প্রধান মেনু খুলুন

ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যান

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

স্যার ডোনাল্ড জর্জ ব্র্যাডম্যান, (ইংরেজি: Don Bradman; ২৭ আগস্ট ১৯০৮ - ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০০১) যিনি প্রায়শই দ্য ডন নামে অভিহিত, ১৯২৮ থেকে ১৯৪৮ সাল অব্দি খেলা বিখ্যাত অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ছিলেন।

স্যার ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যান
DonaldBradman.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামডোনাল্ড র্জজ ব্র্যাডম্যান
জন্ম(১৯০৮-০৮-২৭)২৭ আগস্ট ১৯০৮
কোওটামুন্ড্রা, নিউ সাউথ ওয়েলস, অস্ট্রেলিয়া
মৃত্যু২৫ ফেব্রুয়ারি ২০০১(2001-02-25) (বয়স ৯২)
কেনসিংটন পার্ক, সাউথ অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রেলিয়া
ডাকনামদ্যা ডন, দ্যা বয় ফ্রম বোওরাল, ব্রাড্ডেলস্
উচ্চতা৫ ফু ৮ ইঞ্চি (১৭৩ সেমি)[১]
ব্যাটিংয়ের ধরনডান-হাতি
বোলিংয়ের ধরনডান-হাতি লেগ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১২৪)
৩০ নভেম্বর ১৯২৮ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট১৮ আগস্ট ১৯৪৮ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯২৭-৩৪নিউ সাউথ ওয়েলস
১৯৩৫-৪৯সাউথ অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৫২ ২৩৪
রানের সংখ্যা ৬,৯৯৬ ২৮,০৬৭
ব্যাটিং গড় ৯৯.৯৪ ৯৫.১৪
১০০/৫০ ২৯/১৩ ১১৭/৬৯
সর্বোচ্চ রান ৩৩৪ ৪৫২*
বল করেছে ১৬০ ২১১৪
উইকেট ৩৬
বোলিং গড় ৩৬.০০ ৩৭.৯৭
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/৮ ৩/৩৫
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩২/– ১৩১/১
উৎস: ক্রিকইনফো, ২২ জানুয়ারি ২০১৭

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

২৭ আগস্ট,১৯০৮ সালে নিউ সাউথ ওয়েলসের বাউরালে তার জন্ম। ২৩৪টি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় ৯৫.১৪ গড়ে ২৮০৬৭ রান এবং ৫২ টেস্ট ম্যাচের ক্যারিয়ারে ৬৯৯৬ রান। গড় ৯৯.৯৪।

১৯ বছর বয়েসে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেকের পর নিউ সাউথ ওয়েলসের হয়ে ব্যাট হাতে ম্যাচের পর ম্যাচ পারফর্ম করে যাচ্ছিলেন 'বাউরালের বিস্ময়-বালক', অবশেষে সুযোগ এলো জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামার। ডাক পেলেন ১৯২৮-২৯ মৌসুমে সফরকারী ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের দলে। ব্রিসবেনের ঐ টেস্টে অস্ট্রেলিয়া পরাজিত হলো ৬৭৫ রানের সুবিশাল ব্যবধানে। ডন করলেন দু ইনিংসে ১৮ এবং ১। বাদ পড়লেন দ্বিতীয় টেস্টের দল থেকে- সেই প্রথম এবং সেই শেষ। তৃতীয় টেস্টের দলে ডাক পেয়ে করলেন ৭৯ এবং ১১২।

সম্মাননাসম্পাদনা

ডন ব্র্যাডম্যানকে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যাটসম্যান বলে অভিহিত করা হয়। টেস্ট ক্রিকেটে ব্র্যাডম্যানের ৯৯.৯৪ ব্যাটিং গড়কে বড় ধরনের যে-কোন খেলাধুলার সব থেকে বড় অর্জন বলে অভিহিত করা হয়।

৯২ বছর বয়সে জীবনের সেঞ্চুরি পুরোবার আগেই ব্র্যাডম্যান মারা যান ২৫ ফেব্রুয়ারি,২০০১। তার আগে ১৯৪৯ সালে অর্জন করলেন সম্মানসুচক 'নাইটহুড'। উইজডেন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ক্রিকেটারের পুরস্কারটি একাই দশবার এবং গ্যারি সোবার্স আটবার লাভ করেছিলেন। এছাড়া, অন্য কোন খেলোয়াড়ই তিনবারের বেশি লাভ করতে পারেননি। ২০০০ সালে শতাব্দীর সেরা অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ড দলে তাকে অধিনায়ক হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[২]

১১ জুলাই, ১৯৩০ তারিখে লর্ডসে অনুষ্ঠিত অ্যাশেজ সিরিজের তৃতীয় টেস্টে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ক্রিকেটের ইতিহাসে পাঁচ ব্যাটসম্যানের মধ্যে তৃতীয় ব্যক্তি হিসেবে মধ্যাহ্নবিরতীর পূর্বেই সেঞ্চুরি করার রেকর্ড গড়েন।[৩] অন্যরা হচ্ছেন - ভিক্টর ট্রাম্পার (১৯০২), চার্লি ম্যাককার্টনি (১৯২৬), মজিদ খান (১৯৭৬), ডেভিড ওয়ার্নার (২০১৬), শিখর ধাওয়ান (২০১৮)।

বিতর্কসম্পাদনা

ব্রাডম্যান তার সব ম্যাচ গুলো অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের মাটিতে খেলেছেন। ভারতীয় উপমহাদেশের স্পিন বহুল ট্র্যাকে তার খেলা হয়নি। ভারতের বিরুদ্ধে ক্রিকেট জীবনের অন্তিমে এসে ঘরের মাঠে একটি টেস্ট সিরিজ খেলেন। নবাগত ভারতীয় দলের তরুন (পরবর্তীতে যিনি বিখ্যাত হয়েছেন) বিজয় হাজারে তার উইকেট পান।

অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন ফাস্ট বোলার রডনি হগ মনে করেন এই যুগে ক্রিকেট খেললে নাকি বিশ্বের সেরা গড়ে পৌঁছতে পারতেন না ডন ব্র্যাডম্যান। তিনি বলেন, আমি জানি এটা অসম্মানের। কিন্তু স্ট্যাটিসটিক্স দেখে আমার মনে হল আজকের যুগে খেললে ব্র্যাডম্যান এতটা সফল হত না।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

পূর্ণাঙ্গ টেস্ট খেলোয়াড়ী জীবন শেষে ব্যাটিং গড়
  ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যান
৯৯.৯৪
  গ্রেইম পোলক
৬০.৯৭
  জর্জ হ্যাডলি
৬০.৮৩
  হার্বার্ট সাটক্লিফ
৬০.৭৩
  এডি পেন্টার
৫৯.২৩
  কেন ব্যারিংটন
৫৮.৬৭
  এভারটন উইকস
৫৮.৬১
  ওয়ালি হ্যামন্ড
৫৮.৪৫
  গারফিল্ড সোবার্স
৫৭.৭৮
  জ্যাক হবস
৫৬.৯৪
  ক্লাইড ওয়ালকট
৫৬.৬৮
  লেন হাটন
৫৬.৬৭

উৎস: ক্রিকইনফো
যোগ্যতা: পূর্ণাঙ্গ খেলোয়াড়ী জীবনে কমপক্ষে ২০ ইনিংস।
  1. "Obituaries – Sir Donald Bradman"The Telegraph। Telegraph Media Group। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০০১। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০১৪ 
  2. "Panel selects cricket team of the century"Australian Broadcasting Corporation। ২০০০-০১-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৬-০৬ 
  3. "Hundred before lunch"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১৭ 
  4. "বিতর্ক" 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
ভিক রিচার্ডসন
বিল ব্রাউন
অস্ট্রেলীয় টেস্ট ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯৩৬/৩৭-১৯৩৮
১৯৪৬/৪৭-১৯৪৮
উত্তরসূরী
বিল ব্রাউন
লিন্ডসে হ্যাসেট
পূর্বসূরী
বিল ডোলিং
বব প্যারিস
অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি
১৯৬০-১৯৬৩
১৯৬৯-১৯৭২
উত্তরসূরী
ইউয়ার্ট ম্যাকমিলান
টিম কল্ডওয়েল
রেকর্ড
পূর্বসূরী
অ্যান্ডি স্যান্ডহাম
বিশ্বরেকর্ড – টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান
৩৩৪ ব ইংল্যান্ড, লিডস, ১৯৩০
উত্তরসূরী
ওয়ালি হ্যামন্ড
পূর্বসূরী
বিল পন্সফোর্ড
প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান
৪৫২* নিউ সাউথ ওয়েলস ব কুইন্সল্যান্ড, সিডনি, ১৯২৯-৩০
উত্তরসূরী
হানিফ মোহাম্মদ