২০১৮–১৯ বুন্দেসলিগা

২০১৮–১৯ বুন্দেসলিগা জার্মানির প্রিমিয়ার ফুটবল প্রতিযোগিতা বুন্দেসলিগার ৫৬তম আসর। এটি ২০১৮ সালের ২৪শে আগস্ট তারিখে শুরু এবং ২০১৯ সালের ১৮ই মে তারিখে শেষ হয়েছে।[২] এটি হ্যামবুর্গার এসভি ছাড়া প্রথম মৌসুম ছিল, এর পূর্বে এটি প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সমাপ্তির পর থেকে জার্মান ফুটবলের শীর্ষ স্তরের প্রতি মৌসুমে খেলা একমাত্র দল ছিল।[৩]

বুন্দেসলিগা
মৌসুম২০১৮–১৯
তারিখ২৪ আগস্ট ২০১৮ – ১৮ মে ২০১৯
চ্যাম্পিয়নবায়ার্ন মিউনিখ
২৮তম শিরোপা
২৯তম জার্মান শিরোপা
অবনমনভিএফবি স্টুটগার্ট
হানোফার ৯৬
নুর্নবের্গ
চ্যাম্পিয়নস লীগবায়ার্ন মিউনিখ
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
আরবি লাইপৎসিশ
বায়ার লেভারকুজেন
ইউরোপা লীগবরুশিয়া মনশেনগ্লাডবাখ
ভিএফএল উলফসবুর্গ
আইন্ত্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট
মোট খেলা৩০৬
মোট গোলসংখ্যা৯৭৩ (ম্যাচ প্রতি ৩.১৮টি)
শীর্ষ গোলদাতারবার্ত লেভানদোস্কি
(২২ গোল)
সবচেয়ে বড় হোম জয়ডর্টমুন্ড ৭–০ নুর্নবের্গ
উলফসবুর্গ ৮–১ আউগ্সবুর্গ
সবচেয়ে বড় এওয়ে জয়স্টুটগার্ট ০–৪ ডর্টমুন্ড
ব্রেমেন ২–৬ লেভারকুজেন
হ্যানোভার ০–৪ মিউনিখ
ডুসেলডর্ফ ০–৪ লাইপৎসিশ
মাইঞ্জ ১–৫ লেভারকুজেন
মনশেনগ্লাডবাখ ১–৫ মিউনিখ
আউগ্সবুর্গ ০–৪ হোফেনহাইম
ফ্রেইবুর্গ ০–৪ ডর্টমুন্ড
নুর্নবের্গ ০–৪ মনশেনগ্লাডবাখ
সর্বোচ্চ স্কোরিংউলফসবুর্গ ৮–১ আউগ্সবুর্গ
দীর্ঘতম টানা জয়৭ ম্যাচ[১]
বায়ার্ন মিউনিখ
দীর্ঘতম টানা অপরাজিত১৫ ম্যাচ[১]
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
দীর্ঘতম টানা জয়বিহীন২০ ম্যাচ[১]
নুর্নবের্গ
দীর্ঘতম টানা পরাজয়৬ ম্যাচ[১]
ফর্টুনা ডুসেলডর্ফ
সর্বোচ্চ উপস্থিতি৮১,৩৬৫[১]
ডর্টমুন্ড বনাম আউগ্সবুর্গ
ডর্টমুন্ড বনাম মিউনিখ
ডর্টমুন্ড বনাম ফ্রেইবুর্গ
ডর্টমুন্ড বনাম ব্রেমেন
ডর্টমুন্ড বনাম মনশেনগ্লাডবাখ
ডর্টমুন্ড বনাম হ্যানোভার
সর্বনিম্ন উপস্থিতি১৯,২০৫[১]
মাইঞ্জ বনাম উলফসবুর্গ
উপস্থিতি১,৩২,৯৪,১৩৯ (ম্যাচ প্রতি ৪৩,৪৪৫ জন)

পূর্বে মৌসুমে একটি পরীক্ষামূলক পর্ব অনুসরণ করার পরে, আইএফএবি দ্বারা খেলার আইনে ভিডিও সহকারী রেফারি পদ্ধতিটি যুক্ত হওয়ার পরে বুন্দেসলিগায় আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদিত হয়েছিল।[৪]

বায়ার্ন মিউনিখ ২০১৭–১৮ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন দল ছিল এবং সর্বশেষ ম্যাচদিনে তার এই আসরে জয়লাভের মাধ্যমে তাদের ২৮তম বুন্দেসলিগা শিরোপা (এবং ২৯তম জার্মান শিরোপা) এবং টানা সপ্তম বুন্দেসলিগা জয়লাভ করেছে।

