সময় টিভি

বাংলাদেশের টেলিভিশন চ্যানেল

সময় টিভি হচ্ছে বাংলা ভাষায় ২৪ ঘণ্টা সম্প্রচারিত বাংলাদেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল। ২০১১ সালের ১৭ই এপ্রিল তারিখে সময়ের প্রয়োজনে সময় স্লোগান নিয়ে চ্যানেলটি বাণিজ্যিকভাবে যাত্রা শুরু করে।[২] বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানী লিমিটেড দ্বারা পরিচালিত বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ ব্যবহার করে এই চ্যানেলটি তার কার্যক্রম পরিচালনা করে।[৩][৪][৫]

সময় টিভি
উদ্বোধন১৭ এপ্রিল ২০১১; ১৩ বছর আগে (2011-04-17)
মালিকানাসময় মিডিয়া লিমিটেড
চিত্রের বিন্যাস৪:৩, ১৬:৯
(৫৭৬আই, এসডিটিভি, এইচডিটিভি)
অংশীদারের ভাগ৫০% সিটি গ্রুপ[১]
স্লোগানসময়ের প্রয়োজনে সময়
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
প্রচারের স্থানবাংলাদেশ
প্রধান কার্যালয়৮৯, বীর উত্তম সি.আর. দত্ত সড়ক, ঢাকা, বাংলাদেশ
ওয়েবসাইটsomoynews.tv
প্রাপ্তিস্থান
কৃত্রিম উপগ্রহ
আকাশ ডিটিএইচ (বাংলাদেশ)চ্যানেল ১২৮
স্ট্রিমিং মিডিয়া
somoynews.tv/tv

ইতিহাস

সম্পাদনা

সময় টিভি ২০০৯ সালের অক্টোবর মাসে সম্প্রচারের জন্য সরকারের অনুমতি পায়। [৬]২০১০ সালের ১০শে অক্টোবর তারিখে পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চালু হয়। বাংলাদেশ সরকারের আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, চলচ্চিত্রকার মোরশেদুল ইসলাম এবং তিন টিভি সাংবাদিক নিয়াজ মোরশেদ কাদেরী, তুষার আবদুল্লাহ ও আহমেদ জোবায়েরের নামে সময় টিভির অনুমতিপত্র দেওয়া হয়। পরবর্তীতে ৫০ শতাংশ অংশীদারত্ব হস্তান্তর করা হয় সিটি গ্রুপের ফজলুর রহমানের কাছে।[৭] ২০১৪ সালের ১লা জানুয়ারি তারিখে অজ্ঞাত ব্যক্তি চট্টগ্রামে সময় টিভির একটি গাড়িতে বোমা নিক্ষেপ করে, এতে গাড়ির চালক আহত হয়।[৮] বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীবাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কর্মীদের হামলার জন্য অভিযুক্ত করা হয়।[৯] ২০১৫ সালের ১লা এপ্রিল বাংলাদেশ পুলিশ বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কার্যালয়ের বাইরে থেকে সময় টিভির সম্প্রচায় সরঞ্জাম জব্দ করে।[১০] ২০১৬ সালের মে মাসে মাদক ব্যবসায়ীরা সময় টিভির কক্সবাজার জেলার সংবাদ প্রতিবেদক সুজাউদ্দিন রুবেলকে মাদক পাচার সম্পর্কিত তার প্রতিবেদনের জন্য লাঞ্ছিত করে।[১১] ২০১৭ সালের ৩০শে নভেম্বর তারিখে, তৎকালীন ভূমি মন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফের পুত্রের নেতৃত্বে সময় টিভির একজনসহ মোট চার সাংবাদিককে আক্রমণ করে আহত করে।[১২]

সময় টিভি বাংলাদেশের প্রথম টেলিভিশন চ্যানেল হিসেবে ইউটিউবে ১০ মিলিয়ন সাবস্ক্রাইবার পূরণ করে। বর্তমানে সময় টিভির ২১ মিলিয়ন এর অধিক সাবস্ক্রাইবার রয়েছে।

আরও দেখুন

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. আলী রীয়াজ, মোহাম্মদ সাজ্জাদুর রহমান (জানুয়ারি ২০২১)। বাংলাদেশে মিডিয়ার মালিক কারা? (পিডিএফ)। ৪৫/১ নিউ ইস্কাটন, ২য় তলা, ঢাকা ১০০০, বাংলাদেশ: সেন্টার ফর গর্ভন্যান্স স্টাডিজ। পৃষ্ঠা ৭। আইএসবিএন 978-984-95364-1-3 
  2. "About Somoy Media Ltd" [সময় মিডিয়া লিমিটেড সম্পর্কে তথ্য]। সময় টিভি (ইংরেজি ভাষায়)। ১০ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  3. "বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে বেসরকারি টিভি চ্যানেলের বাণিজ্যিক সম্প্রচার উদ্বোধন"। দ্য ডেইলি স্টার। ২ অক্টোবর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  4. ইসলাম, মুহাম্মদ জাহিদুল (২৪ জুলাই ২০১৯)। "Satellite, submarine cable business may open to private sector" [স্যাটেলাইট, সাবমেরিন কেবল ব্যবসা বেসরকারী ক্ষেত্রে খোলা হতে পারে]। দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  5. ইসলাম, মুহাম্মদ জাহিদুল (২৩ ডিসেম্বর ২০১৮)। "Local TV channels using Bangabandhu-1 satellite" [বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট ব্যবহার করা স্থানীয় টিভি চ্যানেল]। দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  6. "13 TV channels await approval" [অনুমোদনের অপেক্ষায় ১৩টি টিভি চ্যানেল]। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম (ইংরেজি ভাষায়)। ২৫ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  7. প্রতিবেদক, নিজস্ব। "বিক্রি হয়ে যাচ্ছে টিভি চ্যানেলের মালিকানা"Prothomalo। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৪-১১ 
  8. "চট্টগ্রামে নির্বাচনী প্রচারণার গাড়িতে হামলা"সমকাল। ১ জানুয়ারি ২০১৪। ৭ অক্টোবর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৯ 
  9. "Somoy TV staff hurt in Ctg blast" [চট্টগ্রামে এক বিস্ফোরণে সময় টিভির কর্মী আহত]। দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। ১ জানুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  10. "Police seize Somoy TV's equipment" [পুলিশ সময় টিভির সরঞ্জাম বাজেয়াপ্ত করেছে]। দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। ১ এপ্রিল ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  11. "Yaba traders injure five journalists" [ইয়াবা ব্যবসায়ী পাঁচ সাংবাদিককে আহত করেছে]। দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। ১৪ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  12. "4 journalists beaten up in Pabna" [পাবনায় ৪ সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত]। দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। ৩০ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা