প্রধান মেনু খুলুন

শানারেই দেবী শানু হলেন একজন বাংলাদেশী অভিনেত্রী ও মডেল। তিনি সুন্দরী প্রতিযোগিতা লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টারের প্রথম মুকুট বিজয়ী। সুন্দরী প্রতিযোগিতা বিজয়ের পর তিনি টেলিভিশন নাটকে অভিনয় শুরু করেন। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য টেলিভিশন নাটকগুলো হল বৈরাগী, পলাশ ফুলের গন্ধ, কবি, সাকিন সারিসুরি, আহ ফুটবল বাহ্ ফুটবল, আরমান ভাই বিরাট টেনশনে, চোরকাব্য, আপনঘর, কবিরাজ গোলাপ শাহকর্তাকাহিনি। তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র মিস্টার বাংলাদেশ (২০১৮)।

শানারেই দেবী শানু
জন্ম
শিক্ষাস্নাতকোত্তর (ইংরেজি)
যেখানের শিক্ষার্থীএমসি কলেজ
পেশাঅভিনেত্রী, মডেল
কার্যকাল২০০৫-বর্তমান
পরিচিতির কারণলাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার মুকুটধারী
দাম্পত্য সঙ্গীজেভিয়ার শান্তনু বিশ্বাস (বি. ২০০৯)
সন্তান

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

শানু সিলেটের মণিপুর সম্প্রদায়ে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা এ কে শেয়াম এবং মাতা চন্দ্রাদেবী।[১] ছোটবেলা থেকেই তিনি নাচ, গান, আবৃত্তি, বিতর্ক, ও অভিনয় করতেন। বিদ্যালয় ও কলেজে পড়াকালীন তিনি জাতীয় শিশু সপ্তাহ ও জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে জাতীয় পর্যায়ে স্বর্ণপদকসহ একাধিক পুরস্কার অর্জন করেন। তিনি লাক্স-আনন্দধারা মিস ফটোজেনিকে অংশগ্রহণ করে সেরা দশের একজন হন এবং বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্রের তালিকাভুক্ত শিল্পী হন।[১] ২০০৪ সালে তিনি সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় নির্মিত শাকুর মজিদের বৈরাগী নাটকে অভিনয় করেন। এই কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রীর পুরস্কার বিভাগে ঝিলিক-চ্যানেল আই ঈদ অনুষ্ঠান পুরস্কার লাভ করেন।[১] ২০০৫ সালে তিনি লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতার প্রথম আসরে অংশগ্রহণ করেন এবং বিজয়ীর মুকুট অর্জন করেন।

কর্মজীবনসম্পাদনা

শানু ২০০৫ সালে রুমানা রশীদ ঈশিতা নির্দেশিত এক নিঝুম অরণ্য টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করেন। এই নাটকে তার ভবিষ্যৎ স্বামী জেভিয়ার শান্তনু বিশ্বাসও অভিনয় করেন।[২] ২০১৩ সালে অরণ্য আনোয়ার পরিচালনায় মাছরাঙা টেলিভিশনের কবিরাজ গোলাপ শাহ-এ খুশু চরিত্রে ও আরটিভির অলসপুর টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করেন। তিনি অরণ্য আনোয়ারের কর্তাকাহিনীবুকে তার চন্দনের ঘ্রাণ, দেবাশীষ বড়ুয়া দীপের জ্যোতিরাজ টিপু সুলতানইলেকশান ইলেকশান, আপেল মাহমুদের ছবির হাট, ফয়সাল রাজীবের পর্দার আড়ালে কেরুপালি ও রুপালি পর্দার গল্প টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করেন। এছাড়া রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের উপন্যাস অবলম্বনে শফিক বাবুর একখণ্ডের টেলিভিশন নাটক দুই বোন-এ অভিনয় করেন।[১]

২০১৪ সালে তিনি মানিক মানবিকের পরিচালনায় এসএ টিভির টেলিভিশন ধারাবাহিক কাম টু দ্য পয়েন্ট এবং আশিস রায়ের পরিচালনায় এশিয়ান টিভির টেলিভিশন ধারাবাহিক প্রতিপক্ষ-এ অভিনয় করেন। এছাড়া তিনি জিএম সৈকতের মহুয়া টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করেন।[৩]

তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র মিস্টার বাংলাদেশ (২০১৮)।[৪] এর আগে তার হুমায়ূন আহমেদের নয় নম্বর বিপদ সংকেত চলচ্চিত্রে অভিনয় করার কথা ছিলো। আবু আকতার উল ইমানের জঙ্গীবাদ নিয়ে নির্মিত ''মিস্টার বাংলাদেশ চলচ্চিত্রে তাকে একজন গৃহবধূর চরিত্রে দেখা যায়।[৫] ২০১৮ সাল থেকে তিনি চ্যানেল আইয়ের মেগা ধারাবাহিক সাত ভাই চম্পার বড় রানী চরিত্রে অভিনয় করছেন।[৬]

সাহিত্য জীবনসম্পাদনা

অভিনয়ের পাশাপাশি শানু লেখালেখিও করে থাকেন। ২০১৭ সালে একুশে গ্রন্থমেলায় তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ নীল ফড়িং কাব্য প্রকাশিত হয়। ৫৮টি কবিতা সম্বলিত কাব্যগ্রন্থটি প্রকাশ করে অনন্যা প্রকাশনী। পরের বছর তার আরও তিনটি কবিতার বই প্রকাশিত হয়, অনন্যা প্রকাশনী থেকে লাল এপিটাফ, তাম্রলিপি থেকে ত্রিভুজ ও চৈতন্য থেকে অসময়ের চিরকুট[৭] ২০১৯ সালে তাম্রলিপি প্রকাশনা থেকে উপন্যাস একলা আকাশ এবং অনন্যা প্রকাশনী থেকে শিশুতোষ গল্প শানারেই ও তার জাদুর লেইত্রেং প্রকাশিত হয়।[৮]

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

শানু ২০০৯ সালের ২৭শে ডিসেম্বর বরিশালে জেভিয়ার শান্তনু বিশ্বাসের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। ২০০৫ সালে নিঝুম এক অরণ্যে নাটকে অভিনয়কালে জেভিয়ারের সাথে তার পরিচয় হয়।[২] এই দম্পতির একমাত্র পুত্র জেনাস ঋত বিশ্বাস।[১]

চলচ্চিত্রের তালিকাসম্পাদনা

চলচ্চিত্রসম্পাদনা

  • মিস্টার বাংলাদেশ (২০১৮) - কুমু

টেলিভিশনসম্পাদনা

  • বৈরাগী (২০০৪)
  • এক নিঝুম অরণ্য (২০০৫)
  • পলাশ ফুলের গন্ধ
  • কবি
  • সাকিন সারিসুরি
  • আহ ফুটবল বাহ্ ফুটবল
  • আরমান ভাই বিরাট টেনশনে
  • চোরকাব্য
  • আপনঘর
  • কবিরাজ গোলাপ শাহ (২০১৩)
  • অলসপুর (২০১৩)
  • কর্তাকাহিনি (২০১৩)
  • বুকে তার চন্দনের ঘ্রাণ (২০১৩)
  • জ্যোতিরাজ টিপু সুলতান (২০১৩)
  • ইলেকশান ইলেকশান (২০১৩)
  • ছবির হাট (২০১৩)
  • পর্দার আড়ালে কে (২০১৩)
  • রুপালি ও রুপালি পর্দার গল্প (২০১৩)
  • দুই বোন (২০১৩)
  • কাম টু দ্য পয়েন্ট (২০১৪)
  • প্রতিপক্ষ (২০১৪)
  • মহুয়া (২০১৪)

সাহিত্যকর্মসম্পাদনা

কাব্যগ্রন্থ
  • নীল ফড়িং কাব্য (২০১৭, অনন্যা প্রকাশনী)
  • লাল এপিটাফ (২০১৮, অনন্যা প্রকাশনী)
  • ত্রিভুজ (২০১৮, তাম্রলিপি)
  • অসময়ের চিরকুট (২০১৮, চৈতন্য)
উপন্যাস
  • একলা আকাশ (২০১৯, তাম্রলিপি)
শিশুতোষ
  • শানারেই ও তার জাদুর লেইত্রেং (২০১৯, অনন্যা প্রকাশনী)

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. আহমেদ, খালেদ (১৭ জানুয়ারি ২০১৩)। "আপন ঠিকানায় ফেরা..."দৈনিক ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৯ 
  2. "বিয়ে করলেন শানু"দৈনিক প্রথম আলো। ৩ জানুয়ারি ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৯ 
  3. "শানারেই দেবী শানুর সঙ্গে কিছুক্ষণ: 'সাড়ে চার বছর পর গ্রামে গেলাম'"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ১৬ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৯ 
  4. "শানুর প্রথম ছবি 'মিস্টার বাংলাদেশ'"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ৭ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৯ 
  5. "প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্রে শানারৈ দেবী শানু"দৈনিক ইনকিলাব। ১১ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৯ 
  6. আশিক, তানভীর (৪ ডিসেম্বর ২০১৮)। "জীবনে তার চন্দনগন্ধা দুপুর"চ্যানেল আই অনলাইন। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৯ 
  7. "তারকালাপে লাক্সতারকা শানু: কবিতার প্রেমে পড়েছি"ইটিভি অনলাইন (ইংরেজি ভাষায়)। ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৯ 
  8. "বইমেলায় আসছে শানুর দুই বই"এনটিভি অনলাইন। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৯ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা