জার্মেইন লসন

জামাইকীয় ও মার্কিন ক্রিকেটার

জার্মেইন জে চার্লস লসন (ইংরেজি: Jermaine Lawson; জন্ম: ১৩ জানুয়ারি, ১৯৮২) জামাইকায় জন্মগ্রহণকারী পেশাদার ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। ২০০০-এর দশকের শুরুতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের পক্ষে টেস্টএকদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ বোলার ছিলেন। চতুর্থ ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান হিসেবে টেস্টে হ্যাট্রিক করার বিরল কীর্তি গড়েন জার্মেইন লসন[১] পরবর্তীতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান ও বিশ্ব ক্রিকেট লীগ তৃতীয় বিভাগ প্রতিযোগিতায় মার্কিন দলের পক্ষে খেলেন।

জার্মেইন লসন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজার্মেইন জে চার্লস লসন
জন্ম (1982-01-13) ১৩ জানুয়ারি ১৯৮২ (বয়স ৩৯)
স্পেনিশ টাউন, সেন্ট ক্যাথেরিন প্যারিশ, জামাইকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৪০৯)
১৭ অক্টোবর ২০০২ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট৩ নভেম্বর ২০০৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই অভিষেক১১ ডিসেম্বর ২০০১ বনাম শ্রীলঙ্কা
শেষ ওডিআই২ আগস্ট ২০০৫ বনাম শ্রীলঙ্কা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০১ওয়েস্ট ইন্ডিজ বি
২০০১-২০০৮জামাইকা
২০০৮লিচেস্টারশায়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৩ ১৩ ৫৪ ৩৪
রানের সংখ্যা ৫২ ১৮ ৪৩৪ ৩২
ব্যাটিং গড় ৩.৪৬ ৬.০০ ৮.১৮ ৩.২০
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ১৪ ৩৫
বল করেছে ২,৩৬৪ ৫৫৮ ৮,৩৩১ ১,৫৭৯
উইকেট ৫১ ১৭ ১৭৪ ৬০
বোলিং গড় ২৯.৬৪ ২৯.২৯ ২৯.৩১ ১৯.৩১
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৭/৭৮ ৪/৫৭ ৭/৭৮ ৫/৬৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/- ০/- ১৫/- ২/-
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ২৩ অক্টোবর ২০১৪

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

ফাস্ট বোলার হিসেবে তিনি ৯০ মাইলেরও অধিক গতিবেগে বোলিংয়ে পারদর্শীতা দেখান। তন্মধ্যে, নিজস্ব তৃতীয় টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন রানের বিনিময়ে ছয়-ছয়টি উইকেট দখল করেছিলেন। ২০০৩-০৪ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হ্যাট্রিক করেন। ব্রেট লি, স্টুয়ার্ট ম্যাকগিলজাস্টিন ল্যাঙ্গার তার শিকারে পরিণত হয়েছিলেন। ঐ খেলায় তার বোলিং পরিসংখ্যান ছিল ৭/৭৮। এরফলে সিরিজের চূড়ান্ত টেস্টে দলের বিজয়ে ভূমিকা রাখেন।

নিষেধাজ্ঞাসম্পাদনা

কিন্তু, ১১ মে, ২০০৩ তারিখে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল কর্তৃপক্ষ তার বোলিং সন্দেহজনক হিসেবে আখ্যায়িত করে। এরপর ২০০৪ সালের মাঝামাঝি সময়ে পুণরায় টেস্ট ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন করেন লসন। আঘাতজনিত কারণে ও জুলাই, ২০০৫ সালে পুণরায় তার বোলিং সন্দেহজনক হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। পরবর্তীকালে অবশ্য তার উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।

দল পরিবর্তনসম্পাদনা

২০০৭ মৌসুমের গ্রীষ্মে পেশাদার রিবলসডডেল লীগে গ্রেট হারউড ক্রিকেট ক্লাবে যোগ দেন। ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০০৮ তারিখে লিচেস্টারশায়ার দলের পক্ষে কোলপ্যাক ক্রিকেটার হিসেবে যোগ দিচ্ছেন বলে জানানো হয়। ২০১০ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান ও ২০১৪ সালে দলের পক্ষে খেলার জন্য মনোনীত হন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Australia tour of West Indies, 2003: The Frank Worrell Trophy – 3rd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা