শন অ্যাবট

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

শন এ্যান্থনি অ্যাবট (ইংরেজি: Sean Abbott; জন্ম: ২৯ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯২) নিউ সাউথ ওয়েলস অঙ্গরাজ্যের উইন্ডসের জন্মগ্রহণকারী অস্ট্রেলিয়ার প্রথিতযশা ক্রিকেটার। বলখাম হিলস ক্রিকেট ক্লাবে চমকপ্রদ ক্রীড়ানৈপুণ্য প্রদর্শন করে পরমাত্মা জেলার পক্ষে গ্রেড ক্রিকেটে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেন। খেলায় তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডারের ভূমিকা পালন করেন। ডানহাতে ব্যাটিংসহ ডানহাতে মিডিয়াম পেস বোলিংয়ে পারদর্শী তিনি।[১] লিস্ট এ ক্রিকেটে নিউ সাউথ ওয়েলস দলে অভিষেক ঘটে তার। ১৭ অক্টোবর, ২০১০ তারিখে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তার এ অভিষেক ঘটে। শন অ্যাবট এ পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৯, নিউ সাউথ ওয়েলস, নিউ সাউথ ওয়েলস অনূর্ধ্ব-১৭, নিউ সাউথ ওয়েলস অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলেছেন। এছাড়াও, সিডনি গ্রেড ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে মাঠে নেমেছেন।[২]

শন অ্যাবট
Sean Abbott.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামশন অ্যান্থনি অ্যাবট
জন্ম (1992-02-29) ২৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৯২ (বয়স ২৯)
উইন্ডসর, নিউ সাউথ ওয়েলস, অস্ট্রেলিয়া
উচ্চতা১.৮৩ মিটার (৬ ফুট ০ ইঞ্চি)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র ওডিআই
(ক্যাপ ২০৫)
৭ অক্টোবর ২০১৪ বনাম পাকিস্তান
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৬৮)
৫ অক্টোবর ২০১৪ বনাম পাকিস্তান
শেষ টি২০আই৯ নভেম্বর ২০১৪ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১০–নিউ সাউথ ওয়েলস (জার্সি নং ৭৭)
২০১১-২০১৩সিডনি থান্ডার (জার্সি নং ৭৭)
২০১৩–সিডনি সিক্সার্স (জার্সি নং ৭৭)
২০১৫-রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৬ ২৯
রানের সংখ্যা ৩১৯ ৩৮৬
ব্যাটিং গড় ৩.০০ ৫.০০ ১৪.৫০ ২১.৪৪
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/১ ০/১
সর্বোচ্চ রান ৫৮ ৫০
বল করেছে ৩০ ৩৬ ২,১২৮ ১,২১৬
উইকেট ৪৬ ৪৫
বোলিং গড় ২৫.০০ ৪৭.০০ ২৯.৫০ ২৪.৩৫
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং ১/২৫ ১/১৭ ৬/১৪ ৪/৩৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/– ২/– ৭/– ১২/–
উৎস: ক্রিকেট আর্কাইভ, ১২ ডিসেম্বর ২০১৪

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

৫ অক্টোবর, ২০১৪ তারিখে সংযুক্ত আরব আমিরাতের নিরপেক্ষ মাঠে অনুষ্ঠিত খেলায় পাকিস্তানের বিপক্ষে তার টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে।[৩] এর দুইদিন পর একই দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার।[৪] তারপর তিনি নভেম্বর, ২০১৪ সালের প্রথমদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আরও দু’টি টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেন।

ফিলিপ হিউজের মৃত্যুসম্পাদনা

২৫ নভেম্বর, ২০১৪ তারিখে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত শেফিল্ড শিল্ডের একটি খেলায় সাউথ অস্ট্রেলিয়া ও নিউ সাউথ ওয়েলস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিল। এ সময় তার অপ্রত্যাশিত বাউন্সারে হেলমেট পরিহিত স্বদেশী উদীয়মান ক্রিকেটার ও সাউথ অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যান ফিলিপ হিউজের মাথায় আঘাত লাগে। এ সময় হিউজ ৬৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সিডনি’র সেন্ট ভিনসেন্ট’স হাসপাতালে দুইদিন পর অসফল অস্ত্রোপচারে মাত্র ২৫-বছর বয়সী হিউজের অকালমৃত্যু ঘটে যা বেশ দূর্ভাগ্যজনক।[৫] এ প্রেক্ষিতে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া খেলাটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে। দেশের অন্যত্র চলমান দু’টি খেলাও একই কারণে পরিত্যক্ত হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Sean Abbott"cricket.com.auCricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 
  2. "Sean Abbott"http://www.espncricinfo.com। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৩  |প্রকাশক= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  3. "Australia tour of United Arab Emirates, Only T20I: Pakistan v Australia at Dubai (DSC), Oct 5, 2014"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০১৪ 
  4. "Australia tour of United Arab Emirates, 1st ODI: Australia v Pakistan at Sharjah, Oct 7, 2014"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৭ অক্টোবর ২০১৪ 
  5. "Australia batsman phillip hughes dies from head injury"IANS। Worldsnap। ২৯ নভেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৪ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা