প্রধান মেনু খুলুন

মৌলভীবাজার জেলা

বাংলাদেশের সিলেট বিভাগের একটি জেলা

মৌলভীবাজার জেলা (সিলেটী:ꠝꠃꠟꠜꠤꠛꠣꠎꠣꠞ) বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। মৌলভীবাজার পৌরসভাকে বাংলাদেশের অন্যতম সুন্দর পৌরসভা হিসাবে বিবেচনা করা হয় | প্রশাসনের উদ্যোগে এই পৌরসভার ব্যাপক কর্মকান্ড চলছে | বর্তমান পৌরসভাকে আরো আধুনিক ও মানসম্পন্ন নাগরিক সুবিধা দিতে কর্তৃপক্ষ ব্যাপক পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে |

মৌলভীবাজার
জেলা
বাংলাদেশে মৌলভীবাজার জেলার অবস্থান
বাংলাদেশে মৌলভীবাজার জেলার অবস্থান
মৌলভীবাজার সিলেট বিভাগ-এ অবস্থিত
মৌলভীবাজার
মৌলভীবাজার
মৌলভীবাজার বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
মৌলভীবাজার
মৌলভীবাজার
বাংলাদেশে মৌলভীবাজার জেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°৩০′ উত্তর ৯১°৫০′ পূর্ব / ২৪.৫০০° উত্তর ৯১.৮৩৩° পূর্ব / 24.500; 91.833স্থানাঙ্ক: ২৪°৩০′ উত্তর ৯১°৫০′ পূর্ব / ২৪.৫০০° উত্তর ৯১.৮৩৩° পূর্ব / 24.500; 91.833 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগসিলেট বিভাগ
আয়তন
 • মোট২৭৯৯ কিমি (১০৮১ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১[১])
 • মোট১৯,৯৪,২৫২
 • জনঘনত্ব৭১০/কিমি (১৮০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৫১.১%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
৬০ ৫৮
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট Edit this at Wikidata

পরিচ্ছেদসমূহ

ভৌগোলিক সীমানাসম্পাদনা

উত্তরে সিলেট জেলার বালাগঞ্জ উপজেলা, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা, গোলাপগঞ্জ উপজেলাবিয়ানীবাজার উপজেলা; দক্ষিণে ত্রিপুরা রাজ্য (ভারত); পূর্বে কাছাড় (ভারত)এবং পশ্চিমে হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলাবাহুবল উপজেলা। জেলার প্রধান নদ-নদী ৬ (ছয়)টি- মনু, বরাক, ধলাই, সোনাই, জুড়ী ও কুশিয়ারা।

প্রশাসনিক এলাকাসমূহসম্পাদনা

 
ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী মৌলভীবাজার জেলার স্বাগত মিনার

এই জেলা সাতটি উপজেলা নিয়ে গঠিত; এগুলো হলোঃ

ইতিহাসসম্পাদনা

শাহ মোস্তফা-এর বংশধর মৌলভী সৈয়দ কুদরতউল্লাহ অষ্টাদশ শতাব্দীর মাঝামাঝি মনু নদীর উত্তর তীরে কয়েকটি দোকানঘর স্থাপন করে ভোজ্যসামগ্রী ক্রয় বিক্রয়ের সুযোগ সৃষ্টি করেন। মৌলভী সৈয়দ কুদরতউল্লাহ প্রতিষ্ঠিত এ বাজারে নৌ ও স্থলপথে প্রতিদিন লোকসমাগম বৃদ্ধি পেতে থাকে। ক্রেতা-বিক্রেতার সমাগমের মাধ্যমে মুখে মুখে ছড়িয়ে পড়ে মৌলভীবাজারের খ্যাতি।

কীর্তিমান ব্যক্তিত্ব : হয়রত শাহ মোস্তফা (র:), মৌলভী সৈয়দ কুদরতউল্লাহ, মুক্তিযুদ্ধের বীর সেনানী হামিদুর রহমান,কবি মুজাফফর খান, সৈয়দ মুজতবা আলী, জাতীয় পরিষদ সিলেটের প্রথম মহিলা সদস্য বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী, সাবেক স্পীকার হুমায়ুন রশীদ চৌধুরী, অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, গবেষক ড. রঙ্গলাল সেন প্রমুখ।

মুক্তিযুদ্ধ : মুক্তিযুদ্ধে মৌলভীবাজার ছিল ৪ নং সেক্টরের অধীন। সেক্টর কমান্ডার ছিলেন সি.আর.দত্ত। রাজনগর পাঁচগাঁও এর গণহত্যা, বড়লেখা ও কুলাউড়ার বধ্যভূমিতে নারকীয় হত্যাযজ্ঞ আজও মানুষকে কাঁদায়। ৮ ডিসেম্বর মৌলভীবাজার শত্রুমুক্ত হয়।

কৃতি ব্যক্তিত্বসম্পাদনা

ধর্মপ্রচারক

খ্যাতিমান অর্থনীতিবিদ ও রাজনীতিবিদ

বাঙালি সাহিত্যিক

ইতিহাসবিদ

আন্তর্জাতিক লোকবিজ্ঞানী

লোক গবেষক

বীর মুক্তিযোদ্ধা

আইজি প্রিজন

অর্থনীতিসম্পাদনা

মৌলভীবাজার এর অর্থনীতির প্রধান ভীত হলো চা শিল্প ও রাবার শিল্প । এ জেলায় প্রচুর পরিমানে চা ও রাবার উৎপাদিত হয় । এ ছাড়াও এ জেলার অর্থনীতিতে এই জেলার পর্যটন শিল্পও বিশেষ ভাবে উল্ল্যেখযোগ্য, তা ছাড়াও এখানে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন ধরনের ছোট বড় শিল্প যা মৌলভীবাজার জেলার অর্থনীতিকে করছে সমৃদ্ধশালী ।

চিত্তাকর্ষক স্থানসম্পাদনা

 
মৌলভীবাজার জেলায় অবস্থিত চা-কন্যা স্থাপত্য
  • শাহ মোস্তফা-এর মাজার - মৌলভীবাজার শহরের কেন্দ্রস্থলের বেড়ীরপাড়ের দক্ষিণ তীর;
  • রাজা সুবিদ নারায়ণ - রাজনগরের শেষ রাজা।
  • ঐতিহাসিক কমলারানীর দিঘি, রাজনগর।
  • খাজা ওসমান - সপ্তদশ শতকের বাংলার শেষ পাঠান সেনাপতি;
  • বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান-এর কবর - কমলগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী গ্রাম আমবাসা;
  • চা বাগানসমূহ;
  • মাধবকুন্ড জলপ্রপাত - বড়লেখা;
  • হাকালুকি হাওর,
  • খোজার মসজিদ;
  • গাছপীর আব্রু মিয়ার মাজার - সিরাজনগর;
  • ইউনুছ পাগলার মাজার - সাতগাও;
  • হাইল হাওর - শ্রীমঙ্গল ;
  • তমাল তলা - সাতগাও রুস্তুমপুর।
  • মৌলোভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলায় অবস্তিত বাংলাদেশের বৃহত্তম একমাত্র প্রাকৃতিক জলপ্রপাত মাধবকুন্ড এবং মাধবকুন্ড ইকো পার্ক এবং কমলগঞ্জে হাম হাম জলপ্রপাত রয়েছে।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "এক নজরে জেলা"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৪  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)

বহিঃসংযোগসম্পাদনা