১৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (বাংলাদেশ)

বাংলাদেশের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

১৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বাংলাদেশের তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক চলচ্চিত্রের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য প্রদত্ত ১৯তম আয়োজন; যা ১৯৯৪ সালে বাংলাদেশের মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র সমূহের জন্য দেওয়া হয়। ১৯৭৫ সাল থেকে প্রতি বছর এটি দেয়া হচ্ছে। সরকার কর্তৃক নিযুক্ত একটি জাতীয় প্যানেল বিজয়ীদের নির্বাচন করে থাকে।[১]

১৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার
পুরস্কার দেওয়া হয়১৯৯৪ সালে চলচ্চিত্রশিল্পে গৌরবোজ্জ্বল ও অসাধারণ অবদানের জন্য
পুরস্কার প্রদান করেবাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি
উপস্থাপিততথ্য মন্ত্রণালয়
উপস্থাপন১৯৯৪
স্থানঢাকা, বাংলাদেশ
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট
আলোকপাত
শ্রেষ্ঠ পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রআগুনের পরশমণি এবং দেশপ্রেমিক
শ্রেষ্ঠ অ-পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রঠিকানা
শ্রেষ্ঠ অভিনেতাআলমগীর
দেশপ্রেমিক
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিপাশা হায়াত
আগুনের পরশমণি
সর্বাধিক পুরস্কারআগুনের পরশমণি (৮)
 ← ১৮তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০তম → 

এই বছর দুটি বিশেষ পুরস্কারসহ মোট ২০টি শাখায় পুরস্কার প্রদান করা হয়।[২]

বিজয়ীদের তালিকাসম্পাদনা

মেধা পুরস্কারসম্পাদনা

পুরস্কারের নাম বিজয়ী চলচ্চিত্র
শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র হুমায়ুন আহমেদ (প্রযোজক)
শেখ মুজিবুর রহমান (প্রযোজক)
আগুনের পরশমণি
দেশপ্রেমিক
শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র রেজানুর রহমান (পরিচালক) ঠিকানা
শ্রেষ্ঠ পরিচালক কাজী হায়াৎ দেশপ্রেমিক
শ্রেষ্ঠ অভিনেতা আলমগীর দেশপ্রেমিক
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিপাশা হায়াত আগুনের পরশমণি
শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেতা অমল বোস আজকের প্রতিবাদ
শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেত্রী আনোয়ারা অন্তরে অন্তরে
শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পী শিলা আহমেদ আগুনের পরশমণি
শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক সত্য সাহা আগুনের পরশমণি
শ্রেষ্ঠ গীতিকার মাসুদ করিম হৃদয় থেকে হৃদয়ে
শ্রেষ্ঠ পুরুষ সঙ্গীত শিল্পী খালিদ হাসান মিলু হৃদয় থেকে হৃদয়ে (গানঃ হৃদয় থেকে হৃদয়ে)
শ্রেষ্ঠ নারী সঙ্গী শিল্পী রুনা লায়লা অন্তরে অন্তরে (গানঃ কালতো ছিলাম ভালো)

কারিগরী পুরস্কারসম্পাদনা

পুরস্কারের নাম বিজয়ী চলচ্চিত্র
শ্রেষ্ঠ শিল্প নির্দেশক আব্দুস সবুর ঘাতক
শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার কাজী হায়াৎ দেশপ্রেমিক
শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার হুমায়ুন আহমেদ আগুনের পরশমণি
শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক কাজী বশির
হাসান আহমেদ
ঘৃণা
ঘরের শত্রু
শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা হুমায়ুন আহমেদ আগুনের পরশমণি
শ্রেষ্ঠ সম্পাদক জিন্নাত হোসেন কমান্ডার
শ্রেষ্ঠ শব্দগ্রাহক মফিজুল হক আগুনের পরশমণি
শ্রেষ্ঠ মেকআপম্যান হারুন হৃদয় থেকে হৃদয়ে

বিশেষ পুরস্কারসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. রাশেদ শাওন। "চার দশকে আমাদের সেরা চলচ্চিত্রগুলো"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। ২৮ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৪, ২০১২ 
  2. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্তদের নামের তালিকা (১৯৭৫-২০১২)"fdc.gov.bdবাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন। ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  3. "চলচ্চিত্রে হুমায়ূন, হুমায়ূনের চলচ্চিত্র"। দেশে বিদেশে। সংগ্রহের তারিখ ৮ অক্টোবর ২০১৫