জারওয়ালি খান

পাকিস্তানি দেওবন্দি ইসলামি পণ্ডিত

জারওয়ালি খান (১৯৫৩ — ৭ ডিসেম্বর ২০২০) ছিলেন একজন পাকিস্তানি দেওবন্দি ইসলামি পণ্ডিত, শিক্ষাবিদ, লেখক, সম্পাদক ও খতিব। তিনি ইউসুফ বিন্নুরীর শিষ্য এবং জামিয়া আহসানুল উলুমের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ছিলেন।[১]

শায়খুল হাদিস ওয়াত তাফসীর

জারওয়ালি খান
زرولی خان
জারওয়ালি খান.jpeg
২০১৯ সালে খান
অধ্যক্ষ, জামিয়া আহসানুল উলুম
অফিসে
১৯৭৮ – ২০২০
উত্তরসূরীমুহাম্মদ আনোয়ার শাহ
ব্যক্তিগত
জন্ম১৯৫৩
মৃত্যু৭ ডিসেম্বর ২০২০(2020-12-07) (বয়স ৬৬–৬৭)
ইন্ডাস হাসপাতাল, করাচি
ধর্মইসলাম
জাতীয়তাপাকিস্তানি
যুগআধুনিক
আখ্যাসুন্নি
ব্যবহারশাস্ত্রহানাফি
আন্দোলনদেওবন্দি
প্রধান আগ্রহহাদিস, ফিকহ, লেখালেখি, তাসাউফ, তাফসীর
উল্লেখযোগ্য কাজজামিয়া আহসানুল উলুম
যেখানের শিক্ষার্থীজামিয়া উলুমুল ইসলামিয়া
ঊর্ধ্বতন পদ
যার দ্বারা প্রভাবিত

জীবনীসম্পাদনা

জারওয়ালি খান ১৯৫৩ সালে পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশের জাহাঙ্গীরায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি জামিয়া উলুমুল ইসলামিয়ায় পড়াশুনা করেছেন। তিনি ইউসুফ বিন্নুরীর শিষ্য ছিলেন। তিনি ১৯৭৮ সালে করাচিতে জামিয়া আরাবিয়া আহসানুল উলুম প্রতিষ্ঠা করেন।[২] তিনি ২০২০ সালের ৭ ডিসেম্বর করাচির ইনডাস হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।[৩][৪][৫][৬]

প্রকাশনাসম্পাদনা

তার রচিত গ্রন্থ সমূহের মধ্যে রয়েছে:

  • আহসান আর রাসায়েল (১০টি গবেষণা সাময়িকী)
  • আহসানুল খুতুবাত (৩ খণ্ড)
  • আহসানুল বুরহান (২ খণ্ড, জীবনীগ্রন্থ)
  • মাআরিফ ও মুহাসেন (মাসিক আল আহসানের সম্পাদকীয় সংগ্রহ) ইত্যাদি

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. ইলিয়াস গুম্মান, মুহাম্মদ (১১ ডিসেম্বর ২০২০)। "শায়খুত তাফসীর ওয়াল হাদিস মুফতি জারওয়ালি খান"দৈনিক পাকিস্তান। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  2. "জামিয়া আরবিয়া আহসানুল উলুম"। জামিয়াআহসান.কম। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০২০ 
  3. রাহমানি, আজমত আলী। "বিশিষ্ট আলেম মাওলানা মুফতী জারওয়ালি খানের একান্ত সাক্ষাৎকার"। হামারিওয়েব.কম। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০২০ 
  4. "সিরাজুল হকের সাথে জারওয়ালি খান ও মুফতি মুনিবুর রহমানের সাক্ষাৎ"। দৈনিক পাকিস্তান। ২৫ অক্টোবর ২০১৫। 
  5. "মুফতি জারওয়ালি বলেন, নেতারা আলেমদের হত্যা সম্পর্কে কিছুই করেন নি"। দৈনিক একপ্রেস। ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। 
  6. "ধর্মীয় পণ্ডিত মুফতি জারওয়ালি খান ইন্তেকাল করেছেন"দ্যা নিউজ ইন্টারন্যাশনাল (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-১২-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা