প্রধান মেনু খুলুন

স্থানাঙ্ক: ৪৬°১৪′০৩″ উত্তর ৬°০৩′১০″ পূর্ব / ৪৬.২৩৪১৭° উত্তর ৬.০৫২৭৮° পূর্ব / 46.23417; 6.05278

অর্গানিজাসিওঁ ওরোপেএন পুর লা রেশের্শে ন্যুক্লেয়্যার (ফরাসি: Organisation européenne pour la recherche nucléaire; ইংরেজি ভাষায়: European Organization for Nuclear Research), যা সের্ন নামে বেশি পরিচিত (উচ্চারণ [sɜːɹn] বা ফরাসি উচ্চারণে [sɛrn]), জেনেভা শহরের পশ্চিমে ফ্রান্সসুইজারল্যান্ড-এর মধ্যকার সীমান্তে অবস্থিত বিশ্বের সর্ববৃহৎ কণা পদার্থবিজ্ঞান (Particle Physics) গবেষণাগারওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব এর পীঠস্থান হিসাবেও এর পরিচিতি রয়েছে। ১৯৫৪ এর সেপ্টেম্বর ২৯-এ অনুষ্ঠিত এক সভায় সের্ন প্রতিষ্ঠার প্রস্তাবটি স্বাক্ষরিত হয়। প্রস্তাবে স্বাক্ষরকারী রাষ্ট্রের সংখ্যা শুরুতে মাত্র ১২ থাকলেও বর্তমানে এই সদস্য রাষ্ট্রের সংখ্যা বেড়ে ২০-এ দাঁড়িয়েছে।

ইউরোপিয়ান অর্গানাইজেশন
ফর নিউক্লিয়ার রিসার্চ
Organisation européenne
pour la recherche nucléaire
সার্ন অফিসিয়াল লোগো.jpg
CERN member states .svg
সদস্য রাষ্ট্র
গঠিত২৯ স্পেটেম্বর ১৯৫৪
সদর দপ্তরজেনেভা, সুইজারল্যান্ড
সদস্যপদ
21 member states and 7 observers
Rolf-Dieter Heuer
ওয়েবসাইটcern.ch

সের্ন-এর আদি নাম ফরাসি "কোঁসেই ওরোপেয়ঁ পুর লা রেশের্শে ন্যুক্লেয়্যার" (Conseil Européen pour la Recherche Nucléaire)-এর আদ্যক্ষর চতুষ্টয় c, e, r, ও n থেকেই CERN বা সের্ন নামের উৎপত্তি।

সদস্য রাষ্ট্রসমূহসম্পাদনা

 
সের্ন এর সদস্য রাষ্ট্রসমূহ
বর্ণার্থ:
  • নীল: প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্যসমূহ
  • সবুজ: সের্ন এ পরে যোগদানকারী সদস্যসমূহ

শুরুতে স্বাক্ষরকারী রাষ্ট্রগুলো হচ্ছে:

এরপরে:

যার ফলশ্রুতিতে বর্তমান সদস্যা সংখ্যা ২০-এ দাঁড়িয়েছে। তাছাড়া ৮ টি সত্ত্বার(আন্তর্জাতিক সংস্থা অথবা দেশসমূহ) রয়েছে "পর্যবেক্ষক মর্যাদা"। এরা হলো ইউরোপিয়ান কমিশন, ভারত, ইস্রায়েল, জাপান, রাশিয়া, তুরস্ক, ইউনেস্কো এবং ইউএসএ