লীগ টেবিলসম্পাদনা

অব দল খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন বা অবনমন
বায়ার্ন মিউনিখ (C) ৩৪ ২৪ ৮৮ ৩২ +৫৬ ৭৮ চ্যাম্পিয়নস লীগ গ্রুপ পর্বের জন্য উন্নীত
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৩৪ ২৩ ৮১ ৪৪ +৩৭ ৭৬
আরবি লাইপৎসিশ ৩৪ ১৯ ৬৩ ২৯ +৩৪ ৬৬
বায়ার লেভারকুজেন ৩৪ ১৮ ১২ ৬৯ ৫২ +১৭ ৫৮
বরুশিয়া মনশেনগ্লাডবাখ ৩৪ ১৬ ১১ ৫৫ ৪২ +১৩ ৫৫ ইউরোপা লীগ গ্রুপ পর্বের জন্য উন্নীত[ক]
ভিএফএল উলফসবুর্গ ৩৪ ১৬ ১১ ৬২ ৫০ +১২ ৫৫
আইন্ত্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট ৩৪ ১৫ ১০ ৬০ ৪৮ +১২ ৫৪ ইউরোপা লীগ দ্বিতীয় বাছাইপর্বের জন্য উন্নীত[ক]
ওয়ের্ডার ব্রেমেন ৩৪ ১৪ ১১ ৫৮ ৪৯ +৯ ৫৩
১৮৯৯ হোফেনহাইম ৩৪ ১৩ ১২ ৭০ ৫২ +১৮ ৫১
১০ ফর্টুনা ডুসেলডর্ফ ৩৪ ১৩ ১৬ ৪৯ ৬৫ −১৬ ৪৪
১১ হের্থা বিএসসি ৩৪ ১১ ১০ ১৩ ৪৯ ৫৭ −৮ ৪৩
১২ মাইঞ্জ ০৫ ৩৪ ১২ ১৫ ৪৬ ৫৭ −১১ ৪৩
১৩ এসসি ফ্রেইবুর্গ ৩৪ ১২ ১৪ ৪৬ ৬১ −১৫ ৩৬
১৪ শালকে ০৪ ৩৪ ১৭ ৩৭ ৫৫ −১৮ ৩৩
১৫ এফসি আউগ্সবুর্গ ৩৪ ১৮ ৫১ ৭১ −২০ ৩২
১৬ ভিএফবি স্টুটগার্ট (R) ৩৪ ২০ ৩২ ৭০ −৩৮ ২৮ অবনমন প্লে-অফের জন্য উন্নীত
১৭ হানোফার (R) ৩৪ ২৩ ৩১ ৭১ −৪০ ২১ ২. বুন্দেসলিগায় অবনমিত
১৮ নুর্নবের্গ (R) ৩৪ ১০ ২১ ২৬ ৬৮ −৪২ ১৯
উৎস: ডিএফবি
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: ১) পয়েন্ট; ২) গোল পার্থক্য; ৩) স্বপক্ষে গোল; ৪) হেড-টু-হেড পয়েন্ট; ৫) হেড-টু-হেড গোল পার্থক্য; ৬) হেড-টু-হেড স্বপক্ষে গোল; ৭) হেড-টু-হেড বিপক্ষে গোল; ৮) অ্যাওয়ে গোল; ৯) প্লে-অফ।[৫]
(C) চ্যাম্পিয়ন; (R) অবনমন।
টীকা:
  1. যেহেতু বায়ার্ন মিউনিখ লীগ পজিশনের ভিত্তিতে চ্যাম্পিয়নস লিগের জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছে, ২০১৮–১৯ ডিএফবি-পোকালর বিজয়ী ইউরোপা লীগের গ্রুপ পর্বের ষষ্ঠ স্থান অধিকারী দলের স্থানে উত্তীর্ণ হয়েছে এবং ইউরোপা লিগের দ্বিতীয় বাছাইপর্বের সপ্তম স্থানটি অন্য এসোসিয়েশনকে দিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ফলাফলসম্পাদনা

স্বাগতিক \ অতিথি AUG BSC BRE DOR DÜS FRA FRE HAN HOF LEI LEV MAI MÖN MUN NÜR SCH STU WOL
আউগসবুর্গ ৩–৪ ২–৩ ২–১ ১–২ ১–৩ ৪–১ ৩–১ ০–৪ ০–০ ১–৪ ৩–০ ১–১ ২–৩ ২–২ ১–১ ৬–০ ২–৩
হের্থা বিএসসি ২–২ ১–১ ২–৩ ১–২ ১–০ ১–১ ০–০ ৩–৩ ০–৩ ১–৫ ২–১ ৪–২ ২–০ ১–০ ২–২ ৩–১ ০–১
ব্রেমেন ৪–০ ৩–১ ২–২ ৩–১ ২–২ ২–১ ১–১ ১–১ ২–১ ২–৬ ৩–১ ১–৩ ১–২ ১–১ ৪–২ ১–১ ২–০
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৪–৩ ২–২ ২–১ ৩–২ ৩–১ ২–০ ৫–১ ৩–৩ ৪–১ ৩–২ ২–১ ২–১ ৩–২ ৭–০ ২–৪ ৩–১ ২–০
ফর্টুনা ডুসেলডর্ফ ১–২ ৪–১ ৪–১ ২–১ ০–৩ ২–০ ২–১ ২–১ ০–৪ ১–২ ০–১ ৩–১ ১–৪ ২–১ ০–২ ৩–০ ০–৩
আইন্ত্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট ১–৩ ০–০ ১–২ ১–১ ৭–১ ৩–১ ৪–১ ৩–২ ১–১ ২–১ ০–২ ১–১ ০–৩ ১–০ ৩–০ ৩–০ ১–২
এসসি ফ্রেইবুর্গ ৫–১ ২–১ ১–১ ০–৪ ১–১ ০–২ ১–১ ২–৪ ৩–০ ০–০ ১–৩ ৩–১ ১–১ ৫–১ ১–০ ৩–৩ ৩–৩
হানোফার ৯৬ ১–২ ০–২ ০–১ ০–০ ০–১ ০–৩ ৩–০ ১–৩ ০–৩ ২–৩ ১–০ ০–১ ০–৪ ২–০ ০–১ ৩–১ ২–১
১৮৯৯ হোফেনহাইম ২–১ ২–০ ০–১ ১–১ ১–১ ১–২ ৩–১ ৩–০ ১–২ ৪–১ ১–১ ০–০ ১–৩ ২–১ ১–১ ৪–০ ১–৪
আরবি লাইপৎসিশ ০–০ ৫–০ ৩–২ ০–১ ১–১ ০–০ ২–১ ৩–২ ১–১ ৩–০ ৪–১ ২–০ ০–০ ৬–০ ০–০ ২–০ ২–০
বায়ার লেভারকুজেন ১–০ ৩–১ ১–৩ ২–৪ ২–০ ৬–১ ২–০ ২–২ ১–৪ ২–৪ ১–০ ০–১ ৩–১ ২–০ ১–১ ২–০ ১–৩
মাইঞ্জ ০৫ ২–১ ০–০ ২–১ ১–২ ৩–১ ২–২ ৫–০ ১–১ ৪–২ ৩–৩ ১–৫ ০–১ ১–২ ২–১ ৩–০ ১–০ ০–০
বরুশিয়া মনশেনগ্লাডবাখ ২–০ ০–৩ ১–১ ০–২ ৩–০ ৩–১ ১–১ ৪–১ ২–২ ১–২ ২–০ ৪–০ ১–৫ ২–০ ২–১ ৩–০ ০–৩
বায়ার্ন মিউনিখ ১–১ ১–০ ১–০ ৫–০ ৩–৩ ৫–১ ১–১ ৩–১ ৩–১ ১–০ ৩–১ ৬–০ ০–৩ ৩–০ ৩–১ ৪–১ ৬–০
নুর্নবের্গ ৩–০ ১–৩ ১–১ ০–০ ৩–০ ১–১ ০–১ ২–০ ১–৩ ০–১ ১–১ ১–১ ০–৪ ১–১ ১–১ ০–২ ০–২
শালকে ০৪ ০–০ ০–২ ০–২ ১–২ ০–৪ ১–২ ০–০ ৩–১ ২–৫ ০–১ ১–২ ১–০ ০–২ ০–২ ৫–২ ০–০ ২–১
ভিএফবি স্টুটগার্ট ১–০ ২–১ ২–১ ০–৪ ০–০ ০–৩ ২–২ ৫–১ ১–১ ১–৩ ০–১ ২–৩ ১–০ ০–৩ ১–১ ১–৩ ৩–০
ভিএফএল উলফসবুর্গ ৮–১ ২–২ ১–১ ০–১ ৫–২ ১–১ ১–৩ ৩–১ ২–২ ১–০ ০–৩ ৩–০ ২–২ ১–৩ ২–০ ২–১ ২–০
উৎস: ডিএফবি
রং: নীল = স্বাগতিক দল বিজয়ী; হলুদ = ড্র; লাল = সফরকারী দল বিজয়ী।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Bundesliga Performance Stats – 2018–19"। ESPN। সংগ্রহের তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. "DFB-Präsidium verabschiedet Rahmenterminkalender 2018/2019" [DFB executive committee adopts 2018–19 framework schedule]। DFB.de (German ভাষায়)। German Football Association। ৮ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. "Coventric!"। Rec.Sport.Soccer Statistics Foundation। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০১৮ 
  4. "Bundesliga ab Sommer offiziell mit Video-Assistent – 2. Bundesliga mit Offline-Testphase" [Bundesliga officially with video assistant starting in summer – 2. Bundesliga with offline test phase]। DFL.de (German ভাষায়)। Deutsche Fußball Liga। ২২ মার্চ ২০১৮। ২৮ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মে ২০১৯ 
  5. "Spielordnung" [Match rules] (PDF)DFL.de (German ভাষায়)। Deutsche Fußball Liga। ১ জুলাই ২০১৮। পৃষ্ঠা 3। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

টেমপ্লেট:বুন্দেসলিগা টেমপ্লেট:২০১৮–১৯-এ জার্মান ফুটবল