প্রধান মেনু খুলুন

ওয়াইস শাহ

ইংরেজ ক্রিকেটার
(Owais Shah থেকে পুনর্নির্দেশিত)

ওয়াইস আলম শাহ (Urdu: اویس عالم شاہ) (জন্ম: ২২ অক্টোবর ১৯৭৮) হলেন একজন ইংল্যান্ড জাতীয় দলের ক্রিকেটার। একজন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে ১৯৯৬-২০১০ পর্যন্ত তিনি মিডলসেক্স কাউনটি ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে খেলেছেন। তিনি ইংল্যান্ডের সকল প্রকার খেলার ফর্মেটে প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

ওয়াইস আলম শাহ
اویس شاہ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামওয়াইস আলম শাহ
জন্ম (1978-10-22) ২২ অক্টোবর ১৯৭৮ (বয়স ৪০)
করাচি, সিন্ধ, পাকিস্তান
ডাকনামএসিই
উচ্চতা৬ ফুট ১ ইঞ্চি (১.৮৫ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৬৩২)
১৮ মার্চ ২০০৬ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট৬ শার্চ ২০০৯ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৬৩)
১০ জুন ২০০১ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই২ অক্টোবর ২০০৯ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই শার্ট নং৩ (পূর্বে ৬৯)
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯৬–২০১০মিডলসেক্স
২০০৯–২০১০কলকাতা নাইট রাইডার্স
২০০৯–২০১০ওয়েলিংটন ফায়ারবার্ডস
২০০২–২০০৮এমএমসি
২০০৮দিল্লি ডেয়ারডেভিলস
২০১০–বর্তমানএসেক্স
২০১০–বর্তমানকেপ কোবরাস
২০১১কোচি টাস্কার্স কেরালা
২০১১–বর্তমানহোবার্ট হারিকেন
২০১২–বর্তমানরাজস্থান রয়ালস
২০১৩–বর্তমানঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৭১ ২৫২ ৩৬০
রানের সংখ্যা ২৬৯ ১,৮৩৪ ১৬,৩৫৭ ১০,৫২৯
ব্যাটিং গড় ২৬.৯০ ৩০.৫৬ ৪১.৯৪ ৩৫.৪৫
১০০/৫০ ০/২ ১/১২ ৪৫/৭৯ ১৪/৬৮
সর্বোচ্চ রান ৮৮ ১০৭* ২০৩ ১৩৪
বল করেছে ৩০ ১৯৩ ২,২৬৬ ৯২৪
উইকেট ২৬ ২৭
বোলিং গড় ২৬.২৮ ৫৭.৮৮ ৩৩.৭০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট n/a n/a
সেরা বোলিং ০/১২ ৩/১৫ ৩/৩৩ ৪/১১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২/– ২১/– ২০০/– ১২৫/–
উৎস: ইএসপিএন ক্রিকইনফো, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩

২০০১ সাল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত, তিনি একদিনের আন্তর্জাতিক (ওডিআই) ম্যাচ খেলেছেন ৭১টি এবং টুয়েন্টি-২০ আন্তর্জাতিক খেলেছেন ১৭টি। এছাড়াও তিনি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন ৬টি যেটিতে তার অভিষেক ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ৮৮ রানের এক অনবদ্য ইনিংস খেলেন ২০০৬ সালে। সুযোগ সীমিত ছিল এবং ২০০৯ সালের পর থেকে তাকে আর জাতীয় দলে দেখা যায়নি। মাইকেল ভন এর অবসর গ্রহণ এবং ইয়ান বেল বাদ পড়ায় তিন নম্বরে ব্যাট করার জন্য তার সুযোগ না হয়ে বরং রবি বোপারা সুযোগটি গ্রহণ করেন।

২০০৯ সালের আইপিএল তিনি কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে খেলেছেন এবং ২০১০ সালে আইপিএল মৌসুমে কচি টাস্কার কেরালার হয়ে খেলেছেন। কচি টাস্কার থেকে বাদ পড়ার পর তিনি আইপিএল ৫-এ রাজস্থান রয়ালসের হয়ে খেলেছেন।

প্রাথমিক খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

শাহ পাকিস্তানের সিন্ধ, করাচি, জন্ম গ্রহণ করেন; কিশোর অবস্থায় তিনি ক্রিকেটের সাথে জড়িয়ে পড়েন।[১] ওয়াইস শাহ তার কর্মজীবন শুরু করেন ওয়াইকম্বো হাইস ক্রিকেটে ক্লাবে, এবং ক্লাবে নিজে রেরর্ড ভেঙ্গে রেকর্ড গড়েন। তিনি ছিলেন একেজন পূর্ণাঙ্গ অলরাউন্ডার। তিনি ছিলেন সেই সময়ে তার বয়সী খেলোয়াড়দের মধ্য সবচেয়ে দ্রুততম বোলার এবং আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট প্রত্যাবর্তনসম্পাদনা

তার আন্তর্জাতিক কর্মজীবনের মোটামুটি কঠিনভাবে শুরু করেন যেখানে তিনি ২০০১-০২, ২০০২-০৩ বছরে ১০ ইনিংসে মিলে একটি অর্ধশতক করতে সক্ষম হন এবং তার ফর্মের জন্য প্রয়োজনীয় দৃঢ়তা সৃষ্টি করতে পারেনি। আধুনিক ওডিআই ক্রিকেটে তিনি ফিল্ডিং ভাল করতে পারেনি যার ফলে ইংল্যান্ড দলে থেকে কোন প্রকার সুযোগ ছাড়া টেস্ট ক্রিকেট থেকে বাদ পড়েন। ১৫ মাস পরে তিনি ঘরের মাটিতে লর্ডসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্টে সুযোগ পান কিন্তু প্রথম ইনিংসে ৬ এবং পরের ইনিংসে ৪ রান করেন। দ্বিতীয় টেস্টে মাইকেল ভনের ফিটনেসে ভাল থাকার কারনে দলে প্রবেশ করেন এবং আবারও টেস্ট থেকে শাহ বাদ পড়েন।[২] যাহোক শাহকে ওডিআই এবং টি-২০ আই সিরিজে স্কোয়াডে রাখা হয়। প্রথম ম্যাচে সামান্য অবদান রাখেন কিন্তু উক্ত ম্যাচের ইংল্যান্ড হেরে যায় এবং দ্বিতীয় ম্যাচে মাত্র ৩৫ বলে ৫৫ রানের এই ম্যাচ উইনিং খেলা উপহার দেন। ফলে সিরিজটি ১-১ সমতা আসে।[৩] তিনি ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন এবং তার খেলার ধরন পবিবর্তন করেন।[৪] তিনি ৫ সেপ্টেম্বর ২০০৭ সালে ভারতের বিপক্ষে প্রথম ওডিআই শতক লাভ করেন যেখানে তিনি ৯৫ বলে অপরাজিত ১০৭ রান করেন এবং ১৭টি বল করে তিনি প্রথম উইকেটও শিকার করেন।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগসম্পাদনা

শাহ আইপিএলের দ্বিতীয় নিলামে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস এ হয়ে $২৭৫,০০০ মার্কিন ডলারের বিনিময়ে চুক্তিবদ্ধ হন। তারপর তিনি কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে খেলেন। এরপর তিনি নতুন দল কচি টাস্কার কেরালার হয়ে $২০০,০০০ মার্কিন ডলারের বিনিময়ে আইপিএল মৌসুম চার খেলেন। আইপিএল ৫-এ তিনি রাজস্থান রয়ালসের হয়ে খেলেন।

ওয়েলিংটন ফায়ারবার্ডসসম্পাদনা

৩১ আগস্ট ২০০৯ সালে ওয়েলিংটন ফায়ারবার্ডস তাদের ঘরোয়া টোয়েন্টি ২০ প্রতিযোগিতার জন্য শাহ চুক্তিবদ্ধ হন। তাকে তার সাবেক মিডলসেক্স সহকর্মী স্টিফেন ফ্লেমিং দ্বারা সুপারিশ করা হয়েছিল।[৫]

কেপ কোবরাসসম্পাদনা

শাহ কেপ দক্ষিণ আফ্রিকার কেপ কোবরাস হয়ে ফাস্ট ক্লাস, ওডিআই এবং প্রো-২০ অংশ নেন।

পরিসংখ্যানসম্পাদনা

ওয়াইস শাহ এর একদিনের আন্তর্জাতিক শতকসমূহ
রান ম্যাচ প্রতিপক্ষ মাঠ শহর/দেশ বছর
[১] ১০৭* ২৫ ভারত ওভাল লন্ডন, ইংল্যান্ড ২০০৭

ক্যারিয়ারের সেরা অবদানসম্পাদনা

৯ আগষ্ট ২০১৩ পর্যন্ত

ব্যাটিং বোলিং
স্কোর ফিক্সার মাঠ মৌসুম স্কোর ফিক্সার মাঠ মৌসুম
টৈস্ট ৮৮ ইংল্যান্ড বনাম ভারত মুম্বাই ২০০৬ n/a
ওডিআই ১০৭* ইংল্যান্ড বনাম ভারত ওভাল ২০০৭ ৩–১৫ ইংল্যান্ড বনাম আয়ারল্যান্ড বেলফাস্ট ২০০৯
টি-২০আই ৫৫* ইংল্যান্ড বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ ওভাল ২০০৭ n/a
এফসি ২০৩ জন ওয়াকার গ্রাউন্ড বনাম ডারবিশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব জন ওয়াকার গ্রাউন্ড ২০০১ ৩–৩৩ জন ওয়াকার গ্রাউন্ড বনাম গ্লসচেস্টারশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব ব্রিস্টল ১৯৯৯
এলএ ১৩৪ মিডলসেক্স কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব বনাম সাসেক্স কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব অরুনডাল কাসল ক্রিকেট গ্রাউন্ড ১৯৯৯ ৪–১১ মিডলসেক্স কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব বনাম লিসচেস্টারশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব লর্ডস ২০০৯
টি-২০ ৮৪ ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরস বনাম খুলনা রয়েল বেঙ্গলস মিরপুর ২০১৩ ২–২৬ মিডলসেক্স কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব বনাম সামারসেট কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাব কান্ট্রি মাঠ ২০১০

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Brenkley, Stephen (১০ ফেব্রুয়ারি ২০০২)। "Shah happy in look and learn mode"The Independent। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুন ২০০৯ 
  2. "Sidebottom named in Headingley squad"Cricinfo। ২২ মে ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০০৭ 
  3. BBC News England v West Indies 2nd Twenty20 retrieved 29 June 2007
  4. BBC News England v West Indies 2nd Twenty20: In pictures retrieved 29 June 2007
  5. "Shah to play Twenty20 event in NZ"BBC News। ৩১ আগস্ট ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১ সেপ্টেম্বর ২০০৯