আদম (ইসলামের পয়গম্বর)

প্রথম মানুষ, প্রথম পয়গম্বর বা নবী

আদম ( আরবি: آدم‎‎) কুরআনে বর্ণিত ইসলাম ধর্মের প্রথম মানুষ, প্রথম পয়গম্বর বা নবী। আল্লাহ তার পাঁজর থেকে তার স্ত্রী হাওয়াকে সৃষ্টি করেছেন মানবজাতির মা হিসেবে।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

আদম

আলাইহি ওয়াস-সালাম -
 ( عليه السلام )
ʾআদম - آدم
Adem (Adam)1.png
আদম নামটি ইসলামী ক্যালিগ্রাফি অনুসারে আঁকা হয়েছে। উপরে আরবী ভাষায় ‘‘তার উপর শান্তি বর্ষিত হোক’’ কথাটি অঙ্কিত।
পরিচিতির কারণপ্রথম মানুষ
দাম্পত্য সঙ্গীহাওয়া - حواء
সন্তানহাবিল এবং কাবিল - هابيل ,قابيل

সৃষ্টিসম্পাদনা

কোরআনের বর্ণনা অনুযায়ী আল্লাহ পৃথিবীর প্রথম মানব হিসেবে আদমকে সৃষ্টি করেন। আর তাকে পাঠানোর উদ্দেশ্য হচ্ছে পৃথিবীতে আল্লাহর খলীফা নিয়োগ করা। আল্লাহ যখন ফেরেশতাদেরকে জানালেন যে তিনি পৃথিবীতে তার প্রতিনিধি নিয়োগ দিতে যাচ্ছেন তখন ফেরেশতাগণকে বললেন, "আমি পৃথিবীতে একজন প্রতিনিধি বানাতে যাচ্ছি। তখন ফেরেশতাগণ বলল, আপনি কি পৃথিবীতে এমন কাউকে সৃষ্টি করবেন যিনি দাঙ্গা-হাঙ্গামার সৃষ্টি করবে এবং রক্তপাত ঘটাবে? অথচ আমরা প্রতিনিয়ত আপনার গুণকীর্তন করছি এবং আপনার পবিত্র সত্তাকে স্মরণ করছি। তিনি বললেন, নিঃসন্দেহে আমি যা জানি, তোমরা তা জান না।"[১] অতঃপর, আল্লাহ আদমকে স্বহস্তে আঠালো ও পোড়ামাটির ন্যায় শুষ্ক মাটি থেকে সৃষ্টি করলেন।[২]

কুরআনে উল্লেখসম্পাদনা

কুরআনে আদম-এর নাম ১০টি সূরার ৫০ আয়াতে উল্লেখ করা হয়েছে। সূরা আল বাকারা,[৩], সুরাআলে ইমরান[৪], সূরা আল আরাফ, সূরা ইসরা, সূরা আল কাহফ এবং সূরা ত্বোয়া-হাতে তার নাম, গুনাবলী ও কার্যাবলী আলোচনা করা হয়েছে। সূরা আল হিজর ও সূরা ছোয়াদে শুধু গুণাবলী এবং সূরা আল ইমরান, সূরা আল মায়িদাহ এবং সূরা ইয়াসীনে আনুষঙ্গিক রুপে শুধু নামের উল্লেখ আছে।

উপাধিসম্পাদনা

সাফিউল্লাহসম্পাদনা

আদমকে সাফিউল্লাহ উপাধি দেওয়া হয় (আরবি: {{{1}}}‎‎, যার অর্থ হল: আল্লাহর পছন্দ)।[৫]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. কুরআন 2:30
  2. কুরআন 38:75
  3. কুরআন 2:30-37
  4. কুরআন 3:56-59
  5. "Title"। Ismaili.NET। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৫ 

নোটসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা