জো বার্নস

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

জোসেফ অ্যান্থনি জো বার্নস (জন্ম: ৬ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৯) কুইন্সল্যান্ডের হারস্টোনে জন্মগ্রহণকারী উদীয়মান অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারঅস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য হিসেবে তিনি ডানহাতে ব্যাটিং করে থাকেন। তারপূর্ব অস্ট্রেলিয়া এ-দলের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন। জো বার্নস ঘরোয়া ক্রিকেটে কুইন্সল্যান্ড ক্রিকেট দলটুয়েন্টি২০ খেলাগুলোয় ব্রিসবেন হিটের পক্ষে খেলছেন।[১] এছাড়াও, ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেটে লিচেস্টারশায়ার দলের সদস্য তিনি।

জো বার্নস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজোসেফ অ্যান্থনি বার্নস
জন্ম (1989-09-06) ৬ সেপ্টেম্বর ১৯৮৯ (বয়স ৩০)
হারস্টোন, কুইন্সল্যান্ড
উচ্চতা১.৮২ মিটার (৬ ফুট ০ ইঞ্চি)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাব্যাটসম্যান
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১১-বর্তমানকুইন্সল্যান্ড (দল নং ৬২)
২০১২-বর্তমানব্রিসবেন হিট (দল নং ৬২)
২০১৩লিচেস্টারশায়ার (দল নং ৬২)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা এফসি এলএ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ৪৫ ৩২ ২৭
রানের সংখ্যা ২,৯৭৮ ৮৯৪ ৬৩৬
ব্যাটিং গড় ৪২.৫৪ ৩১.৯২ ২৫.৪৪
১০০/৫০ ৭/১৭ ২/৪ ০/২
সর্বোচ্চ রান ১৮৩ ১১৫ ৮১*
বল করেছে
উইকেট
বোলিং গড়
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩৪/– ১৩/– ৯/–
উৎস: CricketArchive, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৪

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

ফেব্রুয়ারি, ২০১১ সালে শেফিল্ড শিল্ডে অভিষেক খেলাতেই দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১৪০ রান সংগ্রহ করে ব্যতিক্রমধর্মী সূচনা করেন। পরের মৌসুমেই অস্ট্রেলিয়ার প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলে তার ক্রিকেট দক্ষতা প্রদর্শন করতে থাকেন। এরফলে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে অংশ নেয়ার জন্য অস্ট্রেলিয়া এ-দলের সদস্য মনোনীত করা হয়। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একদিনের খেলায় তিনি ১১৪ রান তোলেন। ঐ বছরে তিনি বর্ষসেরা ব্র্যাডম্যান যুব ক্রিকেটার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন।

অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে তিনি তার ব্যাটিংশৈলী চালিয়ে যেতে থাকেন ও ব্রিসবেন হিটের পক্ষে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। ২০১২-১৩ মৌসুমে বিগ ব্যাশ লীগের চূড়ান্ত খেলায় পার্থ স্কর্চার্সের বিপক্ষে শিরোপা লাভে সহায়তাকারী অন্যতম খেলোয়াড়ের মর্যাদা পান।[২]

তার এ আশানুরূপ ফলাফলে ২০১৩ সালের কাউন্টি মৌসুমে বিদেশী খেলোয়াড় রামনরেশ সারওয়ানের পরিবর্তে লিচেস্টারশায়ার কর্তৃপক্ষ তাকে মে থেকে আগস্ট পর্যন্ত দলে অন্তর্ভুক্ত করে।[৩] কিন্তু জুলাইয়ে তার উরুর আঘাতপ্রাপ্তির ফলে ইংল্যান্ড থেকে ফিরে আসতে বাধ্য হন ও স্বদেশে কুইন্সল্যান্ডে ফিরে আসেন।[৪]

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

২৬ ডিসেম্বর, ২০১৪ তারিখে মেলবোর্নে অবস্থিত মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে শুরু হওয়া বক্সিং ডে টেস্টে সফরকারী ভারতের বিপক্ষে অংশ নেয়ার জন্য তাকে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। আঘাতপ্রাপ্ত অল-রাউন্ডার মিচেল মার্শের পরিবর্তে তার এ টেস্ট অভিষেক ঘটে। দলনায়ক মাইকেল ক্লার্কের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, তিনি ৬ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামেন।[৫] প্রথম ইনিংসে শন মার্শের (১৮৪/৪) পতনের পর তিনি ২৭ বলে ১৩ রান সংগ্রহ করেন যাতে দু'টি চারের মার ছিল। ডানহাতি ফাস্ট বোলার উমেশ যাদবের বলে উইকেটের পিছনে ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি'র হাতে ধরা পড়েন তিনি।[৬]

খেলোয়াড়ী জীবনের সেরা ফলাফলসম্পাদনা

২১ ডিসেম্বর, ২০১৪ তারিখ অনুযায়ী

ব্যাটিং
রান বিবরণ মাঠ মৌসুম
এফসি ১৮৩ কুইন্সল্যান্ডনিউ সাউথ ওয়েলস গাব্বা, ব্রিসবেন ২০১৪[৭]
এলএ ১১৫ সাউথ অস্ট্রেলিয়াকুইন্সল্যান্ড অ্যালান বর্ডার ফিল্ড, ব্রিসবেন ২০১৪[৮]
টি২০ ৮১* লিচেস্টারশায়ার ফক্সেসডারহাম ডায়নামোস গ্রেস রোড, লিচেস্টার ২০১৩[৯]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Australia — Players — Joe Burns"ESPNcricinfoESPN Inc। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানুয়ারি ২০১৩ 
  2. "2012/13 KFC Big Bash League Final - PRS v BRH"ABC Radio GrandstandAustralian Broadcasting Corporation। ১৯ জানুয়ারি ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানুয়ারি ২০১৩ 
  3. "Joe Burns joins Leicestershire as Sarwan replacement"BBC Sport। ৭ মার্চ ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৩ 
  4. "Joe Burns to return to Australia"BBC Sport। ২৯ জুলাই ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  5. Coverdale, Brydon (২১ ডিসেম্বর ২০১৪)। "Burns in line for Boxing Day debut"। ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  6. Brettig, Daniel (২৬ ডিসেম্বর ২০১৪)। "Honours even after see-saw day"। ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  7. "Sheffield Shield, 2014/15 - QLD v NSW Scorecard"ESPNcricinfo। ১৬ নভেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  8. "Matador BBQs One-Day Cup, 2014/15 - SA v QLD Scorecard"ESPNcricinfo। ১২ অক্টোবর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  9. "Friends Life t20, 2013 - Leicestershire v Durham Scorecard"ESPNcricinfo। ৫ জুলাই ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৪