আসলাম খোখার

পাকিস্তানী ক্রিকেটার

মোহাম্মদ আসলাম খোখার (উর্দু: اسلم کھوکھر‎‎; জন্ম: ৫ জানুয়ারি, ১৯২০ - মৃত্যু: ২২ জানুয়ারি, ২০১১) তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের পাঞ্জাবের লাহোর এলাকায় জন্মগ্রহণকারী পাকিস্তানী আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ও আম্পায়ার ছিলেন। পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৫৪ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে পাকিস্তানের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

আসলাম খোখার
আসলাম খোখার.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমোহাম্মদ আসলাম খোখার
জন্ম(১৯২০-০১-০৫)৫ জানুয়ারি ১৯২০
লাহোর, পাঞ্জাব, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমানে - পাকিস্তান)
মৃত্যু২২ জানুয়ারি ২০১১(2011-01-22) (বয়স ৯১)
লাহোর, পাঞ্জাব, পাকিস্তান
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান, আম্পায়ার
সম্পর্কআকরাম খোখার (ভ্রাতা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ২০)
১ জুলাই ১৯৫৪ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৪৬
রানের সংখ্যা ৩৪ ১৮৬৩
ব্যাটিং গড় ১৭.০০ ২৭.৮০
১০০/৫০ -/- ২/১৩
সর্বোচ্চ রান ১৮ ১১৭
বল করেছে - ১০৪০
উইকেট - ২০
বোলিং গড় - ২৮.৫৫
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ৬/২৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ১৮/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৫ এপ্রিল ২০২০

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে মুসলিম, উত্তর ভারত ও রেলওয়েজ দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, লেগ ব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন আসলাম খোখার

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটসম্পাদনা

১৯৩৮-৩৯ মৌসুম থেকে ১৯৬৩-৬৪ মৌসুম পর্যন্ত আসলাম খোখারের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। দর্শনীয় স্ট্রোক খেলোয়াড় হিসেবে আসলাম খোখারের সুনাম ছিল। ফিল্ডিং বিদ্যুৎগতিতে সম্পন্ন করতেন। এছাড়াও, লেগ ব্রেক ও গুগলি সহযোগে মাঝে-মধ্যে বোলিং কর্মে অগ্রসর হতেন।

১৯৩৮-৩৯ মৌসুম থেকে ১৯৬৩-৬৪ মৌসুম পর্যন্ত আসলাম খোখারের প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশ নিয়েছিলেন। পাকিস্তানের মাটিতে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরি করার গৌরব অর্জন করেন।[১] ১৯৪৭-৪৮ মৌসুমের ডিসেম্বর, ১৯৪৮ সালে পাঞ্জাবের সদস্যরূপে সিন্ধুর বিপক্ষে ১১৭ রান তুলেছিলেন তিনি।[২]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন আসলাম খোখার। ১ জুলাই, ১৯৫৪ তারিখে নটিংহামে স্বাগতিক ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এরপর আর তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়নি।

১৯৫৪ সালে দলের সাথে ইংল্যান্ড গমন করে ২৮.০৬ গড়ে ৪২১ রান তুলেছিলেন। তবে, অংশগ্রহণকৃত একমাত্র টেস্টে তাকে বেশ বিরূপ পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়েছিল। নটিংহামের ট্রেন্ট ব্রিজে অনুষ্ঠিত সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে নয় নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৬ ও ১৮ রান তুলতে পেরেছিলেন তিনি।[৩]

এরপর আর তাকে জাতীয় দলে খেলার জন্যে রাখা হয়নি। এরপূর্বে ১৯৫২-৫৩ মৌসুমে পাকিস্তানের টেস্ট মর্যাদা লাভের পূর্বে প্রথম অনানুষ্ঠানিক টেস্ট খেলেছিলেন। ১৯৪৭-৪৮ মৌসুমে লাহোরের বাগ-ই-জিন্নায় সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলেছিলেন তিনি।

অবসরসম্পাদনা

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর আম্পায়ারিং জগতের দিকে ধাবিত হন তিনি। এবার তিনি পাকিস্তানের প্রথম অনানুষ্ঠানিক টেস্টের অধিনায়ক মিয়া মোহাম্মদ সাঈদের সাথে খেলা পরিচালনা করেন। ১৯৭০-এর দশকে তিনটি টেস্টে আম্পায়ার হিসেবে খেলা পরিচালনা করেছিলেন আসলাম খোখার। ১৯৭৩ ও ১৯৭৭ সালে পাকিস্তান-ইংল্যান্ডের মধ্যকার তিনটি খেলায় তারা আম্পায়ারের দায়িত্বে ছিলেন।

লাহোরের এইচসন কলেজে জ্যেষ্ঠ কোচের দায়িত্বে ছিলেন ও ১৯৮০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে জাতীয় প্রশিক্ষণ শিবিরে কাজ করেন। দীর্ঘদিন তিনি অসুস্থ ছিলেন। ২২ জানুয়ারি, ২০১১ তারিখে ৯১ বছর বয়সে পাঞ্জাবের লাহোরের একটি হাসপাতালে আসলাম খোখারের দেহাবসান ঘটে। মৃত্যু-পূর্ব পর্যন্ত পাকিস্তানের বয়োজ্যেষ্ঠ জীবিত টেস্ট ক্রিকেটারের সম্মাননা পেয়ে আসছিলেন।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Pakistan's oldest Test cricketer dies"ESPNcricinfo। ২২ জানুয়ারি ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১১ 
  2. Punjab v Sind, 1947-48
  3. England v Pakistan, Nottingham, 1954
  4. "Mohammad Aslam Khokar Dies"। CricketWorld4u.com। ২০১২-০৫-১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-০৫ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা