দেওয়ান নজরুল

বাংলাদেশী চলচ্চিত্র পরিচালক

দেওয়ান নজরুল একজন বাংলাদেশী চলচ্চিত্র পরিচালক, গীতিকার, চিত্রনাট্যকার এবং মুক্তিযোদ্ধা[১] তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি কর্তৃক প্রদত্ত বাচসাস পুরস্কার (আজীবন সম্মাননা), আরটিভি প্রদত্ত আরটিভি পুরুস্কার (আজীবন সম্মাননা) লাভ করেছেন।

দেওয়ান নজরুল
Dewan Nazrul 1.jpg
জন্ম (1950-12-03) ৩ ডিসেম্বর ১৯৫০ (বয়স ৭০)
জাতীয়তাবাংলাদেশী
পেশাচলচ্চিত্র পরিচালক, গীতিকার, চিত্রনাট্যকার, মুক্তিযোদ্ধা
কর্মজীবন১৯৭৬ - বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গী
  • শাহীন নজরুল (বি. ১৯৮৭)
পুরস্কারবাচসাস পুরস্কার (আজীবন সম্মাননা), আরটিভি পুরুস্কার (আজীবন সম্মাননা)

জন্ম ও শৈশবসম্পাদনা

দেওয়ান নজরুল ১৯৫০ সালে বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম দেওয়ান সাবির হোসেন এবং মায়ের নাম শরিফা বেগম। সিরাজগঞ্জ থেকে স্থানীয়ভাবে প্রকাশিত 'যমুনা' পত্রিকায় কবিতা প্রকাশের মাধ্যমে তার লেখালেখির জীবন শুরু হয়।

কৈশোরকালসম্পাদনা

১৯৬৯ সালে তিনি বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় চলে যান। সেখানে 'দৈনিক স্বদেশ' পত্রিকায় কাজ শুরু করেন। পরবর্তীতে তিনি এই পত্রিকার সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে দায়িত্বলাভ করেন। সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি কবিতা লিখতেন। 'কে তুমি' চলচ্চিত্রে গান লিখার মধ্য দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্র অঙ্গনে প্রবেশ করেন। এরপর মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে তিনি যুদ্ধে যোগদান করেন। তিনি ৭ নাম্বার সেক্টরের অধীনে পাবনা অঞ্চলে যুদ্ধ করেছিলেন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

চলচ্চিত্র নির্মাণসম্পাদনা

দেওয়ান নজরুল চলচ্চিত্র নির্মাণের সাথে যুক্ত হন ইবনে মিজান পরিচালিত নাগিনীর প্রেম চলচ্চিত্রে শিক্ষানবিশ হিসেবে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনের পর ১৯৭৪ সালে ইবনে মিজান পরিচালিত ডাকু মনসুর, দুই রাজকুমার,নিশান, এক মুঠো ভাল,জিঘাংসা, বাহাদুর চলচ্চিত্রে সহকারী এবং প্রধান সহকারী পরিচালক এবং গীতিকার হিসেবে কাজ করেন। নিশান চলচ্চিত্রেটি ছিল পরিচালক ইবনে মিজানে সাথে করা শেষ চলচ্চিত্র এরপর থেকে তিনি বিভিন্ন চলচ্চিত্রে সহকারী পরিচালকের দায়িত্ব পালন করতে থাকেন। প্রধান সহকারী পরিচালক থেকে পরিচালক হিসেবে দেওয়ান নজরুলের প্রথম চলচ্চিত্র আসামী হাজির। তবে কোন কারণে চলচ্চিত্রটির কাজ শেষ করতে পারেন নি। এরপর তিনি ১৯৭৬ সালে শুরু করেন দোস্ত দুশমন চলচ্চিত্র নির্মাণের কাজ। [২]১৯৭৭ সালে তা মুক্তি পায়। এটিই দেওয়ান নজরুল পরিচালিত প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র। এখানে জসিম খল চরিত্রে অভিনয় করে দারুন খ্যাতি লাভ করেন। পরবর্তীতে তিনি অ্যাকশন হিরো হিসেবে ঢাকাই চলচ্চিত্রে স্থান করে নিয়েছিলেন।[৩] চলচ্চিত্রটি বিখ্যাত হয় এবং দেওয়ান নজরুল পরিচালক হিসেবে স্থায়ী আসন লাভ করেন। এই চলচ্চিত্রে পশ্চিমা ধারার মারামারির দৃশ্য সফলভাবে চিত্রায়িত হয়। এরপর তিনি তার পূর্বের অর্ধ সমাপ্ত আসামি হাজির চলচ্চিত্র পুণঃনির্মাণ শুরু করেন। এটিও ব্যাবসা সফল চলচ্চিত্র হিসেবে ঢাকাই চলচ্চিত্রে সুনাম অর্জন করে। অভিনেতা রিয়াজ তার হাত ধরে " বাংলার নায়ক" চলচ্চিত্রে মাধ্যমে পা রাখেন । দেওয়ান নজরুলের সহকারী এবং প্রধান সহকারী পরিচালকেরা এখন চলচ্চিত্র বা টিভির জগতে নামকরা মুখ তাদের মধ্যে রয়েছেন অভিনেতা কায়েস চৌধুরী, পরিচালক রায়হান মুজিব ,পরিচালক রানা নাসের এবং পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান । তার " জনি" চলচ্চিত্র এর প্রদর্শনের মাধ্যমে শুরু হয়েছিল যশোরে "মনিহার " সিনেমার যাত্রা ।

পরিচালকসম্পাদনা

দেওয়ান নজরুল পরিচালিত কিছু উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হলো:[৪]

  • দোস্ত দুশমন (১৯৭৭) (কালজয়ী  চলচ্চিত্র )
  • বারুদ (১৯৭৮
  • আসামী হাজির (১৯৭৯)
  • জনি (১৯৮৩)
  • কুরবানি
  • ধর্ম আমার মা (১৯৮৬ )
  • আসমান জমিন
  • মাটির দুর্গ
  • লিঞ্জা (প্রয়োজক)
  • মাস্তান রাজা (১৯৯২)
  • কালিয়া (১৯৯৩ ) ( কালজয়ী  চলচ্চিত্র )
  • বাংলার নায়ক (১৯৯৫)
  • সুজন বন্ধু
  • দোজখ (২০০৫)

চিত্রনাট্যসম্পাদনা

তিনি বেশ কিছু চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্য লিখেছেন। যেমন:[৪]

  • আসামী হাজির (১৯৭৮) - চিত্রনাট্য, সংলাপ ও কাহিনি)

গীতিকারসম্পাদনা

নিম্নোক্ত চলচ্চিত্রে তিনি গীতিকার হিসেবে কাজ করেছেন:[৪]

  • কে তুমি (১৯৭৩)
  • জিঘাংসা (১৯৭৪)
  • বাহাদুর (১৯৭৬)
  • দোস্ত দুশমন (১৯৭৭)
  • আসামী হাজির (১৯৭৮)
  • প্রিয়জন (১৯৯৬)
  • আজকের হাঙ্গামা
  • ভালোবাসলে দোষ কি তাতে (২০১৪)
  • হিরো

গানসম্পাদনা

চলচ্চিত্র নির্মাণের পাশাপাশি দেওয়ান নজরুল অসংখ্য কালজয়ী গান লিখেছেন। তার লেখা বিখ্যাত কিছু গান হলো:

গান শিল্পী গীতিকার সুরকার ছায়াছবি পরিচালক
চুপি চুপি বল কেউ জেনে যাবে খুরশিদ আলম ও রুনা লায়লা দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ নিশান ইবনে মিজান
চুমকি চলেছে একা পথে খুরশিদ আলম দেওয়ান নজরুল আলম খান দোস্ত দুশমন দেওয়ান নজরুল
রূপে আমার আগুন জ্বলে রুনা লায়লা দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ বাহাদুর ইবনে মিজান
ও সাগর কন্যারে কাঁচা সোনার গাঁয় খুরশিদ আলম ও রুনা লায়লা দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ বাহাদুর ইবনে মিজান
রেললাইনের ঐ বস্তিতে আজম খান দেওয়ান নজরুল
আজকে না হয় ভালোবাসো খুরশিদ আলম দেওয়ান নজরুল আলম খান মিন্টু আমার নাম এ .জে . মিন্টু
পাখির বাসার মত দুটি চোখ তোমার খুরশিদ আলম ও রুনা লায়লা দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ জিগাংসা ইবনে মিজান
দুনিয়াটা মস্ত বড় খাও দাও ফুর্তি করো এন্ড্রো কিশোর দেওয়ান নজরুল আলম খান জনি দেওয়ান নজরুল
আমার পৃথিবী তুমি তোমার পৃথিবী আমি ফেরদৌস ওয়াহিদ ও রুনা লায়লা দেওয়ান নজরুল আলম খান আসামী হাজির দেওয়ান নজরুল
এক চোর যায় চলে এন্ড্রো কিশোর দেওয়ান নজরুল আলম খান প্রতিজ্ঞা এ .জে .মিন্টু
হেলেন ভেঙেছে ট্রয় নগরী রুনা লায়লা দেওয়ান নজরুল আলম খান মিন্টু আমার নাম এ . জে . মিন্টু
নাচ আমার ময়না তুই পয়সা পাবি রে খুরশিদ আলম দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ এক মুঠো ভাত ইবনে মিজান
বলে দাও মাটির পৃথিবী আরিফুর রহমান দেওয়ান নজরুল কাজল রশীদ কে তুমি ? এম . এস . রহমান
এত রূপের করিস না খুরশিদ আলম ও সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ এক মুঠো ভাত ইবনে মিজান
প্রেম নগরের প্রেমিক আমি মজনু আমার নাম খুরশিদ আলম ও সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল আলম খা্‌ন আসামী হাজির দেওয়ান নজরুল
কি জাদু আছে তোমার ও চোখে খুরশিদ আলম ও সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ বাহাদুর ইবনে মিজান
আমার প্রিয়ও জন্য আমি সব কিছু পারি সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল দোস্ত দুশমন আলম খান দেওয়ান নজরুল
একটি ছেলে আজ খুন করেছে রুনা লায়লা দেওয়ান নজরুল বারুদ আলম খান দেওয়ান নজরুল
তুমিতো এখন আমারই কথা ভাবছো সাবিনা ইয়াসমি্‌ন দেওয়ান নজরুল জীবন নৌকা আলম খান মাসুদ পারভেজ
ও সাথি রে তুমি ছাড়া ভাল লাগে না তুমি যে আমরাই এন্ড্রো কিশোর দেওয়ান নজরুল আলম খা্‌ন প্রিয়জন রানা নাসের
নাচ আমার ময়না তুই পয়সা পাবি রে খুরশিদ আলম দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ এক মুঠো ভাত ইবনে মিজান
মোর স্বপ্নে দেখা সেই রাজার কুমার সাবিনা ইয়াসমিন ও মো. রফিকুল আলম দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ ডাকু মনসুর ইবনে মিজান
আমি যে রূপসী কারে ভালোবাসি সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ ডাকু মনসুর ইবনে মিজান
মিঠা লাগে যত ব্যাথা দিস্ রে কালা সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল মনসুর আহমেদ নিশান ইবনে মিজান
পৃথিবী আমায় ভুলে যাও সৈয়দ আদুল হাদি দেওয়ান নজরুল আলি হোসেন কালিয়া দেওয়ান নজরুল
বুকেরও মাঝখানে এন্ড্রো কিশোর ও রুনা লায়লা দেওয়ান নজরুল আলি হোসেন কালিয়া দেওয়ান নজরুল
আজকে সবার খুশির দিন সৈয়দ আদুল হাদি দেওয়ান নজরুল আলি হোসেন কালিয়া দেওয়ান নজরুল
বিজয়নগর গ্রামে খুরশিদ আলমফাহিম ও সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল আলম খান দোস্ত দুশমন দেওয়ান নজরুল
দোস্ত আমরা দু'জন খুরশিদ আলম ও ফাহিম দেওয়ান নজরুল আলম খান দোস্ত দুশমন দেওয়ান নজরুল
তুমি আমার জীবন তুমি আমার আশা এন্ড্রু কিশোর ও সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল আলম খান আজকের হাঙ্গামা মোহাম্মদ হোসেন
চোর আমি ডাকু আমি বোলনারে এন্ড্রু কিশোর ও সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল আলম খান জনি দেওয়ান নজরুল
পৃথিবী ঘুমিয়ে আছে সাবিনা ইয়াসমিন দেওয়ান নজরুল আলম খান কাবিন আলমগীর কুমকুম
দুঃখ ছাড়া জীবন হয়না এন্ড্রু কিশোর দেওয়ান নজরুল আলম খান কাবিন আলমগীর কুমকু

সাহিত্যকর্মসম্পাদনা

দেওয়ান নজরুল ইসলাম কাব্য, উপন্যাস ও শিশুতোষ বই লিখেছেন। যেমনঃ

  • এক পৃথিবী ভালোবাসা (কাব্য)
  • মন খুশি (উপন্যাস)
  • হ থেকে হঠাৎ (শিশুতোষ)
  • কথা, গান, কবিতা (প্রকাশিতব্য)

পুরস্কারসম্পাদনা

  • বাচসাস পুরস্কার (আজীবন সম্মাননা)[৫]
  • আরটিভি পুরুস্কার (আজীবন সম্মাননা)
  • " কে তুমি" বলে দাও মাটির চলচ্চিত্রের গানের জন্য পেয়েছে পুরুস্কার

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "দেওয়ান নজরুল" 
  2. "চলচ্চিত্র, পূর্ণদৈর্ঘ্য - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-০১ 
  3. "জসিম সম্পর্কে ১০টি অজানা তথ্য"কালের কণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-০১ 
  4. "দেওয়ান নজরুল"বাংলা মুভি ডেটাবেজ। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-০১ 
  5. "জমজমাট বাচসাস সন্ধ্যা - শ্রেষ্ঠ ছবি চন্দ্রগ্রহণ -শ্রেষ্ঠ অভিনেতা শাকিব -মৌসুমী ও পপি"। দৈনিক সমকাল। ১৪ নভেম্বর ২০০৯। 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা