আক্সেল ভিটসেল

বেলজীয় ফুটবলার

আক্সেল লরেন্ট আঙ্গেল লাম্বার্ট ভিটসেল (জন্ম: ১২ জানুয়ারি ১৯৮৯) হলেন বেলজিয়ামের একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি বর্তমানে চাইনিজ ক্লাব তিয়াঞ্জি কুয়াঞ্জিয়ান এবং বেলজিয়াম জাতীয় দলে একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।[৩][৪] বেলজিয়াম জাতীয় দলে খেলার সময় তিনি একাদশে একজন উইঙ্গার হিসেবে খেলেন, এবং তিনি একজন আক্রমণাত্মক মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবেও খেলতে পারেন, যদিও স্বাভাবিক অবস্থান হচ্ছে কেন্দ্রীয় মধ্যমাঠ

আক্সেল ভিটসেল
Zenit-AZ (10).jpg
২০১৬ সালে আক্সেল ভিটসেল
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম আক্সেল লরেন্ট আঙ্গেল লাম্বার্ট ভিটসেল[১]
জন্ম (1989-01-12) ১২ জানুয়ারি ১৯৮৯ (বয়স ৩১)
জন্ম স্থান লিয়েজ, বেলজিয়াম
উচ্চতা ১.৮৬ মি (৬ ফু ১ ইঞ্চি)[২]
মাঠে অবস্থান মধ্যমাঠের খেলোয়াড়
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব
তিয়াঞ্জি কুয়াঞ্জিয়ান
জার্সি নম্বর ২৮
যুব পর্যায়
২০০৪–২০০৬ স্ট্যান্ডার্ড লিয়েজ
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
সাল দল ম্যাচ (গোল)
২০০৬–২০১১ স্ট্যান্ডার্ড লিয়েজ ১৪৮ (৩৪)
২০১১–২০১২ বেনফিকা ৩২ (১)
২০১২–২০১৭ জেনিট সেন্ট পিটার্সবার্গ ১২১ (১৬)
২০১৭– তিয়াঞ্জি কুয়াঞ্জিয়ান ৩৩ (৫)
জাতীয় দল
২০০৪ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-১৫ (০)
২০০৫ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-১৬ (০)
২০০৫–২০০৬ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-১৭ ১৯ (০)
২০০৬–২০০৭ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-১৮ (০)
২০০৬ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-১৯ (০)
২০০৭–২০০৯ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-২১ ১০ (০)
২০০৮– বেলজিয়াম ৮৮ (৯)
*শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে এবং সকল তথ্য ১৩ এপ্রিল ২০১৮ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।
‡ জাতীয় দলের হয়ে উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা ২৭ মার্চ ২০১৮ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

তিনি ২০০৬ সালে তার স্থানীয় ক্লাব স্ট্যান্ডার্ড লিয়েজে খেলার মাধ্যমে তার ক্যারিয়ার শুরু করেন। তিনি উক্ত ক্লাবের হয়ে ১৮৩টি ম্যাচে ৪২টি গোল করেছেন এবং ৫টি ঘরোয়া ট্রফি জয়লাভ করেছেন। ২০০৮ সালে তিনি বেলজীয় গোল্ডেন জুতা পুরস্কারটি লাভ করেন। বেনফিকায় মাত্র এক মৌসুম অতিবাহিত হওয়ার পর তিনি ২০১২ সালে ৪০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে জেনিট সেন্ট পিটার্সবার্গে যোগদান করেন। ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে চাইনিজ ক্লাব তিয়াঞ্জি কুয়াঞ্জিয়ানে যোগদান করার পূর্বে, ভিটসেল রাশিয়ায় থাকাকালীন সময়ে ৪টি সম্মাননা লাভ করেন।

২০০৮ সালে বেলজিয়াম জাতীয় দলের হয়ে তিনি তার জ্যেষ্ঠ আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু করেন। তিনি এপর্যন্ত বেলজিয়ামের হয়ে ৮৫টির অধিক ম্যাচে ৯-এর অধিক গোল করেছেন। তিনি ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপ এবং ২০১৬ উয়েফা ইউরোয় বেলজিয়ামের প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

ক্যারিয়ার পরিসংখ্যানসম্পাদনা

আন্তর্জাতিকসম্পাদনা

২৭ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।[৫]
জাতীয় দল সাল উপস্থিতি গোল
বেলজিয়াম
২০০৮
২০০৯
২০১০
২০১১ ১১
২০১২
২০১৩ ১০
২০১৪ ১০
২০১৫
২০১৬ ১৫
২০১৭
২০১৮
সর্বমোট ৮৮

সম্মাননাসম্পাদনা

ক্লাবসম্পাদনা

 
২০১৫ সালে রাশিয়ান প্রিমিয়ার লীগ ট্রফি হাতে আক্সেল ভিটসেল
স্ট্যান্ডার্ড লিয়েজ[৬]
বেনফিকা
জেনিট

ব্যক্তিগতসম্পাদনা

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

২০১৫ সালে জুন মাসে, ভিটসেল তার দীর্ঘদিনের বান্ধবী, রাফায়েলা জাবোর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের দুজনের দুইটি সন্তান রয়েছে।[৭][৮]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Conselho de disciplina" [Disciplinary board]। Portuguese Football Federation (পর্তুগিজ ভাষায়)। ২৩ মার্চ ২০১২। পৃষ্ঠা 3। ১৯ জুন ২০১৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "Site officiel du Standard de Liège – Accueil"। ২৭ জানুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুন ২০১৬ 
  3. "Witsel will continue his career in China" (Russian ভাষায়)। FC Zenit Saint Petersburg। ৩ জানুয়ারি ২০১৭। 
  4. "Stats Centre: Axel Witsel Facts"Guardian.co.uk। ২ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০০৯ 
  5. "Axel Witsel"Royal Belgian Football Association। সংগ্রহের তারিখ ১৪ অক্টোবর ২০১৬ 
  6. "A. Witsel"। Soccerway। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০১৫ 
  7. "Axel Witsel en très charmante compagnie"La Dernière Heure (French ভাষায়)। ২৩ অক্টোবর ২০১২। ৩১ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ এপ্রিল ২০১৪ 
  8. "Axel & Rafaella Witsel éblouissants lors de leur mariage religieux"Sudinfo.be (French ভাষায়)। ১৩ জুন ২০১৫। ২০১৬-০৬-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

টেমপ্লেট:তিয়াঞ্জি কুয়াঞ্জিয়ান এফসি দল