আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট দল

জাতীয় ক্রীড়া দল

আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট দল (ইংরেজি: Ireland cricket team) ক্রিকেট দল হিসেবে আয়ারল্যান্ডের প্রতিনিধিত্ব করছে। রাজনৈতিক কারণে আইরিশ ক্রিকেট ইউনিয়ন ১৯৯৩ সালের পূর্ব পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের অনুমোদন পায়নি। ২০০৭ সালে প্রথমবারের মতো ক্রিকেট বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। আইরিশ ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে রয়েছে আইরিশ ক্রিকেট ইউনিয়ন। পেশাদার ক্রিকেটার এবং ক্রিকেট বিশ্বের অন্যত্র অবস্থানকারী খেলোয়াড়দের নিয়ে দলটি গঠিত হয়েছে। আইরিশ ক্রিকেট ইউনিয়নের স্থলাভিষিক্ত হয়েছে ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড। ২০০৯ সাল থেকে তারা খেলোয়াড়দের সাথে চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছে।[১] এছাড়াও, ২০১১ সালের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী ১৩ খেলোয়াড়কেও পূর্ণাঙ্গভাবে চুক্তিতে এনেছে সংস্থাটি।[২] ২০১৭ সালের ২২ জুন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের পূর্ণ সদস্য হিসেবে ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড অনুমোদন পায়।

আয়ারল্যান্ড
কর্মীবৃন্দ
টেস্ট অধিনায়কঅ্যান্ড্রু বালবির্নি
ওডিআই অধিনায়কপল স্টার্লিং
টি২০আই অধিনায়কপল স্টার্লিং
কোচহেইনরিখ মলান
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল
আইসিসি মর্যাদাপূর্ণ সদস্য (২০১৭) ওডিআই মর্যাদাসহ সহযোগী সদস্য (১৯৯৩)
আইসিসি অঞ্চলইউরোপ
বিশ্ব ক্রিকেট লিগপ্রযোজ্য নয়
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট
প্রথম আন্তর্জাতিক১০ সেপ্টেম্বর, ১৮৫৫ ব ইংল্যান্ডের ভদ্রলোকগণ, ডাবলিন

টেস্ট কিট

ওডিআই কিট

টি২০আই কিট

২২ জুলাই ২০২২ অনুযায়ী

ইতিহাস

সম্পাদনা

১৮৫৫ সালে আইরিশ দল প্রথম খেলতে নামে। ২০০৬ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একদিনের আন্তর্জাতিকে প্রথমবারের মতো অংশ নেয়। এ পর্যন্ত দলটি ৯৬ খেলায় অংশ নিয়ে ৪৪ জয়, ৪৪ পরাজয়, ৫ ফলাফলবিহীন এবং ৩টি খেলায় টাই করে।[৩]

আইসিসি’র অন্যতম সহযোগী সদস্য দেশ হিসেবে রয়েছে আয়ারল্যান্ড। টেস্ট ক্রিকেটের পূর্বের দলীয় অবস্থানই সহযোগী সদস্য। আন্তর্মহাদেশীয় কাপ এবং বিশ্বকাপে আইরিশদের দূর্দান্ত সফলতার কারণে দলটি শীর্ষস্থানীয় সহযোগী সদস্য দেশের মর্যাদা পেয়েছে।[৪] বর্তমানে আয়ারল্যান্ড প্রথম বিভাগের অন্যতম দল হিসেবে একদিনের আন্তর্জাতিক এবং টি২০ আন্তর্জাতিকের মর্যাদাপ্রাপ্ত দল।

সাফল্যগাঁথা

সম্পাদনা

আইসিসি ট্রফি, ইউরোপীয় ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশীপ এবং আইসিসি আন্তর্মহাদেশীয় কাপে অংশ নেয় আইরিশ দল। তন্মধ্যে ইউরোপীয় ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশীপ তিনবার জয় করে ও বর্তমান ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়ন। ২০০৫ সাল থেকে এ পর্যন্ত আইসিসি আন্তর্মহাদেশীয় কাপ জয় করেছে তিনবার। ২০০৯ সাল পর্যন্ত ইংল্যান্ডের কাউন্টির ফ্রেন্ডস প্রভিডেন্ট ট্রফিতেও অংশ নিয়েছে তারা।

আয়ারল্যান্ডের ক্রিকেটের ইতিহাসে উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে ১৯২৮, ১৯৬৯ এবং ২০০৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর। ২০০৭ সালের বিশ্বকাপে পাকিস্তান, বাংলাদেশকে পরাভূত করার পাশাপাশি জিম্বাবুয়ের সাথে টাই করে দ্বিতীয় পর্বে উত্তীর্ণ হয়। এছাড়াও ২০১১ সালের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে পরাজিত করেছিল দলটি।

আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে দূর্দান্ত সাফল্যে উজ্জ্বীবিত হয়ে ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড পূর্ণাঙ্গ সদস্য পদ লাভের জন্য আইসিসি বরাবরে আবেদন করেছে। তারা ২০০৮ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ বাছাইপর্ব এবং ২০০৯ সালের আইসিসি বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছে। এছাড়াও ২০০৯, ২০১০২০১৪ সালের বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতাসহ ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেটে অংশ নিয়েছে। পূর্ণাঙ্গ সদস্য হলে আয়ারল্যান্ড একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণকারী দেশের মর্যাদা লাভসহ টেস্ট ক্রিকেট খেলতে পারবে।[৫]

আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০

সম্পাদনা

দলটি ২০১৩ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ বাছাই-পর্বে শীর্ষস্থান অধিকার করে। এরফলে তারা বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত ২০১৪ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো ১৬ দলের অংশগ্রহণে অন্য দশটি পূর্ণাঙ্গ সদস্যদের সাথে অংশগ্রহণ করে। গ্রুপ-পর্বে আইরিশ দল জিম্বাবুয়ে, সংযুক্ত আরব আমিরাতনেদারল্যান্ডস ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।

প্রথম খেলায় শক্তিশালী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩ উইকেটে জয়ী হয়ে চমক দেখায়। ২১ মার্চ, ২০১৪ তারিখে সিলেটে অনুষ্ঠিত ২০১৪ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় গ্রুপ-পর্বে প্রতিপক্ষ নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ১৮৯ রানের সম্মানজনক স্কোর দাঁড় করালেও দলটি জয়লাভে সক্ষম হয়নি ও সুপার টেন পর্বে প্রবেশের পূর্বেই প্রতিযোগিতা থেকে দলকে বিদায় নিতে হয়।[৬]

প্রতিযোগিতার ইতিহাস

সম্পাদনা

বর্তমান সদস্য

সম্পাদনা

ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ সালে ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড ২৪জন খেলোয়াড়ের সাথে চুক্তিতে আবদ্ধ হয়। নিম্নের তালিকায় ২৪জন খেলোয়াড়সহ গত ১২ মাসে অংশগ্রহণকারী ক্রিকেটারদের তালিকা তুলে ধরা হলো। পূর্ণাঙ্গকালীন খেলার জন্য ক্যাটেগরি এ, এবং খণ্ডকালীন হিসেবে ক্যাটেগরি বি ও সি রয়েছে। ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবে অংশগ্রহণকারীদেরকে ক্যাটেগরি বি চুক্তিতে রাখা হয়েছে।[৭]

নির্দেশিকা
  • সি/জি = চুক্তির ধরন
  • এস/এন = ওডিআই ও টুয়েন্টি২০ স্কোয়াড নম্বর
শ/ন নাম বয়স ব্যাটিং স্টাইল বোলিং স্টাইল ঘরোয়া দল সি/জি ম্যাচ খেলেছে ক্যাপশন
Batters
15 Ross Adair ৩০ Right-handed Northern Knights C 6
63 Andrew Balbirnie ৩৩ Right-handed Right-arm off-break Leinster Lightning F/T 4 10 22 Test (C)
25 Murray Commins ২৭ Left-handed Munster Reds F/T 2 2
7 James McCollum ২৮ Right-handed Northern Knights F/T 4
10 Peter Moor ৩৩ Right-handed Munster Reds C 4
13 Harry Tector ২৪ Right-handed Right-arm off-break Leinster Lightning F/T 4 12 25
Wicket-keepers
20 Stephen Doheny ২৫ Right-handed North West Warriors F/T 9 3
5 Neil Rock ২৩ Left-handed Northern Knights F/T 1
3 Lorcan Tucker ২৭ Right-handed Leinster Lightning F/T 4 12 22
All-rounders
85 Curtis Campher ২৫ Right-handed Right-arm medium-fast Munster Reds F/T 4 12 22
64 Gareth Delany ২৭ Right-handed Right-arm leg-break Munster Reds F/T 3 24
50 George Dockrell ৩১ Right-handed Slow left-arm orthodox Leinster Lightning F/T 1 12 25
1 Paul Stirling ৩৩ Right-handed Right-arm off-break Northern Knights F/T 2 12 22 ODI, T20I (C) & Test (VC)
Pace bowlers
32 Mark Adair ২৮ Right-handed Right-arm fast-medium Northern Knights F/T 3 11 25
Matthew Foster ২৪ Left-handed Right-arm fast-medium Northern Knights C
71 Fionn Hand ২৫ Right-handed Right-arm medium Leinster Lightning F/T 1 10
41 Graham Hume ৩৩ Left-handed Right-arm fast-medium North West Warriors F/T 3 9 4
4 Tyrone Kane ২৯ Right-handed Right-arm medium-fast Munster Reds F/T 2
82 Josh Little ২৪ Right-handed Left-arm fast-medium Leinster Lightning F/T 9 19
Thomas Mayes ২৩ Right-handed Right-arm medium-fast Northern Knights
60 Barry McCarthy ৩১ Right-handed Right-arm medium Leinster Lightning F/T 18
34 Conor Olphert ২৭ Right-handed Right-arm fast-medium North West Warriors E 2
44 Craig Young ৩৪ Right-handed Right-arm fast-medium North West Warriors F/T 4 6
Spin bowlers
11 Matthew Humphreys ২১ Right-handed Slow left-arm orthodox Northern Knights C 1 2 1
Gavin Hoey ২২ Right-handed Right-arm leg-break Leinster Lightning C
35 Andy McBrine ৩১ Left-handed Right-arm off-break North West Warriors F/T 4 11 6
21 Simi Singh ৩৭ Right-handed Right-arm off-break Leinster Lightning F/T 2 6
86 Ben White ২৫ Right-handed Right-arm leg-break Northern Knights F/T 3 4

কোচিং কর্মকর্তা

সম্পাদনা
  • প্রধান কোচ: জন ব্রেসওয়েল
  • ম্যানেজার: রয় টরেন্স
  • সহকারী কোচ: পিটার জনস্টন
  • বোলিং কোচ: ব্রেট লি[৮]
  • স্ট্রেন্থ এন্ড কন্ডিশনিং কোচ: ব্রেন্ডন কনর
  • ফিজিও: কিরণ ও’রিলি

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "Cricket Ireland announce player contract details"। Cricketeurope4.net। ১৩ জানুয়ারি ২০১০। ২৩ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ আগস্ট ২০১২ 
  2. Coverdale, Brydon (৩ মার্চ ২০১১)। "Johnston says Ireland not ready for Tests"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১১ 
  3. Ireland Playing Record in ODI Matches, CricketArchive [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ] Retrieved 2 March 2011.
  4. Martin Williamson (১৭ অক্টোবর ২০০৮), Zimbabwe should avoid another banana skin, Cricinfo  Retrieved 3 November 2008.
  5. "Ireland in hot pursuit of Full Member status | Ireland Cricket News | ESPN Cricinfo"। Cricinfo.com। সংগ্রহের তারিখ ২৫ আগস্ট ২০১২ 
  6. Netherlands stun rivals to qualify, espncricinfo, retrieved: 17 April, 2014
  7. "McBrine, Chase added to Ireland 'A' list"। ESPNcricinfo। ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  8. Brett Lee: Ireland appoint ex-Australian star as bowling coach

পাদটীকা

সম্পাদনা

আরও দেখুন

সম্পাদনা

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা