প্রধান মেনু খুলুন

দায়ী কে? আফতাব খান টুলু পরিচালিত ১৯৮৭ সালের বাংলাদেশী নাট্য চলচ্চিত্র। ছবিটির গল্প, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন যৌথভাবে এটিএম শামসুজ্জামানকাজী হায়াৎ[২] ছবিটি প্রযোজনা ও পরিবেশনা করেছে ব্যতিক্রম চলচ্চিত্র। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন এটিএম শামসুজ্জামান, ইলিয়াস কাঞ্চন, অঞ্জু ঘোষ,[৩] আনোয়ার হোসেন, এবং রাজ।

দায়ী কে?
পরিচালকআফতাব খান টুলু
প্রযোজকসান্টু
রচয়িতা
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারআহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল
চিত্রগ্রাহকসিরাজুল ইসলাম সিরাজ
সম্পাদকদেবনাথ মজুমদার
প্রযোজনা
কোম্পানি
ব্যতিক্রম চলচ্চিত্র
পরিবেশকব্যতিক্রম চলচ্চিত্র
মুক্তি২৫ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৭[১]
দৈর্ঘ্য১৫৭ মিনিট
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা

চলচ্চিত্রটি ১৯৮৭ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে মুক্তি পায়। ছবিটি এর অভিনয় ও চিত্রনাট্যের জন্য প্রশংসিত হয়। ১২তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে এটিএম শামসুজ্জামান[৪] শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে ও কাজী হায়াৎ শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার বিভাগে পুরস্কার লাভ করেন[৫] এবং বাচসাস চলচ্চিত্র পুরস্কারে যথাক্রমে শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা ও শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার বিভাগে পুরস্কার লাভ করেন।

কুশীলবসম্পাদনা

সঙ্গীতসম্পাদনা

দায়ী কে? চলচ্চিত্রের গানের সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। গানের কথা লিখেছেন খোশনুর আলমগীর ও আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। গানে কণ্ঠ দিয়েছেন সাবিনা ইয়াসমিন, এন্ড্রু কিশোর, রুনা লায়লা, আবিদা সুলতানাকুমার বিশ্বজিৎ

গানের তালিকাসম্পাদনা

নং.শিরোনামলেখককণ্ঠশিল্পী(রা)দৈর্ঘ্য
১."আমার মত ডাক্তার"আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলকুমার বিশ্বজিৎ 
২."ও প্রেমের মাস্টারজি" রুনা লায়লাএন্ড্রু কিশোর 
৩."তুমি ছিলে মেঘে ঢাকা চাঁদ" রুনা লায়লা ও এন্ড্রু কিশোর 
৪."এত সুখ সইব কি করে" সাবিনা ইয়াসমিন ও এন্ড্রু কিশোর 
৫."দুনিয়া কা মাজা লে লো" কুমার বিশ্বজিৎ 

পুরস্কারসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Movie List 1987"বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৭ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "একজন গুণী মানুষের গল্প"দৈনিক ইত্তেফাক। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৭ 
  3. "২০ বছর পর অঞ্জু ঘোষ"যায়যায়দিন। ১ অক্টোবর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৭ 
  4. "আজীবন অভিনয় করতে চান এটিএম"যায়যায়দিন। ১৬ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৭ 
  5. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্তদের নামের তালিকা (১৯৭৫-২০১২)"বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা