শুক্রাণু

জীবের পুংজননকোশ

শুক্রাণু (ইংরেজি: Sperm) বলতে জীবের পুংজননকোষকে বোঝানো হয়।[১] শুক্রাণু যখন ডিম্বাণু কোষকে নিষিক্ত করে তখন জাইগোট সৃষ্টি হয় যা মাইটোসিস কোষ বিভাজনের মধ্যদিয়ে পরবর্তিতে ভ্রূণ গঠন করে এবং একসময় শিশু জীবে পরিনত হয়। [২] স্তন্যপায়ী প্রানীতে শুক্রাণু শুক্রাশয়ে উৎপন্ন হয়ে থাকে এবং শিশ্নের মাধ্যমে বীর্যের সাথে বের হয়ে আসে। এছাড়া সপুষ্পক উদ্ভিদের পরাগধানীর পরাগরেনুতে শুক্রাণু অবস্থান করে।

শুক্রাণুকোষের চিত্র
শুক্রাণু দ্বারা ডিম্বাণুর নিষিক্তকরণ

মানব শুক্রাণু হ্যপ্লয়েড কোষ অর্থাৎ এতে ক্রোমোসোমের সংখ্যা এর উৎপাদক কোষের ক্রোমোসোম সংখ্যার অর্ধেক। মানব শুক্রাণুতে ২৩টি ক্রোমোসোম থাকে যা ডিম্বাণুর ২৩টি ক্রোমোসোমের সাথে যুক্ত হয়ে ২x২৩ ক্রোমোসোম বিশিষ্ট ডিপ্লয়েড জাইগোট সৃষ্টি করে।[১] শুক্রাণুর আকার বিভিন্ন জীবে বিভিন্ন হয়ে থাকে এবং এটি শুক্রাণুর একটি বিশেষ বৈশিষ্ট যার মাধ্যমে একটি জীব থেকে অন্য জীবকে আলাদাভাবে চিহ্নিত করা যায়।[৩]

শুক্রাণুতে বিদ্যমান ক্রোমোসোমগুলো জীবের বৈশিষ্টের বাহক জিন বহন করে যা জীব থেকে তার বংশধরের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে।

উদ্ভিদের শুক্রাণুসম্পাদনা

মাইটোটিক বিভাজনের মাধ্যমে অ্যালগালের শুক্রাণু কোষ এবং অনেক উদ্ভিদের গেমটোফাইট তৈরি হয় পুরুষ গেমটাঙ্গিয়াতে (অ্যানথেরিডিয়া)। ফুলের গাছগুলিতে পরাগের ভিতরে শুক্রাণু নিউক্লিয়াস উৎপাদিত হয়।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

চলনশীল শুক্রাণু কোষসম্পাদনা

 
শৈবাল এবং বীজবিহীন উদ্ভিদের গতিময় শুক্রাণু কোষ[৪]

গতিময় শুক্রাণু কোষগুলি সাধারণত ফ্ল্যাজেলার মাধ্যমে চলাচল করে এবং নিষেকের জন্য ডিম্বানুর দিকে সাঁতার কাটার জন্য একটি জলীয় মাধ্যমের প্রয়োজন হয়। প্রাণীদের মধ্যে শুক্রাণুর চলাচলের জন্য বেশিরভাগ শক্তিই সেমিনাল ফ্লুইডে বহন করা ফ্রুক্টোজ বিপাক থেকে আসে। এটি শুক্রাণুর মধ্যাংশে (শুক্রাণুর মাথার গোড়ায়) অবস্থিত মাইটোকন্ড্রিয়ায় স্থান পায়। এই কোষগুলি তাদের প্রবর্তনের প্রকৃতির কারণে পিছনে দিকে সাঁতার কাটতে পারে না। প্রাণীদের একক ফ্ল্যাজেলাযুক্ত শুক্রাণু কোষকে স্পার্মাটোজোয়া বলা হয় এবং এগুলো আকারের তারতম্যের জন্য পরিচিত।

সচল শুক্রাণু অনেক ধরনের প্রোটিস্ট এবং ব্রায়োফাইট ও ফার্নের গ্যামেটোফাইট এবং সাইকাডস ও গিংকোর মতো কিছু নগ্নবীজী উদ্ভিদও উৎপাদন করে। শুক্রাণু কোষগুলি এই উদ্ভিদের জীবনচক্রের একমাত্র ফ্ল্যাজিলেটেড কোষ। অনেকগুলি ফার্ন এবং লাইকোফাইট, সাইক্যাড এবং গিংকোতে এরা বহু-ফ্ল্যাজিলেটেড হয় (একাধিক ফ্ল্যাজেলাম বহন করে)।[৪]

নেমাটোডে শুক্রাণু কোষগুলো সাঁতার না কেটে ডিম্বাণু কোষের দিকে অ্যামিবয়েড পদ্ধতিতে ও হামাগুড়ি দিয়ে চলে।[৫]

চলনহীন শুক্রাণু কোষসম্পাদনা

চলনহীন শুক্রাণু কোষে স্পার্মাটিয়া নামক ফ্লাজেলা না থাকায় সাঁতার কাটতে পারে না। স্পার্মাটিয়া স্পার্মাট্যানজিয়াম থেকে উৎপাদিত হয়।[৪]

স্পার্মাটিয়া সাঁতার কাটতে পারে না বলে এগুলোকে ডিম্বানু কোষে নিয়ে যাওয়ার জন্য পরিবেশের উপর নির্ভর করে। কিছু লাল শৈবাল, যেমন পলিসিফোনিয়া, চলনহীন স্পার্মাটিয়া উৎপাদন করে যা পানির স্রোতে ছড়িয়ে পড়ে।[৪] রাস্ট ছত্রাকের শুক্রাণু একটি আঠালো পদার্থ দিয়ে আচ্ছাদিত। এতে ফ্ল্যাস্ক আকৃতির ধারণকারী কাঠামোতে মধু উৎপাদিত হয়, যা পতঙ্গকে আকৃষ্ট করে। এই পতঙ্গগুলো সপুষ্পক উদ্ভিদের পরাগায়নের মতো করেই নিষেকের জন্য নিকটবর্তী হাইফায় স্পার্মাটিয়া স্থানান্তর করে।[৬]

ফাংগাল স্পার্মাটিয়াকে (পিকনিওস্পোরস নামেও ডাকা হয়, বিশেষ করে ইউরেডিন্যালস) কনিডিয়ার সঙ্গে গুলিয়ে ফেলা হতে পারে। কনিডিয়া হল বীজ যা নিষেকের সময় স্বাধীনভাবে অঙ্কুরিত হয়, অন্যদিকে স্পার্মাটিয়া হলো গ্যামেট যা নিষেকের জন্য প্রয়োজনীয়। কিছু ছত্রাকের মধ্যে যেমন নিউরোস্পোরা ক্র্যাসায়, স্পার্মাটিয়া মাইক্রোকনিডিয়ার সমান কারণ তারা নিষেকের উভয় ক্রিয়াকলাপই সম্পাদন করতে এবং নিষেক ছাড়াই নতুন প্রাণীর জন্ম দিতে পারে।[৭]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. http://www.news-medical.net/health/What-is-Sperm.aspx
  2. http://www.wisegeek.com/what-is-sperm.htm
  3. উচ্চ মাধমিক প্রানীবিজ্ঞান, গাজী আসমত
  4. Raven, Peter H.; Ray F. Evert (২০০৫)। Biology of Plants, 7th Edition। W.H. Freeman and Company Publishers। আইএসবিএন 0-7167-1007-2  উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ অবৈধ; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "Raven" নাম একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ অবৈধ; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "Raven" নাম একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ অবৈধ; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "Raven" নাম একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে
  5. Bottino D, Mogilner A, Roberts T, Stewart M, Oster G (২০০২)। "How nematode sperm crawl": 367–84। পিএমআইডি 11839788 
  6. Sumbali, Geeta (২০০৫)। The Fungi। Alpha Science Int'l Ltd.। আইএসবিএন 1-84265-153-6 
  7. Maheshwari R (১৯৯৯)। "Microconidia of Neurospora crassa": 1–18। ডিওআই:10.1006/fgbi.1998.1103পিএমআইডি 10072316