প্রধান মেনু খুলুন

গ্র্যান্ড ট্রাঙ্ক রোড

এশিয়ার অন্যতম প্রাচীন ও দীর্ঘতম সড়ক পথ

গ্র্যান্ড ট্রাঙ্ক রোড এশিয়ার অন্যতম প্রাচীন ও দীর্ঘতম সড়ক পথ। দুই শতাব্দীরও অধিক সময় এটি উপমহাদেশের পূর্ব ও পশ্চিম অংশকে সংযুক্ত করে রাখে। এটি বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থেকে শুরু হয়ে পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া হয়ে পাকিস্তানের পেশাওয়ারের মধ্য দিয়ে আফগানিস্তানের কাবুল পর্যন্ত পৌছায়।[১] এর প্রাক্তন নামের মধ্যে ছিল উত্তরপথ, শাহ রাহে আজম, সড়কে আজম, বাদশাহি সড়ক

গ্র্যান্ড ট্রাঙ্ক রোড
পথের তথ্য
দৈর্ঘ্য:২,৫০০ কিমি (১,৬০০ মাইল)
বিদ্যমান:প্রাচীনকাল – বর্তমান
প্রধান সংযোগস্থল
পূর্ব প্রান্ত:সোনারগাঁও, নারায়ণগঞ্জ
পশ্চিম প্রান্ত:কাবুল

গ্র্যান্ড ট্রাঙ্ক রোডে বিস্তৃত রুট মৌর্য সাম্রাজ্যের সময় থেকে ছিল। এটি গঙ্গার মুখ থেকে সাম্রাজ্যের উত্তর পশ্চিম সীমান্ত পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল। আধুনিক সড়কের পূর্ববর্তী সংস্করণটি সম্রাট শের শাহ শুরি নির্মাণ করেন।[২] (তিনি ঘোড়ার ডাকেরও প্রচলন করেন)। এতে প্রাচীন মৌর্য সড়কের সংস্কার ও বর্ধিত করা হয়। ১৮৩৩ থেকে ১৮৬০ সালের মধ্যে ব্রিটিশরা এর আরো সংস্কারসাধন করে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  • Usha Masson Luther; Moonis Raza (১৯৯০)। Historical routes of north west Indian Subcontinent, Lahore to Delhi, 1550s-1850s A.D.। Sagar Publications। 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা