প্রধান মেনু খুলুন

রঞ্জন দাস

বাংলাদেশী ক্রিকেটার

বিকাশ রঞ্জন দাস (জন্ম: ১৪ জুলাই, ১৯৮২) ঢাকায় জন্মগ্রহণকারী বাংলাদেশের সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১] বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পক্ষে একটিমাত্র টেস্ট ক্রিকেটে অংশ নিয়েছিলেন। দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি ফাস্ট মিডিয়াম বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন। এছাড়াও, ডানহাতে ব্যাটিংয়ে পারদর্শীতা দেখিয়েছেন ‘রাণা’ নামে পরিচিত রঞ্জন দাস। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ঢাকা বিভাগ ও বরিশাল বিভাগের প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের পক্ষেও খেলেছেন।

রঞ্জন দাস
ব্যক্তিগত তথ্য
ডাকনামরাণা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনবামহাতি ফাস্ট মিডিয়াম
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক১০ নভেম্বর ২০০০ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট১০ নভেম্বর ২০০০ বনাম ভারত
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৯
রানের সংখ্যা ১৩৩
ব্যাটিং গড় ১.০০ ৭.০০
১০০/৫০ -/- -/-
সর্বোচ্চ রান ১৮
বল করেছে ১৩২ ২৮৩৪
উইকেট ৩৬
বোলিং গড় ৭২.০০ ৪১.২৫
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ১/৬৪ ৫/৮৮
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ৫/-
উৎস: ক্রিকইনফো, ৪ আগস্ট ২০১৭

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

১৯৯৯-২০০০ মৌসুমে ঢাকা বিভাগের পক্ষে তার প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষিক্ত হন। ১০ নভেম্বর, ২০০০ তারিখে ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম টেস্টে দলের অন্যান্য খেলোয়াড়ের পাশাপাশি তারও টেস্ট অভিষেক ঘটে।[২][৩] সফরকারী ভারতের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত ঐ খেলায় তিনি সদাগোপান রমেশকে বোল্ড করে একমাত্র উইকেটের সন্ধান পেয়েছিলেন। ব্যাট হাতে নিয়ে করেছিলেন ২ ও ০ রান। বলাবাহুল্য বাংলাদেশ দল ৯ উইকেটে পরাজিত হয়েছিল।

এরপর অবশ্য ২য় এশিয়ান টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপে ১৪-সদস্যবিশিষ্ট বাংলাদেশ দলের সদস্যরূপে মনোনীত হয়েছিলেন।[৪][৫] কিন্তু অনুষ্ঠিত দুই টেস্টের কোনটিতেই তার খেলার সুযোগ ঘটেনি। এরফলে ভারতের বিপক্ষে ঐ টেস্টটিই তার একমাত্র টেস্ট ছিল যা বাংলাদেশের এক টেস্টের বিস্ময়কারীরূপে পরিচিত।

অবসরসম্পাদনা

নিয়মিত আঘাতপ্রাপ্তি ও ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিক সাফল্য লাভে ব্যর্থ হওয়ায় উজ্জ্বল ভবিষ্যতের সন্ধানকল্পে শিক্ষাজীবনে মনোনিবেশ ঘটালে তার খেলোয়াড়ী জীবনের অকাল সমাপ্তি ঘটে। তবে, ২০০৪-০৫ মৌসুম পর্যন্ত প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট ও ক্লাব ক্রিকেট খেলেছিলেন তিনি। এ সময় যুগের সাথে তাল মিলিয়ে তিনি বামহাতি স্পিনারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন।[৬]

২০০০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে তিনি প্রণয়ঘটিত কারণে ধর্মান্তরিত হন ও ‘মাহমুদুর রহমান’ নামে পরিচিতি ঘটান নিজেকে।[৭] বর্তমানে তিনি ব্যাংকিং পেশায় মনোনিবেশ ঘটিয়েছেন। কিশোরগঞ্জভিত্তিক এক ক্রিকেট একাডেমির সাথে সম্পৃক্ত তিনি; যাতে মেহরাব হোসেন অপিহাসিবুল হোসেন কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।[৮]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "player profile of Ranjan Das"। ESPNCricinfo। 
  2. "India tour of Bangladesh, Only Test: Bangladesh v India at Dhaka, Nov 10-13, 2000"। espncricinfo। 
  3. "Bangladesh vs India, Only Test - Live Cricket Score, Commentary"। cricbuzz। 
  4. "Bangladesh cricketers arrive"। cricinfo। ২২ আগস্ট ২০০১। 
  5. "Bangladesh Squad"। cricinfo। 
  6. "player profile of Ranjan Das in cricbuzz, Sonali Dhulap"। cricbuzz। জুন ২০১৪। 
  7. "Bikash Ranjan Das is now Mahmudur Rahman Rana"। banglacricket। 
  8. "Rana, the one-Test wonder, Mazhar Uddin"। dhakatribune। ১৫ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা