ইউরোপীয় ক্রিকেট কাউন্সিল

আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ যোগ্যতা নির্ধারণ প্রতিযোগিতা বা আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ বাছাইপর্ব

ইউরোপীয় ক্রিকেট কাউন্সিল (ইংরেজি: European Cricket Council) হলো ইউরোপের টেস্ট-খেলোয়াড় ক্রিকেট দেশ, ইংল্যান্ড ও ওয়েলস এবং আয়ারল্যান্ড ছাড়া অন্য ইউরোপীয় দেশগুলিতে ক্রিকেটকে তদারকি করার জন্য একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা।

ইউরোপিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল
গঠিত১৯৯৭
সদরদপ্তরলর্ডস, লন্ডন, যুক্তরাজ্য
সদস্যপদ
৩৪ টি
নেতারিচার্ড হোল্ডসওরথ
প্রধান প্রতিষ্ঠান
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল
ওয়েবসাইটicc-europe.org

ইউরোপে ক্রিকেটের নজরদারি ও মানোয়ন্নের উদ্দেশ্যে ১৯৯৭ সালে ইসিসি গঠিত হয়।এটি আইসিসির নিয়ন্ত্রণে কাজ করে।

কার্যক্রমসম্পাদনা

ইসিসি হলো বিশ্বব্যাপী ক্রিকেট পরিচালনা পর্ষদ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) এর তত্ত্বাবধানে ইউরোপে আঞ্চলিক পর্ষদ।[১] এটি ইংল্যান্ডের লন্ডনে অবস্থিত এবং লর্ডসে সংগঠনের কার্যনির্বাহী সভা পরিচালনা করে। এর বর্তমান চেয়ারম্যান হলেন রজার নাইট

ইউরোপীয় মহাদেশ এবং ইসরায়েল (প্রায় সব খেলাধুলার মতো ক্রিকেটেও ইসরায়েলকে একটি ইউরোপীয় দেশ হিসাবে বিবেচনা করা হয়) জুড়ে ক্রিকেট খেলার প্রচার ও বিকাশের জন্য ইসিসি দায়বদ্ধ । ইউরোপ এমন একটি অঞ্চল যেখানে খেলাটি গতানুগতিকভাবে উন্নত হয়নি। ক্রিকেট ফুটবল এবং বাস্কেটবলের মতো আরও অনেক জনপ্রিয় ক্রীড়ার সাথে শক্ত প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হয়। সংগঠনটি এর মূল লক্ষ্যগুলি দেখাশোনা করে: অংশগ্রহণ, উচ্চ প্রদর্শনী, প্রতিযোগিতার কাঠামো, বাজার প্রশস্তকরণ এবং ক্রিকেটের শালীনতাকে উন্নীত করা।

জুনিয়র, আভ্যন্তর এবং মহিলা প্রতিযোগিতার পাশাপাশি ইউরোপীয় ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজনের জন্য ইসিসি দায়বদ্ধ। প্রতিযোগিতাটি আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের যোগ্যতা বাছাইপর্বের অংশ।

ইসিসি সদস্য দেশগুলিতে উন্নয়নমূলক কর্মসূচি যেমন:কোচিং, আম্পায়ারিং, প্রশিক্ষণ, ক্লিনিক এবং ক্রীড়া ওষুধের পরিচালনা এবং সহায়তা করে। এই কর্মসূচিগুলি আইসিসি বিকাশ কর্মসূচির মূল উদ্দেশ্যগুলির কাঠামোর মধ্যে থাকা ইউরোপীয় উন্নয়ন ব্যবস্থাপক এবং একটি ছোট্ট কর্মচারীর দলের দায়িত্ব। আইসিসির পাঁচটি আঞ্চলিক কর্মসূচির দায়িত্ব প্রতিটি অঞ্চলের পূর্ণ সদস্যের উপর পড়ে, এক্ষেত্রে ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি), যারা পরিবর্তিতভাবে মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) সাথে জড়িত।

ইসিবি ও এমসিসির এবং ক্রমবর্ধমান বাণিজ্যিক পৃষ্ঠপোষকতার সহায়তায় আইসিসি এই সংগঠনটির অর্থায়ন করে।

সদস্যসমূহসম্পাদনা

পূর্ণ সদস্যসম্পাদনা

ওডিআই এবং টি২০আই মর্যাদাসম্পন্ন সহযোগী সদস্যসম্পাদনা

টি২০আই মর্যাদাসম্পন্ন সহযোগী সদস্যসম্পাদনা

  1. সুইজারল্যান্ড ১৯৮৫ সালে ভর্তি হয়েছিল, কিন্তু ২০১২ সালে বহিষ্কৃত হয়েছিল,[২][৩] জুলাই ২০২১ এ পুনরায় ভর্তি হওয়ার আগে.[৪]


মানচিত্রসম্পাদনা

১৯ জুলাই ২০১৯ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
 
ইউরোপে অবস্থিত আইসিসির সদস্য
     পূর্নাঙ্গ আইসিসি সদস্য (২)
     ওডিআই মর্যাদাসহ আইসিসির সহযোগী সদস্য (২)
     সহযোগী আইসিসি সদস্য (২৯) – ইসরায়েলকে দেখানো হয়নি
     সাবেক অথবা বরখাস্তকৃত সদস্য (২)
     সদস্য নয়

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Page about ICC Europe (International Cricket Council in Europe)"। ২৪ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুন ২০১৬ 
  2. "ICC expel Switzerland"। Cricket Switzerland। ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুলাই ২০২০ 
  3. "When Switzerland became the first country to have its ICC affiliate status revoked"। Cricket Country। ২৬ জুন ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুলাই ২০২০ 
  4. "ICC welcomes Mongolia, Tajikstan, and Switzerland as new Members"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০২১ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

টেমপ্লেট:Sports governing bodies in Europe