স্থাপত্য শৈলী

ভবনের বাহ্যিক বৈশিষ্ট্য

স্থাপত্য শৈলী হলো আকৃতি এবং বৈশিষ্ট্যসমূহের একগুচ্ছ সমাহার যা একটি ভবন অথবা অন্যান্য কাঠামোকে উল্লেখযোগ্য বা ঐতিহাসিকভাবে সনাক্তযোগ্য করে তোলে।[১] এটি সাধারণত দৃশ্যকলা শৈলীর একটি উপ-শ্রেণী এবং স্থাপত্যের বেশিরভাগ শৈলী একটি বিস্তৃত সমসাময়িক শৈল্পিক শৈলীর সাথে ঘনিষ্ঠভাবে সম্পর্কিত। একটি শৈলীতে ফর্ম, নির্মাণের পদ্ধতি, নির্মাণ সামগ্রী এবং আঞ্চলিক চরিত্রের মতো উপাদান অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। বেশিরভাগ স্থাপত্যকেই শৈলীর একটি কালানুক্রমের মধ্যে শ্রেণীবদ্ধ করা যেতে পারে যা সময়ের সাথে সাথে পরিবর্তিত কায়দা, বিশ্বাস এবং ধর্মের প্রতিফলন বা নতুন ধারণা, প্রযুক্তি বা উপকরণের উদ্ভব যা নতুন শৈলীকে সম্ভব্য করে তোলে।

থমাস কোলের দ্য আর্কিটেক্টস ড্রিম (১৮৪০); যেটিতে প্রাচীন মিশরীয়, ক্লাসিক্যাল এবং গথিক সহ পশ্চিমা ঐতিহ্যের ঐতিহাসিক শৈলীতে ভবনগুলোর একটি দৃষ্টিভঙ্গি দর্শানো হয়েছে।

তাই বলা যেতে পারে শৈলী সমাজের ইতিহাস থেকে উদ্ভূত হয়। সেগুলো স্থাপত্য ইতিহাস বিষয়ের খাতায় নথিভুক্ত করা হয়। যে কোনও নির্দিষ্ট সময়ে বেশ কয়েকটি শৈলীর চল থাকতে পারে, এবং যখন একটি শৈলীর পরিবর্তন ঘটে তখন সাধারণত তা ধীরে ধীরেই ঘটে থাকে, কারণ স্থপতিরা নতুন ধারণার অধ্যয়ন করে এবং আস্তে আস্তে তার সাথে মানিয়ে নেয়। কখনও কখনও শুধুমাত্র একটি বিদ্যমান শৈলীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ হিসেবেও নতুন শৈলীর উত্থান ঘটে, যেমন উত্তর-আধুনিকতাবাদ (অর্থাৎ "আধুনিকতাবাদের পরে"), যেটি ২১শ শতাব্দীতে তার নিজস্ব প্রভাব ফেলেছো এবং এই শৈলীটিই পরবর্তীতপ বেশ কয়েকটি আলাদা আলাদা শৈলীতে বিভক্ত হয়েছে যেগুলো আবার অন্যান্য নাম অর্জন করেছে।

স্থাপত্য শৈলীগুলি প্রায়শই অন্যান্য জায়গায় ছড়িয়ে পড়ে, এর ফলে উৎসের শৈলীটির নতুন উপায়ে বিকাশ অব্যাহত থকে তবে অন্যান্য অঞ্চলে তাদের নিজস্ব ঢাচ নিয়ে বিকসিত হতে থাকে। উদাহরণস্বরূপ, রেনেসাঁর ধারণাসমূহ ১৪২৫ সালের দিকে ইতালিতে আবির্ভূত হলেও পরবর্তী ২০০ বছরে তা সমগ্র ইউরোপে ছড়িয়ে পড়ে, ফরাসী, জার্মান, ইংরেজ ও স্পেনীয় রেনেসাঁসগুলো স্বীকৃতভাবে একই শৈলী দর্শালেও সেগুলোর মাঝে তাদের নিজস্ব ও অন্যান্য বৈশিষ্ট্যের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। একটি স্থাপত্য শৈলী ঔপনিবেশিকতার মাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়তে পারে, হয় বিদেশী উপনিবেশগুলি তাদের নিজ দেশ থেকে শিখে, অথবা বসতি স্থাপনকারীরা একটি নতুন দেশে চলে যাওয়ার মাধ্যমে। একটি উদাহরণ হল ক্যালিফোর্নিয়ায় স্প্যানিশ মিশন, যা ১৮তম শতকের শেষের দিকে স্প্যানিশ পুরোহিতদের দ্বারা আনা হয়েছিল এবং একটি অনন্য শৈলীতে নির্মিত হয়েছিল।

একটি স্থাপত্য শৈলী রুচিসম্মত/চলনের বাইরে চলে যাওয়ার পরে, সেটির পুনরুজ্জীত হতে পারে এবং সেটি নতুনভাবে সংজ্ঞায়িত তথা তার পুনর্ব্যাখ্যা ঘটতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, ধ্রুপদীবাদ বহুবার পুনরুজ্জীবিত হয়েছে এবং নবধ্রুপদীবাদ হিসাবে নতুন জীবন অর্জন করেছে। প্রত্যেকবার এটির ভিন্নরূপে আবির্ভাব ঘটেছে। স্প্যানিশ মিশন শৈলী ১০০ বছর পরে মিশন পুনরুজ্জীবন হিসাবে পুনরুজ্জীবিত হয়েছিল, এবং এটি শীঘ্রই স্প্যানিশ ঔপনিবেশিক পুনরুজ্জীবন হিসেবে বিবর্তিত হয়েছিল।

আঞ্চলিক স্থাপত্য আলাদাভাবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। যেহেতু আঞ্চলিক স্থাপত্যকে সংস্কৃতির পরামর্শ হিসাবে আরও ভালভাবে বোঝা যায়, বিস্তৃতভাবে লিখিত হয় (সেইসাথে একটি তত্ত্ব এবং একটি প্রক্রিয়ার পরিবর্তে একটি জিনিসের মধ্যে), এটি প্রযুক্তিগতভাবে প্রতিটি স্থাপত্য শৈলীকে অন্তর্ভুক্ত করতে পারে--অথবা কোনোটিই নয়। স্থানীয় স্থাপত্য নিজগুণে আলাদা কোনও শৈলী নয়।[২]

স্থাপত্য শৈলীর ধারণার ইতিহাসসম্পাদনা

ঐতিহাসিক শিল্প ও স্থাপত্যে পর্যায়-শৈলীর কার্যপরিকল্পনা নির্মাণ করাই ছিলো ঊনবিংশ শতাব্দীর পণ্ডিতদের নতুন, এবং প্রাথমিকভাবে প্রধান উদ্বেগগুলোর একটি। শৈলীর বিস্তৃত তত্ত্বের গুরুত্বপূর্ণ লেখক কার্ল ফ্রেডরিখ ভন রুমোহর, গটফ্রিড সেম্পারঅ্যালোইস রিগেল তার ১৮৯৩ সালে প্রকাশিত স্টিলফ্রাজেন বইয়ে, হেনরিখ উলফলিন এবং পল ফ্রাঙ্কলের সাথে ২০শ শতক পর্যন্ত বিতর্ক অব্যাহত রেখেছিলেন।[৩] সময় ও স্থানের বিশাল পরিসর জুড়ে শৈলীর উপাদানগুলোর সংক্রমণকে চিহ্নিত করতে দুর্দান্ত সব পরিকল্পনা প্রস্তাব করার কারণে শিল্প ইতিহাসবিদদের মধ্যে পল জ্যাকবসথাল ও জোসেফ স্ট্রজিগোভস্কি হচ্ছেন উল্লেখযোগ্য যারা রিগলের অনুসরণ করেছেন। এই ধরনের শিল্প-ইতিবৃত্ত লৌকিকতা[৪] হিসাবেও পরিচিত, বা শিল্পে গঠন বা আকারের অধ্যয়নও বলা হয়।

ধরণসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Architectural Styles"এনসাক্লোপিডিয়া.কম। Encyclopedia of the New American Nation। ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২৭শে জুন, ২০২২  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. J. Philip Gruen, “Vernacular Architecture,” in Encyclopedia of Local History, 3d edition, ed. Amy H. Wilson (Lanham, Maryland: Rowman & Littlefield, 2017): 697-98.
  3. Elkins, s. 2, 3
  4. Gombrich, 129; Elsner, 104