প্রধান মেনু খুলুন

জুনায়েদ খান

পাকিস্তানী ক্রিকেটার
(Junaid Khan থেকে পুনর্নির্দেশিত)

মোহাম্মদ জুনায়েদ খান, বিশ্বব্যাপী পরিচিত জুনায়েদ খান (পশতু: جنید خان; জন্ম: ২৪ ডিসেম্বর, ১৯৮৯) হলেন একজন পাকিস্তানি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। জুনায়েদ বা-হাতি ফাস্ট বোলার হিসেবে বোলিং এবং ডানহাতি লো অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবেে জাতীয় দলে নিয়মিত একজন ক্রিকেটার হিসেবে ভূমিকা রাখছেন। তিনি পাকিস্তানের সোয়াবী থেকে পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলের জন্য যোগ্যতা অর্জনকারী প্রথম খেলোয়াড়[১] এবং তার চাচাত ভাই লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ পরবর্তীকালে একই পথ অনুসরণ করেন।[২] ২০১১ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের প্রাক্কালে সোহেল তানভীর আঘাতপ্রাপ্ত হলে তার জায়গায় জুনায়েদ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোন অভিজ্ঞতার ছাড়াই তার বদলি হিসেবে দলে ডান পান। কিন্তু তিনি উক্ত টুর্নামেন্ট খেলতে পারেননি এবং পরবর্তীতে ২০১১ সালের এপ্রিলে ওয়ানডে ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ করেন। একই বছরে জুন মাসে তিনি ইংরেজি ঘরোয়া ক্রিকেট দল "ল্যাঙ্কাশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব" এর হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন।

জুনায়েদ খান
جنید خان
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমোহাম্মদ জুনায়েদ খান
জন্ম (1989-12-24) ২৪ ডিসেম্বর ১৯৮৯ (বয়স ২৯)
মাতরা, খাইবার পাখতুনখা, পাকিস্তান
ডাকনামজুনি
উচ্চতা৬ ফুট ১ ইঞ্চি (১.৮৫ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনবাহাতি ফাস্ট বোলার
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২০৮)
১ সেপ্টেম্বর ২০১১ বনাম জিম্বাবুয়ে
শেষ টেস্ট৩১-০৪ ডিসেম্বর ২০১৩ বনাম শ্রীলঙ্কা
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৮১)
২৩ এপ্রিল ২০১১ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ ওডিআই২৭ নভেম্বর ২০১৩ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ওডিআই শার্ট নং৮৩
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৪০)
২১ এপ্রিল ২০১১ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ টি২০আই৮ ডিসেম্বর ২০১৩ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০৮/০৯–বর্তমানএবোটাবাদ
২০০৮/০৯–বর্তমানএবোটাবাদ ফ্যালকনস
২০১১ল্যাঙ্কাশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৬ ৪২ ৬১ ৮০
রানের সংখ্যা ৯৮ ৪৮ ৬৭৬ ২৩৩
ব্যাটিং গড় ৬.৫০ ৫.৩৩ ১১.২৬ ৯.৩২
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/২ ০/০
সর্বোচ্চ রান ১৭ ২৫ ৭১ ৩২
বল করেছে ৩,৫৩৮ ১,৯৭৯ ১২,৪৭৬ ৩,৫৫১
উইকেট ৫৬ ৭৩ ২৭৩ ১১৫
বোলিং গড় ২৯.০৭ ২২.২৮ ২২.৬৭ ২৫.৬৬
ইনিংসে ৫ উইকেট ১৯
ম্যাচে ১০ উইকেট n/a
সেরা বোলিং ৫/৩৮ ৪/১২ ৭/৪৬ ৪/১২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/– ৫/– ১০/– ৮/–
উৎস: ইএসপিএন ক্রিকইনফো, ৯ ডিসেম্বর ২০১৩

প্রারম্ভিক ঘরোয়া খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

খান ২০০৭ সালের ২৪ জানুয়ারি মাত্র ১৭ বছর বয়সে এবোটাবাদ দলের হয়ে মুলতানের বিরুদ্ধে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ করেন। তার প্রথম উইকেট ছিল মাজিদ। উক্ত খেলাটি ড্র এর মাধ্যেমে শেষ হলেও জুনায়েদ ৫৭ রান খরচ করে চার উইকেট গ্রহণ করেন।[৩]

পাকিস্তান দলে নির্বাচনসম্পাদনা

সোহেল তানভীর এর হাঁটুর আঘাতজনিত কারনে জুনায়েদ ২০১১ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের জন্য পাকিস্তানের স্কোয়াড তার নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল।[৪] তিনি টুর্নামেন্টের একটি ম্যাচও খেলতে পারেননি এবং তাকে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেকের জন্য অপেক্ষা করতে বাধ্য হয়েছিল। এপ্রিল ও মে মাসে পাকিস্তানের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য ২টি টেস্ট, ৫টি ওয়ানডে এবং ১টি টি২০ ম্যাচের জন্য পাকিস্তান স্কোয়াডে তার নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ২১ এপ্রিল তিনি টি২০ আত্মপ্রকাশ করেন এবং উক্ত ম্যাচে তিনি উইকেটশূন্য ছিলেন।[৫] দুই দিন পরে জুনায়েদ খান, মোহাম্মদ সালমান, এবং হাম্মাদ আজম ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ করেন। উদ্বোধনী বোলার হিসেবে ওয়াহাব রিয়াজ বল করলেও খান ১০ ওভারে ৪৯ রান খরচ করে ১টি উইকেট লাভ করেন।[৬]

বোলিং এর ধরণসম্পাদনা

খান তার সহযোগী বা-হাতি ফাস্ট বোলার ওয়াসিম আকরাম এর বোলিং এ্যাকশন মডেল হিসেবে নিয়েছিলেন। এছাড়াও তিনি ইমরান খান এর বোলিং দ্বারা প্রভাবিত ছিলেন।[৭] তার নিজের ভাষায, খান হলেন একজন "লাইন এবং লেন্থ বোলার" এবং তিনি বিশ্বাস করেন যে, "যদি তুমি সঠিক মাপে বল করতে পার এবং সংকুচিত লাইনে বল কর তবে উইকেট পাবে"। খান সাধারণত প্রায় ১৪০ থেকে ১৪২ কিমি/ঘ (৮৭ থেকে ৮৮ মা/ঘ) গতিতে বল করে থাকেন।[৮] তিনি একজন ব্যাটসম্যানের ভিতরে এবং বাইরে উভয় থেকে বল সুইং করাতে পারেন।[৯]

কাউন্টি ক্রিকেটসম্পাদনা

বোলিং রেকর্ডসম্পাদনা

মৌলিকসম্পাদনা

  • তারিখ – তারিখ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। টেস্ট ম্যাচ শুরুর তারিখ।
  • ওভার – ইনিংসে বল করা ওভার সংখ্যা
  • রান – রান দিয়েছেন
  • উইকেট – গৃহীত উইকেটের সংখ্যা
  • ব্যাটসম্যান – পাঁচ উইকেট তুলে নেওয়া ব্যাটসম্যানদের তালিকা
  • গড় – [ বোলিং ইকোনমি হার (গড় ওভার প্রতি রান)
  • ইনিংস – ইনিংসে পাঁচ উইকেট তুলে নেওয়া ব্যাটসম্যানদের তালিকা
  • ফলাফল – পাকিস্তান দলের হয়ে উক্ত ম্যাচের ফলাফল
  •   – জুনায়েদ খানকে ম্যাচের জন্য নির্বাচন করা হয়েছিল

টেস্টে ৫ উইকেট লাভসম্পাদনা

ক্রমিক তারিখ মাঠ প্রতিপক্ষ ইনিংস ওভার রান উইকেট ইকোনমি ব্যাটসম্যান ফলাফল
02011-10-18১৮ অক্টোবর ২০১১ জায়েদ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়াম, আবুধাবি   শ্রীলঙ্কা ১৪.১ ৩৮ ২.৬৮ ড্র[১০]
02012-06-30৩০ জুন ২০১২  সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ড, কলম্বো   শ্রীলঙ্কা ২৮ ৭৩ ২.৬০ ড্র[১১]
02012-07-08৮ জুলাই ২০১২ পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, পাল্লেকেলে   শ্রীলঙ্কা ২৮.২ ৭০ ২.৪৭ ড্র[১২]
02013-12-31৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, দুবাই   শ্রীলঙ্কা ২০ ৫৮ ২.৯০ ড্র[১৩]

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Pak bowler Junaid's action questionable: Basit Ali Retrieved 18 February 2011
  2. Cricket: Honley recruit leg-spinner to plug the gap left by county prospect Craddock The Huddersfield Daily Examiner 23 July 2011. Retrieved 5 September 2013
  3. f49863 Multan v Abbottabad: Quaid-e-Azam Trophy Silver League 2006/07, CricketArchive, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৬-০৭ 
  4. Sohail Tanvir out of the World Cup, ESPNcricinfo, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১১, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৫ 
  5. T20I no. 199 Pakistan in West Indies T20I Match: West Indies v Pakistan, ESPNcricinfo, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৫ 
  6. ODI no. 3152 Pakistan in West Indies ODI Series – 1st ODI: West Indies v Pakistan, ESPNcricinfo, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২৫ 
  7. "Junaid Khan hopes to make a mark after Amir ban", Dawn, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১১, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৭-১১ 
  8. Junaid Khan: I've been clocked at around 140 to 142 kph, Cricistan.com, hosted by CricketArchive, ১৭ মার্চ ২০১১, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৬-০৭ 
  9. "Chief selector backs 'surprise package' Junaid Khan", Dawn, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১১, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৭-১০ 
  10. "Sri Lanka vs Pakistan in the UAE, 2011/12: Test Series – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১২ 
  11. "Pakistan in Sri Lanka 2012: Test Series – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১২ 
  12. "Pakistan in Sri Lanka 2012: Test Series – 3rd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৩ 
  13. "Sri Lanka vs Pakistan in the UAE,2013/14: Test Series – 3rd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৩ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা