নারায়ণগঞ্জ

বাংলাদেশের একটি শহর

নারায়ণগঞ্জ বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জ জেলায় অবস্থিত একটি শহর। ১৯৮৪ সালে এই জেলা প্রতিষ্ঠা লাভ করে, পূর্বে এটি ঢাকা জেলার অন্তর্ভুক্ত ছিল। রাজধানী ঢাকার নিকটবর্তী একটি শহর এবং নারায়ণগঞ্জ জেলার সদরদপ্তর।[১] শহরটি শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে অবস্থিত। নারায়ণগঞ্জ বন্দর দেশের বৃহত্তম নদীবন্দর ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসা-বাণিজ্য কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত। এছাড়াও এটি পাট বাণিজ্য ও প্রক্রিয়াকরণ কারখানা এবং দেশের টেক্সটাইল সেক্টরের ব্যবসা ও শিল্পের একটি কেন্দ্র। অনেক পাটকলের উপস্থিতির কারণে এটিকে প্রাচ্যের ড্যান্ডি নামে ডাকা হয়। ডিজিটাল জনশুমারী ও গৃহগণনা-২০২২ অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ আয়তনে দেশের ৮ম এবং জনসংখ্যায় ৫ম বৃহত্তর মহানগর। (ড্যান্ডি ছিল বিশ্বের প্রথম শিল্পোন্নত জুটপোলিস)।[২]

নারায়ণগঞ্জ
মহানগরী
উপর থেকে ঘড়ির কাঁটার বিপরীতে:শহরের দিগন্ত,নারায়ণগঞ্জ বন্দর,
সুলতান গিয়াসউদ্দিন আজম শাহের সমাধি,
বারো ভূঁইয়া জমিদার ঈসা খাঁ এর প্রসাদ,ঐতিহাসিক পানাম শহর,শহরের পূর্বে হাজীগঞ্জ দুর্গ
ডাকনাম: প্রাচ্যের ড্যান্ডি
নারায়ণগঞ্জ ঢাকা বিভাগ-এ অবস্থিত
নারায়ণগঞ্জ
নারায়ণগঞ্জ
নারায়ণগঞ্জ বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
নারায়ণগঞ্জ
নারায়ণগঞ্জ
নারায়ণগঞ্জ এশিয়া-এ অবস্থিত
নারায়ণগঞ্জ
নারায়ণগঞ্জ
নারায়ণগঞ্জ পৃথিবী-এ অবস্থিত
নারায়ণগঞ্জ
নারায়ণগঞ্জ
বাংলাদেশে নারায়ণগঞ্জের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°৩৭′ উত্তর ৯০°৩০′ পূর্ব / ২৩.৬১৭° উত্তর ৯০.৫০০° পূর্ব / 23.617; 90.500
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগঢাকা বিভাগ
জেলানারায়ণগঞ্জ জেলা
সরকার
 • ধরনমেয়র - কাউন্সিলর
 • শাসকনারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন
 • মেয়রসেলিনা হায়াৎ আইভি
আয়তন
 • মহানগরী৭২.৪৩ বর্গকিমি (২৭.৯৭ বর্গমাইল)
 • জলভাগ৪৮.৫৬ বর্গকিমি (১৮.৭৫ বর্গমাইল)
উচ্চতা৩ মিটার (১০ ফুট)
জনসংখ্যা (2012)
 • মহানগর২.২ মিলিয়ন
সময় অঞ্চলবাংলাদেশ স্থানীয় সময় (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড১৪২০
এলাকা কোড০৬৭১
টেলিফোন কোড০২

নামকরণ

সম্পাদনা

১৭৬৬ সালে হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় নেতা বিকন লাল পান্ডে, যিনি বেণুর ঠাকুর বা লক্ষী নারায়ণ ঠাকুর নামে অধিক পরিচিত ছিলেন। তিনি ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির নিকট থেকে এ অঞ্চলের মালিকানা কিনে নিয়েছিলেন। তিনি প্রভু নারায়ণের সেবার ব্যয়ভার বহনের জন্য একটি উইলের মাধ্যমে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে অবস্থিত মার্কেটকে দেবোত্তর সম্পতি হিসেবে ঘোষণা করেন। তাই পরবর্তীকালে এ স্থানের নাম হয় নারায়ণগঞ্জ।[৩] কালেক্টরেটের প্রারম্ভিক দলিল-দস্তাবেজে নারায়ণগঞ্জের নাম উল্লেখ পাওয়া যায়।

ইতিহাস

সম্পাদনা

১৮৬৬ সালে নারায়ণগঞ্জে ডাকঘর প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৮৭৭ সালে ঢাকা- নারায়ণগঞ্জ টেলিগ্রাম পরিসেবা চালু হয়েছিল। ১৮৮২ সালে ব্যাংক অব বেঙ্গল নারায়ণগঞ্জে প্রথম টেলিফোন চালু করেন।

১৮৭৬ সালের ৮ সেপ্টম্বর নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা গঠিত হয়। অত্র এলাকার প্রথম হাসপাতাল নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া হাসপাতাল ১৮৮৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় আর্থিক সহায়তা করেছিলেন হরকান্ত ব্যানার্জি। ১৯৩১ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জ শহরে চট্টগ্রাম ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানির সহায়তায় বৈদ্যুতিক সংযোগ স্থাপন করে।

২০১১ সালের ৫ মে নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা, সিদ্ধিরগঞ্জ পৌরসভা, কদমরসুল পৌরসভাকে বিলুপ্ত ঘোষণা করে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন গঠিত হয়। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (এনসিসি) এর বর্তমান মেয়র হলেন সেলিনা হায়াৎ আইভি।

আরো পড়ুন

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "23: Area, Household, Population and Literacy Rate of the Cities, 2011"। Population & Housing Census-2011 [আদমশুমারি ও গৃহগণনা-২০১১] (পিডিএফ) (প্রতিবেদন)। জাতীয় প্রতিবেদন (ইংরেজি ভাষায়)। ভলিউম ৩: Urban Area Rport, 2011। ঢাকা: বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো। মার্চ ২০১৪। পৃষ্ঠা XI। ১১ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  2. "Jute Industry in Dundee and India"। Dundee (UK)। ১৫ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  3. মোঃ সোলায়মান (২০১২)। "নারায়ণগঞ্জ, বন্দরনগরী"ইসলাম, সিরাজুল; মিয়া, সাজাহান; খানম, মাহফুজা; আহমেদ, সাব্বীর। বাংলাপিডিয়া: বাংলাদেশের জাতীয় বিশ্বকোষ (২য় সংস্করণ)। ঢাকা, বাংলাদেশ: বাংলাপিডিয়া ট্রাস্ট, বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিআইএসবিএন 9843205901ওএল 30677644Mওসিএলসি 883871743