribbean ইএসপিএন প্লে
ক্যারিবীয়
মধ্য এশিয়া Hotstar.com হটস্টার
ইউরোপ
(যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ড ব্যতীত)
Hotstar.com হটস্টার
  হং কং স্টার ক্রিকেট nowtv.now.com/ নাউ টিভি অ্যাপ
  যুক্তরাজ্য
  আয়ারল্যান্ড
কেবল/স্যাটেলাইট: স্কাই স্পোর্টস বিবিসি রেডিও Skysports.com স্কাই গো
  ভারত
    নেপাল
  মালদ্বীপ
  ভুটান
কেবল/স্যাটেলাইট: স্টার স্পোর্টস
ডিডি ন্যাশনাল (ভারতের খেলাসহ সেমি-ফাইনাল ও ফাইনাল)
অল ইন্ডিয়া রেডিও
(ভারতের খেলাসহ সেমি-ফাইনাল ও ফাইনাল)
Hotstar.com হটস্টার
ওশেনিয়া
(অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড ব্যতীত)
ডিজিসেল www.digicelplay.com.pg/Sports/ ডিজিসেল প্লে
  নিউজিল্যান্ড কেবল/স্যাটেলাইট (অর্থ): স্কাই স্পোর্ট Sky.co.nz/
skygo.co.nz/livetv/
ফ্যান পাস
  নেদারল্যান্ডস টিবিসি টিবিসি টিবিসি
  পাকিস্তান কেবল/স্যাটেলাইট: টেন স্পোর্টস পাকিস্তানপিটিভি স্পোর্টস Sonyliv.com
Tensports.com.pk
সনি লিভ
  সিঙ্গাপুর স্টার ক্রিকেট Starhubgo.com স্টারহাব গো
  শ্রীলঙ্কা স্টার স্পোর্টস, চ্যানেল আই Channeleye.lk
Hotstar.com
হটস্টার
দক্ষিণ আমেরিকা ESPN.com
ESPN.com/watch
ওয়াচ ইএসপিএন ব্রাজিল
ইএসপিএন প্লে সাউথ
ইএসপিএন প্লে নর্থ
  দক্ষিণ আফ্রিকা
সমগ্র আফ্রিকা
কেবল/স্যাটেলাইট: সুপারস্পোর্ট SuperSport.com সুপারস্পোর্ট অ্যাপ
  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
  পুয়ের্তো রিকো
  গুয়াম
  ইউএস ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ
  আমেরিকান সামোয়া
  উত্তর মারিয়ানা দ্বীপপুঞ্জ
উইলো টিভি [৩২] WillowTv.com
Hotstar.com
হটস্টার
উইলো টিভি অ্যাপ
উৎস: আইসিসি-ক্রিকেট.কম[৩৩] (অন্যকিছু বিবৃত করা না হলে)

তথ্যসূত্র

  1. "England lands Cricket World Cup"BBC Sport। ২০০৬-০৪-৩০। সংগ্রহের তারিখ ২০০৬-০৪-৩০ 
  2. "England awarded 2019 World Cup"espncricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০০৬-০৪-৩০ 
  3. "Cricket World Cup 2019 to stay at only 10 teams"। BBC Sport। ২৬ জুন ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুন ২০১৫ 
  4. "Afghanistan and Ireland receive opportunity to qualify for the ICC Cricket World Cup 2019 with Full Members"icc-cricket.com। ২০১৫-০১-২৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৭-১২ 
  5. "ICC Executive Board approves 14-team format for ICC Cricket World Cup 2015"। ২৮ জুন ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. "ICC's Richardson wants more teams in World T20" 
  7. "UAE stun Zim"hindustantimes। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৮ 
  8. "Ireland miss out on World Cup for the first time since 2003"The Guardian। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৮ 
  9. "Cricket World Cup: The Final 10"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১৮ 
  10. "England lands Cricket World Cup"BBC Sport। ৩০ এপ্রিল ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০১৮ 
  11. "London Stadium could stage 2019 Cricket World Cup matches"। ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। 
  12. Wigmore, Exclusive by Tim (৫ ডিসেম্বর ২০১৬)। "ECB considering using Olympic Stadium to host 2019 Cricket World Cup games"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ – The Guardian-এর মাধ্যমে। 
  13. "London Olympic Stadium gets ICC approval"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ 
  14. "2019 World Cup: London Stadium not one of 11 tournament venues"BBC Sport। ২৬ এপ্রিল ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০১৮ 
  15. "ICC World Cup 2019: Teams don't have to name the probable 30 for the tournament"CricTracker। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০১৯ 
  16. "Cricket World Cup 2019: Jofra Archer in contention for England call-up"। ৩ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০১৯ – www.bbc.com-এর মাধ্যমে। 
  17. "Uncapped Blundell named in New Zealand World Cup squad, Sodhi preferred to Astle"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ৩ এপ্রিল ২০১৯ 
  18. "Match officials for ICC Men's Cricket World Cup 2019 announced"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০১৯ 
  19. "Umpire Ian Gould to retire after World Cup"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০১৯ 
  20. "World Cup 2019 winners to get US $4 million"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০১৯ 
  21. "$ 10 million prize pot for ICC Men's Cricket World Cup 2019"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০১৯ 
  22. "Official warm-up fixtures for ICC Men's Cricket World Cup 2019 announced"। Cricket World Cup। ৩১ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  23. CNN, James Masters। "Will violence prevent India vs. Pakistan World Cup showdown?"CNN। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-০৩ 
  24. "ICC says 'no indication' India v Pakistan World Cup match will not go ahead" (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০২-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-০৩ 
  25. DelhiFebruary 22, India Today Web Desk New; February 22, 2019UPDATED:; Ist, 2019 16:50। "ICC warns BCCI: India likely to lose proposal to ban Pakistan from World Cup"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-০৩ 
  26. DubaiMarch 3, Press Trust of India; March 3, 2019UPDATED:; Ist, 2019 12:26। "ICC to BCCI: Severing cricket ties with countries not our domain"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-০৩ 
  27. NDTVSports.com। "International Cricket Council Turns Down Indian Board's Request On Terrorism: Report | Cricket News"NDTVSports.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-০৩ 
  28. "ICC Cricket World Cup 2019 schedule announced" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-২৬ 
  29. "Old Trafford to host India-Pakistan World Cup clash"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-২৫ 
  30. "Records/ICC World Cup 2019/Most Runs"ESPNCricnfo 
  31. "Records/ICC World Cup 2019/Most Wickets"ESPNCricnfo 
  32. "Willow TV to Broadcast Cricket World cup 2019 Live in USA" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২২ 
  33. International Cricket Council। "Official Broadcasters"www.icc-cricket.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০১-২৮ 

বহিঃসংযোগ