উসমানীয় রাজবংশ

উসমানীয় সাম্রাজ্যের রাজাদের তালিকা


উসমানীয় রাজবংশ (তুর্কী: Osmanlı Hanedanı) তৈরি হয়েছিল মহান উসমানীয় রাজপ্রাসাদ (উসমানীয় তুর্কি: خاندان آل عثمان) এর সদস্যদের দ্বারা তৈরী হয়েছিল, যারা অটোমান (তুর্কী: Osmanlılar) হিসেবেও সমানভাবে পরিচিত। উসমানীয় ঐতিহ্য অনুসারে পরিবারটি কায়ী গোত্রের বংশোদ্ভুত;[nb ১] যেটি অগুজ তুর্কদের একটি শাখা।,[২] প্রথম উসমানের অধীনে উত্তরপূর্ব আনাতোলিয়ায় বেইলিক সুগুত জেলায়। উসমানীয় রাজবংশের নাম উসমান প্রথম থেকে এসেছে। যারা আনু. ১২৯৯-১৯২২ খ্রিস্টাব্দ পর্য্নত উসমানীয় সাম্রাজ্য শাসন করেছিল। সাম্রাজ্যের ইতিহাসের অধিকাংশ সময়, সুলতানই ছিলেন মূল শাসক, রাষ্ট্রপ্রধান, সরকার প্রধান। যদিও কিছু ক্ষমতা উজিরে আজমদের মত কর্মকর্তাদের হাতে স্থানান্তরিত হয়েছিল। যেমন- প্রথমবার ১৮৭৬-৭৮ খ্রিস্টাব্দে ও দ্বিতীয় সাংবিধানিক যুগ ১৯০৯-২০ খ্রিস্টাব্দে সাম্রাজ্যের শেষদিকে। এই দুই সময়ে একটি রাজতান্ত্রিক প্রাতিষ্ঠানিক ক্ষমতা স্থানান্তর কার্যকর করা হয়েছিল, যাতে উজিরে আজমরা সরকার প্রধান হিসেবে প্রধানমন্ত্রী এবং সাধারণ সংসদের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

উসমানীয় রাজপ্রাসাদ
উসমানীয় সাম্রাজ্যের নিশানী (১৮৮২–১৯২২)
রাষ্ট্র Ottoman Empire
উপাধিসুলতানুল মুজাহিদীন, সার্বভৌম উসমানীয় রাজপ্রাসাদ, খানদের খান, আনাতোলিয়া ও রুমেলিয়া এবং অ্যাদ্রিয়েনোপল ও ফিলিপোপোলিস শহরের মহান সুলতান,
প্রতিষ্ঠাকালআনু.১২৯৯
প্রতিষ্ঠাতাপ্রথম উসমান
শেষ শাসক
ক্ষমতাচ্যুতি
শাখাওসমানগলু পরিবার


১৯২০ সালে রুকিয়া সাবিহা সুলতানের বিয়ের দিন, বাম থেকে ডানে: ফাতমা উলভিয়ে সুলতান, খাদিজা খাইরিয়াহ আয়শা দুররে শাহওয়ার সুলতান, আমিনা নাজিকেদা কাদিনেফেন্দী, রুকাইয়া সাবিহা সুলতান, মেহমেদ আরতুগ্রুল এফেন্দী, শাহসুওয়ার হানিম এফেন্দী।

তুরস্কের স্বাধীনত যুদ্ধের সময়ে ১৯২২ খ্রিস্টাব্দে পহেলা নভেম্বর এই রাজকীয় পরিবারটি ক্ষমতাচ্যুত হয় এবং সালতানাতের সমাপ্তি ঘটে। পরবর্তী বছর তুরস্ক প্রজাতন্ত্র ঘোষিত হয়। রাজবংশটির বেঁচে থাকা সদস্যদেরকে পার্সোনায়ে নন গ্রাটায়ের অধীনে দেশ থেকে নির্বাসনে পাঠানো হয়। যদিও কিছু সদস্যকে পুনরায় তুরস্কে ফিরে ব্যক্তিগতভাবে বসবাস করার অনুমতি দেয়া হয়েছিল। বর্তমানে এই পরিবারটি ওসমানগলু পরিবার হিসেবে পরিচিত।


ইতিহাসসম্পাদনা

উত্তরাধিকার নীতিসম্পাদনা

সুলতানদের কালক্রমসম্পাদনা

১৯২২ হতে উত্তরাধিকার তালিকাসম্পাদনা

উসমানীয় রাজবংশের প্রধানদের উল্লেখ করে পরিবারের ধারাসম্পাদনা

নভেম্বর ১৯২২ এর উত্তরাধিকার ধারাসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

পাদটীকাসম্পাদনা

  1. A claim which has come under criticism from many historians, who argue either that the Kayı genealogy was fabricated in the fifteenth century, or that there is otherwise insufficient evidence to believe in it.[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Kafadar, Cemal (১৯৯৫)। Between Two Worlds: The Construction of the Ottoman State। পৃষ্ঠা 122। আইএসবিএন 978-0-520-20600-7That they hailed from the Kayı branch of the Oğuz confederacy seems to be a creative "rediscovery" in the genealogical concoction of the fifteenth century. It is missing not only in Ahmedi but also, and more importantly, in the Yahşi Fakih-Aşıkpaşazade narrative, which gives its own version of an elaborate genealogical family tree going back to Noah. If there was a particularly significant claim to Kayı lineage, it is hard to imagine that Yahşi Fakih would not have heard of it 
    • Lowry, Heath (২০০৩)। The Nature of the Early Ottoman State। SUNY Press। পৃষ্ঠা 78। আইএসবিএন 0-7914-5636-6Based on these charters, all of which were drawn up between 1324 and 1360 (almost one hundred fifty years prior to the emergence of the Ottoman dynastic myth identifying them as members of the Kayı branch of the Oguz federation of Turkish tribes), we may posit that... 
    • Shaw, Stanford (১৯৭৬)। History of the Ottoman Empire and Modern Turkey । Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 13The problem of Ottoman origins has preoccupied students of history, but because of both the absence of contemporary source materials and conflicting accounts written subsequent to the events there seems to be no basis for a definitive statement. 
  2. Shaw, Stanford (১৯৭৬)। History of the Ottoman Empire and Modern Turkey । Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 13 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

ইংরেজীতে

তুর্কী ভাষায়

ফরাসী ভাষায়

উসমানীয় রাজপ্রাসাদ
New Dynasty
উসমানীয় সাম্রাজ্যের শাসনগৃহ
আনু. ১২৯৯-১৯শে নভেম্বর ১৯২২
শূন্য
পূর্বসূরী
আব্বাসীয় রাজবংশ
খিলাফত রাজবংশ
১৫১৭–৩রা মার্চ ১৯২৪