বাউফল উপজেলা

পটুয়াখালী জেলার একটি উপজেলা

বাউফল বাংলাদেশের পটুয়াখালী জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

বাউফল
উপজেলা
বাউফল বরিশাল বিভাগ-এ অবস্থিত
বাউফল
বাউফল
বাউফল বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
বাউফল
বাউফল
বাংলাদেশে বাউফল উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২২°২৭′০.০০০″ উত্তর ৯০°৩১′৪৮.০০০″ পূর্ব / ২২.৪৫০০০০০০° উত্তর ৯০.৫৩০০০০০০° পূর্ব / 22.45000000; 90.53000000 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশবাংলাদেশ
বিভাগবরিশাল বিভাগ
জেলাপটুয়াখালী জেলা
আয়তন
 • মোট৪৮৭.১০ বর্গকিমি (১৮৮.০৭ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০০১)[১]
 • মোট৩,০৪,৯৫১
 • জনঘনত্ব৬৩০/বর্গকিমি (১,৬০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট84%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৮৬২০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
১০ ৭৮ ৩৮
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

ভৌগোলিক অবস্থানসম্পাদনা

এটি জেলা সদর থেকে ৩০ কি.মি. দূরে অবস্থিত। এর উত্তরে বাকেরগঞ্জ উপজেলা, পশ্চিমে বাকেরগঞ্জ উপজেলা, পটুয়াখালী সদর উপজেলাদুমকি উপজেলা, দক্ষিণে গলাচিপা উপজেলাদশমিনা উপজেলা এবং পূর্বে তেঁতুলিয়া নদী। বাউফল উপজেলার আয়তন ৪৮৭.১০ বর্গ কি.মি. এবং ০১ ( একটি) টি পুলিশ স্টেশন নিয়ে গঠিত।

ইতিহাসসম্পাদনা

১৭৯০খ্রিঃ লর্ড কর্নওয়ালিশ ভারত শাসন সংস্কার আইনে বাকেরগঞ্জ জেলাকে ১০টি থানায় বিভক্ত করেন। এর মধ্যে বাউফল থানা অন্যতম। তাছাড়া ১৮৬৭ সালের ২৭ মার্চ কোলকাতা গেজেটে পটুয়াখালী মহকুমা সৃষ্টির ঘোষণা প্রকাশিত হয়। এ মহকুমার অধীনে ৪টি থানার মধ্যে বাউফল অন্তর্ভুক্ত ছিল। পূর্বে এ এলাকায় ছিল অনেক ধরনের বৃক্ষাদি, এই বৃক্ষাদির মধ্যে এক ধরনের গাছ জনসাধারণের কাছে বাউ গাছ নামে অত্যন্ত সুপরিচিত ছিল এবং ঐ গাছের নাম অনুসারে অত্র এলাকার নাম হয় বাউফল। ১৮৭৪ সালের আগস্ট মাসে যখন এখানে পুলিশ স্টেশন করা হয় তখন উক্ত নাম ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়। আগা বাকের খাঁর শাসন আমলে দক্ষিণ বাংলার ইতিহাস অনুযায়ী অত্র এলাকার নাম বাউফল হিসেবে পরিচিতি লাভ করে।

  • থানা হিসেবে প্রতিষ্ঠার তারিখ: আগস্ট, ১৮৭৪ খ্রিষ্টাব্দ।
  • উপজেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠার তারিখ: ২ জুলাই, ১৯৮৩ খ্রিষ্টাব্দ।

প্রশাসনিক এলাকাসমূহসম্পাদনা

বাউফল উপজেলায় বর্তমানে ১টি পৌরসভা ও ১৫টি ইউনিয়ন রয়েছে। সম্পূর্ণ উপজেলার প্রশাসনিক কার্যক্রম বাউফল থানার আওতাধীন।

পৌরসভা:
ইউনিয়নসমূহ:

জনসংখ্যার উপাত্তসম্পাদনা

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী বাউফল উপজেলার মোট জনসংখ্যা ৩,০৪,২৮৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১,৪৪,৫৪৫ জন এবং মহিলা ১,৫৯,৭৩৯ জন। মোট পরিবার ৬৭,৮৩৩টি।[২]

শিক্ষাসম্পাদনা

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী বাউফল উপজেলার সাক্ষরতার হার ৬১.১%।[২]

এ উপজেলায় মহাবিদ্যালয়ের সংখ্যা ১৩টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৫৫টি, নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ০৪টি, মাদরাসা, প্রাথমিক বিদ্যালয় ২২৫টি।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসম্পাদনা

  • ইন্দ্রকুল মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • নুরাইনপুর অগ্রনী বিদ্যাপীঠ।
  • কনকদিয়া স্যার সলিমুল্লাহ স্কুল এন্ড কলেজ।
  • বাউফল সরকারি কলেজ।
  • কালাইয়া ইদ্রিস মোল্লা ডিগ্রি কলেজ।
  • ছিটকা মহসীন মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • বীরপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • বাউফল মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • কালাইয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • মদনপুরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • দাস পাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • সোনামদ্দিন মৃধা মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • বিলবিলাস মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • আব্দুর রসিদ সরদার মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • নাজিরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • নওমালা মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • কাছিপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • কারখানা মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • বগা ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • ইয়াকুব শরিফ ডিগ্রী কলেজ
  • আয়লা মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • কালিশুরী কলেজ।
  • নওমালা কলেজ।
  • কেশবপুর কলেজ।
  • নুরাইনপুর কলেজ।
  • ধুলিয়া কলেজ।
  • আড়াইনাও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।
  • বাজেমহল মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • ভরিপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • রাজাপুর বালিকা দাখিল মাদ্রাসা।
  • ভরিপাশা সৈয়দ মর্তুজা দাখিল মাদ্রাসা।
  • কালাইয়া রাব্বানিয়া ফাজিল মাদ্রাসা।
  • কেশবপুর ফজলুল হক আলিম মাদ্রাসা।
  • বাজেমহল ওবাইদিয়া ফাজিল মাদ্রাসা।
  • আসাদুজ্জামান তুষার নূরানী ও হাফেজিয়া মাদরাসা।
  • পূর্ব কালাইয়া হাসান সিদ্দিক মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • মাধবপুর এন.কে.মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

যোগাযোগ ব্যবস্থাসম্পাদনা

  • নৌপথ

ঢাকা থেকে যদি কেউ লঞ্চে আসতে চায় তবে তাকে সদরঘাট থেকে পটুয়াখালী অথবা কালাইয়ার লঞ্চে উঠতে হবে।

  • সড়কপথ

রাজধানী ঢাকা থেকে সায়েদাবাদ বাসষ্ট্যান্ড থেকে সড়ক পথে আসা যায়।

অর্থনীতিসম্পাদনা

কৃষিসম্পাদনা

আবাদী জমির পরিমাণ ৮৪,১১৫ একর, এক ফসলী জমির পরিমাণ ২৬,২৪৫ একর, দোফসলী জমির পরিমান ৪৭,৭৬০ একর।

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্বসম্পাদনা

দর্শনীয় স্থান ও স্থাপনাসম্পাদনা

  • বিলবিলাসে শের-ই-বাংলার দাদার পৈতৃক বাড়ি
  • ঘসেটি বিবির মসজিদ
  • চন্দ্রদ্বীপের রাজ কন্যা কমলারানীর দিঘি
  • তমিরুদ্দিন আউলিয়ার মাজার - কালাইয়া
  • মদনপুরার মৃৎশিল্প
  • কালিশুরী ইসাখার মসজিদ
  • গোসিংগা লাল মিয়া বাড়ি প্রাচীন জমিদার বাড়ি এবং দিঘি
  • মহেন্দ্র রায়ের জমিদার বাড়ি
  • কানাই-বলাইর দীঘি - কাছিপাড়া
  • কমলা রাণীর দিঘী (কোটপাড়, কালাইয়া)
  • শৌলা পার্ক
  • মুজিব চত্বর (পৌরসভা, ৪নং ওয়ার্ড)
  • উপজেলা পরিষদ

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন ২০১৪)। "এক নজরে বাউফল উপজেলা"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "ইউনিয়ন পরিসংখ্যান সংক্রান্ত জাতীয় তথ্য" (PDF)web.archive.org। Wayback Machine। Archived from the original on ৮ ডিসেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৯ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা