২০২২–২৩ অস্ট্রেলিয়া পুরুষ ক্রিকেট দলের ভারত সফর

অস্ট্রেলিয়া পুরুষ ক্রিকেট দল ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর, ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসে চারটি টেস্ট, তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক ও তিনটি টোয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক (টি২০আই) ম্যাচ খেলার জন্য ভারত সফর করে।[১][২][৩] টেস্ট ম্যাচগুলো ২০২১–২০২৩ আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে খেলা হয়।[৪]

২০২২–২৩ অস্ট্রেলিয়া পুরুষ ক্রিকেট দলের ভারত সফর
 
  ভারত অস্ট্রেলিয়া
তারিখ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ – ২২ মার্চ ২০২৩
অধিনায়ক রোহিত শর্মা প্যাট কামিনস (টেস্ট)
স্টিভেন স্মিথ (ওডিআই)
অ্যারন ফিঞ্চ (টি২০আই)
টেস্ট সিরিজ
ফলাফল ৪ ম্যাচের সিরিজে ভারত ২–১ ব্যবধানে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান বিরাট কোহলি (২৯৭) উসমান খাওয়াজা (৩৩৩)
সর্বাধিক উইকেট রবিচন্দ্রন অশ্বিন (২৫) নাথান লায়ন (২২)
সিরিজ সেরা খেলোয়াড় রবিচন্দ্রন অশ্বিন (ভারত)
রবীন্দ্র জাদেজা (ভারত)
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩ ম্যাচের সিরিজে অস্ট্রেলিয়া ২–১ ব্যবধানে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান লোকেশ রাহুল (১১৬) মিচেল মার্শ (১৯৪)
সর্বাধিক উইকেট মোহাম্মদ সিরাজ (৫) মিচেল স্টার্ক (৮)
সিরিজ সেরা খেলোয়াড় মিচেল মার্শ (অস্ট্রেলিয়া)
টোয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩ ম্যাচের সিরিজে ভারত ২–১ ব্যবধানে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান সূর্যকুমার যাদব (১১৫) ক্যামেরন গ্রিন (১১৮)
সর্বাধিক উইকেট অক্ষর প্যাটেল (৮) নাথান এলিস (৩)
অ্যাডাম জাম্পা (৩)
জশ হ্যাজলউড (৩)
সিরিজ সেরা খেলোয়াড় অক্ষর প্যাটেল (ভারত)

টেস্ট সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটি প্রাথমিকভাবে ধর্মশালার হিমাচল প্রদেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল,[৫] কিন্তু স্টেডিয়ামটি ম্যাচ আয়োজনের জন্য প্রস্তুত না থাকায় প্রথম টেস্ট ম্যাচের সমাপ্তির পর ম্যাচটি ইন্দোরের হোলকর স্টেডিয়ামে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।[৬]

টি২০আই সিরিজে ভারত ২–১ ব্যবধানে জয়লাভ করে।[৭] টেস্ট সিরিজেও ভারত ২–১ ব্যবধানে জয়ী হয়।[৮] ওডিআই সিরিজে অস্ট্রেলিয়া ২–১ ব্যবধানে জয়লাভ করে।[৯]

দলীয় সদস্য

সম্পাদনা
  ভারত   অস্ট্রেলিয়া
টেস্ট[১০] ওডিআই[১১] টি২০আই[১২] টেস্ট[১৩] ওডিআই[১৪] টি২০আই[১৫]

সিরিজ শুরুর আগে মার্কাস স্টইনিস, মিচেল মার্শমিচেল স্টার্ক চোটের কারণে অস্ট্রেলিয়ার টি২০আই দল থেকে ছিটকে যাওয়ায় দলে ড্যানিয়েল স্যামস, নাথান এলিসশন অ্যাবটকে যোগ করা হয়।[১৬] কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে মোহাম্মদ শামি ভারতের টি২০আই দল থেকে ছিটকে যান, যে কারণে উমেশ যাদবকে দলে যোগ করা হয়।[১৭] প্রথম টেস্ট শেষ হওয়ার পর ম্যাথিউ কুনেমানকে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলে যোগ করা হয়।[১৮] ২০২৩ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি জশ হ্যাজলউড অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দল থেকে ছিটকে যান।[১৯] টেস্ট সিরিজ চলাকালে ঝাই রিচার্ডসন অস্ট্রেলিয়ার ওডিআই দল থেকে ছিটকে যান, যার ফলে নাথান এলিসকে অস্ট্রেলিয়ার ওডিআই দলে নেয়া হয়।[২০] পরবর্তীতে প্যাট কামিনস ওডিআই সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে অংশগ্রহণে অসমর্থ বলে গণ্য হলে স্টিভেন স্মিথকে অস্ট্রেলিয়ার ওডিআই দলের অধিনায়ক নির্বাচিত করা হয়।[২১] টেস্ট সিরিজের সমাপ্তির পর চোটের কারণে শ্রেয়াস আইয়ার ভারতের ওডিআই দল থেকে ছিটকে যান।[২২]

টি২০আই সিরিজ

সম্পাদনা

১ম টি২০আই

সম্পাদনা
২০ সেপ্টেম্বর ২০২২
১৯:৩০ (রাত)
স্কোরকার্ড
ভারত  
২০৮/৬ (২০ ওভার)
  অস্ট্রেলিয়া
২১১/৬ (১৯.২ ওভার)
  • অস্ট্রেলিয়া টসে জিতে ফিল্ডিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।

২য় টি২০আই

সম্পাদনা
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২
১৯:৩০ (রাত)
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া  
৯০/৫ (৮ ওভার)
  ভারত
৯২/৪ (৭.২ ওভার)
  • ভারত টসে জিতে ফিল্ডিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি ইনিংসপ্রতি ৮ ওভারে খেলা হয়।

৩য় টি২০আই

সম্পাদনা
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
১৯:৩০ (রাত)
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া  
১৮৬/৭ (২০ ওভার)
  ভারত
১৮৭/৪ (১৯.৫ ওভার)
টিম ডেভিড ৫৪ (২৭)
অক্ষর প্যাটেল ৩/৩৩ (৪ ওভার)
সূর্যকুমার যাদব ৬৯ (৩৬)
ড্যানিয়েল স্যামস ২/৩৩ (৩.৫ ওভার)
  • ভারত টসে জিতে ফিল্ডিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।

টেস্ট সিরিজ

সম্পাদনা

১ম টেস্ট

সম্পাদনা
৯–১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
স্কোরকার্ড
বনাম
১৭৭ (৬৩.৫ ওভার)
মার্নাস লাবাসকাখনি ৪৯ (১২৩)
রবীন্দ্র জাদেজা ৫/৪৭ (২২ ওভার)
৪০০ (১৩৯.৩ ওভার)
রোহিত শর্মা ১২০ (২১২)
টড মার্ফি ৭/১২৪ (৪৭ ওভার)
৯১ (৩২.৩ ওভার)
স্টিভেন স্মিথ ২৫* (৫১)
রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৫/৩৭ (১২ ওভার)
  • অস্ট্রেলিয়া টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • কোনা শ্রীকর ভরত, সূর্যকুমার যাদব (ভারত) ও টড মার্ফি (অস্ট্রেলিয়া)-এর টেস্ট অভিষেক হয়।
  • টড মার্ফি (অস্ট্রেলিয়া) টেস্ট ক্রিকেটে নিজের প্রথম পাঁচ উইকেট লাভ করেন।[২৩]
  • বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্ট: ভারত ১২, অস্ট্রেলিয়া ০।

২য় টেস্ট

সম্পাদনা
১৭–২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
স্কোরকার্ড
বনাম
২৬৩ (৭৮.৪ ওভার)
উসমান খাওয়াজা ৮১ (১২৫)
মোহাম্মদ শামি ৪/৬০ (১৪.৪ ওভার)
২৬২ (৮৩.৩ ওভার)
অক্ষর প্যাটেল ৭৪ (১১৫)
নাথান লায়ন ৫/৬৭ (২৯ ওভার)
১১৩ (৩১.১ ওভার)
ট্র্যাভিস হেড ৪৩ (৪৬)
রবীন্দ্র জাদেজা ৭/৪২ (১২.১ ওভার)
১১৮/৪ (২৬.৪ ওভার)
চেতেশ্বর পুজারা ৩১* (৭৪)
নাথান লায়ন ২/৪৯ (১২ ওভার)
  • অস্ট্রেলিয়া টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ম্যাথিউ কুনেমান (অস্ট্রেলিয়া)-এর টেস্ট অভিষেক হয়।
  • ডেভিড ওয়ার্নার (অস্ট্রেলিয়া)-এর বদলি হিসেবে খেলেন ম্যাট রেনশ[২৪]
  • বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্ট: ভারত ১২, অস্ট্রেলিয়া ০।

৩য় টেস্ট

সম্পাদনা
১–৫ মার্চ ২০২৩
স্কোরকার্ড
বনাম
১০৯ (৩৩.২ ওভার)
বিরাট কোহলি ২২ (৫২)
ম্যাথিউ কুনেমান ৫/১৬ (৯ ওভার)
১৯৭ (৭৬.৩ ওভার)
উসমান খাওয়াজা ৬০ (১৪৭)
রবীন্দ্র জাদেজা ৪/৭৮ (৩২ ওভার)
১৬৩ (৬০.৩ ওভার)
চেতেশ্বর পুজারা ৫৯ (১৪২)
নাথান লায়ন ৮/৬৪ (২৩.৩ ওভার)
৭৮/১ (১৮.৫ ওভার)
ট্র্যাভিস হেড ৪৯* (৫৩)
রবিচন্দ্রন অশ্বিন ১/৪৪ (৯.৫ ওভার)
অস্ট্রেলিয়া ৯ উইকেটে জয়ী
হোলকর স্টেডিয়াম, ইন্দোর

আম্পায়ার: জোয়েল উইলসন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) ও নিতিন মেনন (ভারত)

ম্যাচ সেরা খেলোয়াড়: নাথান লায়ন (অস্ট্রেলিয়া)
  • ভারত টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ম্যাথিউ কুনেমান (অস্ট্রেলিয়া) টেস্ট ক্রিকেটে নিজের প্রথম পাঁচ উইকেট লাভ করেন।[২৫]
  • বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্ট: অস্ট্রেলিয়া ১২, ভারত ০।

৪র্থ টেস্ট

সম্পাদনা
৯–১৩ মার্চ ২০২৩
স্কোরকার্ড
বনাম
৪৮০ (১৬৭.২ ওভার)
উসমান খাওয়াজা ১৮০ (৪২২)
রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৬/৯১ (৪৭.২ ওভার)
৫৭১ (১৭৮.৫ ওভার)
বিরাট কোহলি ১৮৬ (৩৬৪)
টড মার্ফি ৩/১১৩ (৪৫.৫ ওভার)
১৭৫/২ঘো (৭৮.১ ওভার)
ট্র্যাভিস হেড ৯০ (১৬৩)
অক্ষর প্যাটেল ১/৩৬ (১৯ ওভার)
  • অস্ট্রেলিয়া টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ক্যামেরন গ্রিন (অস্ট্রেলিয়া) টেস্ট ক্রিকেটে নিজের প্রথম শতরানের ইনিংস খেলেন।[২৬]
  • বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্ট: ভারত ৪, অস্ট্রেলিয়া ৪।

ওডিআই সিরিজ

সম্পাদনা

১ম ওডিআই

সম্পাদনা
১৭ মার্চ ২০২৩
১৩:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া  
১৮৮ (৩৫.৪ ওভার)
  ভারত
১৯১/৫ (৩৯.৫ ওভার)
মিচেল মার্শ ৮১ (৬৫)
মোহাম্মদ শামি ৩/১৭ (৬ ওভার)
লোকেশ রাহুল ৭৫* (৯১)
মিচেল স্টার্ক ৩/৪৯ (৯.৫ ওভার)
  • ভারত টসে জিতে ফিল্ডিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।

২য় ওডিআই

সম্পাদনা
১৯ মার্চ ২০২৩
১৩:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ভারত  
১১৭ (২৬ ওভার)
  অস্ট্রেলিয়া
১২১/০ (১১ ওভার)
বিরাট কোহলি ৩১ (৩৫)
মিচেল স্টার্ক ৫/৫৩ (৮ ওভার)
  • অস্ট্রেলিয়া টসে জিতে ফিল্ডিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।

৩য় ওডিআই

সম্পাদনা
২২ মার্চ ২০২৩
১৩:৩০ (দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া  
২৬৯ (৪৯ ওভার)
  ভারত
২৪৮ (৪৯.১ ওভার)
বিরাট কোহলি ৫৪ (৭২)
অ্যাডাম জাম্পা ৪/৪৫ (১০ ওভার)
  • অস্ট্রেলিয়া টসে জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নেয়।

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "Team India to tour Australia for five-match Test series in November 2024: Reports"স্পোর্টসটাইগার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০২২ 
  2. "BCCI announces schedule for Paytm home series against Australia and South Africa"ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০২২ 
  3. "BCCI announces schedule for Mastercard home series against Sri Lanka, New Zealand & Australia"ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০২২ 
  4. "Men's Future Tours Program" (পিডিএফ)আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ আগস্ট ২০২২ 
  5. "Third India-Australia Test to be moved out of Dharamsala"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 
  6. "Third India vs Australia Test shifted from Dharamsala to Indore"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 
  7. "Kohli, Suryakumar, Axar star as India seal T20I series 2-1"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ 
  8. "India take series 2-1 after tedious draw on lifeless Ahmedabad pitch"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০২৩ 
  9. "Zampa and Co stifle India to take series 2-1"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২২ মার্চ ২০২৩ 
  10. "Suryakumar and Kishan in India's Test squad to face Australia"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০২৩ 
  11. "Pacer returns as India name squad for remaining two Tests and ODIs against Australia"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 
  12. "India's squads for ICC Men's T20 World Cup 2022, Australia & South Africa T20Is announced"ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ 
  13. "Starc ruled out of first India Test, Australia select four spinners in 18-man squad"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ জানুয়ারি ২০২৩ 
  14. "Maxwell, Marsh and Richardson return for India ODIs"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 
  15. "'Match-winner' David bolts into Aussie World Cup squad"ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১ সেপ্টেম্বর ২০২২ 
  16. "Australia lose key trio to injury for India tour"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ 
  17. "Mohammed Shami tests positive for Covid-19, Umesh Yadav named as replacement"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 
  18. "Matt Kuhnemann called up as Australia face selection headaches"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 
  19. "Hazlewood out of rest of India Test series; Warner doubtful as Australia mull changes"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 
  20. "Jhye Richardson out of ODI tour of India, unlikely for IPL"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০২৩ 
  21. "Steven Smith to captain Australia in ODI series against India"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মার্চ ২০২৩ 
  22. "Shreyas Iyer out of Australia ODIs due to recurring back injury"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মার্চ ২০২৩ 
  23. "India take control after Rohit's ton: How the second day of Nagpur Test played out"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 
  24. "David Warner to miss remainder of second Test"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 
  25. "Khawaja gives Australia the lead after India collapse against spin"ইএসপিএনক্রিকইনফো (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১ মার্চ ২০২৩ 
  26. "Ashwin brings India cheer despite Khawaja's epic vigil"ক্রিকবাজ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০২৩ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা