মদন লাল

ভারতীয় ক্রিকেটার

মদন লাল যুদ্ধরাম শর্মা (এই শব্দ সম্পর্কেউচ্চারণ ; হিন্দি: मदन लाल; জন্ম: ২০ মার্চ, ১৯৫১) পাঞ্জাবের অমৃতসরে এক ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণকারী সাবেক ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১] ১৯৭৪ থেকে ১৯৮৭ সময়কালে ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে মিডিয়াম বোলিংয়ে সফলতা পেয়েছেন। ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। অবসর পরবর্তীকালে ভারতীয় ক্রিকেট দল ও ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লীগে দিল্লি জায়ান্টস দলে কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

মদন লাল
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমদন লাল যুদ্ধরাম শর্মা
জন্ম (1951-03-20) ২০ মার্চ ১৯৫১ (বয়স ৬৯)
অমৃতসর, পাঞ্জাব, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা ৩৯ ৬৭
রানের সংখ্যা ১০৪২ ৪০১
ব্যাটিং গড় ২২.৬৫ ১৯.০৯
১০০/৫০ -/৫ -/১
সর্বোচ্চ রান ৭৪ ৫৩*
বল করেছে ৫৯৯৭ ৩১৬৪
উইকেট ৭১ ৭৩
বোলিং গড় ৪০.০৮ ২৯.২৭
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৫/২৩ ৪/২০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৫/- ১৮/-
উৎস: ক্রিকইনফো, ২৬ আগস্ট ২০১৭

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ২২টি সেঞ্চুরিসহ ৪২.৮৭ রান গড়ে ১০,২০৪ রান সংগ্রহ করেন। এছাড়াও, উইকেট-প্রতি ২৫.৫০ রান দিয়ে ৬২৫ উইকেট দখল করেছেন। নিচেরসারির ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নামতেন ও দলের কঠিন সময় হাল ধরতেন। এরফলে সমর্থকদের কাছে মদ্দত লাল ডাক নামে পরিচিতি পান।

১৯৭৫ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে মদন লাল তার প্রথম বলে ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যান ডেনিস অ্যামিসকে আউট করেছিলেন।[২] এছাড়াও, ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের অধিনায়ক কপিল দেব, বলবিন্দর সান্ধু, রজার বিনি, মহিন্দর অমরনাথকীর্তি আজাদের সাথে বোলিং আক্রমণে নেতৃত্ব দিয়ে দলের শিরোপালাভে অংশগ্রহণ করেছেন তিনি। দলের মামুলি ১৮৩ রানে জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল ব্যাট করতে নেমে তার দূর্দান্ত বোলিং তোপের মুখে পড়ে। তার অসাধারণ বোলিংয়ে মাত্র ছয় রানের ব্যবধানে ভিভ রিচার্ডস, ডেসমন্ড হেইন্সল্যারি গোমস আউট হলে ভারত ৪৩ রানের ব্যবধানে নাটকীয়ভাবে জয়ী হয়ে শিরোপা লাভ করে।[৩]

অবসর পরবর্তী সময়কালসম্পাদনা

খেলোয়াড়ী জীবন থেকে অবসর নেয়ার পর মদন লাল ক্রিকেটের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত হন। সংযুক্ত আরব আমিরাত ক্রিকেট দলের কোচের দায়িত্ব পালনসহ ১৯৯৬-৯৭ সময়কালে ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচ ছিলেন তিনি।[৪] এরপর ২০০১ ও ২০০১ সালে দল নির্বাচক কমিটির সদস্য হন। অধুনা বিলুপ্ত ভারতীয় ক্রিকেট লীগে দিল্লি জায়ান্টস (দিল্লি জেটস) দলের কোচেরও দায়িত্ব পালন করেছেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Cricinfo Website - Madan Lal Profile"Cricinfo। ১৯৯৬-০৯-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৩-১৭ 
  2. "Who Shrunk Test Cricket?"Rediff। ২০০২-১২-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৪-০২ 
  3. "India defy the odds"Wisden Cricketers' AlmanackESPN। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১২ 
  4. "Madan Lal appointed as Manager"Cricinfo। ১৯৯৬-০৯-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৩-১৭ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

পূর্বসূরী
সন্দ্বীপ পাতিল
ভারত জাতীয় ক্রিকেট কোচ (ম্যানেজার)
সেপ্টেম্বর, ১৯৯৬ - অক্টোবর, ১৯৯৭
উত্তরসূরী
অংশুমান গায়কোয়াড়
পূর্বসূরী
অজানা
সংযুক্ত আরব আমিরাত জাতীয় ক্রিকেট কোচ
১৯৯৬
উত্তরসূরী
আব্দুল রাজ্জাক কাজিম