প্রবেশদ্বার:মালদ্বীপ

প্রবেশদ্বারএশিয়াদক্ষিণ এশিয়ামালদ্বীপ

މަރުޙަބާ / মালদ্বীপ প্রবেশদ্বারে স্বাগতম

মালদ্বীপ (/ˈmɔːldivz/ MAWL-deevz; ধিবেহী: ދިވެހިރާއްޖެ, প্রতিবর্ণী. Dhivehi Raajje, ধিবেহী উচ্চারণ: [diʋehi ɾaːd͡ʒːe]), আনুষ্ঠানিকভাবে মালদ্বীপ প্রজাতন্ত্র (ধিবেহী: ދިވެހިރާއްޖޭގެ ޖުމްހޫރިއްޔާ, প্রতিবর্ণী. Dhivehi Raajjeyge Jumhooriyyaa, ধিবেহী উচ্চারণ: [diʋehi ɾaːd͡ʒːeːge d͡ʒumhuːɾijjaː]) দক্ষিণ এশিয়ায় অবস্থিত ভারত মহাসাগরের একটি দ্বীপ দেশ। এর রাজধানীর নাম মালে। দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক জোট সার্ক এর সদস্য। অপরূপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি এ দেশ বিশ্বের সবচেয়ে নিচু দেশ। পর্যটনের জন্য বিখ্যাত এ দেশের সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে সর্বোচ্চ উচ্চতা মাত্র দুই দশমিক তিন মিটার এবং গড় উচ্চতা মাত্র এক দশমিক পাঁচ মিটার। এক হাজার দুই শ’রও বেশি ছোট ছোট দ্বীপ নিয়ে গঠিত মালদ্বীপ।

মালদ্বীপ নামটি সম্ভবত "মালে দিভেহী রাজ্য" হতে উদ্ভূত যার অর্থ হল মালে অধিকৃত দ্বীপরাষ্ট্র। কারো কারো মতে সংস্কৃত 'মালা দ্বীপ' অর্থ দ্বীপ-মাল্য বা 'মহিলা দ্বীপ' অর্থ নারীদের দ্বীপ হতে মালদ্বীপ নামটি উদ্ভূত। প্রাচীন সংস্কৃতে যদিও এরকম কোনও অঞ্চলের উল্লেখ পাওয়া যায় না। তবে প্রাচীন সংস্কৃতে লক্ষদ্বীপ নামক এক অঞ্চলের উল্লেখ রয়েছে। লক্ষদ্বীপ বলতে মালদ্বীপ ছাড়াও লাক্কাদ্বীপ পুঞ্জ অথবা চাগোস দ্বীপপুঞ্জকেও বোঝানো হয়ে থাকতে পারে। অপর একটি মতবাদ হল তামিল ভাষায় 'মালা তিভু' অর্থ দ্বীপমাল্য হতে মালদ্বীপ নামটি উদ্ভূত । (সম্পূর্ণ নিবন্ধ...)

নির্বাচিত নিবন্ধ - নতুন ভুক্তি দেখুন

এলু আধুনিক সিংহলি এবং ধিবেহী ভাষার প্রাচীনতম রূপ। এই ভাষাটি সিংহলের কোনো কোনো স্থানে 'হিলু', 'হেলা' বা 'হেলু' নামেও পরিচিত। আনুমানিক খ্রিস্টীয় ৭০০ থেকে ১৪০০ পর্যন্ত এই ভাষা প্রচলিত ছিলো। পালি ভাষা বিশারদ টমাস উইলিয়াম রিস ডেভিডস এলু-কে "সিংহলের প্রাকৃত" রূপে উল্লেখ করেছেন। সিংহলে দুটি ভাষা বিদ্যমান- ১। সিংহলী (সীহল) ভাষা, এটি আর্যগোষ্ঠীর ভাষা; এটি বাংলা, হিন্দি, মারাঠি, গুজরাটির মতো ভারতের আদি আর্য ভাষা (বৈদিক সংস্কৃত) থেকে উদ্ভূত। এবং ২। দ্রাবিড়-গোষ্ঠীর তামিল ভাষাপশ্চিম ভারত (লাট, বা লাড়<লাল>, অর্থাৎ দক্ষিণ সিন্ধুপ্রদেশ ও গুজরাত) হতে ঐ অঞ্চলের প্রাকৃত ভাষাকে নিয়ে খ্রিস্টপূর্ব প্রথম সহস্রকের দ্বিতীয়ার্ধ হতে ভারতীয় আর্যভাষী ঔপনিবেশিকেরা লঙ্কা দ্বীপে গিয়ে বসবাস করতে শুরু করে। লঙ্কা দ্বীপে বা সিংহলে এই ভারতীয় আর্যভাষা পরিবর্তন-ধর্ম অনুসারে এবং নতুন পরিবেশের প্রভাবে বিশিষ্ট পথে চলতে থাকে। দীর্ঘ পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে বৈদিক সংস্কৃত পশ্চিম ভারতের প্রাকৃত বা লাট প্রাকৃতের রূপ লাভ করে। অতঃপর তা খ্রীস্ট জন্মের অব্যবহিত পূর্ব হতে খ্রিস্টীয় সপ্তম-অষ্টম শতকের মধ্যবর্তী সময়ে সিংহলী প্রাকৃতের রূপ ধারণ করে। এরপর তার নাম হয় সিংহলী অপভ্রংশ যার লোক-প্রচলিত নাম নাম 'এলু'। আনুমানিক ১৫০০ খ্রীস্টাব্দের পর হতে তা আধুনিক বা নব্য সিংহলীর রূপ ধারণ করে। এলু নামের ব্যুৎপত্তি এইভাবে হওয়া সম্ভবঃ ' সিংহল > সীহলো > সীহলু > হিঅলু > হেলু > এলু'- এই শব্দের 'ল' হলো মূর্ধণ্য 'ল', যা বৈদিক সংস্কৃতে ও কোনো কোনো প্রাকৃতে বিদ্যমান ছিলো, এবং এখনও পাঞ্জাবী, সিন্ধী, রাজস্থানী, গুজরাতী, মারাঠি ও ওড়িয়াতে এই 'ল'-এর অস্তিত্ব আছে। (সম্পূর্ণ নিবন্ধ...)
নির্বাচিত ভুক্তির তালিকা


মালে (ধিবেহী: މާލެ; /ˈmɑːl/, locally [ˈmaːle]) হল মালদ্বীপের রাজধানী ও সর্বাধিক জনবহুল শহর। এ শহরের জনসংখ্যা ১৩৩৪১২ এবং আয়তন ৯.২৭ বর্গ কিলোমিটার (৩.৫৮ বর্গ মাইল)। এটি পৃথিবীর অন্যতম সর্বাধিক ঘনবসতিপূর্ণ শহরগুলোর মধ্যে অন্যতম। ভৌগোলিকভাবে শহরটি উত্তর মালা অ্যাটল(কাফু অ্যাটল) এর দক্ষিণে অবস্থিত। প্রশাসনিকভাবে শহরটিতে একটি কেন্দ্রীয় দ্বীপ, একটি বিমানবন্দর এবং মালে সিটি কাউন্সিল পরিচালিত আরোও দুটি দ্বীপ রয়েছে।

ঐতিহাসিকভাবে এটি ছিল রাজা শাসিত দ্বীপ। যেখানে প্রাচীন রাজবংশ শাসন করত আর সেখানেই প্রাসাদটি অবস্থিত। শহরটিকে তখন মহল বলা হত। পূর্বে এটি দুর্গ ও দরজা দ্বারা সুরক্ষিত একটি শহর ছিল.১৯৪৮ সালে রাজতন্ত্র বিলুপ্ত হবার পরই রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম নাসির এর শাসনকালে শহরটিকে পুনঃনির্মাণ করা হয় এবং রাজপ্রাসাদ(গনদুয়ারা),সুরম্য দুর্গসমূহ(কোশি) এবং ঘাঁটিসমূহ(বুড়ুজ) ধ্বংস করা হয়। তবে মালে ফ্রাইডে মসজিদ রয়ে গিয়েছিল। সাম্প্রতিক সময়ে জমি ভরাটকরণ অভিযানের মাধ্যমে দ্বীপটিকে যথেষ্ট পরিমাণ বর্ধিত করা হয়েছে। বছরের পর বছর ধরে মালে রাজনৈতিক প্রতিবাদ ও মাইলফলক ঘটনাবলির কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। (সম্পূর্ণ নিবন্ধ...)
নির্বাচিত ভুক্তির তালিকা

নির্বাচিত জীবনী - নতুন ভুক্তি দেখুন

প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আমিন দিদি
আল আমীর মোহাম্মদ আমিন ধোশাঈমেয়ানা কিলাইফানু (ধিবেহী: އަލްއަމީރު މުހައްމަދު އަމީން ދޮށިމޭނާ ކިލެގެފާނު) (জুলাই ২০, ১৯১০ – জানুয়ারী ১৯, ১৯৫৪), জনপ্রিয় হিসাবে পরিচিত মোহাম্মদ আমিন দিদি ছিলেন মালদ্বীপের একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তিনি মালদ্বীপের প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এবং ১লা জানুয়ারী, ১৯৫৩ থেকে ২১ আগস্ট, ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত সরকারের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। আমিন দিদি ১৯৪৬ সাল থেকে ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত মাজিদিয়া স্কুলের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আমিন দিদির আমেনা আমীন নামে একজন কন্যা সন্তান রয়েছে। তার নাতি আমিন ফয়সাল মালদ্বীপের সাবেক মন্ত্রী এবং মালদ্বীপের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের দায়িত্বে ছিলেন। তার অন্যান্য নাতীরা হলেনঃ ইব্রাহিম ফয়সাল, ফারহানাজ ফয়সাল ও ইশাত শুভইকার। (সম্পূর্ণ নিবন্ধ...)
নির্বাচিত ভুক্তির তালিকা


মালদ্বীপের সংস্কৃতি - নতুন ভুক্তি দেখুন

মালদ্বীপ জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Maldives national football team, ধিবেহী: ދިވެހިރާއްޖޭ ގައުމީ ފުޓްބޯލް ޓީމް) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে মালদ্বীপের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম মালদ্বীপের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা মালদ্বীপ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৮৬ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং একই বছর হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৭৯ সালের ২৭শে আগস্ট তারিখে, মালদ্বীপ প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; রেউনিওঁয়ে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে মালদ্বীপ সেশেলসের কাছে ৯–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

১২,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট মালদ্বীপ জাতীয় ফুটবল স্টেডিয়ামে লাল স্নেপার নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন মার্টিন কোপমান এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন নিউ রেডিয়েন্টের মধ্যমাঠের খেলোয়াড় আকরাম আব্দুল ঘানি। (সম্পূর্ণ নিবন্ধ...)
নির্বাচিত ভুক্তির তালিকা

নির্বাচিত চিত্র- নতুন চিত্র দেখুন

মালদ্বীপ সম্পর্কিত বিভিন্ন নিবন্ধে ব্যবহৃত চিত্র

নির্বাচিত তালিকা


আপনি যা করতে পারেন

  • মালদ্বীপ বিষয়ক নতুন নিবন্ধ তৈরি অথবা অন্য উইকিপ্রকল্প হতে অনুবাদ করতে পারেন।
  • বর্তমান নিবন্ধ অথবা মালদ্বীপ বিষয়ক বিভিন্ন (নিম্নের) টেমপ্লেট হতে লাল লিঙ্ক থাকা বিষয় নিয়ে নতুন নিবন্ধ রচনা করতে পারেন।
  • বিদ্যমান নিবন্ধসমূহ তথ্য দিয়ে সমৃদ্ধ, সম্প্রসারণ, রচনাশৈলীর উন্নয়ন ও তথ্যছক না থাকলে যুক্ত করতে পারেন।
  • নিবন্ধগুলিতে উইকিমিডিয়া কমন্স হতে দরকারী ও প্রাসঙ্গিক মুক্ত চিত্র যুক্ত করতে পারেন।
  • মালদ্বীপ সংক্রান্ত নিবন্ধসমূহে বিষয়শ্রেণী না থাকলে যুক্ত করতে পারেন।
  • নিবন্ধসমূহে তথ্যসূত্রের ঘাটতি থাকলে, পর্যাপ্ত সূত্র যোগ করতে পারেন।
  • মালদ্বীপ সম্পর্কিত নিবন্ধসমূহের শেষে {{প্রবেশদ্বার দণ্ড|মালদ্বীপ}} যুক্ত করতে পারেন।


সম্পর্কিত প্রবেশদ্বার

বিষয়


বিষয়শ্রেণীসমূহ

বিষয়শ্রেণী ধাঁধা
বিষয়শ্রেণী ধাঁধা
উপবিষয়শ্রেণী দেখার জন্য [►] ক্লিক করুন


উইকিমিডিয়া


উইকিসংবাদে মালদ্বীপ
উন্মুক্ত সংবাদ উৎস


উইকিউক্তিতে মালদ্বীপ
উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন


উইকিসংকলনে মালদ্বীপ
উন্মুক্ত পাঠাগার


উইকিবইয়ে মালদ্বীপ
উন্মুক্ত পাঠ্যপুস্তক ও ম্যানুয়াল


উইকিবিশ্ববিদ্যালয়ে মালদ্বীপ
উন্মুক্ত শিক্ষা মাধ্যম


উইকিমিডিয়া কমন্সে মালদ্বীপ
মুক্ত মিডিয়া ভাণ্ডার


উইকিঅভিধানে মালদ্বীপ
অভিধান ও সমার্থশব্দকোষ


উইকিউপাত্তে মালদ্বীপ
উন্মুক্ত জ্ঞানভান্ডার


উইকিভ্রমণে মালদ্বীপ
উন্মুক্ত ভ্রমণ নির্দেশিকা

সার্ভার ক্যাশ খালি করুন