তেতুলিয়া করিডোর

তেতুলিয়া করিডোর হলো ৪ থেকে ৬ কিলোমিটার (২.৫ থেকে ৩.৭ মা) দীর্ঘ একটি প্রস্তাবিত সংযোগপথ, যা বাংলাদেশের তেতুলিয়া উপজেলার মধ্য দিয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া মহকুমাকে জলপাইগুড়ি জেলার জলপাইগুড়িময়নাগুড়ির সাথে যুক্ত করবে। করিডোরটি খোলার জন্য বাংলাদেশ সরকারের সাথে ভারতীয় সরকারের আলোচনা চলমান। করিডোরটি প্রায় ৮৪ কিমি (৫২ মা) দূরত্ব কমিয়ে উত্তর পূর্ব ভারতের সাথে মূল ভূখণ্ডের যোগাযোগ সহজতর করবে।[১][২][৩]

প্রস্তাবিত তেতুলিয়া করিডোর

ইতিহাসসম্পাদনা

ভারত বিভাজনের পর থেকে ভারতের মূল ভূখণ্ডের সাথে উত্তর-পূর্ব ভারতের একমাত্র সংযোগ সড়ক হলো শিলিগুড়ি করিডোরের সরু পথ, যা ভূমিধ্বস প্রভৃতি সহসা প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সম্মুখীন। ১৯৮০ খ্রিষ্টাব্দে স্বাক্ষরিত বাংলাদেশ-ভারত বাণিজ্য চুক্তির অষ্টম ধারা অনুসারে, "উভয় দেশের সরকার দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্যের জন্য একে অপরের জলপথ, রেলপথ ও সড়কপথ ব্যবহার করতে এবং এক দেশের সীমানার ভেতর দিয়ে অন্য দেশের পণ্য পরিবহনে সম্মত হচ্ছে।" এই চুক্তির আওতায় ভারত নিজ ভূখণ্ডের ওপর তিন বিঘা করিডোরের মাধ্যমে সীমিত সময়ের জন্য ইজারা ভিত্তিতে বাংলাদেশ-বাংলাদেশ যাতায়াতের সুবিধা দেয়। পরবর্তীতে ২০১১ খ্রিষ্টাব্দের সেপ্টেম্বর মাসে সেই সময় ২৪ ঘণ্টায় উন্নীত হয়। এর বিনিময়ে এই অঞ্চলের রাজনীতিবিদরা বাংলাদেশের ওপর দিয়ে ভারতের চলাচলের সুবিধা দিতে অনুরোধ করে।[৪][৫][৬][৭]

বাংলাদেশ সরকার তেতুলিয়া করিডোর বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে নি, বরং সিদ্ধান্ত অনিষ্পন্ন রয়েছে। স্থানীয় নেতারা ভারত সরকারকে এই বিষয়ে অগ্রসর হতে এবং বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল বিনিময় চুক্তির আওতায় এর সমাধান করার তাগিদ দেন।[১][৮][৯]

সুবিধাসম্পাদনা

তেতুলিয়া করিডোর ভারতের মূল ভূখণ্ডের সাথে উত্তর-পূর্ব ভারতের দূরত্ব ৮৪ কিমি (৫২ মা) পর্যন্ত কমিয়ে আনবে। এইভাবে এই অঞ্চলের বাণিজ্য সহজতর করার পাশাপাশি জলপাইগুড়ি জেলাকে প্রশাসনিক দিক দিয়ে রাজ্যের রাজধানীর সাথে দ্রুততর সংযোগ নিশ্চিত করবে।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Tetulia corridor over Bangladesh finds new hope"timesofindia-economictimes। ১২ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 
  2. "Indo-Bangla land swap bill reignites old cross country corridor issue"timesofindia-economictimes। ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 
  3. "Opening of Tetulia Corridor"। ১১ মে ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০০৫-০৫-১১ 
  4. "Sushma Swaraj's Dhaka visit should pave the way for transformed ties with vital eastern neighbour"The Times of India। ২৫ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 
  5. "Sushma Swaraj in Dhaka"Corridor। bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৬-২৫ 
  6. "Sushma visit to Dhaka, India to seek more, offer less"Corridor। The Daily Observer। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৬-১৯ 
  7. "Indo-Bangla land swap bill reignites old cross country corridor issue"Corridor। The Economic Times। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-১২-১৯ 
  8. টেমপ্লেট:Cite news2
  9. "Power plan of Bangladesh can be India's bargain points"timesofindia-economictimes। ৭ আগস্ট ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

স্থানাঙ্ক: ২৬°২৮′৩৭.৮″ উত্তর ৮৮°৩০′১৭.৪″ পূর্ব / ২৬.৪৭৭১৬৭° উত্তর ৮৮.৫০৪৮৩৩° পূর্ব / 26.477167; 88.504833