দেবী (২০২০-এর চলচ্চিত্র)

প্রিয়াঙ্কা ব্যানার্জি পরিচালিত ২০২০ সালের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র

দেবী (দেবনাগরী: देवी) হিন্দি ভাষায় নির্মিত ভারতীয় উদ্বেগ-রোমাঞ্চ-নাট্যধর্মী স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। এটা প্রযোজনা সংস্থা ইলেকট্রিক অ্যাপলস এন্টারটেইনমেন্ট-এর পক্ষে নিরঞ্জন আয়াঙ্গার ও রায়ান ইভান স্টিফেন প্রযোজিত প্রিয়াঙ্কা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম চলচ্চিত্র নির্মাণ। দেবীতে একই ছাদের নিচে বাস করা ভিন্ন সমাজ ও ভিন্ন ধর্মের ৯ জন নারীর গল্প চিত্রিত হয়েছে, যারা আচরণগত ভাবে ভিন্ন হলেও সবার জীবনের গল্প একই- এরা সবাই নির্যাতিত এবং পরিস্থিতির কারণে তারা তাদের আপত্তিজনক গল্পগুলি নিজেদের মধ্যে ভাগ করতে নেয়।[২] 'দেবী'র মাধ্যমে কাজল এবং শ্রুতি হাসান স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটান।[৩] ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন নেহা ধুপিয়া, নীনা কুলকার্নি, মুক্তা বারভে, শিবানী রঘুবংশী, যশস্বিনী দয়ামা, সন্ধ্যা মাত্রে ও রমা জোশী।[৪][৫] ১৩ মিনিটের চলচ্চিত্রটি ২ মার্চ ২০২০ তারিখে মুক্তি পায়। মুক্তির পর চলচ্চিত্রটি দর্শকদের কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া পায়, একই সাথে গল্প চুরির অভিযোগে সমালোচিত হয়।

দেবী
দেবী ২০২০ চলচ্চিত্রের প্রথম পোস্টার.jpg
দেবী'র প্রথম আনুষ্ঠানিক পোস্টার
পরিচালকপ্রিয়াঙ্কা বন্দ্যোপাধ্যায়[১]
প্রযোজকনিরঞ্জন আয়াঙ্গার
রায়ান ইভান স্টিফেন
রচয়িতাপ্রিয়াঙ্কা বন্দ্যোপাধ্যায়
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারযশ সাহাই
চিত্রগ্রাহকসাবিতা সিং
সম্পাদকসঞ্জিব সাচদেব
প্রযোজনা
কোম্পানি
ইলেকট্রিক আপলস এন্টারটেইনমেন্ট
পরিবেশকরয়্যাল স্ট্যাগ ব্যারেল সিলেক্ট লার্জ শর্ট ফিল্ম
মুক্তি
  • ২ মার্চ ২০২০ (2020-03-02)
দৈর্ঘ্য১৩ মিনিট
দেশ ভারত
ভাষাহিন্দি

কাহিনীসম্পাদনা

বিভিন্ন স্তরের একদল মহিলা একটি ছোট ঘরে একসাথে বসবাস করছেন। তারা সবাই তাদের নিজেদের কাজ নিয়ে ব্যস্ত। একজন মহিলা (কাজল) পূজা অর্চনা করছেন; একজন মেডিকেল শিক্ষার্থী (শিবানী রঘুবংশী) অধ্যয়ন করছেন; তিনজন বয়স্ক মহিলা(নীনা কুলকার্নি, সন্ধ্যা মহাত্রে ও রমা জোশী) কার্ড খেলছেন ; একজন শ্রমজীবী মহিলা (নেহা ধুপিয়া) চেয়ারে দুলছেন; একজন আধুনিক মেয়ে(শ্রুতি হাসান) মদ্যপান করছে; একটি বোরখা পরিহিত মহিলা (মুক্তা বারভে) পায়ের রোম পরিষ্কার করছেন এবং একজন মূক মেয়ে (যশস্বিনী দয়ামা) টিভি ঠিক করার চেষ্টা করছেন। টিভি ঠিক হতেই একটি ভয়ংকর মামলার 'ব্রেকিং নিউজ' আসে, যা "দেশের বিবেককে নাড়া দিয়েছে" বলে প্রচার হচ্ছিল। তবে মামলার বিবরণ প্রকাশের আগে টিভিটি আবার সংকেত হারায়। মামলার কথা শুনতেই এই মহিলারা প্রত্যেকের জীবনের নির্যাতনের ঘটনা মনে করে শিউরে ওঠেন।

কিছুক্ষণ পর, দরজার ঘণ্টা বেজে উঠে। আবার নতুন কোন আশ্রয়প্রার্থী এসেছে, এই শঙ্কায় মহিলারা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। একদল নতুন মহিলাটিকে আশ্রয় দিতে আগ্রহী, আরেক দল ঘরের আকার ছোট এবং থাকার জন্য বেশি লোক হয়ে যাচ্ছে ভেবে নতুন মহিলাকে ঘরের বাইরে রাখতে চায়। মেডিকেল ছাত্রীটি পরামর্শ দেয় যে সবাই ঘরে থাকতে পারে না, কাউকে নতুনদের আগমনের জন্য জায়গা ছাড়তে হবে। কারা এই ঘর ছেড়ে যাবে সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার চেষ্টা করার সময়, সকলেই তাদের নির্যাতনের ঘটনা প্রকাশ করে।তাদের সবার মধ্যে একটি বিষয় ছিল, তারা সবাই ছিল ধর্ষিতা। তর্ক হতে তারা মতৈক্যে আসতে পারেনা। এ সময় জ্যোতি সবাইকে শান্ত হতে বলে এবং ঘোষণা দেয় যে কেউ এই ঘর ছেড়ে যাবে না। নির্যাতনের জীবনে ফিরে যাওয়ার চেয়ে ভিড়ের ঘরে থাকা ভাল।

দরজা খোলার আগে জ্যোতি তাদের স্মরণ করিয়ে দেয় যে তারা যখন প্রথম ঘরে আসছিল তখন তারা কতটা ভীত ছিল। জ্যোতি দরজা খুলে একটি শিশুকে ঘরে নিয়ে আসেন। শিশুটিকে দেখে সবাই হতবাক হয়। এতক্ষণ এ বিষয়ে তর্ক করার জন্য বিব্রত বোধ করে। শিশুটি সবচেয়ে বয়স্ক মাসি(নীনা কুলকার্নি)র কাছে ছুটে যায় এবং তাকে আলিঙ্গন করে। টিভির সংযোগ ফিরে আসে, এসময় এক প্রতিবেদক ভারতে নারীদের সুরক্ষা না দেওয়ার বিষয়ে কথা বলেছিলেন।

কুশীলবসম্পাদনা

  • কাজল - জ্যোতি, ঘরের সবাই তার কথা শুনেন।[৬]
  • শ্রুতি হাসান - মদ্যপানরত আধুনিক মহিলা।
  • নেহা ধুপিয়া - চেয়ারে দোলনরত কর্মজীবী নারী।
  • নীনা কুলকার্নি - মাসি, ঘরের সবচেয়ে বয়স্ক নারী।
  • মুক্তা বারভে - আরজু, বোরকা পড়া নারী।
  • শিবানী রঘুবংশী - অধ্যয়ন মেডিকেল ছাত্রী।
  • যশস্বিনী দয়ামা - টিভি নিয়ে ব্যস্ত মূক কিশোরী।
  • সন্ধ্যা মহাত্রে -আরজু, মাসির তাস খেলার সঙ্গী।
  • রমা জোশী - লক্ষ্মী, মাসির তাস খেলার সঙ্গী।

প্রচারণা ও মুক্তিসম্পাদনা

২০২০ সালের ১৬ জানুয়ারী, ইলেক্ট্রিক আপেলস এন্টারটেইনমেন্ট এই চলচ্চিত্রের সকল কুশীলবের ছবি সংবলিত প্রথম বর্ণনা প্রকাশ করে, চলচ্চিত্রটি নির্মাণের ঘোষণা দেয়।[৭] ২০ ফেব্রুয়ারি চলচ্চিত্রটির প্রথম পোস্টার প্রকাশ করে এবং ২৪ ফেব্রুয়ারি ১ মিনিটের ট্রেলার প্রকাশ করে।[৮] দ্বিতীয় পোস্টারটি ২৭ ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত হয়।[৯] রয়্যাল স্ট্যাগ ব্যারেল সিলেক্ট লার্জ শর্ট ফিল্ম তাদের ইউটিউব চ্যানেলে ২০০০ সালের ২ মার্চ চলচ্চিত্রটি মুক্ত করে। মুক্তির দিন একটি বিশেষ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।[১০]

মূল্যায়নসম্পাদনা

অভ্যর্থনাসম্পাদনা

চলচ্চিত্রটি সামাজিম মাধ্যমে দর্শকদের কাছ থেকে ইতিবাচক পর্যালোচনা পায়।[১][৩] পিপিং মুনের তন্ময়ী সাবাদি লিখেছেন, "যদিও বেশ কয়েকটি প্রকল্প মহিলাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির বিষয়টি সামনে নিয়ে এসেছে, তবে দেবী এক্ষেত্রে সবারচেয়ে আলাদা। চলচ্চিত্রটি সামর্থ্য এবং আবেগের একটি নিখুঁত ভারসাম্য। চলচ্চিত্রটি প্রাসঙ্গিক, স্তরযুক্ত এবং অবশ্যই সবার মনোযোগের দাবি করার মত সেরা শিল্পকর্ম"। চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য প্রিয়াঙ্কা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি সমস্ত অভিনেত্রী এবং বিশেষ করে কাজল এবং নীনা কুলকার্নির অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন।[১১]

সমালোচনাসম্পাদনা

ভারতের নয়ডার এশিয়ান অ্যাকাডেমি অফ ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন-এর শিক্ষার্থী অভিষেক রাই দাবী করেন এই চলচ্চিত্রের কাহিনীর সাথে তার নির্মিত 'ফোর' চলচ্চিত্রের গল্পের মিল আছে।[১২] তিনি প্রিয়াঙ্কা ও কাজলের বিরুদ্ধে গল্প চুরি ও নকলের অভিযোগ করেন।[৩][১৩][১৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "'দেবী'র হাত ধরে বঙ্গকন্যার নয়া যাত্রা"এই সময়। ২০২০-০৩-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১ 
  2. "Exclusive: First look of Kajol, Neha Dhupia, Shruti Hassan from Devi"filmfare.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৩ 
  3. "অন্যের গল্প চুরি করে তৈরি কাজলের দেবী"jagonews24.com। ২০২০-০৩-০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১ 
  4. "Kajol, Shruti Haasan, Neha Dhupia, Neena Kulkarni among others star in short film titled Devi : Bollywood News - Bollywood Hungama"Bollywood Hungama (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২৬ 
  5. "মুক্তি পেলো কাজলের প্রথম স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র 'দেবী'"BanglaNews24.com। ২০২০-০৩-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১ 
  6. "Exclusive: First look of Kajol, Neha Dhupia, Shruti Hassan from Devi"filmfare.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২৬ 
  7. "Electric Apples Entertainment on Instagram: "Here it is! The first look of Electric Apples Entertainment's second short film for @largeshortfilms, DEVI starring @kajol @shrutzhaasan…""Instagram (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২৬ 
  8. "Devi new poster: Kajol leads a tale of nine women navigating through an unusual sisterhood"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-২০ 
  9. Ent, Electric Apples (২০২০-০২-২৬)। "#3daystogo for #Devi We can't wait for you to watch it! @itsKajolD @shrutihaasan @neenakulkarni @muktabarve @NehaDhupia @Yashaswini__ #sandhyamhatre #ramajoshi @priyankabans @ashesinwind @official_ist @LargeShortFilms @bajajritika #devi #shortfilm #youareadevi #girlpowerpic.twitter.com/ipjsg4qCi8"@ElectricApplesE (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-২৭ 
  10. "Devi Trailer: Kajol, Shruti Haasan, Neha Dhupia's Short Film Looks Intriguing Without Revealing Much About The Plot (Watch Video) | 🎥 LatestLY"LatestLY (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-২৪ 
  11. "Devi Short Film Review: Kajol, Shruti Haasan, Neha Dhupia and others bring to fore a gut-wrenching topic with dignity"পিপিং মুন (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৫-২৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১০ 
  12. "কাজলের ছবির বিরুদ্ধে গল্প চুরির অভিযোগ"চ্যানেল আই অনলাইন। ২০২০-০৩-০৯। ২০২০-০৫-০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১ 
  13. "চুরি করা গল্পে নির্মিত কাজলের 'দেবী'!"banglanews24.com। ২০২০-০৩-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১ 
  14. ডেস্ক, বিনোদন (২০২০-০৩-১০)। "কাজল অভিনীত 'দেবী'র বিরুদ্ধে নকলের অভিযোগ"দৈনিক ইনকিলাব। ২০২০-০৩-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১ 

বহির্সংযোগসম্পাদনা