চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়ন

চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া উপজেলার একটি ইউনিয়ন

চন্দ্রঘোনা কদমতলী বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া উপজেলার অন্তর্গত একটি ইউনিয়ন

চন্দ্রঘোনা কদমতলী
ইউনিয়ন
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সীল.svg ১১নং চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়ন পরিষদ
চন্দ্রঘোনা কদমতলী চট্টগ্রাম বিভাগ-এ অবস্থিত
চন্দ্রঘোনা কদমতলী
চন্দ্রঘোনা কদমতলী
চন্দ্রঘোনা কদমতলী বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
চন্দ্রঘোনা কদমতলী
চন্দ্রঘোনা কদমতলী
বাংলাদেশে চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২২°২৭′৫৪″ উত্তর ৯২°৬′৫৭″ পূর্ব / ২২.৪৬৫০০° উত্তর ৯২.১১৫৮৩° পূর্ব / 22.46500; 92.11583 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশবাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাচট্টগ্রাম জেলা
উপজেলারাঙ্গুনিয়া উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সরকার
 • চেয়ারম্যানমুহাম্মদ ইদ্রিচ আজগর
আয়তন
 • মোট১১.২৩ বর্গকিমি (৪.৩৪ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট৩০,২২১
 • জনঘনত্ব২,৭০০/বর্গকিমি (৭,০০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৫৯.২২%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৪৫৩১ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

আয়তনসম্পাদনা

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের আয়তন ২৭৭৫ একর (১১.২৩ বর্গ কিলোমিটার)।[১]

জনসংখ্যাসম্পাদনা

২০১১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের লোকসংখ্যা ৩০,২২১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৫,৪৯৯ জন এবং মহিলা ১৪,৭২২ জন।[২]

অবস্থান ও সীমানাসম্পাদনা

রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পূর্বাংশে চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের অবস্থান। উপজেলা সদর থেকে এ ইউনিয়নের দূরত্ব প্রায় সাড়ে ৬ কিলোমিটার। এ ইউনিয়নের উত্তরে হোসনাবাদ ইউনিয়নস্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়ন; পশ্চিমে মরিয়মনগর ইউনিয়ন; দক্ষিণে কর্ণফুলী নদীকোদালা ইউনিয়ন এবং পূর্বে রাঙ্গামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলার চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন অবস্থিত।

ইতিহাসসম্পাদনা

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়ন ৪নং মরিয়মনগর ইউনিয়নের আওতাভুক্ত ছিল। স্থানীয় জনসাধারণের স্বার্থ রক্ষায় গণদাবীর প্রেক্ষিতে ১৯৭২ সালের ডিসেম্বরে ৪নং মরিয়মনগর ইউনিয়নকে বিভক্ত করে ১১নং চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়ন গঠন করা হয়।১৯৭৩ সালে প্রথম অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জনাব মুহাম্মদ সৈয়দুল হক চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়।[৩]

প্রশাসনিক কাঠামোসম্পাদনা

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়ন রাঙ্গুনিয়া উপজেলার আওতাধীন ১১নং চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়ন পরিষদ। এ ইউনিয়নের প্রশাসনিক কার্যক্রম রাঙ্গুনিয়া মডেল থানার আওতাধীন। এটি জাতীয় সংসদের ২৮৪নং নির্বাচনী এলাকা চট্টগ্রাম-৭ এর অংশ। এটি ৪টি মৌজায় বিভক্ত; কদমতলী, চন্দ্রঘোনা, বনগ্রাম এবং গুমাই বিল।[৪] ওয়ার্ডভিত্তিক এ ইউনিয়নের গ্রামগুলো হল:

