এস এ হক অলিক

বাংলাদেশী চলচ্চিত্র পরিচালক

এস এ হক অলিক একজন বাংলাদেশী চলচ্চিত্র পরিচালক, চিত্রনাট্যকার এবং সুরকার[১][২] নব্বইয়ের দশকের শেষ দিকে টিভি পর্দায় নাটকের পরিচালক হিসেবে তার অভিষেক ঘটে।[৩][৪]

এস এ হক অলিক
SA Haque Alik.jpg
জন্ম
জাতীয়তাবাংলাদেশী
পেশাচলচ্চিত্র পরিচালক
চিত্রনাট্যকার
অভিনেতা
কর্মজীবন২০০৭–বর্তমান
উল্লেখযোগ্য কর্ম
হৃদয়ের কথা
আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা
আরো ভালোবাসবো তোমায়
গলুই

পেশাসম্পাদনা

বছর শিরোনাম ভূমিকা অভিনয়শিল্পী টীকা
২০০৭ হৃদয়ের কথা[৫] পরিচালক রিয়াজ, পূর্ণিমা পরিচালক হিসাবে প্রথম চলচ্চিত্র
২০০৮ আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা পরিচালক রিয়াজ, পূর্ণিমা, রাজ্জাক
২০১৫ আরো ভালোবাসবো তোমায়[৬] পরিচালক শাকিব খান, পরীমনি, সোহেল রানা, চম্পা, সাদেক বাচ্চু
২০১৬ এক পৃথিবী প্রেম[৭][৮] পরিচালক আসিফ নূর, আইরিন সুলতানা
২০২২ গলুই পরিচালক শাকিব খান, পূজা চেরি রায়, আজিজুল হাকিম

পরিচালিত নাটকসম্পাদনা

  • বন্ধু তুমি বন্ধু আমার[৯][১০]

অভিনেতা হিসাবেসম্পাদনা

  • কাল সাকালে

চিত্রনাট্যকার হিসাবেসম্পাদনা

পুরস্কারসম্পাদনা

পুরস্কার প্রদানের তারিখ বিভাগ মনোনীত কর্ম ফলাফল সূত্র
সিজেএফবি পারফরম্যান্স পুরস্কার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৬ শ্রেষ্ঠ পরিচালক আরো ভালোবাসবো তোমায় বিজয়ী [১১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "I want to make good films… SA Haque Alik"The Daily Star 
  2. "S A Haque Alik 2015 Bangla Movie Ek Prithibi Prem - All News View"allnewsview.com। ৯ আগস্ট ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ এপ্রিল ২০১৯ 
  3. "শাকিবের 'আরো ভালোবাসবো তোমায়'"NTV Online 
  4. "কাল শুভ মহরত এস এ হক অলিকের 'আরো ভালবাসবো তোমায়'"BD24Live.com। ১৭ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ এপ্রিল ২০১৯ 
  5. দ্য ডেইলি স্টার, 15 সেপ্টেম্বর 2006. হরিয়র কোথাঃ একটি প্রসিদ্ধ প্রেমের গল্প এসএ হক আলিক, 1২ এপ্রিল ২011।
  6. "শাকিব-পরীমণির 'আরো ভালোবাসবো তোমায়'"bdnews24.com 
  7. "নতুন জুটি নিয়ে ফিরছেন অলিক"bdnews24.com 
  8. "একসঙ্গে চার বর্ষীয়ান অভিনেতা"প্রথম আলো। ২ সেপ্টেম্বর ২০১৪। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ এপ্রিল ২০১৯ 
  9. "৭ বছর পর তারা একসাথে - daily nayadiganta"The Daily Nayadiganta 
  10. "সাত বছর পর অলিকের নাটকে তারিন ও অপূর্ব"দৈনিক ইনকিলাব 
  11. "CJFB Performance Award conferred"দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০২২ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা