অসমীয়া ভাষা আন্দোলন

অসমিয়া ভাষা আন্দোলন

অসমীয়া ভাষা আন্দোলন আসামে অসমীয়া ভাষাকে সরকারী ভাষা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষণের মাধ্যম হিসাবে ব্যবহার করতে সময়ে সময়ে সংঘটিত হওয়া সামাজিক তথা রাজনৈতিক আন্দোলন। অসমীয়া ভাষাকে সরকারী ভাষা হিসাবে কার্যালয়সমূহে ব্যবহার করতে সংঘর্ষের সূচনা ১৯ শতকে আরম্ভ হয়েছিল। ১৮২৬ সালের ইয়াণ্ডাবু সন্ধির পরে আসাম ব্রিটিশ অধীনে যাওয়ার পরে প্রশাসনিক সুবিধার জন্য অনেক বাংলাভাষাভাষী লোক আসামে আনেন। তাঁদের প্ররোচনাতে আসামের কার্যালয় এবং ন্যায়ালয়সমূহে বাংলা ভাষা সরকারী ভাষা হিসাবে ব্যবহৃত হত। কিন্তু আসামের নাগরিক এবং আমেরিকান ব্যাপ্টিষ্ট মিশনারীদের প্রচেষ্টায় আসামে পুনরায় অসমীয়া ভাষা প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

ভারতের স্বাধীনতার পরে ১৯৫২ সাল থেকে আসামে অসমীয়া ভাষাকে সরকারী ভাষা হিসাবে স্বীকৃতি এবং আসামের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষণের মাধ্যম হিসাবে ব্যবহার করার জন্য এক আন্দোলনের সূচনা হয়েছিল। ভাষিক বৈশিষ্ট্যের উপর ভিত্তি করে ভারতের রাজ্য পুনর্গঠন আইন, ১৯৫৬ বলবৎ হওয়ায় এই আন্দোলন আরো বল পায়। ভাষার উপর ভিত্তি করে রাজ্য গঠন হওয়া দেখে আসাম সাহিত্য সভা অসমীয়া ভাষাকে আসামের একমাত্র সরকারী ভাষা হিসাবে স্বীকৃতি দিতে দাবী জানান। এই আন্দোলনে অনেক ছাত্র-ছাত্রী যোগদান করেন। এই আন্দোলনে ১৯৬০ সালের ৪ জুলাইয়ের দিন রঞ্জিত বরপূজারী কটন কলেজের নিজ হোষ্টেলের ১১৩ নম্বর রুমের সম্মুখে পুলিশের নির্বিচার গুলিতে মৃত্যু বরণ করেছিলেন৷ তাঁর সাথে অনেকে এই আন্দোলনে শহীদ হয়েছিল। একে 'ভাষা আন্দোলন বলে অভিহিত করা হয় এবং রঞ্জিত বরপূজারীকে ভাষা আন্দোলনের প্রথম শহীদ হিসাবে মান্যতা প্রদান করা হয়। এই আন্দোলনের ফলশ্রুতিতে আসাম সরকারী ভাষা আইন, ১৯৬০ প্রণয়ন করা হয় এবং অসমীয়া ভাষাকে ইংরাজী ভাষার সাথে আসামের সরকারী ভাষা হিসাবে স্বীকৃতি প্রদান করা হয়।[১] সরকারের এই সিদ্ধান্তকে অনেকেই স্বাগত জানান যদিও আসামের কিছু স্থানে বিশেষত বরাক উপত্যকায় এর বিরুদ্ধে প্রবল প্রতিবাদ সাব্যস্ত করা হয়। বরাক উপত্যকায় বাংলা ভাষা আন্দোলন সংঘটিত হওয়ায় আসাম সরকারী ভাষা আইন, ১৯৬০ টি সংশোধন করা হয় এবং ভাষিক সংখ্যালঘুদের ভাষার অধিকার রক্ষা করা হয়। এর সাথে সাথে বরাক উপত্যকার জেলাকয়টিতে অতিরিক্তভাবে বাংলা ভাষা সরকারী ভাষা হিসাবে স্বীকৃতি লাভ করেন।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "The Assam Official Language Act,1960"India Code 
  2. Jun 9, TNN |; 2009; Ist, 05:02। "Silchar rly station to be renamed soon | Guwahati News - Times of India"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৯ 

টেমপ্লেট:অসমীয়া ভাষা