ইকবাল খন্দকার

লেখক ও উপস্থাপক

ইকবাল খন্দকার কথাসাহিত্যিক, টিভি উপস্থাপক,গীতিকার ও নাট্যকার, টিভি স্ক্রিপ্ট লেখক। তবে তিনি কথাসাহিত্যিক ও উপস্থাপক হিসেবে পরিচয় দিতে ভালবাসেন।

ইকবাল খন্দকার
জন্ম(১৯৮৩-০১-১১)১১ জানুয়ারি ১৯৮৩
ভাবলা গ্রাম, বেলাবো উপজেলা,নরসিংদী,বাংলাদেশ
পেশালেখক,উপস্থাপক।
বাসস্থানঢাকা
জাতীয়তাবাংলাদেশী
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
সময়কালবর্তমান
ধরনউপন্যাস,গোয়েন্দা,রহস্য,থ্রিলার,মুক্তিযুদ্ধ,রম্য,ভৌতিক ইত্যাদি

শৈশব ও পড়ালেখাসম্পাদনা

ইকবাল খন্দকারের জন্ম ১৯৮৩ খ্রিষ্টাব্দের ১১ জানুয়ারি নরসিংদী জেলার বেলাবো উপজেলা ভাবলা গ্রামে। তার বাবার নাম মো. শামসুদ্দীন খন্দকার, মায়ের নাম আমিনা খাতুন। চার বোন দুই ভাইয়ের মধ্যে ইকবাল খন্দকার সবার ছোট। তার শিক্ষাজীবনের শুরু ভাবলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। পরবর্তীতে তিনি অনার্স-মাস্টার্স সম্পন্ন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। [১]

কর্মজীবনসম্পাদনা

ইকবাল খন্দকার যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এ অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র, তখনই সিদ্ধান্ত নেন লেখালেখির বাইরে কিছু করবেন না। অর্থাৎ লেখকজীবনই হবে তার কর্মজীবন। সেসময় তিনি পেশাদার লেখক হিসেবে লিখতে শুরু করেন দেশের প্রায় সবকটি জাতীয় দৈনিক- এ। পাশাপাশি লিখতে শুরু করেন টিভি অনুষ্ঠানের স্ক্রিপ্ট। সর্বপ্রথম তিনি স্ক্রিপ্ট লেখেন বেসরকারি টিভি চ্যানেল এনটিভি এর ‘বিভ্রাট’ অনুষ্ঠানের জন্য। আর জাতীয় দৈনিক- এ ছাপা হওয়া তার প্রথম লেখার শিরোনাম ‘চামচা’। ১৯৯৯ সালে যেটি ছাপা হয় দৈনিক ইনকিলাব - এর ‘উপহার’ নামক পাতায়। ইকবাল খন্দকারের কর্মজীবনকে সমৃদ্ধ করেছে তার লেখা বই আর উপস্থাপিত টিভি অনুষ্ঠানগুলো। তার প্রথম বইয়ের নাম ‘ভুলে যেও আমায়’। যেটি প্রকাশিত হয় ২০০১ সালে। আর উপস্থাপিত প্রথম টিভি অনুষ্ঠান ‘বেআক্কেলের আড্ডা’। ২০১২ সালে যেটি প্রচারিত হয় একুশে টিভি ঈদুল ফিতর এর বিশেষ অনুষ্ঠানমালায়।

প্রকাশিত বইসমূহসম্পাদনা

ইকবাল খন্দকার সব বয়সের পাঠকের জন্যই লিখে থাকেন। লিখে থাকেন বিচিত্র সব বিষয় নিয়ে। যেমন থ্রিলার, গোয়েন্দা, ভৌতিক, রম্য, রহস্য, মুক্তিযুদ্ধ ইত্যাদি। ২০১৯ সাল পর্যন্ত তার লেখা প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ৭৩টি।

শিশুতোষ গল্প ও ছড়ার বইসম্পাদনা

নাম প্রকাশক প্রকাশকাল
১.দোয়েল ও জোনাকি [২] রুম টু রিড ২০১০
২.অহংকারী অজগর [৩] অনিন্দ্য প্রকাশ ২০১২
৩.বনজুড়ে হইচই অনিন্দ্য প্রকাশ ২০১২
৪.কাকের গান শেখা [৪] শিশুরাজ্য প্রকাশন ২০১৪
৫.শালিক ও কাঠঠোকরা [৫] নওরোজ কিতাবিস্তান ২০১৫
৬.ইঁদুর ও কাক শৈশব প্রকাশ ২০১৭

কিশোরোপযোগী গল্পের বইসম্পাদনা

নাম প্রকাশক প্রকাশকাল
৮.মহাবিপদে ছোটমামা [৬] অনিন্দ্য প্রকাশ ২০১৫
৯.ভুতুড়ে বটগাছ [৭] অনিন্দ্য প্রকাশ ২০১৬
১০.টিফিনবক্সে দৈত্য [৮] আদিগন্ত প্রকাশন ২০১৭

রম্য বইসম্পাদনা

নাম প্রকাশক প্রকাশকাল
১১.ছড়ায় ছড়ায় কৌতুক সিদ্দিকীয়া পাবলিকেশন্স ২০১০
১২.দাঁত ভাঙা হাসি [৯] ইতি প্রকাশন ২০১১
১৩.বস্তা ভরা হাসি [১০] ইতি প্রকাশন ২০১২
১৪.ফাটাফাটি হাসি মুক্তদেশ প্রকাশন ২০১৩
১৫.জবরদস্ত হাসি [১১] জাগৃতি প্রকাশনী, ২০১৪
১৬.গুদাম ভরা হাসি মেধা পাবলিকেশন্স ২০১৫
১৭.গড়াগড়ি হাসি [১২] আদিগন্ত প্রকাশন ২০১৬
১৮.পেট ফাটা হাসি অনিন্দ্য প্রকাশ ২০১৭
১৯.দাঁতখোলা হাসি [১৩] সাহিত্যদেশ ২০১৮
২০.রমরমা হাসি [১৪] শব্দশিল্প ২০১৯

ভৌতিক বইসম্পাদনা

নাম প্রকাশক প্রকাশকাল
২১.গলাকাটা ভূত [১৫] ইতি প্রকাশন ২০১০
২২.তিনচোখা ভূ্ত [১৬] ইতি প্রকাশন ২০১১
২৩.রক্তচোষা ভূত [১৭] তাম্রলিপি, ২০১৩
২৪.ভুতুড়ে লাশঘর [১৮] তাম্রলিপি, ২০১৪
২৫.লাশখেকো পিশাচ [১৯] তাম্রলিপি, ২০১৫
২৬.অভিশপ্ত স্টেশন [২০] কথাপ্রকাশ, ২০১৬
২৮.রক্তখেকো পাহাড় [২১] শব্দশিল্প, ২০১৭
২৯.অভিশপ্ত সিন্দুক [২২] তাম্রলিপি ২০১৮
৩০.ভুতুড়ে ডাকঘর [২৩] কথাপ্রকাশ, ২০১৮
৩১.ছমছমে ভূতঘর [২৪] শব্দশিল্প, ২০১৮
৩২.রাক্ষুসে দোলনা [২৫] পার্ল পাবলিকেশন্স, ২০১৯
৩৩.মধ্যরাতের প্রেতাত্মা [২৬] কথাপ্রকাশ, ২০১৯

গোয়েন্দা/রহস্য/থ্রিলারসম্পাদনা

নাম প্রকাশক প্রকাশকাল
৩৪.রোল নং এক [২৭] শুভ্র প্রকাশ, ২০১২
৩৫.স্কুলজুড়ে আতঙ্ক [২৮] শুভ্র প্রকাশ, ২০১৩
৩৬.অপারেশন দস্যুবাড়ি [২৯] অন্বেষা প্রকাশন, ২০১৪
৩৭.লম্বু জনি [৩০] নওরোজ কিতাবিস্তান, ২০১৫
৩৮.রহস্যময় ক্লাসরুম [৩১] জাগৃতি প্রকাশনী ২০১৫
৩৯.ক্লাস লিডার [৩২] তাম্রলিপি, ২০১৬
৪০.ভয়ঙ্কর ডাকুবাড়ি [৩৩] জয়তী ২০১৬
৪১.দুর্ধর্ষ মুখোশধারী [৩২] কলি প্রকাশনী, ২০১৬
৪২.রহস্যময় গোয়েন্দা [৩৪] কথাপ্রকাশ, ২০১৬
৪৩.কালাদিঘি রহস্য [৩৫] কথাপ্রকাশ, ২০১৭
৪৪.দুঃসাহসী বিচ্ছুদল [৩৬] জয়তী, ২০১৭
৪৫.অন্ধ গোয়েন্দা [৩৭] কলি প্রকাশনী, ২০১৭
৪৬.গলাকাটা গোয়েন্দা [৩৮] অনিন্দ্য প্রকাশ, ২০১৮
৪৭.রহস্যময় গুহা কথাপ্রকাশ, ২০১৮
৪৮.লাশবাড়ি অ্যাটাক জয়তী, ২০১৮
৪৯.ছদ্মবেশী ঘাতক পার্ল পাবলিকেশন্স, ২০১৮
৫০.একচোখা গোয়েন্দা [১৪] কথাপ্রকাশ, ২০১৯
৫১.কফিন রহস্য [৩৯] কথাপ্রকাশ, ২০১৯
৫২.কঙ্কাল বাড়ি [৪০] পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স, ২০১৯
৫৩.বুলেট আতঙ্ক [৪১] জয়তী, ২০১৯
৫৪.নাইট গ্যাং [৪২] অনিন্দ্য প্রকাশ, ২০১৯
৫৫.দস্যুর কবলে ক্লাসরুম তৃণলতা প্রকাশ, ২০১৯

বড়দের উপযোগী গল্পের বইসম্পাদনা

নাম প্রকাশক প্রকাশকাল
৫৬.মেয়েটিকে খুন না করলেও হতো [৪৩] রোদেলা প্রকাশনী, ২০১২
৫৭.একটি বেওয়ারিশ লাশ [৪৩] মেধা পাবলিকেশন্স, ২০১৬
৫৮.একটি চাঞ্চল্যকর খুন [৪৪] মেধা পাবলিকেশন্স, ২০১৭
৫৯.সুইসাইড রুম [৪৫] মেধা পাবলিকেশন্স, ২০১৯

উপন্যাসসম্পাদনা

নাম প্রকাশক প্রকাশকাল
৬০.ভুলে যেও আমায় [৪৬] আগামী প্রকাশনী, ২০০১
৬১.এ হৃদয় চায় তোমাকে [৪৭] তানিয়া বুক ডিপো, ২০০৪
৬২.নিঃশব্দ নির্বাসন [৪৮] ইত্যাদি গ্রন্থপ্রকাশ ২০০৮
৬৩.তরুণী তখন ঘরে একা [৪৯] রোদেলা প্রকাশনী ২০১৩
৬৪.কুমারীর নিষিদ্ধ স্পর্শ [৫০] রোদেলা প্রকাশনী, ২০১৪
৬৫.বীভৎস সেই মধ্যরাত [৫১] রোদেলা প্রকাশনী, ২০১৫
৬৬.ছুঁয়ে দাও বালিকা [৫২] দেশ পাবলিকেশন্স, ২০১৬
৬৭.তুমি ছাড়া একলা আমি [৫৩] বর্ষাদুপুর, ২০১৬
৬৮.ভালোবাসি হয়নি বলা [৫৪] দেশ পাবলিকেশন্স, ২০১৭
৬৯.বিদায় মা [৫৫] বর্ষাদুপুর, ২০১৭
৭০.ভালো থেকো মা [৫৬] বর্ষাদুপুর, ২০১৮
৭১.তোমার জন্য প্রার্থনা[৫৭] তাম্রলিপি, ২০১৯
৭২.তালাকপ্রাপ্তা [৫৮] বর্ষাদুপুর, ২০১৯

মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাসসম্পাদনা

নাম প্রকাশক প্রকাশকাল
৭৩.একাত্তরের বদ্ধঘর [৫৯] দেশ পাবলিকেশন্স, ২০১৮

সমগ্রসম্পাদনা

প্রথম ৫ উপন্যাস (প্রকাশক : মেধা পাবলিকেশন্স, প্রকাশকাল : ২০১৭) বইটি সম্পর্কে : ‘প্রথম ৫ উপন্যাস’ বইটিতে রয়েছে ইকবাল খন্দকারের লেখকজীবনের প্রথমদিকে প্রকাশিত (বড়দের উপযোগী) পাঁচটি উপন্যাস। উপন্যাসগুলো হলো ভুলে যেও আমায়, এ হৃদয় চায় তোমাকে, নিঃশব্দ নির্বাসন, তরুণী তখন ঘরে একা এবং কুমারীর নিষিদ্ধ স্পর্শ।

উপস্থাপনাসম্পাদনা

ইকবাল খন্দকার টেলিভিশনে উপস্থাপনা শুরু করেন ২০১২ সালে। তার উপস্থাপনায় সরকারি ও বেসরকারি টিভি চ্যানেলে প্রচারিত উল্লেখযোগ্য কিছু অনুষ্ঠান হলো

অনুষ্ঠানের নাম চ্যানেল প্রচার সাল অতিথি
বেআক্কেলের আড্ডা একুশে টিভি ২০১২ মীরাক্কেলখ্যাত জামিল হোসেন, ফারজানা সাগীর শশী, চিকন আলী ও শান্তনু।
সফদার ডাক্তার [৬০] চ্যানেল নাইন ২০১২ হা-শো চ্যাম্পিয়ন সাইফুল, লিটন খন্দকার, শাকিলা ও শান্তনু।
ক্যারিকেচার একুশে টিভি ২০১৩ মীরাক্কেলখ্যাত জামিল হোসেন, আনোয়ারুল আলম সজল ও ইশতিয়াক নাসের।
খবরের খবর আছে [৬১] চ্যানেল নাইন ২০১৩ থেকে ২০১৪) ড. ইনামুল হক, আল মনসুর, মুন্নী সাহা, তাজিন আহমেদ, বন্যা মির্জা, মাজনুন মিজান, শানারেই দেবী শানু, স্বাধীন খসরু, সুমন পাটোয়ারী, সাজু খাদেম, আরফান আহমেদ, আহসান কবির, আবু হেনা রনি, জামিল হোসেন, আলিশা প্রধান, ফারজানা সাগীর শশী, আনোয়ারুল আলম সজল, ইশতিয়াক নাসের, বৃন্দাবন দাস, শাহনাজ খুশি, অনিক খান, স্বাগতা, হাসান জাহাঙ্গীর, রুমি, আনোয়ার শাহী, মাসুদ রানা মিঠু, আবদুল আজিজ, লারা লোটাস, আরিফ মাহবুব তমাল, আশরাফ কবির, জিল্লুর রহমান, জয়রাজ প্রমুখ। উল্লেখ্য, এটি ছিল সাপ্তাহিক অনুষ্ঠান।
হাসতে নেই মানা [৬২] বিটিভি ২০১৪ আল মনসুর, তুষার খান, কচি খন্দকার ও শিরিন বকুল।
প্রকৃতি ও পরিবেশ [৬৩] বিটিভি ২০১৪ ড. মোহিত কামাল ও ড. ফরিদ উদ্দিন মিল্কি।
খবরওয়ালাদের খবর [৬৪] বিটিভি ২০১৫ মনজুরুল আহসান বুলবুল, জ ই মামুন, সামিয়া রহমান ও ফারজানা রুপা। সংগীত পরিবেশনা রমা ও লোপা হোসেইন।
অমর একুশে বইমেলা [৬৫] মাই টিভি ২০১৫ লেখক, প্রকাশক ও পাঠকগণ।
শিল্প প্রাঙ্গণ [৬৬] বিটিভি ২০১৫ থেকে ২০১৮ ঐতিহ্যবাহী শিল্পের সঙ্গে জড়িত কর্মীগণ। উল্লেখ্য, এটি ছিল পাক্ষিক অনুষ্ঠান।
বড় মিয়া ছোট মিয়া [৬৭] বৈশাখী টিভি ২০১৫ আবদুল কাদের ও আফজাল শরীফ। কৌতুক পরিবেশনায় শশী ও সাইফুল।
শিক্ষার আলো বিটিভি ২০১৭ ড. মো: আবু হেনা মোস্তফা কামাল।
বইমেলা প্রতিদিন গাজী টিভি ২০১৭ লেখক, প্রকাশক ও পাঠকগণ। উল্লেখ্য, এটি ছিল ‘লাইভ’ অনুষ্ঠান। মাসব্যাপী।
সেদিনের তারকা [৬৮] বিটিভি ২০১৭ ‘ছুটির ঘণ্টা’ ছবির সেই খোকন তথা মাস্টার সুমন, বাংলাদেশে প্রথম নির্মিত ‘দেবদাস’ সিনেমায় শিশু দেবদাস আর পার্বতীর চরিত্রে অভিনয় করা মাস্টার শাকিল ও আইরিন পারভীন লোপা এবং দিঘি
গল্পে শুনি যাদের নাম [৬৯] বিটিভি ২০১৭ ড. ইনামুল হক, হাসান জাহাঙ্গীর, শবনম পারভীন ও শাওন মজুমদার।
পন্ডিতের পাঠশালা এশিয়ান টিভি ২০১৭ ড. ইনামুল হক, ফারুক আহমেদ, কচি খন্দকার, তুষার খান, শবনম পারভীন, আনোয়ারুল আলম সজল প্রমুখ। উল্লেখ্য, এটি ছিল সাপ্তাহিক অনুষ্ঠান।
তারকাদের ঈদ [৭০] বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র, ২০১৮ আইয়ুব বাচ্চু, রবি চৌধুরী, সাব্বির, মিনার ও ইরফান সাজ্জাদ
বই নবান্ন [৭১] এসএ টিভি ২০১৮ লেখক, প্রকাশক ও পাঠকগণ। উল্লেখ্য, এই অনুষ্ঠানটি ফেব্রুয়ারি মাসব্যাপী প্রচারিত।
চিরসবুজ জাফর ইকবাল [৭২] বিটিভি ২০১৮ চিত্রনায়ক জাফর ইকবাল এর জীবনী
বই নবান্ন এসএ টিভি ২০১৯ লেখক, প্রকাশক ও পাঠকগণ। উল্লেখ্য, এই অনুষ্ঠানটি ফেব্রুয়ারি মাসব্যাপী প্রচারিত।
বৈশাখের রঙ্গরস [৭৩] এশিয়ান টিভি ২০১৯ ফারুক আহমেদতারিক স্বপন
গানালাপ ডটকম [৭৪] বিটিভি ২০১৯ বেলাল খানসাবরিনা পড়শী
ঈদ রঙ্গরস [৭৫] এশিয়ান টিভি ২০১৯ আবু হেনা রনি, ইশতিয়াক নাসের, শাওন মজুমদার ও মো. সোলায়মান।
আশ্রয়ণে ঈদ [৭৬] বিটিভি ২০১৯ চাঁদপুরের আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকারী মানুষজন।
গান আলাপন[৭৭] বিটিভি ২০১৯ পারভেজ সাজ্জাদ ও বাঁধন সরকার পূজা
সেলিব্রিটি আড্ডা [৭৮] এশিয়ান টিভি ২০১৯ সোহেল রানাইলিয়াস কাঞ্চন
ঈদ গান আলাপন [৭৯] বিটিভি ২০১৯ বালাম, সাবরিনা পড়শী, জাকিয়া সুলতানা কর্ণিয়াঐশী

গানসম্পাদনা

ইকবাল খন্দকারের লেখা প্রকাশিত গানের সংখ্যা প্রায় অর্ধশত। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু গান হলো।

নাম কন্ঠশিল্পী
ভালোবাসি হয়নি বলা তবু ভালোবাসি [৮০] বেলাল খানসাবরিনা পড়শী
সব তারা নিভে যাক [৮১] আসিফ আকবর
মেঘলা দুপুরে কার নূপুরে [৮২] বেলাল খান
কত ভালোবাসি যে তোরে শিল্পী বিশ্বাস
প্রিয় বাংলাদেশ [৮৩] সাবরিনা সাবা
তোমায় ভালোবাসি আরফিন রুমি ও লুইপা
পাপী [৮৪] সাবরিনা সাবা
আকাশ সমান সম্ভাবনার মুক্তো ওদের মাঝে [৮৫] (অটিস্টিকদের নিয়ে লেখা গান)

উল্লেখ্য, পপ সম্রাট আজম খান এর মৃত্যুর পর তাকে নিয়ে মিডিয়ায় সর্বপ্রথম যে গানটি প্রচার হয়, সেটি ইকবাল খন্দকারের লেখা। শিল্পী ছিলেন সুজন আরিফ ও তানজিনা রুমা। আর প্রচার হয়েছিল এটিএন বাংলা ‘স্মাইল শো’ অনুষ্ঠানে।

নাটকসম্পাদনা

ইকবাল খন্দকারের লেখা দর্শকনন্দিত কিছু একক ও ধারাবাহিক নাটক হলো

  • কদম চোরা
  • বিয়ে করবো স্পন্সর চাই
  • রোজাদার

ইত্যাদি। [৮৬]

টিভি অনুষ্ঠানের স্ক্রিপ্টসম্পাদনা

ইকবাল খন্দকারের লেখা স্ক্রিপ্টে প্রচারিত হয়েছে বেশ কিছু টিভি-অনুষ্ঠান। যেমন

নাম টিভি
কে হতে চায় কোটিপতি [৮৭] দেশ টিভি
বিভ্রাট এনটিভি
জোর করে হাসি নয় বৈশাখী টিভি
জমবে এবার গানে গানে এটিএন বাংলা
ছন্দে আনন্দে বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র

ইত্যাদি।

মডেলসম্পাদনা

ইকবাল খন্দকার সম্প্রতি মডেলিং শুরু করেছেন। ২০১৯ সালের শুরুর দিকে তিনি মডেল ও ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হন ‘মার্ভেলাস’ নামক একটি পোশাক-প্রতিষ্ঠানের।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "শৈশব পড়ালেখা" 
  2. "দোয়েল ও জোনাকি" 
  3. "অহংকারী অজগড়" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "কাকের গান শেখা" 
  5. "শালিক ও কাঠঠোকরা" 
  6. "মহাবিপদে ছোটমামা" 
  7. "ভুতড়ে বটগাছ" 
  8. "টিফিনবক্মে দৈত্য" 
  9. "দাত ভাঙ্গা হাসি" 
  10. "বস্তা ভরা হাসি" 
  11. "জবরদস্থি হাসি" 
  12. "গড়াগড়ি হাসি" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  13. "দাত খোলা হাসি" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  14. "একচোখা গোয়েন্দা" 
  15. "গলাকাটা ভুত" 
  16. "তিনচোখা ভুত" 
  17. "রক্তচোষা ভুত" 
  18. "ভুতরে লাশঘর" 
  19. "লাশখেকো পিশাচ" 
  20. "অভিশপ্ত ষ্টেশন" 
  21. "রক্তখেকো পাহাড়" 
  22. "অভিসপ্ত সিন্দুক" 
  23. "ভুতরে ডাকঘর" 
  24. "ছমছমে ভূতঘর" 
  25. "রাক্ষসী দোলনা" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  26. "মধ্যরাতের প্রেতাত্মা" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  27. "রোল নং এক" 
  28. "স্কুলজুড়ে আতঙ্ক" 
  29. "অপারেশন দস্যুবাড়ি" 
  30. "লম্বু জনি" 
  31. "রহস্যময় ক্লাশরুম" 
  32. "ক্লাশ লিডার" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  33. "ভয়ঙ্কর ডাকুবাড়ী" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  34. "রহস্যময় গোয়েন্দা" 
  35. "কালাদিঘির রহস্য" 
  36. "দুঃসাহসী বিচ্ছুদল" 
  37. "অন্ধ গোয়েন্দা" 
  38. "গলাকাট গোয়ন্দা" 
  39. "কফিন রহস্য" 
  40. "কঙ্কাল বাড়ি" 
  41. "বুলেট আতঙ্ক" 
  42. "নাইট গ্যাং" 
  43. "মেয়েটিকে খুন না করলেও হত" 
  44. "একটি চাঞ্চল্যকর খুন" 
  45. "সুইসাইড রুম" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  46. "ভুলে যেও আমায়" 
  47. "এ হৃদয় চায় তোমাকে" 
  48. "নিঃশব্দ নির্বাসন" 
  49. "তরুণী তখন ঘরে একা" 
  50. "কুমারীর নিষিদ্ধ স্পর্শ" 
  51. "বীভৎস সেই মধ্যরাত" 
  52. "ছুঁয়ে দাও বালিকা" 
  53. https://m.ntvbd.com/arts-and-literature/39902/এক-বইমেলায়-ইকবাল-খন্দকারের-১০-বই/amp |ইউআরএল= এ শিরোনাম অনুপস্থিত (সাহায্য) [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  54. "ভালোবাসি হয়নি বলা" 
  55. "বিদায় মা" 
  56. "ভালো থেকো মা" 
  57. "তোমার জন্য প্রার্থনা" 
  58. "তালাকপ্রাপ্তা" 
  59. "একাত্তরের বদ্ধঘর" 
  60. "সফদার ডাক্তার" 
  61. "খবরের খবর আছে" 
  62. "হাসতে নেই মানা" 
  63. "প্রকৃতি ও পরিবেশ" 
  64. "খবরওয়ালাদের খবর" 
  65. "অমর একুশে বইমেলা" 
  66. "শিল্প প্রাঙ্গণ" 
  67. "বড় মিয়া ছোট মিয়া" 
  68. "সেদিনের তারকা" 
  69. "গল্পে শুনি যাদের নাম" 
  70. "তারকাদের ঈদ" 
  71. "বই নবান্ন" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  72. "চিরসবুজ জাফর ইকবাল" 
  73. "বৈশাখের রঙ্গরস" 
  74. "গানালাপ ডটকম" 
  75. "ঈদ রঙ্গরস" 
  76. "আশ্রয়ণে ঈদ" 
  77. "গান আলাপন" 
  78. "সেলিব্রিটি আড্ডা" 
  79. "ঈদ গান আলাপন" 
  80. "ভালোবাসি হয়নি বলা তবু ভালোবাসি" 
  81. "সব তারা নিভে যাক" 
  82. "মেঘলা দুপুরে কার নূপুরে" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  83. "প্রিয় বাংলাদেশ" 
  84. "পাপী" 
  85. "আকাশ সমান সম্ভাবনার মুক্তো ওদের মাঝে" [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  86. "নাটকসূমুহ" 
  87. "কে হতে চায় কোটিপতি"