ওয়ার্ড নং গ্রামের নাম
১নং ওয়ার্ড পশ্চিম কদমতলী
২নং ওয়ার্ড পূর্ব কদমতলি, পশ্চিম চন্দ্রঘোনা
৩নং ওয়ার্ড ছমিউদ্দিন শাহ্‌ গ্রাম, আদর্শ গ্রাম
৪নং ওয়ার্ড আধুর পাড়া (পূর্ব), খন্দকার পাড়া (একাংশ), হাজী পাড়া (একাংশ)
৫নং ওয়ার্ড হাজী পাড়া, ছুফি পাড়া (একাংশ)
৬নং ওয়ার্ড ছুফি পাড়া (একাংশ), পাঠান পাড়া, শ্যামা পাড়া
৭নং ওয়ার্ড পূর্ব চন্দ্রঘোনা
৮নং ওয়ার্ড দোভাষী বাজার, লিচু বাগান (একাংশ)
৯নং ওয়ার্ড বনগ্রাম, লিচু বাগান (একাংশ)

শিক্ষা ব্যবস্থাসম্পাদনা

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের সাক্ষরতার হার প্রায় ৫৯.২২%।[১] এ ইউনিয়নে ১টি ফাজিল মাদ্রাসা, ২টি কওমি মাদ্রাসা, ১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়,একটি নব প্রতিষ্ঠিত নন এম পি ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ২টি দাখিল মাদ্রাসা, গণ বিদ্যালয় ১টি, ৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৬টি কিন্ডারগার্টেন রয়েছে।[২]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসম্পাদনা

মাদ্রাসা

[৫]

 
চন্দ্রঘোনা আদর্শ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় , স্থাপিত - ১৯৬৬ , প্রতিষ্ঠাতা - হাজি কালু মিয়া সওদাগর ।
মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • চন্দ্রঘোনা আদর্শ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়
  • বনগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয় , চন্দ্রঘোনা

[৬]

গণ বিদ্যালয়
  • বেইস রাঙ্গুনিয়া গণ বিদ্যালয়
প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • আধুরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • কদমতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • চন্দ্রঘোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • জে সি দাস সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • তৈয়বিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • বনগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

[৭]

কিন্ডারগার্টেন
  • চন্দ্রঘোনা আইডিয়াল কেজি স্কুল
  • দি রাইজিং সান কেজি স্কুল
  • টিউলিপ কেজি স্কুল
  • গ্রিন মডেল কেজি এন্ড হাই স্কুল
  • রাইজিং সান কেজি স্কুল
  • সেন্ট্রাল ইন্টারন্যাশনাল কেজি স্কুল

খেলাধুলাসম্পাদনা

এখানকার জনপ্রিয় খেলার মধ্যে বর্তমানে ক্রিকেট ও ফুটবলের আধিপত্য দেখা গেলেও ভলিবল, ব্যাডমিন্টন ও অন্যান্য গ্রাম্য খেলাধুলাও পিছিয়ে নেই। বেশ কয়েকটি খেলার মাঠ রয়েছে। এর মধ্যে চন্দ্রঘোনা আদর্শ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ উল্লেখযোগ্য।

যোগাযোগ ব্যবস্থাসম্পাদনা

 
কাপ্তাই সড়ক

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের প্রধান সড়ক চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়ক। বহদ্দারহাট বাস টার্মিনাল হতে চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়ক হয়ে এ ইউনিয়নে আসা যায়। লিচুবাগান প্রধান স্টেশন। এ সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল করে। এছাড়া ইউনিয়নের আভ্যন্তরীণ অন্যান্য সড়কে রিক্সা ও সিএনজি চালিত অটোরিক্সা যোগে চলাচল করা যায়। নৌপথেও এ ইউনিয়ন থেকে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার দক্ষিণাংশে অবস্থিত ইউনিয়নগুলোর সাথে যোগাযোগ করা যায়।

ধর্মীয় উপাসনালয়সম্পাদনা

 
দোভাষী বাজার জামে মসজিদ

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নে ৩৩টি মসজিদ, ৪টি ঈদগাহ ও ১২টি মন্দির রয়েছে।[২]

খাল ও নদীসম্পাদনা

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের দক্ষিণ পাশ দিয়ে বয়ে চলেছে কর্ণফুলী নদী। এছাড়াও রয়েছে হাশেম খাল, কুরমাই খাল, নইল্যা খাল, মরা কুরমাই খাল এবং মহদী খাল।[৮]

হাট-বাজারসম্পাদনা

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের প্রধান বাজার হল দোভাষী বাজার ও লিচুবাগান।[৯] এছাড়া লোকালয়ে জিয়া মার্কেট এলাকা ছায়াও আরও কয়েক স্থানে নিয়মিত বাজার বসে।

দর্শনীয় স্থানসম্পাদনা

  •  
    গুমাই বিল - দেশের অন্যতম শস্য ভাণ্ডার
    গুমাই বিল
  • ফেরীঘাট
  • কাজির দীঘি
  • এম এ চাষি ফার্ম

[১০]

চিকিৎসা ব্যবস্থাসম্পাদনা

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নে ১টি সরকারি স্বাস্থ্য কেন্দ্র, ২টি বেসরকারি হাসপাতাল ( রাঙ্গুনিয়া হেলথ কেয়ার হাসপাতাল ও চন্দ্রঘোনা জেনারেল হাসপাতাল ), ১টি কুষ্ঠ চিকিৎসা কেন্দ্র রয়েছে। তাছাড়া বেশ কয়েকজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের চেম্বার রয়েছে।

সংস্কৃতিসম্পাদনা

চন্দ্রঘোনা কদমতলী ইউনিয়নের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রয়েছে। টিভি ও বেতার শিল্পী কবিয়াল কল্পতরু চক্রবর্তী ও চক্রপাণি চক্রবর্তীর বাড়ি এই ইউনিয়নে। এছাড়া চট্টগ্রামের আঞ্চলিক গান, কবিগান, ভাণ্ডারী গান, নাটক সহ সংস্কৃতির সকল শাখায় এই ইউনিয়নের শিল্পীদের বিচরণ রয়েছে। তাছাড়া বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান, সামাজিক উৎসব, ঈদ, পূজা, মেলা বর্ণাঢ্যভাবে পালিত হয়।

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিসম্পাদনা

  • হজরত হাফেজ ছমিউদ্দিন শাহ রহঃ –– সুফি সাধক।
  • ক্যাপ্টেন ( অব) ডাক্তার আবুল কাসেম –– প্রাক্তন সংসদ সদস্য।
  • হাজি কালু মিয়া সওদাগর –– প্রতিষ্ঠাতা, চন্দ্রঘোনা আদর্শ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়।
  • জ্ঞানদা রঞ্জন বিশ্বাস –– শিক্ষাবিদ।
  • ডক্টর অরুণ কুমার দেব –– শিক্ষাবিদ এবং অধ্যাপক, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।
  • নুর আলী শাহ –– সুফি সাধক।
  • সৈয়দুল হক –– রাঙ্গুনিয়া থানা উন্নয়ন কমিটির প্রাক্তন চেয়ারম্যান।
  • মাস্টার সালাউদ্দিন আহমেদ - মুক্তিযোদ্ধা

জনপ্রতিনিধিসম্পাদনা

  • বর্তমান চেয়ারম্যান: মুহাম্মদ ইদ্রিচ আজগর
পূর্ববর্তী চেয়ারম্যানগণের তালিকা
ক্রম নং চেয়ারম্যানের নাম সময়কাল
০১ সৈয়দুল হক ১৯৭৩-১৯৮৪
০২ আহমদুল হক ১৯৮৪-১৯৮৮
০৩ আবদুল মোনাফ সিকদার ১৯৮৯-১৯৯৮
০৪ আহমদুল হক ১৯৯৮-২০০২
০৫ মুহাম্মদ ইদ্রিচ আজগর ২০০৩-বর্তমান ( ২০০৯ সালে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি)

[১১]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "রাঙ্গুনিয়া উপজেলা - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org 
  2. "এক নজরে চন্দ্রঘোনা - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 
  3. "চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নের ইতিহাস - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 
  4. "গ্রাম ভিত্তিক লোকসংখ্যা - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 
  5. "মাদ্রাসা - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 
  6. "মাধ্যমিকবিদ্যালয় - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 
  7. http://180.211.137.51:321/DashboardunionN.aspx?div=4&dis=411&thana=41112&union=11[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  8. "খাল ও নদী - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 
  9. "হাট বাজারের তালিকা - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 
  10. "দর্শনীয়স্থান - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 
  11. "পুর্বতন চেয়ারম্যান বৃন্দ - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন - চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন"chandraghonaup.chittagong.gov.bd 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা