প্রধান মেনু খুলুন

বিদর্ভ ক্রিকেট সংস্থা স্টেডিয়াম

বিদর্ভ ক্রিকেট সংস্থা স্টেডিয়াম (মারাঠি: विदर्भ क्रिकेट असोसिएशन स्टेडियम) ভারতে অবস্থিত একটি আন্তর্জাতিকমানের ক্রিকেট স্টেডিয়াম। মহারাষ্ট্রের নাগপুরে এ স্টেডিয়ামটির অবস্থান। ২০০৮ সালে নির্মিত এ স্টেডিয়ামটি নিউ ভিসিএ স্টেডিয়াম নামে পরিচিতি রয়েছে ও এটি পুরনো বিদর্ভ ক্রিকেট সংস্থা মাঠের স্থলাভিষিক্ত হয়। বিশ্বের অন্যতম শীর্ষসারির ক্রিকেট মাঠ হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের স্বীকৃতি পেয়েছে।[৩] বিদর্ভ এবং মধ্যাঞ্চল দল যথাক্রমে ঘরোয়া রঞ্জি ট্রফি এবং দিলীপ ট্রফি প্রতিযোগিতায় নিজেদের মাঠ হিসেবে ব্যবহার করে থাকে।

বিদর্ভ ক্রিকেট সংস্থা স্টেডিয়াম
নিউ ভিসিএ স্টেডিয়াম
VCA Nagpur,India.jpg
নাগপুরের জামথায় ভিসিএ স্টেডিয়াম
স্টেডিয়ামের তথ্যাবলী
অবস্থাননাগপুর, মহারাষ্ট্র
প্রতিষ্ঠাকাল২০০৮
ধারন ক্ষমতা৪৫,০০০[১]
স্বত্ত্বাধিকারীবিদর্ভ ক্রিকেট সংস্থা
স্থপতিশাস্ত্রী প্রভু[২]
পরিচালনায়বিদর্ভ ক্রিকেট সংস্থা
অন্যান্যবিদর্ভ ক্রিকেট দল
প্রান্ত
সেক্রেটারি এন্ড
প্যাভিলিয়ন এন্ড
প্রথম টেস্ট৬-১০ নভেম্বর ২০০৮: ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট২৫-২৭ নভেম্বর ২০১৫: ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
প্রথম ওডিআই২৮ অক্টোবর ২০০৯: ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই৩০ অক্টোবর ২০১৩: ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া
একমাত্র টি২০ আন্তর্জাতিক৯ ডিসেম্বর ২০০৯: ভারত বনাম শ্রীলঙ্কা
২৮ নভেম্বর ২০১৫ অনুযায়ী
উৎস: ক্রিকইনফো

আয়তনের দিক দিয়ে বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম মাঠ হিসেবে সম্মুখ বরাবর ৮০ গজ এবং স্কয়ার লেগ বাউন্ডারির দিকে ৮৫ গজ।[৪]

ইতিহাসসম্পাদনা

নভেম্বর, ২০০৮ সালে ভারতঅস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার ৪র্থ টেস্ট আয়োজনের মাধ্যমে এ মাঠে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলা অনুষ্ঠিত হয়। ঐ টেস্টে ভারত ১৭২ রানের ব্যবধানে জয় পেয়েছিল। খেলায় অস্ট্রেলীয় স্পিনার জেসন ক্রেজা ১২ উইকেট ও হরভজন সিংউইকেট দখল করেছিলেন।

২০১১ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের চারটি খেলা অনুষ্ঠিত হয়।[৫]

মূল্যায়ণসম্পাদনা

শচীন তেন্ডুলকর বলেছেন যে, সুযোগ-সুবিধার দিক দিয়ে এটি প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে গেছে। রিকি পন্টিং মন্তব্য করেছেন, পোষাক বদলের কক্ষটি বেশ আরামপ্রদ।[৬] ডেকান চার্জার্সের বিপক্ষে দুই রানের ব্যবধানে জয়ের পর রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক শেন ওয়ার্ন মাঠের প্রশস্ততার বিষয়ে বলেছেন। আমরা এ ধরনের বৃহৎ আকৃতির মাঠ প্রত্যাশা করি।[৭]

একদিবসীয় ম্যাচসম্পাদনা

এখনো অব্দি ৫ টি ভারতের ম্যাচ হয়েছে। ভারত তার ২টি ম্যাচ এ হেরেছে। এখনো অব্দি ১টি অএশীয় দেশ(দক্ষিণ আফ্রিকা) ভারতের বিরুদ্ধে এই মাঠে জয় পেয়েছে । রান তাড়া করে এই মাঠে খুব সহজে জয় পাওয়া যায়।

২০১১ ক্রিকেট বিশ্বকাপসম্পাদনা

বিশ্বকাপে ভারত - দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ ছাড়া আরো ৩ টি ম্যাচ আয়োজন করে। তার মধ্যে ২০১১ চ্যাপেল-হ্যাডলি ট্রফি ম্যাচ হিসেবে অস্ট্রেলিয়া - নিউজিলান্ড ম্যাচ আয়োজন করে।

রেকর্ডসমূহসম্পাদনা

টেস্ট ক্রিকেটসম্পাদনা

  • দলগত সর্বোচ্চ রান: ৫৬৬/৮ডি., ভারত ব নিউজিল্যান্ড, ২০১০-১১
  • দলগত সর্বনিম্ন রান: ৭৯, দক্ষিণ আফ্রিকা ব ভারত, ২০১৫-১৬
  • সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান: ২৫৩*, হাশিম আমলা, দক্ষিণ আফ্রিকা ব ভারত, ২০১০-১১
  • ইনিংসে সেরা বোলিং: ৮/২১৮, জেসন ক্রেজা, অস্ট্রেলিয়া ব ভারত, ২০০৮-০৯

একদিনের আন্তর্জাতিকসম্পাদনা

এখনো অব্দি ১টি অএশীয় দেশ ভারতের বিরুদ্ধে এই মাঠে জয় পেয়েছে । দক্ষিণ আফ্রিকা । ২০১১ বিশ্বকাপের এই ম্যাচে ডেল স্টেইন দুরন্ত বোলিং করেন।

  • দলগত সর্বোচ্চ রান: ৩৫৪/৭, ভারত ব অস্ট্রেলিয়া, ২০০৯-১০[৮]
  • দলগত সর্বনিম্ন রান: ১২৩, কানাডা ব জিম্বাবুয়ে, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১১
  • সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান: ১৫৬, জর্জ বেইলি, অস্ট্রেলিয়া ব ভারত, ২০১৩-১৪
  • ইনিংসে সেরা বোলিং: ৪/৩৩, মিচেল জনসন, অস্ট্রেলিয়া ব নিউজিল্যান্ড, ফেব্রুয়ারি, ২০১১

টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকসম্পাদনা

  • দলগত সর্বোচ্চ রান: ২১৯/৫, শ্রীলঙ্কা ব ভারত, ২০০৯-১০
  • দলগত সর্বনিম্ন রান: ১৮৬/৯, ভারত ব শ্রীলঙ্কা, ২০০৯-১০
  • সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান: ৭৮, কুমার সাঙ্গাকারা, শ্রীলঙ্কা ব ভারত, ২০০৯-১০
  • ইনিংসে সেরা বোলিং: ২/১৯, সনাথ জয়াসুরিয়া, শ্রীলঙ্কা ব ভারত, ২০০৯-১০

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৩ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০১৬ 
  2. Rajaram, Sowmya (২০১১-০৩-২৭)। "Going for WC finals? You've bought backache and discomfort for Rs 12,500"। Mid-day.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১২-১৩ 
  3. Nagpur likely to host third India-New Zealand Test - Times Of India. Articles.timesofindia.indiatimes.com (2010-07-02). Retrieved on 2013-12-23.
  4. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৩ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০১৬ 
  5. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১০ জানুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০১৬ 
  6. "Spectator-friendly minus the spectators"Cricinfo 
  7. Bowlers in with a chance at the VCA stadium in Nagpur - Sport - DNA. Dnaindia.com. Retrieved on 2013-12-23.
  8. Big-hitting Dhoni helps level series | India v Australia, 2nd ODI, Nagpur Report | Cricket News. ESPN Cricinfo. Retrieved on 2013-12-23.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা