ফুটবল ক্লাব ইন্তারনাজিওনালে মিলানো

(F.C. Internazionale Milano থেকে পুনর্নির্দেশিত)

এফ.সি. ইন্টারন্যাজিওন্যালে মিলানো সংক্ষেপে ইন্টারন্যাজিওন্যালে, ইন্টার বা ইন্টারমিলান ইতালীর মিলান ভিত্তিক পেশাদার ফুটবল দল। ১৯০৮ সালে ক্লাবটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে একমাত্র দল হিসেবে প্রতি বছর শীর্ষ বিভাগ 'সেরি এ' তে খেলার গৌরব অর্জন করে।

ইন্টারন্যাজিওন্যালে
পূর্ণ নামএফ.সি. ইন্টারন্যাজিওন্যালে মিলানো
Football Club Internazionale Milano SpA
ডাকনামNerazzurri (কালো-নীল)
La Beneamata(প্রিয় (The Cherished))
প্রতিষ্ঠিত৯ মার্চ, ১৯০৮
মাঠসান সিরো
(স্তেদিও গুইসেপ মিয়াজ্জা), মিলান
ধারণক্ষমতা৮০,০৭৪
চেয়ারম্যানচীন স্টিভেন ঝ্যাং
প্রধান কোচইতালি আন্তোনিও কন্তে
লীগসিরি এ
২০১৮-১৯সিরি এ, ৪র্থ

দলটি কালো নীল স্ট্রাইপ জার্সি, এবং সাদা শর্টস, সাদা মোজায় খেলে থাকে। দলটির অর্জনে রয়েছে ১৫টি সেরি এ শিরোপা। একমাত্র এসি মিলান এবং জুভেন্টাস এর চাইতে বেশি বার শিরোপা জিততে পেরেছে। কোপা ইতালিয়া এবং ইতালীয় সুপার কাপ মিলিয়ে শিরোপার সংখ্যা ২৯টি।

১৯৬৩-৬৪ এবং ১৯৬৪-৬৫ মৌসুমে দলটি পরপর দুইবার ইউরোপিয়ান কাপ জয় করে। এছাড়া দলটির সংগ্রহে রয়েছে ৩টি উয়েফা কাপ এবং দু'টি বিশ্ব ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা। ইন্টার মিলান ইউরোপের এলিট ক্লাবগুলোর গ্রুপ জি-১৪ এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।

ইতিহাসসম্পাদনা

 
স্কুডেট্টো জয়ী প্রথম ইন্টার দল, ১৯০৯-১০

১৯০৮ সালে এসি মিলান ভেঙ্গে ইন্টার মিলান গঠিত হয়। প্রথম বছরেই তারা স্কুডেট্টো জিতে নেয়। এ দলের কোচ কাম অধিনায়ক ছিলেন ভার্জিলিও ফসেত্তি, যিনি প্রথম বিশ্বযুদ্ধে প্রাণ হারান। পরবর্তী শিরোপা জিততে ১০ বছর অপেক্ষা করতে হয়।

প্রথম কোপা ইতালিয়া শিরোপো জয় করে ১৯৩৮-৩৯ সালে। ১৯৪০ সালে দলটি জয় করে পঞ্চম স্কুডেট্টো। এ দলটির নেতৃত্বে ছিলেন গিওসেপে মিয়েজ্জা, যার নাম অনুসারে পরবর্তীকালে সান সিরো স্টেডিয়ামের নামকরণ করা হয়।

খেলোয়াড়সম্পাদনা

১৭ জানুয়ারি ২০২০ অনুযায়ী[১]

বর্তমান দলসম্পাদনা

নোট: পতাকা জাতীয় দল নির্দেশ করে যা ফিফা যোগ্যতার নিয়ম অধীন নির্ধারিত হয়েছে। খেলোয়াড়দের একাধিক জাতীয়তা থাকতে পারে যা ফিফা ভুক্ত নয়।

