প্রধান মেনু খুলুন

প্রথম সাংবিধানিক যুগ

প্রথম সাংবিধানিক যুগ (উসমানীয় তুর্কি: مشروطيت; তুর্কী: Birinci Meşrutiyet) দ্বারা উসমানীয় সাম্রাজ্যের প্রথম সাংবিধানিক রাজতন্ত্রের যুগকে বোঝানো হয়। তরুণ উসমানীয়দের দ্বারা লিখিত কানুন-ই ইসাসি ঘোষণার মাধ্যমে ১৮৭৬ সালের ২৩ নভেম্বর এই যুগ শুরু হয় এবং ১৮৭৮ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি তা সমাপ্ত হয়। এসময় সুলতান দ্বিতীয় আবদুল হামিদ উসমানীয় সংসদ ও সংবিধান স্থগিত করেন এবং সার্বভৌম রাজতন্ত্র পুনস্থাপন করেন।

প্রথম সাংবিধানিক যুগে কোনো দলীয় ব্যবস্থা ছিল না। এই সময় উসমানীয় সংসদকে জনগণের কন্ঠস্বর হিসেবে দেখা হত কিন্তু তা রাজনৈতিক দল বা প্রতিষ্ঠান ছিল না।

অন্তর্বর্তীকালীন নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হত। উসমানীয় সংসদ দুই কক্ষ বিশিষ্ট ছিল। নিম্নকক্ষের নাম ছিল মজলিস-ই মেবুসান এবং উচ্চকক্ষের নাম ছিল মজলিস-ই আয়ান। প্রদেশের প্রশাসনিক কাউন্সিল কর্তৃক নিম্নকক্ষের সদস্যরা নির্বাচিত হতেন।

প্রদেশসমুহে সাধারণ পরিষদ গঠিত হওয়ার পর পরিষদ থেকে নিম্নকক্ষের সদস্য নির্বাচিত করা হত। এই কক্ষে ১১৫জন সদস্য ছিলেন। তারা সাম্রাজ্যের মিল্লাত ব্যবস্থা বণ্টনের প্রতিফলন ঘটাতেন। দ্বিতীয় নির্বাচনে মুসলিম মিল্লাত থেকে ৬৯ জন এবং অমুসলিম মিল্লাত (ইহুদি, ফানারিওট, আর্মেনীয়) থেকে ৪৬ জন প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছিলেন।

সংসদের উচ্চকক্ষ সুলতান কর্তৃক নির্বাচিত হতেন। এই কক্ষে ২৬ জন সদস্য ছিলেন। উজিরে আজম ছিলেন উচ্চকক্ষের স্পিকার।

১৮৭৭ থেকে ১৮৭৮ সালের মধ্যে দুইটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উসমানীয় সাংবিধানিক যুগ
উড়ন্ত ফেরেশতা নীতিবাক্য প্রদর্শন করছে: স্বাধীনতা, সাম্য, ভ্রাতৃত্ব
অধিবেশন শুরু, ১৮৭৭ সাল।
সংসদের বৈঠক, ১৮৭৭ সাল।

গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ‌সম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা