বিল লরি

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

উইলিয়াম মরিস বিল লরি, এএম (ইংরেজি: Bill Lawry; জন্ম: ১১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৩৭) মেলবোর্নে জন্মগ্রহণকারী সাবেক ও বিখ্যাত অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অধিনায়ক ছিলেন। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নামতেন ‘ফান্টো’ ডাকনামে পরিচিত বিল লরি

বিল লরি
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামউইলিয়াম মরিস লরি
জন্ম (1937-02-11) ১১ ফেব্রুয়ারি ১৯৩৭ (বয়স ৮৩)
থর্নবারি, ভিক্টোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া
ডাকনামফান্টো, বিউগল বিক, দ্য কর্পস উইদ প্যাডস অন
উচ্চতা১.৮৭ মিটার (৬ ফুট ২ ইঞ্চি)
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনবামহাতি মিডিয়াম পেস
ভূমিকাউদ্বোধনী ব্যাটসম্যান, অধিনায়ক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২১৯)
৮ জুন ১৯৬১ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৭১ বনাম ইংল্যান্ড
একমাত্র ওডিআই
(ক্যাপ )
৫ জানুয়ারি ১৯৭১ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৫৬–১৯৭২ভিক্টোরিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৬৭ ২৪৯
রানের সংখ্যা ৫২৩৪ ২৭ ১৮৭৩৪ ৩০৯
ব্যাটিং গড় ৪৭.১৫ ২৭.০০ ৫০.৯০ ৫১.৫০
১০০/৫০ ১৩/২৭ ০/০ ৫০/১০০ ১/১
সর্বোচ্চ রান ২১০ ২৭ ২৬৬ ১০৮*
বল করেছে ১৪ ২৬৬
উইকেট
বোলিং গড় - - ৩৭.৬০ -
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং - - ১/৩ -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩০/০ ১/০ ১২২/০ ৩/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে ভিক্টোরিয়ার প্রতিনিধিত্ব করেন। ব্যাটিং উদ্বোধনে নেমে দীর্ঘক্ষণ ক্রিজে অবস্থান করার সুখ্যাতি ছিল তার।

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

মেলবোর্নের কাছাকাছি থর্নবারি এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন বিল লরি। অস্ট্রেলিয়ার প্রথমদিককার প্রধানমন্ত্রী উইলিয়াম মরিস হিউজের নাম অনুসরণে তার নাম রাখা হয়। তার বাবা আলফ্রেড ৫১ বছর বয়স পর্যন্ত শৌখিন ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেন। তবে লরি কখনও তাকে খেলতে দেখেননি। কেননা, যখন আলফ্রেডের বয়স ৪৭, তখন তিনি জন্মগ্রহণ করেন।[১] নয়বছর বয়সে থর্নবারি প্রেসবাইটেরিয়া চার্চ দলের পক্ষে প্রথমবারের মতো প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে অংশ নেন।[২]

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

এজবাস্টনে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে তার অভিষেক ঘটে। তাকে স্থান দিতে গিয়ে দল নির্বাচকমণ্ডলী বব সিম্পসনকে ছয় নম্বরে নিয়ে যান। ড্র হওয়া ঐ টেস্টে তিনি ৫৭ রান তোলেন। অস্ট্রেলিয়া দল তাদের একমাত্র ইনিংসে ৯ উইকেটে ৫১৬ তোলে ডিক্লেয়ার দেয়।[৩] লর্ডসের দ্বিতীয় টেস্টে ফ্রেড ট্রুম্যানব্রায়ান স্ট্যাদামের ন্যায় দূর্ষর্ষ পেস বোলিং মোকাবেলা করতে হয়েছে তাকে। ইংল্যান্ড দল ২০৬ রানে অল-আউট হয় ও প্রথমদিন শেষে ৩২ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। পরের দিন মধ্যাহ্নবিরতি পর্যন্ত ১১১/৪ হয় ও এক পর্যায়ে ১৮৩/৫ হয়। এসময় পিটার বার্জ ৪৬ রানে আউট হন ও লরি ৯৯* রানে অপরাজিত থাকেন।[৪] অবশেষে দীর্ঘ ছয় ঘণ্টায় তিনি তার প্রথম সেঞ্চুরি তুলতে সক্ষম হন। অন্য কোন ব্যাটসম্যানই ৬৬ রানের বেশি তুলতে পারেননি।[৪] এরফলে অস্ট্রেলিয়া দল প্রথম ইনিংসে এগিয়ে থেকে টেস্ট জয় করে।

পুরো সিরিজে ব্যাটিং গড়ে শীর্ষে অবস্থান করেন। প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ৬১.১৮ গড়ে ২,০১৯ এবং পাঁচ-টেস্টে ৫২.৫০ গড়ে ৪২০ রান তোলেন। সফরে তিনি নয়বার তিন অঙ্কের ঘরে পৌঁছেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে ইংল্যান্ড সফরে কেবলমাত্র ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যাননীল হার্ভে দুই সহস্রাধিক রান সংগ্রহ করেছিলেন। ফলশ্রুতিতে ১৯৬২ সালে উইজডেন কর্তৃপক্ষ তাকে বর্ষসেরা ক্রিকেটার হিসেবে মনোনীত করে।[৫][৬]

অধিনায়কত্বসম্পাদনা

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলকে ২৫ টেস্টে নেতৃত্ব দেন। তন্মধ্যে তার দল নয়টিতে জয় পায় ও আটটিতে পরাজয়বরণ করে। ১৯৭০-৭১ মৌসুমের অ্যাশেজ সিরিজের পর রক্ষণাত্মকধর্মী নেতৃত্বের কারণে তিনিসহ আরও তিনজন খেলোয়াড়কে দল থেকে বাদ দেয়া হয়।[৭] এরফলে প্রথম অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক হিসেবে সিরিজের মাঝামাঝি সময় দল থেকে বাদ পড়েন। তবে বোর্ড কর্তৃপক্ষ তাকে ব্যক্তিগতভাবে জানায়নি।[৮] তার এ বিদায়কে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম দূর্ভাগ্যজনক ঘটনা হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। দল নির্বাচকমণ্ডলী কর্তৃক তাকে ব্যক্তিগতভাবে না জানিয়ে রেডিওতে প্রথম প্রকাশ করা হয়। পরবর্তীতে জনসমক্ষে প্রকাশের পরই সাংবাদিকদের কাছ থেকে এ বার্তা সম্পর্কে অবগত হন তিনি।[২] তার পরিবর্তে কেন ইস্টউডকে স্থলাভিষিক্ত করা হয়।

১৯৭১ সালে অনুষ্ঠিত একদিনের আন্তর্জাতিকের ইতিহাসের প্রথম খেলায় দলের অধিনায়ক ছিলেন তিনি।

অবসরসম্পাদনা

খেলোয়াড়ী জীবন থেকে অবসর নেয়ার পর নাইন নেটওয়ার্কের ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার দলের সদস্য হন। এখানে তিনি চল্লিশ বছরেরও অধিককাল দায়িত্ব পালন করছেন।[৯]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Douglas Aiton, 10 Things you didn't know about Bill Lawry, Weekend Australian magazine, 15–16 January 2005, p. 15
  2. Cashman, Franks, Maxwell, Sainsbury, Stoddart, Weaver, Webster (১৯৯৭)। The A–Z of Australian cricketers। পৃষ্ঠা 167–168। 
  3. "Player Oracle WM Lawry"CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মে ২০০৯ 
  4. Perry, p. 254.
  5. "Wisden 1961 - Bill Lawry"। -Wisden। ১৯৬২। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০০৭ 
  6. "WM Lawry - Tests - Innings by innings list"Statsguru। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০০৭ 
  7. Mallett, p. 183.
  8. Williamson, Martin (১৬ ডিসেম্বর ২০০৬)। "The end of a Victorian hero"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০০৭ 
  9. p. 208, Richard Whitington, Captains Outrageous, Cricket in the seventies, Stanley Paul, 1972

গ্রন্থপঞ্জীসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা


পূর্বসূরী
বব সিম্পসন
অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯৬৭/৬৮–১৯৬৮
উত্তরসূরী
ব্যারি জার্মান
পূর্বসূরী
ব্যারি জার্মান
অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯৬৮–১৯৭০/৭১
উত্তরসূরী
ইয়ান চ্যাপেল
পূর্বসূরী
প্রথম
অস্ট্রেলিয়ার একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯৭০/৭১
উত্তরসূরী
ইয়ান চ্যাপেল