১৯৯০ সাল ছিল বাংলাদেশের স্বাধীনতার ১৯তম বছর। এটি ছিল হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রশাসনের শেষ বছর।

১৯৯০
-এ
বাংলাদেশ
শতাব্দী:
দশক:
আরও দেখুন:১৯৯০-এর অন্যান্য ঘটনা
বছরের তালিকা অনুযায়ী বাংলাদেশ

দায়িত্বপ্রাপ্ত সম্পাদনা

জলবায়ু সম্পাদনা

১৯৯০-এ বাংলাদেশ-এর আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য
মাস জানু ফেব্রু মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টে অক্টো নভে ডিসে বছর
দৈনিক গড় °সে (°ফা) ১৯.৫
(৬৭.১)
২১.৩
(৭০.৩)
২৩.৯
(৭৫.০)
২৬.৬
(৭৯.৯)
২৮.
(৮২)
২৮.৬
(৮৩.৫)
২৭.৯
(৮২.২)
২৮.৭
(৮৩.৭)
২৮.৩
(৮২.৯)
২৬.৩
(৭৯.৩)
২৪.৮
(৭৬.৬)
২০.৪
(৬৮.৭)
২৫.৪
(৭৭.৭)
অধঃক্ষেপণের গড় মিমি (ইঞ্চি) ১.৮
(০.০৭)
৪৭.৮
(১.৮৮)
১০১.৩
(৩.৯৯)
২৫৭.৩
(১০.১৩)
২৬১.৩
(১০.২৯)
৫১৫.৮
(২০.৩১)
৫২২.৬
(২০.৫৭)
৪৯৪.৮
(১৯.৪৮)
৩১৬.৫
(১২.৪৬)
২৩২.৯
(৯.১৭)
৫৩.৫
(২.১১)
১২.৮
(০.৫০)
২,৮১৮.২
(১১০.৯৫)
উৎস: Climatic Research Unit (CRU) of University of East Anglia (UEA)[১]

ঘটনাবলী সম্পাদনা

  • 10 অক্টোবর - নাজিরুদ্দিন জেহাদ, বাংলাদেশের গণতন্ত্রপন্থী আন্দোলনের একজন কর্মী, রাজধানী ঢাকার দৈনিক বাংলা মোড়ের সামনে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বিরুদ্ধে পূর্ণাঙ্গ আন্দোলনের প্রথম দেশব্যাপী হরতাল চলাকালে পুলিশের বাড়াবাড়ির কারণে নিহত হন। [২]
  • 30 অক্টোবর - ভারতের অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ভেঙে ফেলা হয়েছে এমন গুজবের পর বাংলাদেশে বাঙালি হিন্দুদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক আক্রমণ শুরু হয়।
  • 19 নভেম্বর - বিএনপি নেতৃত্বাধীন 7-দলীয় জোট, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে 8-দলীয় জোট এবং বামপন্থী পাঁচ-দলীয় জোট একটি "তিন জোটের যৌথ ঘোষণাপত্র" তৈরি করে। [৩] এই ঘোষণা একটি বেসামরিক সরকারের কাছে এরশাদের প্রেসিডেন্সি হস্তান্তরের প্রক্রিয়ার রূপরেখা দিয়ে একটি রোড-ম্যাপ প্রদান করে। ঘোষণায় একটি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ধারণা অন্তর্ভুক্ত ছিল যা এরশাদের পতনের পর ক্ষমতা গ্রহণ করবে এবং ক্ষমতায় আসার 90 দিনের মধ্যে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করবে।
  • 27 নভেম্বর – সংবাদপত্রের উপর সেন্সরশিপ আরোপ করা হয় যাতে কঠোর নজরদারি করা যায়; সংবাদপত্র মালিক ও সাংবাদিকরা পরের দিন থেকে সংবাদপত্র প্রকাশ না করার সিদ্ধান্ত নেন। এরশাদ জরুরি অবস্থা জারি, কারফিউ জারি।
  • 4 ডিসেম্বর - এইচ এম এরশাদের শাসনের বিরুদ্ধে চলমান বিক্ষোভ একটি গণ-অভ্যুত্থানে পরিণত হয়, যখন কয়েক লাখ লোক ঢাকার রাজপথে সমাবেশ করে বাংলাদেশের রাজধানী কার্যত স্থবির হয়ে পড়ে।
  • ৬ ডিসেম্বর – রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ পদত্যাগ করতে বাধ্য হন; তিনি শাহাবুদ্দিন আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হন, যিনি অন্তর্বর্তীকালীন রাষ্ট্রপতি হন।
  • বাংলাদেশ 1990 সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন পাস করে [৪]

পুরস্কার ও সম্মাননা সম্পাদনা

স্বাধীনতা দিবস পুরষ্কার সম্পাদনা

প্রাপক এলাকা বিঃদ্রঃ
আমিনুল ইসলাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
মোহাম্মদ ইয়াসিন গ্রামীণ উন্নয়ন

একুশে পদক সম্পাদনা

  1. শওকত আলী (সাহিত্য)
  2. আব্দুল গনি হাজারী (সাংবাদিকতা)
  3. লুৎফুল হায়দার চৌধুরী (শিক্ষা)
  4. দেবদাস চক্রবর্তী (চারুকলা)
  5. রাহিজা খানম ঝুনু (নৃত্য)
  6. খোদা বক্স শাই (কণ্ঠ সঙ্গীত)

খেলাধুলা সম্পাদনা

জন্ম সম্পাদনা

জানুয়ারি-মার্চ সম্পাদনা

এপ্রিল-জুন সম্পাদনা

জুলাই-সেপ্টেম্বর সম্পাদনা

অক্টোবর-ডিসেম্বর সম্পাদনা

মৃত্যু সম্পাদনা

জানুয়ারি-মার্চ সম্পাদনা

এপ্রিল-জুন সম্পাদনা

জুলাই-সেপ্টেম্বর সম্পাদনা

অক্টোবর-ডিসেম্বর সম্পাদনা

আরো দেখুন সম্পাদনা

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "Climate Change Knowledge Portal"। The World Bank Group। ২৭ মে ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০১৮ 
  2. "Jehad's family to file murder case after 20 years"The Daily Star। ১০ অক্টোবর ২০১০। 
  3. Rono, Haider Akbar Khan (২০১০)। Śatābdī pēriẏē শতাব্দী পেরিয়ে। Taraphadara prakashani। পৃষ্ঠা 429। আইএসবিএন 984-779-027-2 
  4. "Drugs & Law in Bangladesh"। ২০০৭-০৫-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০২-১৫ 
  5. New Straits Times, September 24–29, 1990
  6. "Shooting 10m Air Pistol (Pair) - Men Auckland 1990"। Commonwealth Games Foundation। ২০১৮-১১-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-০৭ n
  7. "Shooting 50m Free Pistol (Pair) - Men Auckland 1990"। Commonwealth Games Foundation। ২০১৮-১১-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-০৭ n
  8. "List of Champions"। Atsushi Fujioka for Rec.Sport.Soccer Statistics Foundation। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৬