রোডেশিয়া ক্রিকেট দল

দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট দল, জিম্বাবুয়ীয় ক্রিকেট দল
(Rhodesia cricket team থেকে পুনর্নির্দেশিত)

রোডেশিয়া ক্রিকেট দল (ইংরেজি: Rhodesia cricket team) প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট দলবিশেষ। ব্রিটিশ উপনিবেশভূক্ত দক্ষিণ রোডেশিয়ার পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্বকারী দল এটি। পরবর্তীতে এটি স্বাধীন রাষ্ট্র রোডেশিয়ার (বর্তমানে জিম্বাবুয়ে) প্রতিনিধিত্ব করতো। ১৯৮০ সালে রোডেশিয়া ক্রিকেট দলের নাম পরিবর্তন করে জিম্বাবুয়ে-রোডেশিয়া ক্রিকেট দল রাখা হয়। ১৯৮১ সালে এটি বর্তমানের জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল নাম গ্রহণপূর্বক পরিচিতি পাচ্ছে।

রোডেশিয়া
দলের তথ্য
শেষ ম্যাচ১৯৮০
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল
আইসিসি মর্যাদাবর্তমানে জিম্বাবুয়ে (১৯৮১ (জিম্বাবুয়ে-রোডেশিয়া))
আইসিসি অঞ্চলআফ্রিকা
বিশ্ব ক্রিকেট লিগ১৫
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট
প্রথম আন্তর্জাতিক১৯০৫ ব ট্রান্সভাল
৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ অনুযায়ী

সম্মাননা সম্পাদনা

  • কারি কাপ (০) –
  • জিলেট/নিসান কাপ (১) – ১৯৭৭-৭৮

ইতিহাস সম্পাদনা

১৯০৫ সাল থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার কারি কাপ চ্যাম্পিয়নশীপে রোডেশিয়া দল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়। দলটি তাদের প্রথম অংশগ্রহণে মোটেই সুবিধে করতে পারেনি। ট্রান্সভালের কাছে প্রথম খেলায় ইনিংস ও ১৭০ রানে পরাজিত হয়। এরপর থেকে ১৯২৯-৩০ মৌসুমের পূর্ব-পর্যন্ত রোডেশিয়া দল কারি কাপের খেলায় অংশ নেয়নি। ১৯৩১-৩২ মৌসুমেও দলটি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়। পাঁচ খেলার চারটিতেই জয়ের সন্ধান পায়। কিন্তু, ঐ সময়ের পয়েন্ট ব্যবস্থায় ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের কাছে শিরোপা খোঁয়ায়। এরপর, ১৯৪৬-৪৭ মৌসুমের পূর্ব-পর্যন্ত আর খেলেনি। তারপর থেকেই দলটি নিয়মিতভাবে অংশ নিতে থাকে।

অক্টোবর, ১৯৬১ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা গমনার্থে নিউজিল্যান্ড দল রোডেশিয়া সফর করে। দুইটি তিনদিনের প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলায় অংশ নেয় সফরকারী দল। প্রথমটি বুলাওয়েতে ও অপরটি সলসবারিতে। উভয় খেলায় ড্রয়ে পরিণত হয়েছিল।[১][২]

সবমিলিয়ে ২৪২জন ক্রিকেটার রোডেশিয়ার প্রতিনিধিত্ব করেছেন। উল্লেখযোগ্য রোডেশীয় খেলোয়াড়দের মধ্যে রয়েছেন - ডেনিস টমলিনসন, ক্রিস ডাকওয়ার্থ, টনি পিদি, ডেভিড পিদি, জ্যাকি দু প্রিজ, জো প্যাট্রিজ, গডফ্রে লরেন্সকলিন ব্ল্যান্ড। কেবলমাত্র তারাই রোডেশিয়ায় জন্মগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে খেলেছেন। এছাড়াও, তাদের সাথে শ্রপশায়ারে জন্মগ্রহণকারী পার্সি ম্যানসেল, দক্ষিণ আফ্রিকান পল উইনস্লো, মাইক প্রক্টর, পিটার কার্লস্টেইন ও মিশরে জন্মগ্রহণকারী জন ট্রাইকোস রোডেশিয়ার পক্ষে খেললেও কখনো দলটি কারি কাপের শিরোপার সন্ধান পায়নি। ১৯৭৯-৮০ মৌসুমে দলটি জিম্বাবুয়ে-রোডেশিয়া নামে প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় এবং ঐ মৌসুম শেষে দলটি চিরতরে এ প্রতিযোগিতা থেকে চলে যায়। এ পর্যায়ে দলটি স্বাধীন জিম্বাবুয়ের প্রতিনিধিত্ব করে।

জিম্বাবুয়ে স্বাধীন দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশের পূর্বে রোডেশিয়ার খেলোয়াড়দেরকে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অংশগ্রহণের যোগ্যতা ছিল।

মাঠ সম্পাদনা

রোডেশিয়ায় নিম্নবর্ণিত মাঠ রয়েছে:

  • কুইন্স স্পোর্টস ক্লাব, বুলাওয়ে (মার্চ, ১৯১০ - বর্তমান)
  • সলসবারি / হারারে স্পোর্টস ক্লাব মার্চ, ১৯১০ - বর্তমান) : ম্যাশোনাল্যান্ডের অনুশীলনী মাঠ, ১৯৫৪ থেকে)
  • রেলটন ক্লাব, বুলাওয়ে (মাঝে-মধ্যে, ডিসেম্বর, ১৯২৪ - ফেব্রুয়ারি, ১৯৫৫)
  • ওল্ড হারারিয়ান্স এ ফিল্ড, সলসবারি (একবার, মার্চ, ১৯৫০)
  • বুলাওয়ে অ্যাথলেটিক ক্লাব (একবার, নভেম্বর, ১৯৫১): মাতাবেলেল্যান্ডের অনুশীলনী মাঠ, ১৯৯৪ সাল থেকে)
  • পুলিশ এ গ্রাউন্ড, সলসবারি (অক্টোবর, ১৯৫৭ - ডিসেম্বর, ১৯৬৮)
  • পুলিশ বি গ্রাউন্ড, সলসবারি (নভেম্বর, ১৯৬৯ - জানুয়ারি, ১৯৮০)

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  • South African Cricket Annual – বিভিন্ন সংস্করণ
  • Wisden Cricketers' Almanack – বিভিন্ন সংস্করণ