নং অবস্থান খেলোয়াড়
  গো সামির হান্দানোভিচ (অধিনায়ক)
  দিয়েগো গোদিন
  রবার্তো গালিয়ার্দিনি
  স্তেফান দে ভ্রি
  আলেক্সিস সানচেজ (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ধারে)
  মাতিয়াস ভেসিনো
  রোমেলু লুকাকু
১০   লাউতারো মার্তিনেজ
১১   ভিক্টর মোজেস (চেলসি থেকে ধারে)
১২   স্তেফানো সেন্সি (সাসসুয়োলো থেকে ধারে)
১৩   আন্দ্রেয়া রানোক্কিয়া (সহ-অধিনায়ক)
১৫   অ্যাশলে ইয়াং
১৮   কোয়াদ্বো আসামোয়াহ
১৯   ভ্যালেন্তিনো লাজারো
২০   বোর্হা ভায়েরো
নং অবস্থান খেলোয়াড়
২১   ফেদেরিকো ডিমার্কো
২৩   নিকোলো বারেলা (ক্যালিয়ারি থেকে ধারে)
২৪   ক্রিস্টিয়ান এরিকসেন
২৭   গো দানিয়েলে পাদেলি
৩০   সেবাস্তিয়ানো এস্পোসিতো
৩১   লরেঞ্জো পিরোলা
৩২   লুসিয়েঁ আগুমে
৩৩   দানিলো দ'আম্ব্রোসিও
৩৪   ক্রিস্তিয়ানো বিরাঘি (ফিওরেন্তিনা থেকে ধারে)
৩৭   মিলান স্ক্রিনিয়ার
৪৬   গো তোমাসো বের্নি
৭৭   মার্সেলো ব্রোজোভিচ
৮৭   আন্তোনিও কান্দ্রেভা
৯৫   আলেসান্দ্রো বাস্তোনি

ধারে অন্য দলেসম্পাদনা

নোট: পতাকা জাতীয় দল নির্দেশ করে যা ফিফা যোগ্যতার নিয়ম অধীন নির্ধারিত হয়েছে। খেলোয়াড়দের একাধিক জাতীয়তা থাকতে পারে যা ফিফা ভুক্ত নয়।

নং অবস্থান খেলোয়াড়
  গো মিচেলে ডি গ্রেগোরিও (পোর্দেনোনে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  গো নিকোলা তিন্তোরি (গোজানোতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  গো আন্দ্রেই রাদু (জেনোয়াতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  গো গ্যাব্রিয়েল ব্রাজাও (আলবাসেতেতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  নিকোলো কোরাদো (আরেজোতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  দাভিদে জুগারো (অলবিয়াতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  মাই রোরিচ (আইক্লিনিক সেরেদ'এ ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  ডালবার্ট হেনরিক (ফিওরেন্তিনায় ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  আন্দ্রিউ গ্রাভিও (আস্কোলিতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  লরেঞ্জো তাসি (আরেজোতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  লরেঞ্জো গাভিওলি (রাভেনাতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  দাভিদে গ্রাসিনি (রাভেনাতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  আন্দ্রেয়া পালাজ্জি (মঞ্জাতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  মার্কো পম্পেত্তি (সাম্পদোরিয়ায় ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  মাতেও রোভার (সুদতিরোলে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  অ্যাক্সেল মোহামেদ বাকায়োকো (সেন্ট গ্যালেনে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
নং অবস্থান খেলোয়াড়
  রাজা নাইনগোলান (ক্যালিয়ারিতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  জিয়ান এমার্স (ওয়াসল্যান্ড-বেভারেনে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  হোয়াও মারিও (লোকোমোটিভ মস্কোতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  রিগোবের্তো রিভাস (রেজিনাতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  মাতেও পোলিতানো (নাপোলিতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  ভিন্সেঞ্জো তোমাসোনে (কার্পিতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  এডি সালসেদো (হেলাস ভেরোনাতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  আন্দ্রেয়া পিনামন্তি (জেনোয়াতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  স্যামুয়েলে লংগো (দেপোর্তিভো লা করুনিয়াতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  ফেলিচে দ'আমিকো (সাম্পদোরিয়ায় ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  ফেদেরিকো পেলে (রেনাতেতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  ইয়ান কারামোহ (পার্মাতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  ইভান পেরিশিচ (বায়ার্নে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  মাউরো ইকার্দি (পিএসজিতে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)
  ফাকুন্দো কলিদিও (সিন্ত-ত্রুইদেনে ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত)

সমর্থক এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতাসম্পাদনা

ইন্টার মিলান ইতালির সবচেয়ে জনপ্রিয় দল । মোট সমর্থকদের শতকরা ৪১ ভাগ দলটিকে সমর্থন করে থাকেন ।ঐতিহাসিকভাবে এসি মিলান দক্ষিণ ইতালীর শহরের শ্রমিক শ্রেণী সমর্থিত দল ছিল। পক্ষান্তরে অন্য বড় দল ইন্টার ছিল উচ্চবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেণী সমর্থিত দল। তবে সাম্প্রতিক সময়ে দল দুটি ভিন্ন রাজনৈতিক বলয়ে অবস্থান করছে, কেননা বর্তমানে মিলানের মালিক হচ্ছেন গণমাধ্যম ব্যবসায়ী ও রক্ষণশীল দল থেকে নির্বাচিত ইতালির সাবেক প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বার্লুসকনি, এবং ইন্টারের মালিক মধ্য-বামপন্থী তেল ব্যবসায়ী ম্যাসিমো মোরাত্তি। তবুও এসি মিলানের সমর্থকের এখনও সাধারণত বামপন্থী এবং ইন্টারের সমর্থকেরা ডানপন্থী হয়ে থাকেন

 
সান সিরোতে ইন্টার সমর্থক

ইন্টার মিলান ইতালির সবচেয়ে জনপ্রিয় দল । মোট সমর্থকদের শতকরা ৪১ ভাগ দলটিকে সমর্থন করে থাকেন ।ঐতিহাসিকভাবে এসি মিলান দক্ষিণ ইতালীর শহরের শ্রমিক শ্রেণী সমর্থিত দল ছিল। পক্ষান্তরে অন্য বড় দল ইন্টার ছিল উচ্চবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেণী সমর্থিত দল। তবে সাম্প্রতিক সময়ে দল দুটি ভিন্ন রাজনৈতিক বলয়ে অবস্থান করছে, কেননা বর্তমানে মিলানের মালিক হচ্ছেন গণমাধ্যম ব্যবসায়ী ও রক্ষণশীল দল থেকে নির্বাচিত ইতালির সাবেক প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বার্লুসকনি, এবং ইন্টারের মালিক মধ্য-বামপন্থী তেল ব্যবসায়ী ম্যাসিমো মোরাত্তি। তবুও এসি মিলানের সমর্থকের এখনও সাধারণত বামপন্থী এবং ইন্টারের সমর্থকেরা ডানপন্থী হয়ে থাকেন ।

 
২০০৭ সালে ইন্টার সমর্থকদের উদযাপন

এসি মিলানের সাথে ইন্টারের প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতা ঐতিহাসিকভাবে চলে আসছে ।দু'দলের সমর্থকদের মধ্যে হাঙ্গামা বেশ নিয়মিত ঘটনা ।২০০৪-০৫ সালের চ্যাম্পিয়নস লীগে দু'দলের কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচটি সমর্থক গোলযোগের কারণে একবার পরিত্যক্ত হয় । জুভেন্টাসের সাথেও ইন্টারের রয়েছে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতা । এ দু'দলের ম্যাচকে 'ডার্বি-ডি-ইতালিয়া' বলা হয়

অর্জনসম্পাদনা

কোম্পানী হিসেবে ইন্টারন্যাজিওন্যালেসম্পাদনা

২০০৫-০৬ সালে ধনী ক্লাবগুলোর কাতারে ইন্টারন্যাজিওন্যালের অবস্থান ছিল ৭ম । দলটির আয়ের পরিমাণ ছিল ২০৬ মিলিয়ন ইউরো

সার্ট স্পন্সর এবং প্রস্তুতকারীসম্পাদনা

মেয়াদ পোশাক প্রস্তুতকারী সার্ট স্পন্সর
১৯৭৯-৮০ পুমা নেই
১৯৮১-৮২ ইনো-হিট
১৯৮২-৮৬ মেক স্পোর্ট মিসুরা
১৯৮৬-৮৮ লে কক স্পোর্টলিফ
১৯৮৮-৯১ ইউনিস্পোর্ট
১৯৯১-৯২ আমব্রো ফিটজার
১৯৯২-৯৫ ফিরুচ্চি
১৯৯৫-৯৮ পিরেল্লি
১৯৯৮– নাইকি পিরেল্লি

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Squadra" (Italian ভাষায়)। FC Internazionale Milano। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৭-১০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা