বড় শরিফপুর মসজিদ

বাংলাদেশের চাঁদপুর জেলার একটি প্রত্নস্থান।

বড় শরিফপুর মসজিদ বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলায় অবস্থিত একটি ঐতিহাসিক মসজিদ। এটি বাংলাদেশে অবস্থিত মুঘল স্থাপনার মসজিদ।[১]

বড় শরিফপুর মসজিদ
Boro Sharifpur Jame Mosque cumilla.jpg
বড় শরীফপুর জামে মসজিদ কুমিল্লা (২০১৯)
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিইসলাম
অবস্থান
অবস্থানবড় শরিফপুর গ্রাম, লাকসাম, কুমিল্লা জেলা, বাংলাদেশ
স্থাপত্য
ধরনমসজিদ
স্থাপত্য শৈলীমুঘল
প্রতিষ্ঠার তারিখ১৭০৬-১৭০৭
নির্দিষ্টকরণ
দৈর্ঘ্য১৪.৪৮ মিটার (৪৭.৫ ফু)
প্রস্থ৫.৪৮ মিটার (১৮.০ ফু)
গম্বুজসমূহ
মিনারসমূহ৬ (৪টি বড়, ২টি ক্ষুদ্র)

আবস্থানসম্পাদনা

এটি বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের কুমিল্লা জেলার লাকসাম থানার বড় শরীফপুর গ্রামে নটেশ্বর দিঘির পূর্বতীরে অবস্থিত।[১]

নির্মাণসম্পাদনা

মসজিদের শিলালিপি অনুযায়ী মসজিদটি মুহাম্মদ হায়াত আবদ করিম ১৭০৬-১৭০৭ সালে নির্মাণ করেন। প্রচলিত মতানুযায়ী নির্মাতা অত্র এলাকার কোতোয়াল ছিলেন। তাই এটি কোতোয়ালি মসজিদ নামে পরিচিত। ১৯৫৯ সাল থেকে মসজিদটি সংরক্ষিত স্থাপনা হিসেবে সংরক্ষিত রয়েছে। ১৯৬০ এর দশকে মসজিদটি সংস্কার করা হয়। পরবর্তীতে বাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর আরো সংস্কারকার্য‌ চালায়। [২]

স্থাপত্য বৈশিষ্ট্যসম্পাদনা

মসজিদটির আকৃতি আয়তাকার। পূর্বদিকের অংশে তিনটি খিলানযুক্ত দরজা রয়েছে যার মধ্যে কেন্দ্রীয় দরজাটি অপেক্ষাকৃত বড়। দরজাগুলির বিপরীত দিকে পশ্চিম দেওয়ালে তিনটি মিহরাব রয়েছে। এক্ষেত্রেও কেন্দ্রীয় মিহরাবটি বাকি দুইটি মিহরাবের তুলনায় অপেক্ষাকৃত বড়।[১]

মসজিদের চারকোণে চারটি বড় অষ্টভুজাকার মিনার রয়েছে। এছাড়াও কেন্দ্রীয় বৃহৎ প্রবেশপথের উপরে দুইটি অষ্টভুজাকার মিনার রয়েছে। গম্বুজের সংখ্যা তিনটি। কেন্দ্রীয় গম্বুজটি অপেক্ষাকৃত বৃহৎ। গম্বুজের ভেতরের অংশ পাতার নকশা শোভিত। এছাড়া বাইরের অংশে চক্রনকশার কাজ রয়েছে।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. এম.এ বারি (২০১২)। "বড় শরীফপুর মসজিদ"। ইসলাম, সিরাজুল; মিয়া, সাজাহান; খানম, মাহফুজা; আহমেদ, সাব্বীর। বাংলাপিডিয়া: বাংলাদেশের জাতীয় বিশ্বকোষ (২য় সংস্করণ)। ঢাকা, বাংলাদেশ: বাংলাপিডিয়া ট্রাস্ট, বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিআইএসবিএন 9843205901ওসিএলসি 883871743 
  2. "বাংলাদেশের কয়েকটি প্রাচীন মসজিদ"। দৈনিক ইত্তেফাক। ২ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৯