কাওরান বাজার বা কারওয়ান বাজার বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার কেন্দ্রীয় পাইকারী ও খুচরা বাজার।[১]

কারওয়ান বাজারস্থ একুশে টেলিভিশন স্টুডিও এবং হেডকোয়ার্টার

ইতিহাসসম্পাদনা

১৭শ শতাব্দী থেকেই এখানে বাজার ছিল। ১৮শ শতাব্দীর শেষের দিকে কারওয়ান সিং নামের একজন মারওয়াড়ী ব্যবসায়ী এখানে প্রথম মার্কেট খোলেন। তার নামেই এই বাজারের নামকরণ হয়েছে।[১]

অন্যমতে, শূরী বংশের প্রতিষ্ঠাতা ও ভারতবর্ষের সম্রাট শেরশাহ শূরী (১৫৩৮-১৫৪৫) সুলতানি বাংলার রাজধানী সোনারগাঁও থেকে পাঞ্জাবের মুলতান পর্যন্ত ৪ হাজার ৮০০ কিলোমিটার দীর্ঘ ‘সড়ক-ই-আযম’ বা ‘গ্র্যান্ড ট্রাঙ্ক রোড’ নির্মাণ করেন। তিনিই প্রথম ঘোড়ার ডাকের ব্যবস্থা করেছিলেন। দ্রুত সংবাদ আদান-প্রদান, পথচারীদের নিরাপত্তা, রাত্রিযাপন, সংবাদবাহকের ঘোড়া বদল ইত্যাদি কারণে এই সড়কে নির্দিষ্ট দূরত্বে তার প্রশাসন নিরাপত্তাচৌকি ও সরাইখানা স্থাপন করেছিল। ইতিহাস বলে, সড়ক-ই-আযম কারওয়ান বাজারের পাশ দিয়ে অথবা কোনো সংযোগ সড়কের মাধ্যমে এই বাজারের সঙ্গে সংযুক্ত ছিল। এখানেও ছিল একটি সরাইখানা। এর ফারসি শব্দ ক্যারাভাঁ, অর্থ সরাইখানা। ‘ক্যারাভাঁ’ থেকেই ক্যারভাঁন বাজার, থেকে কালের পরিক্রমায় এই স্থানের নামকরণ হয়েছে কারওয়ান বাজার।[২]

বাজারের অবস্থানসম্পাদনা

কারওয়ান বাজার ঢাকা শহরের সবচেয়ে বড় পাইকারী বাজার। ২০০২ সালের হিসাব অনুযায়ী এই বাজারে ১২৫৫টি দোকান আছে এবং তন্মধ্যে ৫৫টির মালিক ঢাকা সিটি কর্পোরেশন[১]

এই বাজারের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এখানে প্রতিটা সবজি এবং ফলের জন্য আলাদা আলাদা নির্ধারিত আড়ৎ রয়েছে। রয়েছে মাছ এর বিশাল পাইকারি বাজার। এছাড়াও রয়েছে নির্ধারিত কামারপট্টি। রয়েছে ইলেক্ট্রিক ও ইলেকট্রনিকস মার্কেট। এছাড়াও রয়েছে হার্ডওয়্যার ও স্যানিটারি মার্কেট। রয়েছে মুরগির আড়ৎ। জুতা ও জামা কাপড়ের বিশাল মার্কেট। রয়েছে মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তের জন্য খোলা বাজার। ফলের আড়ৎ এর সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হলো এখানে যাবতীয় সকল দেশীয় ফল সবসময় পাওয়া যায়।

যেসকল আড়ৎ গুলো সবচাইতে নামকরা ও জনপ্রিয় তাদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে মেঘনা ফার্ম, স্বদেশ ফার্ম, সোনার বাংলা বাণিজ্যালয়, আমেনা ট্রেডার্স, কিরন ট্রেডার্স, শাহ আলী ফার্ম।

বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানসম্পাদনা

ঢাকা শহরের অন্যতম বাণিজ্যিক এলাকা হিসেবে এখানে অনেক বড় বড় বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। দৈনিক প্রথম আলো, দ্য ডেইলি স্টার (বাংলাদেশ), দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট এবং আরও অনেক খবরের কাগজের প্রধান অফিস কাওরান বাজারে অবস্থিত। এছাড়াও একুশে টেলিভিশন, এনটিভি, এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ, বাংলাভিশন, আরটিভি টেলিভিশনের প্রধান কার্যালয় এবং স্টুডিও কাওরান বাজারে অবস্থিত।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. মো মাসুদুর রহমান (২০১২)। "কাওরান বাজার"ইসলাম, সিরাজুল; মিয়া, সাজাহান; খানম, মাহফুজা; আহমেদ, সাব্বীর। বাংলাপিডিয়া: বাংলাদেশের জাতীয় বিশ্বকোষ (২য় সংস্করণ)। ঢাকা, বাংলাদেশ: বাংলাপিডিয়া ট্রাস্ট, বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিআইএসবিএন 9843205901ওএল 30677644Mওসিএলসি 883871743 
  2. "কারওয়ান বাজারের ইতিকথা"ক্যানভাস ম্যাগাজিন। ২০১৯-০৫-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-৩১