ফেনী জংশন রেলওয়ে স্টেশন

ফেনী জংশন রেলওয়ে স্টেশন বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের ফেনী জেলার ফেনী সদর উপজেলায় অবস্থিত একটি রেলওয়ে স্টেশন[১][২]

ফেনী জংশন রেলওয়ে স্টেশন
বাংলাদেশের রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানফেনী সদর উপজেলা ফেনী জেলা, চট্টগ্রাম বিভাগ
 বাংলাদেশ
স্থানাঙ্ক২৩°০০′৪৮″ উত্তর ৯১°২৪′১৩″ পূর্ব / ২৩.০১৩৩৩৯৮° উত্তর ৯১.৪০৩৫৩৬৫° পূর্ব / 23.0133398; 91.4035365
মালিকানাধীনবাংলাদেশ রেলওয়ে
পরিচালিতবাংলাদেশ রেলওয়ে
লাইন
ট্রেন পরিচালকপূর্বাঞ্চল রেলওয়ে
নির্মাণ
গঠনের ধরনমানক
পার্কিংআছে
সাইকেলের সুবিধাআছে
প্রতিবন্ধী প্রবেশাধিকারআছে
ইতিহাস
চালু১ জুলাই ১৮৯৫
অবস্থান

ইতিহাসসম্পাদনা

১৮৯২ সালে ইংল্যান্ডে গঠিত আসাম বেঙ্গল রেলওয়ে কোম্পানি এদেশে রেলপথ নির্মাণের দায়িত্ব নেয়। ১৮৯৫ সালের ১ জুলাই চট্টগ্রাম থেকে কুমিল্লা ১৫০ কিমি মিটারগেজ লাইন এবং লাকসাম থেকে চাঁদপুর পর্যন্ত ৬৯ কিমি রেললাইন জনসাধারণের জন্য খোলা হয়।[৩] চট্টগ্রাম-কুমিল্লা লাইনের স্টেশন হিসেবে ফেনী রেলওয়ে স্টেশন তৈরি করা হয়। ১৯২৯ সালে ফেনী থেকে বিলোনিয়া হয়ে আগরতলা রেলপথ তৈরি হলে ফেনী জংশন স্টেশনে পরিণত হয়।[৪]

পরিষেবাসম্পাদনা

ফেনী রেলওয়ে স্টেশন দিয়ে চলাচলকারী ট্রেনের তালিকা নিম্নে দেওয়া হলো:[৫]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "ফেনী রেলওয়ে স্টেশন পরিনত হয়েছে পকেটমার ও নেশাখোরদের অভয়ারণ্যে"বাংলাদেশ প্রতিদিন। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৮ 
  2. "তীব্র পানির সংকটে ফেনী রেলওয়ে স্টেশন: যাত্রীদের দুর্ভোগ"আমাদের কন্ঠ। ২০১৯-১০-২২। ২০২১-০৫-০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৮ 
  3. "রেলওয়ে - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৪ 
  4. থেকে, মো: ওমর ফারুক, ফেনী। "ফেনী-বিলোনিয়া রেলপথ ২৩ বছর পর চালু হচ্ছে"DailyInqilabOnline। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৮ 
  5. রিপোর্টার, স্টাফ (২০১৯-০২-২৪)। "ফেনী ট্রেনের নাম ও সময়সূচি | MorningRinger"। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৮