প্রধান মেনু খুলুন

এনামুল হক মোস্তফা শহীদ

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

এনামুল হক মোস্তফা শহীদ (২৮ মার্চ ১৯৩৮ - ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬)[১][২] বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন সংগঠক।[৩] তিনি বাংলাদেশের একজন সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।[৪][৫][৬]

এ্যাডভোকেট
এনামুল হক মোস্তফা শহীদ
এনামুল হক মোস্তফা শহীদ.jpg
মন্ত্রী, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়
কাজের মেয়াদ
৬ জানুয়ারি ২০০৯ – ১২ জানুয়ারি ২০১৪
প্রধানমন্ত্রীশেখ হাসিনা
উত্তরসূরীসৈয়দ মহসিন আলী
সাবেক সিলেট-১৭ ও হবিগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৯৭৩ – ১৯৭৫

১৯৯১– ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬
জুন ১৯৯৬–২০০১
২০০১– ২০০৬

২০০৮ – ২০১৪
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1938-03-28) ২৮ মার্চ ১৯৩৮ (বয়স ৮১)
কুটিরগাঁও গ্রাম, উবাহাটা ইউনিয়ন, চুনারুঘাটহবিগঞ্জ, সিলেট, ব্রিটিশ ভারত (বর্তমানে- বাংলাদেশ)
মৃত্যু২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬(2016-02-25) (বয়স ৭৭)[১]
স্কয়ার হাসপাতাল, ঢাকা
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
দাম্পত্য সঙ্গীমিনু মমতাজ
সন্তান২ ছেলে
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
বৃন্দাবন সরকারি কলেজ
জীবিকাআইনজীবী, রাজনীতিবিদ
পুরস্কারস্বাধীনতা পুরস্কার
একুশে পদক

জন্ম ও প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

এনামুল হক মোস্তফা শহীদ ২৮ মার্চ ১৯৩৮ সালে ব্রিটিশ ভারতের আসামের (বর্তমান বাংলাদেশ) সিলেটের হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের উবাহাটা ইউনিয়নের কুটিরগাঁও গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা আব্দুল হক পেশায় চিকিৎসক ছিলেন মাতা খুদেজা খাতুন গৃহিণী ছিলেন।

শিক্ষা জীবনসম্পাদনা

মোস্তফা শহীদ স্থানীয় কুদ্রতিয়া মাদ্রাসায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপ্তির পর ১৯৫২ সনে হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মেট্রিক পাস করেন। হবিগঞ্জ বৃন্দাবন সরকারি কলেজ থেকে ১৯৫৬ সালে বিএ পাস করে ১৯৭২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৭৬ সালে হাইকোর্টে এনরোলমেন্ট লাভ করেন।

রাজনৈতিক ও কর্মজীবনসম্পাদনা

এনামুল হক মোস্তফা শহীদ ১৯৬০ থেকে ৬৮ সাল পর্যন্ত হবিগঞ্জ জে কে অ্যান্ড এইচ কে উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। তিনি ৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ৬৬ সালের ছয় দফা আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান এবং ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে তার অসামান্য অবদান ছিল। হবিগঞ্জ ভাষা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন তিনি। স্বাধীনতা যুদ্ধে হবিগঞ্জ মহকুমা সর্বদলীয় সংগ্রাম পরিষদের নির্বাহী সদস্য ছিলেন। মোস্তফা শহীদ লেখক ও সাংবাদিক হিসেবেও পরিচিত ছিলেন। তার লেখা ‘খোয়াই নদীর বাঁকে’ বইটি বেশ পাঠক প্রিয় ছিল। এ ছাড়াও তিনি মাসিক অভিযাত্রী পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক ছিলেন।

এ্যাডভোকেট এনামুল হক ১৯৭০ সালের প্রাদেশিক নির্বাচনে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট-মাধবপুর আসন থেকে সদস্য নির্বাচিত হন এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের পর ১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সাবেক সিলেট-১৭ বর্তমান হবিগঞ্জ-৪ (চুনারুঘাট-মাধবপুর) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৭] এর পর ১৯৯১ সালের পঞ্চম[৮], জুন ১৯৯৬ সালের সপ্তম[৯], ২০০১[১০] ও ২০০৮[১১] সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে মোট ৫বার এই আসন থেকে জাতীয় সংসদের সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন।[৩][১২][১৩]

তিনি ৬ জানুয়ারি ২০০৯ সাল থেকে ২০১৪ সালের ১৪ মার্চ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মহাজোট সরকারের শেখ হাসিনার দ্বিতীয় মন্ত্রীসভার সমাজকল্যাণমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি।[১৪]

পুরস্কার এবং সম্মাননাসম্পাদনা

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অসামান্য অবদান রাখার জন্য তিনি স্বাধীনতা পুরস্কার লাভ করেছেন। চুনারুঘাট পৌর মিলনায়তনটি তার নামে 'বীর মু্ক্তিযোদ্ধা এনামুল হক মোস্তফা শহীদ অডিটরিয়াম' রাখা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৩ সালে তিনি একুশে পদক লাভ করেন।[১৫]

পারিবারিক জীবনসম্পাদনা

এনামুল হক মোস্তফা শহীদ ৪ মার্চ ১৯৭৪ সালে জালালপুর রাইমাট গ্রামের মিনু মমতাজকে বিয়ে করেন। তাদের দুই ছেলে সন্তান।

মৃত্যুসম্পাদনা

২০১৬ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি তিনি ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের উবাহাটা ইউনিয়নের কুটিরগাঁও গ্রামে সমাহিত করা হয়।[১৫][১৬]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "মারা গেছেন সাবেক সমাজকল্যাণমন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ"দৈনিক ইত্তেফাক। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  2. এডভোকেট এনামূল হক মোস্তফা শহীদ-এর জীবন বৃত্তান্ত।[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. জননেতা এ্যাডঃ এনামুল হক মোস্তফা শহীদ।
  4. সমাজকল্যান মন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ।[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  5. "সাবেক মন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ আর নেই"সমকাল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-২৭ 
  6. "সাবেক মন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ আর নেই | banglatribune.com"Bangla Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-২৭ 
  7. "১ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  8. "৫ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  9. "৭ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  10. "৮ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  11. "৯ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা"জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার 
  12. "সাবেক সমাজকল্যাণ মন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ আর নেই || The Daily Janakantha"Daily Janakantha (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-২৭ 
  13. "এনামুল হক (হবিগঞ্জ)"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-২৭ 
  14. প্রতিবেদক, নিজস্ব; ডটকম, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর। "চলে গেলেন সাবেক সমাজকল্যাণমন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-২৭ 
  15. "চলে গেলেন সাবেক সমাজকল্যাণমন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  16. "এনামুল হক মোস্তফা শহীদের দাফন"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-২৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা